ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

Hacker Hour -07 হ্যাকারের নির্মম প্রতিশোধ

একজন প্রকৃত হ্যাকার কিন্তু কখনোই মুখে নিজেকে হ্যাকার দাবী করেনা বরং মুখোশের আড়ালেই অ্যানোনিমাস হয়েই হাসতে জানে, টেকনোলজিতে দক্ষ হওয়া এক কথা আর হ্যাকিং আরেক কথা!
বস্তুত একজন হ্যাকার মাপকাঠি তার স্কিল নয় বরং তার মেরিট; কেননা হ্যাকিং কোন ধরা বাঁধা বিদ্যা নয়। হ্যাকিং শিখতে এমন নয় যে দামী কম্পিউটার থাকতে হবে আবার নয়তো কঠিন কালি লিনাক্স জানতে হবে; হ্যাকিং বিদ্যা পুরোটাই আপনার ইচ্ছাশক্তি, ধৈর্য্য আর মন-মানসিকতার ওপর(অবশ্য স্বীকার্য যে একজন হ্যাকারের পথচলা শুরু হয় প্রোগামিং এর পায়ে পায়ে)।

ADs by Techtunes ADs

একজন হ্যাকার এর সবচেয়ে বড় গুণ হলো তিনি রাগতে জানেন না; আমি আবারো বলছি "একজন হ্যাকার কখনোই মাথা গরম করে রেগে যান না বরং ঠান্ডা মাথায় শত্রুকে ঠাসিয়ে থাপ্পড় মারেন"!
আচ্ছা খুউব সহজ একটা উদাহরন দিয়েই হ্যাকিং শেখাই কেমন(এইটা কিন্তু স্রেফ একটা উদাহরন তাই সিরিয়াস হওয়ার কিচ্ছু নাই).

আজকের টেকটিউনস আর টেকহাবসের মাঝে আমরা একটা নীরব যুদ্ধ চলছে(যদিও স্বয়ং টেকটিউনসসি কিংবা টেকহাবস এতে নিশ্চল তবুও সৌজন্যতা আর বাধ্যবাধকতার মাঝের বন্ধনটুকুই যদি বাধ সাধে তবে একটা মৌন্য মালিন্য তো হতেই পারে) এবং তাতে তিক্ত হয়ে কিছু কিছু টেকটিউনসসি ভক্ত অবশ্যই চটেছেন বটে!
তো একজন হ্যাকার হলে আপনি কি করতেন?
নিশ্চয়ই আপনি আবোল তাবোল গালাগাল করতেন না বরং মুখোশোর আড়ালেই শেষ হাসিটা হাসতেন!

আপনি কি টেকহাবস হ্যাকিং এর কথা ভাবছেন? আরে টেকহাবস ডোমেইন আর হোস্টিং এর জন্য যদি ১০০০ টাকা খরচ করে (কথার কথা) তবে ১ রাত না ঘুমিয়ে হ্যাকিং করলেই কি আপনি জিতে যাবেন?! আজকের দিনে ১০০০ টাকা কোন ব্যাপার না, ওরা আবার নতুন করে ডোমেইন আর হোস্টিং কিনে নতুন নামে শুরু করবে টেকহাবস, তাতে সন্দেহ নাই!
তাহলে উপায়?
একজন হ্যাকারের মেরিট এখানেই মুচকি হাসে:-)
আপনারা হয়তো ডস/ডিডস এট্যাকের কথা শুনবেন যেখানে একটি ওয়েবসাইটে অতি অল্প সময়ে এতোবেশী ডাটা প্যাকেট-প্যাজেক পাঠানো হয় যেখানে ওয়েবসাইট সেই ডাটার সাথে পাল্লা দিয়ে সামঞ্জস্য রাখতে না পেরে অক্কা দেয়(এটি সাময়িক হতে পারে আবার পুরোই পটল তুলতে পারে তা ওয়েবসাইটের কন্ডিশনের ওপর নির্ভর করে) মোদ্দাকথা ওয়েবসাইটটি পুরো ডাউন হয়ে যায়।
এখন ঐ সার্ভার ডাউন রিকোভারী করতে গেলে অন্তত ৩/৪ ঘন্টা সময় তো লাগবেই আর ঐ সময়েই ওয়েবসাইটের ভিজিটর কমে তার Rank হারাবো আর পাবলিকের মনে ঐ ওয়েবসাইটের আস্থা হারাবে(দুই দিনের বৈরাগী হলে কাউকেই কেউ কোলে তুলে আদর করে না)। ডস/ডিডস এট্যাক করতে কি লাগে জানেন? স্রেফ ঐ ওয়েবসাইটের IP এড্রেস জানলেই তাতে চালানো যায় এই ভয়ানক হামলা তাতে আপনার পুরানো উইন্ডোজ পিসি কিংবা হাতের এনড্রোয়েড হলেও হ্যাকিং চালাতে বাধা নেই(পিসির জন্য.exe ফরম্যাটে LOIC সফটওয়ার আর এনড্রোয়েড জন্য Loic.apk কিংবা ডাটা প্যাকেট জেনারেটর হলেই হয় তাতে পর্যাপ্ত ইন্টারনেট থাকলেই কাফি খুলুস)!

আবার একটা ওয়েবসাইটের মূল ইনকাম হলো এডভারটাইজমেন্ট এক্ষেত্রে গুগল এডসেন্স হতে মারহাবা; তবে ঐ ফেইক ক্লিক করে তাহার গুহল এডসেন্স বাতিল করিয়ে দিলে কেমন হয়?
আর সোস্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর মতোন শয়তানী করে ঐ ওয়েবসাইটে স্পামিং কিংবা ভিন্ন সাইটে ঐ ওয়েবসাইট পচানোর পর তাহার কতোই না করুন পরিণতি হয়?!

থাক, আর কথা কইলাম না; আজকের হ্যাকিং ক্লাস এতোটুকুই তবে টিউটোরিয়াল থেকে শয়তানী শেখা নয় বরং মেধার সুনিপুণতা শিক্ষা নিবেন এটাই শুভকামনা রইলো।

হ্যাকিং টিউটোরিয়াল পাবেন→ Hacker

ADs by Techtunes ADs
Level 1

আমি মিনহার মহসিন রোটেটিং রটোর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 33 টি টিউন ও 16 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 16 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস