ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

অর্ণবের ইস্কুল [পর্ব-১৩] :: আউটসোর্সিং এর A টু Z [মেগাটিউন]

টিউন বিভাগ নির্বাচিত
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আপনি ১০ হাত মাটি খুঁড়ুন দেখানে সেখানে ১ টাকা পান কিনা নিশ্চয়ই পাবেন না; কিন্তু আপনি যদি দিনমজুর হয়ে সারাদিন ১০ ঝুড়িও মাটি খুঁড়েন তবে নিশ্চিত দিনশেষে ১০০ টাকা অন্তত মজুরী পাবেন- ইন্টারনেটে আউটসোর্সিং করার এটাই আসল কথা অর্থাৎ "আপনি কোথায় কতোটুকু পরিশ্রম করলে কতো টাকা ইনকাম করতে পারবেন এটাই আসল কথা"!
সাধারণত দৈনন্দিন জীবনে আমরা যেসব কাজ করে টাকা উপার্জন করি তার চেয়ে আউটসোর্সিং করা কোন অংশেই সহজ কিছু না বরং খানিকটা বেশীই কঠিন কিন্তু এখানে সুবিধাটুকু হলো "বাসায় বসে হাফপ্যান্ট পড়েও আপনি কোটিপতি হয়ে যেতে তার জন্য স্যুট কোর্ট টাই ঝুলিয়ে অফিস ছুটতে হবেনা"।

ADs by Techtunes ADs

বাংলাদেশ আউটসোর্সিং:
বাংলাদেশে আউটসোর্সিং শব্দটা আহামরি রকমের রহস্যময় একটা পেশা যেখানে মাসে, ১০০০০০ টাকা উপার্জন করার নিশ্চয়তা দিয়ে "কোর্স" করানো হয় আর কোর্স ফি মাত্র ১০০০ টাকা?!
আচ্ছা যারা মাসে এক লক্ষ টাকা উপার্জনের গ্যারান্টি দিয়ে কোর্স করায় তারা কেন নিজেরা আউটসোর্সিং না করে ঐ ১০০০ টাকার কোর্স ফি এর আশায় দ্বারে দ্বারে ভিখারীর মতোন ভিক্ষা করেন?
আশাকরিয়ে দিলাম এবার বাবা নিজের পথ নিজেই মাপো" আর বাকি থাকা ১% সত্যি সত্যিই আপনাকে আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং শেখায় তবে তারা ঐরকম আহামরি বিজ্ঞাপণ দেয়না!
সুতরাং জেনে রাখুন:
(১) আহামরি রং ঢং ওয়াল বিজ্ঞাপণে প্রলোভিত হতে প্রতারিত হবেনা না।
(২)নিজের মাথায় কমনসেন্স ব্যবহার করুন।
বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে আউটসোর্সিং করা অপেক্ষাকৃত কঠিন এবং কম প্রতিযোগিতামূলক কেননা যেই ডিজিটাল বাংলাদেশে এখনো পেপাল পর্যন্ত নেই কিংবা স্বর্ণদামী বিটকয়েন ব্যানড সেখানে আর যাই হউক আউটসোর্সিং নিয়ে আইটি উন্নতির কথা মাথাতে আনা ভুল ভুল ভুল!

আউটসোর্সিং করার যোগ্যতা:
আমরা সবাই আউটসোর্সিং করার জন্য পড়িমরি হয়ে ধুকতে থাকি অথচ শুরুর সত্যতা ভুলে যাই "টাকা উপার্জন করার জন্য যোগ্যতা চাই" যেখানে আপনার ভেতর যদি শিক্ষা দীক্ষা না থাকে তাহলে আপনি কখনোই আউটসোর্সিং নিয়ে সফল হতে পারবেন না।
আপনি ইন্টারনেটে কি কাজ করতে চান তার ওপর নিজের যোগ্যতা এবং স্কিল নির্ভর করছে যেমন আপনি যদি "ওয়েবসাইট" বিষয়ে কাজ করেন তবে ওয়েবসাইট তৈরী এবং ডেভেলপিং জানতে হবে। আবার ওয়েবসাইট ডিজাইনিং করতে গেলে কোডিং জানতে হবে একইসাথে ওয়েবসাইটের প্রাণ ভিজিটর বাড়াতে জানতে হবে সিইও(সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন) করা।
বর্তমানে সবার হাতেই এখন এনড্রোয়েড তাই আপনি এনড্রোয়েড অ্যাপস তৈরী করাও শিখতে পারেন।
একইসাথে আপনি (১) সফটওয়্যার তৈরী (২)সফটওয়ার ডেভলপ (৩)ডাটা এন্ট্রি (৪)কনটেন্ট রাইটিং (৫)সোস্যাল মার্কেটিং (৬)সার্ভে (৭)ন্যাটিভ ল্যাঙ্গুয়েজ ট্রান্সেলেশন ইত্যাদি শিখেও আউটসোর্সিং করতে পারেন।
তথাপি সর্বপরি আউটসোর্সিং শিক্ষায় আপনার প্রারম্ভিক (১) কমনসেন্স (২)ধের্য্য (৩)সময় (৪)শ্রম (৫)ইচ্ছাশক্তি (৬) সততা আবশ্যক।

কোথায় কাজ করবেন?
সত্যি বলতে ইন্টারনেটে কাজ করার ক্ষেত্রের অভাব নেই তবুও তার ভেতর স্ক্যাম আর লিগ্যাল খুঁজে নিতে পারাটাই আসল কথা। আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান তবে নিম্নোক্ত ওয়েবসাইট গুলোতো কাজ পেতে পারেন:
http://odesk.com/
http://toptal.com/
http://elance.com/
http://freelancer.com/
http://craigslist.org/
http://guru.com/
https://www.99designs.com/
http://peopleperhour.com/
http://freelancewritinggigs.com/
http://demandmedia.com/
http://collegerecruiter.com/
http://getacoder.com/
http://ifreelance.com/
http://project4hire.com/
http://simplyhired.com/
তবে এসব ওয়েবসাইট তখনই আপনাকে টাকা দিবে যখন আপনার ভেতরে থাকা যোগ্যতাকে আপনি প্রকাশ করতে এবং প্রয়োগ করতে পারবেন।
সুতরং সবার আগে আপনাকে কাজ জানতে হবে এবং একইসাথে যিনি আপনাকে হায়ার করবেন তার সাথে ভালো একটি কমিটমেন্ট তৈরী করতে হবে।

লেখালেখি করে ইনকাম:
এই বিষয়টা বেশ মজাদার যেমন আমরা যারা কিবোর্ড দেখলেই গুতিয়ে গাতিয়ে ২/৫ টা আর্টিকেল লেখার চেষ্টা করি কিংবা ফেসবুকে ফেমাস হওয়ার মতোন ২/৩ টা post লিখি তারা হয়তো লেখালেখি করাটাকে প্রফোশন হিসেবে বেছে নিতে পারেন অনেকটা "স্বাধীন পেশা" আরকি!
তবে এখানে শর্ত থাকে যে (১) কপি পেস্ট পরিহার (২) লেখালেখির এমন কনটেন্ট হবে যা উক্ত সাইটের শর্তানুকূল (৩) প্রায় সকল লেখাই ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজের তাই ইংরেজিতে দক্ষ হওয়া আবশ্যক (৪)উন্নত এবং স্ট্যান্ডার্ড মানের লেখা হলেই আপনি হয়তো মাত্র ১টি আর্টিকেলের জন্যই লক্ষ টাকা ইনকাম করতে সমর্থ হবেন।
লেখালেখি করে উপার্জন করার জন্য নিম্নোক্ত ওয়েবসাইটগুলা আপনার সহায়ক হতে পারে:
http://hubpages.com/
http://www.teckler.com/
http://www.bubblews.com/
http://dailytwocents.com/
http://www.shoutmeloud.com/
http://www.iwriter.com/
http://pukitz.com/
https://www.textbroker.com/
http://tutsplus.com/
http://www.worldstart.com/
http://www.about.com/
http://listverse.com/
http://www.wow-womenonwriting.com
http://www.collegehumor.com/
http://thedailyheckle.net
http://thedailytackle.net
http://www.lovetoknow.com ইত্যাদি ইত্যাদি।
এছাড়াও চাইলে আপনি নিজের ওয়েবসাইটে/ব্লগে লিখে আর্নিং করতে পারেন।

নিজের ওয়েবসাইট হতে ইনকাম:
গুগলে আপনি যখন কিছু লিখে সার্চ করেন তখন আপনার সামনে যেমন গাদা গাদা ওয়েবসাইটের লিস্ট চলে আসে তেমনি আপনার যদি একটা ওয়েবসাইট থাকতো তবে সেটিও গুগলের চোখে ধরা দিতো(এইটা হলো এসইও) আর কেউ যদি আপনার সেই ওয়েবসাইটে ভিজিট করতো তবে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারতেন(এইটা হলো এডসেন্স বা বিজ্ঞাপণ দিয়ে টাকা ইনকাম)।
যেমন আপনার ওয়েবসাইটে অনেক ভিজিটর মানে আপনার ওয়েবসাইট পপুপার আর এই পপুলার ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপণ দিয়ে আপনার টাকা ইনকাম করার নামই অন্যতম শ্রেষ্ঠ আউটসোর্সিং। আপনার ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপণ পেতে আপনি Google Adsence এর সহায়তা নিতে পারেন তথাপি এডসেন্সের কঠিন শর্ত ছেড়ে আপনি নিম্নোক্ত এড নেটওয়ার্ক হতে আর্ন করতে পারেন→
http://www.media.net/
http://www.infolinks.com/
http://chitika.com/
http://www.madadsmedia.com/
http://clicksor.com/
http://www.adside.com/
https://www.ayboll.com
https://affiliate-program.amazon.com/
http://yllix.com/
http://www.revenuehits.com/
http://popcash.net/
https://www.popads.net/
http://www.revcontent.com/
http://www.propellerads.com/

ক্রিপ্টোকারেন্সি:
ইন্টারনের জগতে ভার্চুয়াল টাকা পয়সা হলো এই ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ইলেকট্রনিক্স মুদ্রা যেমন বিটকয়েন, লাইট কয়েন, বিটকয়েন ক্যাশ, ডগিকয়েন ইত্যাদি ইত্যাদি।
তো এই ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম প্রায় উঠানামা করে যেমন বর্তমানে 1 বিটকয়েন=654, 946.17 টাকা; আপনি যদি এখন কিছু বিটকয়েন(সাতোশী পরিমাণ) এবং যখন এটির দাম বাড়বে তখন আপনি তা বিক্রি করে লাভবান হতে পারেন। আবার দাম কমে গেলে কিন্তু লস হবে। অর্থাৎ অনেকটাই শেয়ার বাজার এর মতোন- এটাকে বলে ক্রিপ্টোট্রেডিং।
আবার এমন অনেক সাইট আছে যারা বিভিন্ন কাজের বিনিময়ে কিংবা ফ্রি সাতোশী তথা বিটকয়েন দিয়ে থাকে এমনি একটি legit ওয়েবসাইট হলো freebirco.in সাইট।
আবার কিছু অ্যাপস যেমন bitcoin spinner(only available for USA) আপনাকে ফ্রি সাতোশী অফার করে থাকে।

ফেসবুক থেকে ইনকাম:
যদিও ফেসবুক এখনো গুগল-ইউটিউবের মতোন উন্মুক্ত মনিটাইজেশন চালু করেনি তবুও সোস্যাল মার্কেটিং করে ফেসবুক হতে আর্নিং করতে পারেন। যেমন আপনি আপনার পণ্যের বিজ্ঞাপণ দিয়ে ফেসবুক হতে আর্ন করতে পারেন।
আবার ফেমাস গ্রুপ/পেইজ হতে মার্কেটিং বা এডভারটাইজিং করেও ইনকাম করা যেতে পারে। যেমন আপনার যদি একটা ফুড রিভিউ বিষয়ক গ্রুপ থাকে এবং তা এনাফ পপুলার হয় তবে সেখানে বিভিন্ন রেস্টুরেন্টের রিভিউ করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। এমনকি অনলাইন বিজন্যেস করতে আজকাল ফেসবুক নাম্বার ১ সোস্যাল মিডিয়া বটে

ইউটিউব:
গুগল এডসেন্স অনুরূপ আপনার যদি একটা পপুলার ইউটিউব চ্যানেল থাকে তবে তা হতে মনিটাইজেন দ্বারা ইনকান করতে পারবেন। তথাপি পপুলার ইউটিউব চ্যানেলে ইউনিক এবং ভাইরাল ভিডিও হতে ফেমাস হওয়া অসম্ভব কিছু না আর "ফেমাস মিনস ফেবুলাস, ফেবুলাস মিনস এভরিথিং অব আউটসোর্সিং"

নিজে নিজেই নবাব:

ADs by Techtunes ADs

ফেসবুক/গুগল/ইয়াহু এর মতোন নামী দামী ওয়েবসাইটগুলের মালিকেরা কিভাবে তাদের লাইফ শুরু করেছিলেন জানেন?

এইতো আপনার আমার মতোই একটা অসংজ্ঞায়িত স্বপ্নের হাত ধরেই তাদের সূচনা হয়েছিলো।
ঠিক আপনারও যদি এমনটাই প্রবল ইচ্ছা শক্তি থাকে তবে আপনিও পারেন এমনি একটা ওয়েবসাইট তৈরী করতে।
আপনি হয়তো জেনে অবাক হবেন যে ফেসবুক/গুগলের ১ দিনের ইনকাম লক্ষ লক্ষ কোটি টাকার ওপর তাই স্বপ্নের সীমা আকাশেরও উপরে রাখুন।
মনে রাখবেন সোস্যাল মিডিয়াই সাফল্যের অন্যতম সূ্ত্র তাই আপনি নিজে এমনি ডোমেইন হোস্টিং আর সোস্যাল নেটওয়ার্ক স্ক্রিপ্ট কিনে শুরু করে দিতে পারেন নিজের ফেসবুক কিংবা টুইটার অথবা ইউটিউব যাত্রা।
আর যদি এতোটাই কিপটা সাজতে চান তাহলে তো ফ্রি লো লেবেল ডোমেইন/সাব ডোমেইন /ফ্রি হোস্টিং আর ফ্রি স্ক্রিপ্ট/ডেমো ভার্সন তো আছেই তদুপরি কোডিং জানলে নিজে নিজেই এমন সোস্যাল নেটওয়ার্ক বানাতে পারেন।

খুচরা আউটসোর্সিং:
যদিও এই বিষয়গুলা পারফেক্ট আউটসোর্সিং এর ভেতরে পড়ে না তথাপি বসে থেকে সময়ের বিপরীতে কিছু আর্নিং হতেই পারে।
ক্যাপচা পূরণ করে আর্নং:
http://kolotibablo.com/
http://www.megatypers.com/register
http://www.protypers.com/register
http://captcha2cash.com/
http://2captcha.com/
এছাড়াও ট্রাফিক এক্সচেঞ্জ সাইট হতে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে আর্নিং করা যেতে পারে:
https://www.followlike.net/
https://www.youlikehits.com/
https://likesplanet.com/
https://traffup.net/
http://socialclerk.net/
https://www.linkcollider.com/
https://www.like4like.org/
http://socialadr.com/
https://follow4follow.com/

হ্যাকিং শিখে কোটিপতি:
বাস্তবে এই কথাটার কোন ভিত্তি নেই কেননা বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত হ্যাকিং এখনো প্রফেশন নয় তাই হ্যাকিং শেখা এক কথা আর আউটসোর্সিং আলাদা কথা।
তবে আপনি যদি হ্যাকিং জানেন তবে আপনার ক্যারিয়ার স্মার্ট করে গড়ে তুলতে সহয়তা করবে যেমন ওয়েব সিকিউরিটি বা সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট হিসেবে এবং তাতে প্যাশনটা ফ্যাশানে আর আর্নিংটাও হবে স্মার্ট এবং রেস্পেক্টেবল।
তথাপি বাংলাদেশে হ্যাকিং কোর্স করানোর নামে প্রতারক চক্র হতে দূরে থাকে, এরা হ্যাকার নয় ল্যামার!

নিজেই বানান টাকা:
আপনি যদি টাকার মালিক হতে চান তবে সবচেয়ে সহজ উপায় হলো টাকা বানাবো তাইবলে আমি জাল টাকা বানানোর কথা বলছি না কেননা টাকা বানানোর অধিকার কেবলমাত্র টাকশালের আপনার আমার নয়।
তবে বৈধ্য উপায়েও আপনি ইন্টারনেটে টাকা বানাতে পারেন তা হলো ক্রিপ্টোকারেন্সি। বর্তমানে ১ বিটকয়েন = ৬ লক্ষ টাকার ওপরে অথচ যারা/যিনি এই বিটকয়েন উদ্ভাবন করেছিলেন তারা কিন্তু এমনিতেই এটা ইন্টারনেটে আদান প্রদানের জন্য তৈরী করেছিলো যা ব্লকচেইনের মাধ্যমে পেয়ার টু পেয়ার টেকনোলজিতে চলে।
আপনিও কিন্তু পারেন এমন নিজের তৈরী ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরী করে দিনে দিনে রাতারাতি বড়লোক হতে যদিও এতে প্রয়োজন জ্ঞান, দক্ষতা, মার্কেটিং নলেজ এবং অানুসাঙ্গিক সক্ষমতা।

শেষকথা
ইন্টারনেটে সবই পসিবল যদি আপনি ইমপসিবল= আই অ্যাম পসিবল কথাটা বিশ্বাস করতে পারেন সুতরাং মেধা আর জ্ঞান নিয়ে পরিশ্রমী মনোভাবে ধৈর্য্য নিয়ে এগিয়ে চলুন সফলতা আসবেই আসবে।
ফেসবুকে আমি→ অর্ণব আহসান
আমার কমিউনিটিতে নিমন্ত্রণ রইলো→অর্ণব আহসান

ADs by Techtunes ADs
Level 5

আমি আসিফ ইব্রাহীম। Tech Expert, Bangladesh Cyber Security, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 32 টি টিউন ও 32 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 16 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 10 টিউনারকে ফলো করি।

Technology Expert


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ধন্যবাদ অসাধারণ টিউনের জন্য…
আমি একটি এন্ড্রয়ড এপ তৈরি করেছি, বিক্রয়[ডট]কম এর অল্টারনেটিভ হিসেবে। ইচ্ছে হলে ট্রাই করে দেখতে পারেন।
এপটির ফীচার সমূহঃ
* কোনো রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই এড পোস্ট করতে পারবেন
* দিনে আনলিমিটেড এড পোস্ট করতে পারবেন
* লোকেশন বেইসড এড সার্চ করতে পারবেন
* কোন হিডেন চার্জ নেই, একদম ফ্রী
* ইনশা আল্লাহ, আমি যতদিন বেঁচে থাকব, অতদিন সার্ভিসটা ফ্রী রাখব
* ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস
* ছোট APK সাইজ ( মাত্র ৩ এমবি)
.
গুগল প্লে ডাউনলোড লিঙ্কঃ https://play.google.com/store/apps/details?id=p32929.buysellbd
APK ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://tiny.cc/buy_sell_bd
.
এপটি ডাউনলোড করে দয়াকরে একটি হলেও এড পোস্ট করুন। অনেক খুশি হব। আগাম ধন্যবাদ…