ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

অনলাইন ফাইল শেয়ারিং ও স্টোরেজ

অনলাইন ফাইল শেয়ারিং সঙ্গত কারণেই বেশ জনপ্রিয়। আবার ফাইল শেয়ারিং সাইটগুলোতে শেয়ার না করে শুধু স্টোর করার সুবিধাও রয়েছে, যার জন্য এই সেবাটি এখন বিশ্বব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয়। আজ আমরা সেরকমই বিশ্বখ্যাত কিছু ফাইল শেয়ারিং ও স্টোরেজ সার্ভিস প্রোভাইডারের কথা জানব যারা বিনামূল্যে অনেক জায়গা দিয়ে থাকে।

ADs by Techtunes ADs

ফোর শেয়ারড

ফোর শেয়ারড ডট কম একটি অতি পরিচিত একটি ফাইল শেয়ারিং ওয়েবসাইট। এখানে যে কেউ রেজিষ্ট্রেশন করে বিনামূল্যে সর্বোচ্চ পাঁচ গিগাবাইটের স্পেস পেতে পারেন। এর জন্য আপনার প্রয়োজন শুধু একটি মাত্র ই-মেইল ঠিকানা যা আজকাল সবারই আছে। ফোর শেয়ারড ডট কমের বৈশিষ্ট্যসমূহ নিম্নরূপঃ

  • বিনামূল্যে পাঁচ গিগাবাইট অনলাইন স্পেস।
  • সব ধরনের ফাইল স্টোর করার সুবিধা।
  • সহজ ব্যবস্থাপনা। সুন্দর ইন্টারফেস। দ্রুতগতির লোডিং সুবিধা।

ফোর শেয়ারড ডট কমে কিছু অসুবিধাও আছে। যেগুলো নিম্নরূপঃ

  • আপনার সব ফাইলই শেয়ারড হয়ে যাবে। অর্থাৎ, এই সাইটে বা এই স্পেসে আপনার কোন ফাইলই গোপন থাকবে না। আপনি একটি ফাইল আপলোড করার সাথে সাথেই একটি পারমানেন্ট লিংক তৈরী হয়ে যাবে এবং সার্চ ইঞ্জিনেরও অন্তর্ভূক্ত হয়ে যাবে আপনার ফাইল। তাই এই সাইটে তথ্য বা ফাইল রাখার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন যে, আপনার ফাইল পাচার হয়ে গেলেও আপনার কোন সমস্যা নেই।
  • এক মাসের মধ্যে সাইন ইন না করলে আপনার সমস্ত ফাইল সহ আপনার সম্পূর্ণ একাউন্টটিই বাতিল হয়ে যাবে। আপনার একাউন্টে রাখা কোন ফাইলই আপনি আর ফেরৎ পাবেন না। তবে এক মাস পূর্ণ হবার কয়েকদিন আগে ফোর শেয়ারড ডট কম আপনাকে ই-মেইল করে জানিয়ে দিবে যে আপনার একাউন্ট কতদিনের মধ্যে ডিসেবল করা হবে।

