ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আপনি কি ব্লগিং করে অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে কোটিপতি হতে চান? কিন্তু আপনি ব্লগিং জগতে একেবারে নবীন? তাহলে আপনার জন্যই আমার লেখা খাঁটি বাংলা ভাষার অ্যাডসেন্স গাইডলাইন। পড়ুন, মজা পাবেন, শিখতে পারবেন!

অ্যাডসেন্স

প্রথমেই অপ্রাসঙ্গিক ভূমিকা টেনে নেই। কিছুটা ব্যক্তিগত। অনেকদিন পর ফিরে এলাম। নিয়মিত পাঠকদের বুঝতে অসুবিধা হচ্ছেনা। কারণ আপনারা জানেন আগামী ১ এপ্রিল থেকে আমার এইচএসসি পরীক্ষা। অথচ তবুও আপনাদের কাছে ফিরে না এসে থাকতে পারলাম না। আসলাম দোয়া নিতে। পরীক্ষার মধ্যেও যথাসাধ্য থাকার চেস্টা করব।

ADs by Techtunes ADs

ব্লগিং থেকে আয়! এই টপিকটাকে নিয়ে আমি দু, চারটি লেখা লিখেছি। তন্মোধ্যে নবীনদেরকে ব্লগিং থেকে আয় -কথাটা বুঝাতে এক রূপক গল্পই লিখে ফেলেছিলাম। যারা পড়েছিলেন আশা করছি তাঁরা পানির মতো ক্লিয়ার বুঝে গেছেন ব্লগিং করে আয় টা কি এবং উত্তরও পেয়েছিলেন কিভাবেই বা ব্লগ থেকে আয় করা যায়। আর যারা পড়েন নি তাদের অনুরোধ করব পড়ে নিতে। ঐ লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে। যাক শিরোনামে একবার বলেছি, আবারো বলছি, আজকের লেখাটি একদম নতুনদের জন্য। যেসব নবীন ব্লগাররা তাদের ব্লগ থেকে আয়ের কিছুটা কথা ভাবছেন। আমি কখনও আয়ের গ্যারান্টি দিয়ে পোস্ট করিনা। আমি শুধু বুঝার গ্যারান্টিটা দেই। আমি আপনাকে আয় করিয়ে দিব না, কিন্তু আয়টা কি এবং কিভাবে করবেন সেটার অন্তত সঠিক রাস্তাটা নিয়ে প্যাচাল শুনাবো। হয়ত সেটা বুঝলে নিজেই রাস্তা খুঁজে পাবেন।

অ্যাডসেন্স

অনেক ভাই কেবল এক খানা ব্লগ খুলেছেন আর তাতেই কোটি কোটি ডলার আয়ের সপ্নে বিভোর হওয়ার আশায় এই লেখা পড়তে এসেছেন। জি না ভাই। আমার কাছে সেই রাস্তা নাই। ১ বছর ধরে বাংলা ব্লগিং করার জন্য অ্যাডসেন্সের খুব বেশী একটা স্বাদ পাইনাই। আর তাই আমাকে কোন অ্যাডসেন্স মাস্টার ভাববেন না। কিন্তু আপনি হয়ে থাকেন যদি নতুন এবং বুঝতে চান "অ্যাডসেন্স" জিনিসটা কি। তবে সেই বুঝানোর ক্ষমতাটুকু আছে। নতুনরা তো অ্যাডসেন্সের নাম শুনতে শুনতে টাশকি খাওয়ার মতো অবস্থায় পড়ছে। এইটা আবার কি? এইটা নাকি সোনার হরিন? এইটা নাকি যাদুর বাক্স? এইটা দিয়া নাকি কোটি কোটি টাকা আয় সম্ভব? হ্যাঁ, এরকম প্রশ্নই দেখা মেলে নতুনদের মাঝে, এমনকি যারা মাত্র ১০-১৫ দিন হলো কেবল একটি ব্লগ খুলেছেন। এটা বাস্তব কথা। ভাবলাম তাদের জন্যই সহজ সরল কথার একটি গাইডলাইন লিখি। যাতে করে অন্তত তাঁরা অ্যাডসেন্স জিনিস টা কি সেটা বুঝতে শেখে। আর সারাদিনে কোটিপতি হওয়ার স্বপ্নটাকে যেন পানির মতো সোজা কাজ না ভাবে সেটাও বুঝানোর উদ্দেশ্যেই আজকের লেখা।

অ্যাডসেন্স কি? খায় নাকি মাথায় দেয়?

অ্যাডসেন্স কি?
না অ্যাডসেন্স প্রাণের কোন জুসও নয় আবার ডাবর আমলার তেলও নয় যে মাথায় দিবেন। কথা পরিষ্কার? না এখনও পরিষ্কার নয়। ৫০% ক্লিয়ার মনে হয়। আসলে বলতে চাচ্ছি অ্যাডসেন্স খায়ও না মাথায়ও দেয় না। তাহলে কি করে? বলছি। জানার শেখার ইচ্ছা থাকলে শুধু আমার সাথে চলুন। গুগল মামাকে চিনেন না কে কে আছেন হাত তুলুন? যারা হাত তুলেছেন তারা সাথে চলুন আর যারা চিনেন না তাঁরা আগে গুগল মামা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে আসুন। আবার অনেক নয়া জানলে ওয়ালার জ্ঞাতার্থে জানায় রাখি, গুগল মামা শুধু সার্চ ইঞ্জিন নয়। সে অনলাইন জগতের সেরা প্রতিষ্ঠিত ব্র্যান্ড। গুগলের রয়েছে সার্চ সুবিধা ছাড়াও অনেক অনেক প্রোডাক্ট বা সার্ভিস। অ্যাডসেন্স হলো গুগলেরই একটা অংশ। আর তাই আগেই বলছি অ্যাডসেন্সকে সম্মান করে চলবেন। এবার মূল কথায় আসি। আপাত দৃষ্টিতে বলি, অ্যাডসেন্স হলো গুগলেরই একটা সার্ভিস যা মূলত বিজ্ঞাপন এজেন্সির কাজ করে। রহিমের কাছে বিজ্ঞাপন নেয় আর করিমের ব্লগে গিয়ে সেটা দেখায়। এটাই হলো এর মেইন কাজ। আর আয়ের কথায় আসি। অ্যাডসেন্স রহিমের কাছে যত টাকা নেয় বিজ্ঞাপনের জন্য তার নির্দিষ্ট একটা অংশ করিমকে দেয় বিজ্ঞাপনটা জনগণের কাছে দেখানোর জন্য। আর বাকি টাকা অ্যাডসেন্স নিজের সংসারের জন্য নেয়। এবার আসি কর্পোরেট ভাষায়, অ্যাডসেন্স হলো গুগলের মালিকানাধীন CPC (Cost Per Click) ভিত্তিক একটি বিজ্ঞাপনী সেবা। যার কাজ বিজ্ঞাপন দাতাদের কাছে বিজ্ঞাপন সংগ্রহ করা এবং বিভিন্ন চুক্তিবদ্ধ ব্লগে সেগুলো দেখিয়ে আয় করা। আয়ের কিছু অংশ নেয় ব্লগের মালিকেরা আর বাকি অংশ নেই অ্যাডসেন্স নিজেই। আর সহজ বাংলায় এই হলো অ্যাডসেন্স। যা খায়ও না মাথায়ও দেয় না। যা অনলাইন বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত সার্ভিস প্রদান করে।

আমি কি পারবো অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে?

আমার দ্বারা কি অ্যাডসেন্স আয় সম্ভব?
আমার একটা ব্লগ আছে। আমি কি পারব অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে? তার আগে একটা খাটি বাংলা উদাহরণ দেই। আপনারা অবগত যে, দেশের এখন যে পরিস্থিতি তাতে চাকুরী পেতে আমরা বলি মামা চাচা লাগে। কথাটা কেমন যেন হলো না? মামা চাচা তো ভাই দু, একজন অভাগা ছাড়া প্রায় সবারই আছে। কিন্তু চাকুরী পেতে যে মামা চাচা বলা হয়েছে সেটাকে কিন্তু বিশেষ জাতীয় মামা চাচাকে বলা হয়েছে। এখানে বড় বড় মন্ত্রী, সচিব মামা চাচাদেরকে বুঝানো হয়েছে। তাহলে বুঝেই নেন শুধু মামা চাচা থাকলেই চাকুরী হয়না। লাগে নামি দামী মামা চাচা। প্রথমের দিকে আপনি প্রশ্ন করেছিলেন, আমার একটা ব্লগ আছে। আমি কি পারবো অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে? উত্তর দিয়েই দিছি উপরের মামা চাচার উদাহরনে। হ্যাঁ, আপনার কোটি কোটি ব্লগ থাকতে পারে। তো কি হয়েছে? কোয়ালিটি সম্পূর্ণ ব্লগ না হলে ঐ কয়েক কোটি ব্লগ অ্যাডসেন্সের ধারে কাছেও যাবার সুযোগ পাবেনা আয়ের জন্য। অর্থাৎ মামা চাচা লাগে যেমন নামী দামী। ঠিক তেমনি অ্যাডসেন্সের জন্য লাগে ওর চাহিদা সম্পূর্ণ আন্তর্জাতিক মানের ব্লগ। কারণ বলা যায় অ্যাডসেন্স হলো অনলাইন দুনিয়ার সেরা অ্যাড এজেন্সি। যা অ্যাডভারটাইজার অর্থাৎ বিজ্ঞাপন দাতা এবং পাবলিশার অর্থাৎ প্রকাশক উভয় পক্ষের স্বার্থই সমানভাবে দেখে। বিজ্ঞাপনদাতা যাতে তাঁর দেয়া বিজ্ঞাপনের সেরা ফলটাই যাতে পান এবং প্রকাশক সেই বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে যাতে ফাইভ স্টার হোটেলে খাওয়ার মতো টাকাও যেন পান। আর এই গুন বলেই অ্যাডসেন্স সেরা। আপনি যদি একজন যোগ্য পাবলিশার হয়ে থাকেন অর্থাৎ আপনার আন্তর্জাতিক মানের মানসম্মত ব্লগ থেকে থাকে তবে আপনিও পারবেন অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে। আর আয়টা নগন্য নয়। সেটা বড় লোক হবার জন্য যথেস্ট। বুঝা গেছে জিনিসটা? আর নবীনরা প্রথমেই ওয়াপকায় একটা গান ডাউনলোডের সাইটে বানিয়েই জিজ্ঞাস করে, আমি কি পারব অ্যাডসেন্সে আয় করতে? এতো প্যাচাল পারলাম আর তাই আপনার এরকম প্রশ্নের উত্তর দিতে বাধ্য করবেন না। নিজেই বুঝতে পারবেন আপনি অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে পারবেন কিনা?

 আমার ভালো মানের ব্লগ আছে। আমি কি তাহলে পারব অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে?

অ্যাডসেন্স সফলতা
আপনার ভালো মানের ব্লগ আছে কিনা সেটা আমাকে জানিয়ে কোনই লাভ নাই। আপনার ব্লগ অ্যাডসেন্সের যোগ্য কিনা এটা শুধু অ্যাডসেন্স অথরিটিরই জানার কথা। আর আপাততভাবে অ্যাডসেন্সের বিভিন্ন নিয়ম নীতি পড়ে যদি আপনি মনে করেন, আপনার ব্লগ অ্যাডসেন্সে আবেদন করার যোগ্য তবে নির্দ্বিধায় অ্যাডসেন্সে আবেদন করুন। অ্যাডসেন্স আপনার সাইট দেখে জানিয়ে দিবে আপনি তাদের পাবলিশার হবার যোগ্য কিনা।

পরিশেষে...

জানি আরও অনেক অনেক জিজ্ঞাসা রয়েছে জ্ঞানপিপাসু নবীনদের মাঝে। কিন্তু কি করব ভাই, আর তিনদিন পর আমার এইচএসসি পরীক্ষা। লেখার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও পারছিনা। অনেক নতুন ভাইরা এই অ্যাডসেন্সের বেসিক এই প্রশ্নগুলো করেছেন আর তাদের জন্যই আজকের এই লেখা। ভালো থাকবেনা। তবুও কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই আমাকে জানাবেন। আর আমার পরীক্ষার জন্য সবাই দোয়া করবেন। ধন্যবাদ

ADs by Techtunes ADs
Level 1

আমি ব্লগার মারুফ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 197 টি টিউন ও 1303 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি মারুফ। প্রযুক্তিকে ভালোবাসি। তাই গড়তে চাই প্রযুক্তির বাংলাদেশ। পড়াশুনা করছি রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাকাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগে। আমার ওয়েবসাইটঃ https://virtualvubon.com এবং https://www.rupayon.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

মারুফ, বিকেলের শেষ আলোয় না হারিয়ে একটু পিসি টেনে পড়লাম তোমার লেখাটা। এদিক-অদিক এলেমেলো চিন্তা থেমে গেলো। তবে এডসেন্স নিয়ে আরও দারুন দারুন টিপস পাবে সবাই এই আশা রাখি। কিভাবে বাংলা ব্লগে এডসেন্স বসানো যায়, কতো কি ইনকাম… ইত্যাদি, ইত্যাদি।
** ধইন্যা পাতার শুভেচ্ছা রইলো। 🙂

    @আই,টি সরদার: ধইন্য হইলাম আপনার কমেন্টে @আইটি সরদার ভাই। আমি অ্যাডসেন্স স্পেশালিস্ট নই। কিছুদিন ব্যবহারের অভিজ্ঞতার আলোকেই লিখলাম। আসলে যারা সারাদিন অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে কোটিপতি হওয়ার আশা করে তাদের অবাস্তব স্বপ্ন ভংগ করার জন্যই আমার এই লেখা। 😛

ধন্যবাদ, আপনার পোস্টের জন্য।
আমি প্রায় কয়েক মাস ধরে একটা বিষয় জানতে চাচ্ছি, আর সেটা হলো How to Detect AdSense Invalid Click and Protect AdSense Account. আমি জানি; WordPress Plateform-এর জন্য Bomb Click নামক একটা Plugin আছে, যা দ্বারা Invalid Click ‍Spamer-দের থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। যেহেতু Bomb Click Plugin-টি Blogger Plateform ব্যবহার করা যাচ্ছে না; এমতাবস্থায় Blogger কিভাবে তাদের AdSense Account-গুলো Invalid Click ‍Spamer-দের থেকে রক্ষা করে। এই বিষয়টা আমি বেশ কয়েক মাস ধরে Google & YouTube-এ খোজাঁ-খোঁজি করছি; কিন্তু আশানুরুপ কোন ফল পাচ্ছি না।

    @Al-Imran Akanda: আমার খুব বেশী অ্যাডসেন্স অভিজ্ঞতা নেই। তবুও যা জানি সেটা বলছি। ওয়ার্ডপ্রেস বড় প্লাটফর্ম। সেখানে সুবিধাও অনেক বেশী। প্লাগিনগুলোর মাধ্যমে অনেক সুবিধা পাওয়া যায়। কিন্তু ব্লগস্পট ছোট প্লাটফর্ম। তার উপর আবার পিএইচপি নাই। তাই প্লাগিনের মতো কিছু পাবেন না এখানে যেটার মাধ্যমে খুব সহজে অ্যাডসেন্স ইনভ্যালিড ক্লিক ধরবেন। এর জন্য আপনাকে ম্যানুয়ালি কাজ করতে হবে। অ্যাডসেন্স লগিন করে রেগুলার ক্লিক অ্যাক্টিভিটি চেক করতে হবে এবং কোন অসঙ্গতি পেলে সেটাই জানাতে হবে গুগল কে। জানালেই আপনার দায় কমে গেল। বাকি ব্যাপার দেখবে গুগল। গুগলে ইনভ্যালিড ক্লিক রিপোর্ট করার ফর্ম লিংক

      @ব্লগার মারুফ: আমি যদি Blogger Plateform থেকে AdSense পাই। এবং AdSense পাওয়ার পর যদি Blogger থেকে আমার সাইট WordPress-এ Transfer করি; এতে কি আমার সাইটে Ads Show করবে? নাকি WordPress-এ Transfer করার পর; আবার নতুন করে AdSense-এর জন্য Apply করতে হবে?

পড়লাম, ভালো লাগল লেখাটা।

একদম সরাসরি প্রিয়তে! খুব ভাল লাগলো শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। এবং আপনার পরীক্ষা যেন আশানুরুপ হয় সেটাই কামনা করি। পরিশেষে ভাল থাকবেন।

ভাল লাগছে 🙂 tnx

ব্লগিং করার মত সময় হয়না…..সত্যি বলতে হয়না তা নয় অনেকদিন ধরে না লিখতে গিয়ে হাতে জং ধরে গেছে তবে আপনার লেখাটা বেশ ভাল লাগল, এক্সামের রেজাল্ট জানাতে ভূলবেন না

দারুন হয়েছে

@ব্লগার মারুফ : ডোমিন কেনার কত দিন পর AdSense এ আবেদন করা যায় ? জানালে খুশি হব… 😀

খুব ভালো লাগল post টা পড়ে। আমার ও 1টা blog আছে । adsence এর বিষয়ে কেউ একটু help করলে কৃতজ্ঞ থাকব। fb id: md omar faruk dipu

I all ready add it on my blog