নতুন বছরে ভ্রমণকালে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স আপনার ফেস স্ক্যান করবে এবং ফেসপ্রিন্ট তৈরি করবে

Level 28
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। বরাবরের মতই আজকে হাজির হলাম নতুন কিছু নিয়ে।

কল্পনা করুন যে, কোন ফ্লাইটে উঠতে আপনাকে আর আপনার বোর্ডিং পাসটি স্ক্যান করতে হয় না। পরিবর্তে, কেবল আপনার মুখ স্ক্যান করলেই হয়। আসলে, আপনাকে এটি কল্পনা করতে হবে না, বর্তমানে অনেক আমেরিকান বিমানবন্দরে এটাই এখন বাস্তবতা।

এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শুল্ক এবং সীমান্ত সুরক্ষা (CBP) এর বায়োমেট্রিক টেকনোলজির একটি অংশ, যাতে আপনাকে আইডেন্টিফাই করতে শারীরবৃত্তীয় বিশদ বর্ণনা ব্যবহার করে। আপনি আইডেন্টেকটিউনসর জন্য নিজের ফিঙার প্রিন্ট অথবা ফেস ম্যাপ দিতে পারেন। বলা যায় না ইতিমধ্যে আপনার চেহারা, ফেসিয়াল রিকুইজিশন ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্ত হয়ে যেতে পারে।

তবে সুখবর হচ্ছে এখন আপনি ফেস স্ক্যান থেকে নিজেকে বাচাতে পারেন। তবে এটি খুব তাড়াতাড়ি পরিবর্তিত হচ্ছে। CBP সম্প্রতি একটি ফাইলিং এ জানিয়েছে তারা চাচ্ছে ফেস রিকুইজিশন করে স্ক্যানের প্রক্রিয়াটি আরও বাড়ানো হোক এবং পুরোপুরি ভাবে কার্যকর করা হোক।

ফেস স্ক্যান কেন করা হবে?

সহজ কথায়, কর্মকর্তারা সুরক্ষা ব্যবস্থা জোরদার করতে চান। এই মুহূর্তে, কেবলমাত্র কয়েকটি মুখ্য ভ্রমণ বন্দর Biometric Exit Program ব্যবহার করা হচ্ছে। এর কারণ, কর্মকর্তারা প্রোগ্রামটি সম্প্রসারণের আগে এটি কতটা ভাল কাজ করেছে তা দেখতে চেয়েছিলেন। দেখা যাচ্ছে যে ফলাফলের সাথে CBP সন্তুষ্ট। এজন্য তারা ফেডারেল রেজিস্টারের কাছে এই প্রজেক্ট সম্প্রসারণের অনুমতি চেয়েছিল। তারা সকল Air এবং স্থলবন্দরগুলিতে Biometric Exit Program ব্যবহার করতে চায়।

এটি অনুমোদিত হয়ে গেলে, CBP দেশে প্রবেশ করা যে কোন অ-নাগরিকের মুখের ইমেজ সংগ্রহ করতে পারে। এখানে কিছু বিষয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে, CBP "ফেসপ্রিন্ট" তৈরি করতে চায়। এগুলি সাধারণ ডিজিটাল স্ক্যানগুলির চেয়ে কার্যকর হবে বলে মনে হচ্ছে: তারা আপনার স্বতন্ত্র মুখের কাঠামো সনাক্ত করবে। প্রতিটি প্লেন ফেসপ্রিন্টের মাধ্যমে আপনার গাল থেকে আপনার চিবুক পর্যন্ত নোট করে রাখবে।

একবার এই ফেসপ্রিন্ট নেওয়া হয়ে গেলে, CBP এটি দীর্ঘ সময়ের জন্য নিজেদের কাছে রাখবে। আপনি যদি নাগরিক বা স্থায়ী বাসিন্দা হন তবে এজেন্সিটি ১৫ বছরের জন্য আপনার ফেসপ্রিন্ট রাখবে। আর অনিবন্ধিত নাগরিকদের জন্য ক্ষেত্রে এটি ৭৫ বছর পর্যন্তও দীর্ঘ হতে পারে। CBP আরও Biometric Exit Program এর উপর পূর্ণ ফোকাস করতে চায় এবং বিকল্প আইডেন্টিক্যাল মেথড গুলো বাদ দিতে চায় সেটা হতে পারে ফিঙ্গারপ্রিন্ট মত মেথড গুলো। সব মিলিয়ে বলা যায় আপনি দেশের বাইরে যান বা ফিরে আসেন আপনাকে স্ক্যান করে প্রবেশ করতে হবে।