ফোর শেয়ারড ডট কমে রেজিষ্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন।

টু শেয়ারড

নামে এক হলেও টু শেয়ারড সম্পূর্ণ ভিন্ন কোম্পানীর সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি সেবা। আপনি বিনামূল্যে টু শেয়ারড ব্যবহার করতে পারেন। কোন রেজিষ্ট্রেশনের প্রয়োজন নেই। টুশেয়ারড ডট কমে আপনি যখন তখন ফাইল আপলোড করতে পারেন। এই সাইটের হোমপেজেই ফাইল আপলোডের ব্যবস্থা আছে। কাঙ্খিত ফাইলটি ব্রাউজ করে আপলোড ইট বাটনটি প্রেস করলেই আপনার ফাইল টু শেয়ারড এর সার্ভারে আপলোড হওয়া শুরু হবে। আপলোড সম্পূর্ণ হবার পর আপনাকে দু'টি কোড দেয়া হবে। প্রথম কোডটি হচ্ছে আপনার আপলোডকৃত ফাইলটির ডাউনলোড লিঙ্ক। অর্থাৎ, ঐ লিংকে ক্লিক করলে ডাউনলোড পেজে ব্যবহারকারীকে নিয়ে যাওয়া হবে। আর দ্বিতীয় লিঙ্কটি একান্তভাবে আপনার জন্য। ঐ লিংকে গিয়ে আপনি আপনার ফাইলটি যেকোন সময় ডিলিট করতে পারেন। অথবা ফাইলটি ডাউনলোড করার জন্য একটি পাসওয়ার্ড নির্ধারিত করে দিতে পারেন যাতে আপনার অনুমতি ছাড়া কেউ আপনার ফাইল ডাউনলোড করতে না পারে। একই সাথে আপনার ফাইলের একটি ডিস্ক্রিপশন বা বর্ণনাও যোগ করতে পারেন ঐ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন লিঙ্ক ব্যবহার করে। এভাবে আপনি যত খুশি ফাইল আপলোড করতে পারেন টু শেয়ারড ডট কমের মাধ্যমে।
বক্স ডট নেট
বক্স ডট নেট একটি অসাধারণ ফাইল স্টোরিং ও শেয়ারিং সার্ভিস। বিনামূল্যে একটি একাউন্ট তৈরী করে আপনি এক গিগাবাইট পর্যন্ত স্পেস পেতে পারেন। এজন্য আপনার প্রয়োজন একটি ই-মেইল ঠিকানা। আর কিছু নয়। বক্স ডট নেট একটি জনপ্রিয় ফাইল শেয়ারিং সার্ভিস। এটি ব্যবহার করে আপনি ইচ্ছা করলে ফাইল শেয়ারও করতে পারেন।

বক্স ডট নেটের সবচাইতে আকর্ষণীয় সেবা হলো অডিও। যারা ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগিং করেন, তারা নিশ্চয়ই জানেন যে, ওয়ার্ডপ্রেস প্রতি ব্লগে তিন গিগাবাইট পর্যন্ত জায়গা দিলেও সেই জায়গায় কোন অডিও ফাইল আপলোড করা যায় না। তাই ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও অনেকেই নিজেদের টিউনে অডিও যোগ করতে পারেন না। কিন্তু আপনি যদি আপনার বক্স ডট নেট একাউন্টে কাঙ্খিত গানটি আপলোড করেন, তাহলে আপনি একটি লিঙ্ক পাবেন যেটি ব্যবহার করে সহজেই ওয়ার্ডপ্রেসে গান শোনানোর ব্যবস্থা করতে পারবেন।

[আপনার ওয়ার্ডপ্রেস টিউনে গান যুক্ত করতে কোডিং মোডে একটি [দিয়ে লিখুন Audio এবং একটি স্পেস দিয়ে লিঙ্কটি দিন। তারপর] দিয়ে বন্ধ করুন। টিউন প্রকাশ করলে যেস্থানে আপনি কোডটি দিয়েছিলেন ঠিক সেইস্থানেই একটি ছোট্ট মিউজিক প্লেয়ার দেখা যাবে যেটির মাধ্যমে আপনার সাইট ভিজিটর গানটি শুনতে পারবেন। ]
এ ড্রাইভ
অনেক সময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমরা একটি কথা ব্যবহার করে থাকি। সেটি হচ্ছে, Last but not least। এই কথাটি প্রমাণের জন্যই আজকের প্রধান আকর্ষণ এ ড্রাইভকে সর্বশেষে উপস্থাপন করছি। বেশকিছুদিন আগে এ ড্রাইভ নামক অপূর্ব এই ফাইল শেয়ারিং সাইটটি আত্মপ্রকাশ করেছিল। আজ তা দ্রুতগতিতে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। এটি দ্রুত জনপ্রিয়তা পাচ্ছে এর গতির জন্য, এর সুন্দর ইন্টারফেসের জন্য, এবং এর শেয়ারিং বা স্টোরিং স্পেসের জন্য। পঞ্চাশ গিগাবাইট!

হ্যাঁ, হঠাৎ করেই বিখ্যাত সব কোম্পানীগুলো তাদের স্পেস বাড়ানো শুরু করে দিয়েছিল। জিমেইল প্রদান করল ছয় গিগাবাইটের উপরে। হটমেইল কোত্থেকে যেন পাঁচ গিগাবাইট পার একাউন্ট নিয়ে এল। একই ভাবে ফাইল স্টোরিং জগতেও বক্স ডট নেট কে ছাড়িয়ে গেল ফোর শেয়ারড ডট কম শুধুমাত্র চার গিগাবাইট বেশি জায়গা দেবার কারণে। কিন্তু পঞ্চাশ গিগাবাইটের মাঠে চার গিগাবাইটকে কি চোখে দেখা যাবে?

এ ড্রাইভ ডট কমের অভিষেক ঘটে বিবিসি'র কল্যাণে। ক্লিক নামক বিবিসি'র একটি অনুষ্ঠানের ওয়েবস্কেপ বিভাগের উপস্থাপিকা কেট রাসেলস এ ড্রাইভের বর্ণনা দিয়ে বিশ্বব্যাপী এ ড্রাইভের ব্যাপক জনপ্রিয়তা এনে দেন। এ ড্রাইভে আপনি বিনামূল্যে শুধু একটি একাউন্টের বিনিময়ে পেতে পারেন সর্বোচ্চ পঞ্চাশ গিগাবাইট জায়গা। আপনি এর সহজ ব্যবস্থাপনায় অবশ্যই মুগ্ধ হবেন। আপনি এ ড্রাইভে পুরো একটি ফোল্ডারই আপলোড করতে পারবেন। ফাইল ট্রান্সফার করতে পারবেন। কম্পিউটারের ফাইল ব্যাকআপ রাখতে পারবেন। এছাড়াও শক্তিশালী সার্চ ইঞ্জিনের সাহায্যে নিমিষেই খুঁজে পেতে পারবেন আপনার আপলোডকৃত অসংখ্য ফাইলের মধ্যে কাঙ্খিত ফাইলটি। তো আর দেরী কেন? এখনই রেজিষ্ট্রেশন করে আপনার ফাইল শেয়ার বা স্টোর করা শুরু করুন।
(দ্রষ্টব্যঃ এ ড্রাইভ ফাইল নিজে থেকে শেয়ার করেনা। আপনি যতক্ষণ এ ড্রাইভকে আপনার ফাইল শেয়ার করার অনুমতি না দিবেন, ততক্ষণ পর্যন্ত আপনার ফাইল নিরাপদ। এছাড়াও আপনি আপনার রক্ষিত একাধিক ফাইলের মধ্য থেকে নির্দিষ্টভাবে যেকোন একটি বা একাধিক ফাইল শেয়ার করতে পারবেন। )

এ ড্রাইভে রেজিষ্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন। লক্ষ করুন, আপনার পাসওয়ার্ড এ ড্রাইভ গ্রহণ না-ও করতে পারে। তাই আপনার পাসওয়ার্ডে অবশ্যই একটি বড় হাতের অক্ষর, একটি ছোট হাতের অক্ষর ও একটি সংখ্য (০ থেকে ৯) ব্যবহার করুন এবং ভবিষ্যতে লগইন করার জন্য মনে রাখুন।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি মো. আমিনুল ইসলাম সজীব। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 85 টি টিউন ও 202 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

দারুন একটা টিউন তো ! আপনাকে টেকটিউনসে স্বাগতম।

http://mehdiakram.wordpress.com/2006/10/02/online-storag/
এখানে আরো কয়েকটি আছে।

আমি Adrive এর ভক্ত হয়ে গেছি। গ্রেইট টিউন।

ধন্যবাদ। তবে এ ড্রাইভ মাঝেমধ্যেই ইন্টারনেট সমুদ্রে বিলীন হয়ে যায়!

অর্থাৎ, রুটিন আপডেটের নামে মাঝেমধ্যেই দু’তিন ঘন্টার জন্য এ ড্রাইভের সাইটে লগ-ইন করা সম্ভব হয় না।

ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

Level 0

registration 60 days trial version keno vhai tar por ki account inactive hoye jabe ?