২০২১ সালের ভ্রমণের বুকিং আকাশ ছোঁয়া

COVID-19 এর কারণে এই বছর ভ্রমণ শিল্প চরম ভাবে বাধাগ্রস্ত হয়েছিল তবে Washington Post জানিয়েছে নতুন ভ্যাকসিনগুলোর জন্য, ট্র্যাভেল কোম্পানি গুলোর বুকিং আগের চেয়ে বাড়ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ট্র্যাভেল অ্যাসোসিয়েশন বলছে আমেরিকানরা ২০১৯ সালে ২.৩ বিলিয়ন ইন-পারসন ভ্রমণ করেছে। যার ভ্রমণ সংক্রান্ত আউটপুট ছিল ২.৬ ট্রিলিয়ন ডলার। আর বেশিরভাগ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠান গুলো পুনরায় চালু হবার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলেই CBP তাদের ফাইলিং নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে, যদি তাদের চুক্তি অনুমোদিত হয় তাহলে বলা যায় আপনি জলে স্থলে বা বাতাসে যেখানেই ভ্রমণ করবেন আপনার ফেস ডিটেক্ট করা হবে আইডেন্টিটি মেথড হিসেবে।

তবে ঘটনা এখানেই শেষ নয়, ইতিমধ্যে ACLU, CBP এর এমন প্রস্তাবের অবজেকশন ফাইল দায়ের করেছে। তারা জানিয়েছে, "মুখের নজরদারি… গোপনীয়তা এবং নাগরিক স্বাধীনতার জন্য মারাত্মক ঝুঁকি সৃষ্টি করবে, CBP এর ফেসপ্রিন্ট সংগ্রহ অন্যান্য সরকারী সংস্থা এবং বিদেশী সরকারের নিয়মতান্ত্রিক নজরদারি সহজ করে দিতে পারে"।

তবে যে যাই বলুক আসল বিষয়টি হল ফেস রিকুইজিশন প্রযুক্তি আগেও ছিল এবং রয়েছে। বলতে গেলে দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে, পুলিশ বাহিনী ফেসিয়াল রিকুইজিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসছে যার প্রমাণ আমরা কিছু দিন পর পর পাচ্ছি। কিছু দিন আগেও কৃষ্ণাঙ্গ আন্দোলনে পুলিশ ফেসিয়াল রিকুইজিশন ব্যবহার করে আন্দোলন কারীদের গ্রেফতার করেছিল বলেও অভিযোগ পাওয়া যায়।

ফেস স্ক্যানে ভুল মানুষ গ্রেফতারের আশংকা আছে?

নাগরিক অধিকার গোষ্ঠীগুলি মনে করেছে এই প্রযুক্তি বিভিন্ন অপরাধে ভুল মানুষকে গ্রেফতার করতে পারে। তারা জানুয়ারির একটি মামলার দিকে ইঙ্গিত করে, যখন ডেট্রয়েট পুলিশ ৪২ বছর বয়সী রবার্ট নামের একজন নাগরিককে ভুল ফেসিয়াল রিকুইজিশন সফটওয়্যারের জন্য গ্রেফতার করেছিল। একটি ডাকাতিতে যুক্ত না থাকার পরেও সফটওয়্যার গত ভুলের জন্য এমনটি হয়েছিল।

শেষ কথাঃ

এখন অবধি ফেডারেল রেজিস্টার তার সিদ্ধান্ত জানায় নি বা এর প্রভাব কি হতে পারে এই বিষয়টি নিয়েও তারা এখনো মুখ খুলে নি। তবে এর প্রভাব কি হবে বা আসলেই কি এই ধরনের প্রস্তাব অনুমোদন হবে কিনা, এটাই এখন দেখার বিষয়। যাই হোক, পরবর্তী আপডেট জানতে টেকটিউনস টেকবুমের সাথে থাকুন।

তো আজকে এই পর্যন্তই, পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 28

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 461 টি টিউন ও 186 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 55 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস