ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

টাকা ইনকামের বৈধ ও বিশ্বাসযোগ্য পথসমূহ

আমি আজ আপনাদেরকে পরিচয় করে দিবো কিছু বৈধ এবং প্রোফেসনাল ওয়েবসাইটের সাথে, যেখান থেকে আপনারা ঘরে বসে কাজ করার মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ADs by Techtunes ADs
  • ElanceoDesk : এই ওয়েবসাইট গুলো মূলত ফ্রিলাঞ্চিং সাইট। এখানে একজন ফ্রিলাঞ্চার তাৎক্ষনিক ফ্রিলাঞ্চ জব বা চাকুরী পেতে পারে। আর এই জবগুল হবে ঘণ্টাচুক্তি ভিত্তিক(Hourly) এবং নির্দিষ্ট বাজেট ভিত্তিক (Fixed Price)। এই সাইট থেকে আপনি টাকা তুলতে পারবেন স্ক্রিল, পেওনিয়ার অথবা ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে।
  • Fiverr : এই সাইটটিতে মূলত গিগ টিউন করে টাকা ইনকাম করা যায়। একজন ফ্রিলাঞ্চারকে তার দক্ষতা অনুযায়ী সর্বনিম্ন একটি গিগ টিউন করতে হবে হবে। পরবর্তীতে ক্লাইন্টরা তাদের চাহিদামতো উক্ত গিগের জন্য অর্ডার করবে। এই সাইট থেকে টাকা তুলতে চাইলে আপনি পেপাল একাউন্ট এবং আপনার পেওনিওর একাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন।
  • Freelancer : এটি বলা চলে পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বড় ফ্রিলাঞ্চিং মার্কেটপ্লেস। এই ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমাণে জব টিউন হয়ে থাকে। যার ফলে আপনি আপনার কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমের ফিক্সড অথবা ঘন্টাচুক্তি কাজের দ্বারা অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই দক্ষ ফ্রিলাঞ্চার হতে হবে। আর ফ্রীলাঞ্চার ডট কম-এর নিজস্ব মেসেঙ্গার আছে যা আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ও আইফন এর পাশাপাশি আপনার কম্পিউটারে ব্যবহার করতে পারবেন।
  • Guru : এই ওয়েবসাইটটি পুরপুরি oDesk, Elance এবং Freelancer এর মতই। এখানে আপনাকে ক্লাইন্টের প্রকাশিত জবসমূহতে বিড করে কাজ ধরতে হবে।
  • Tutor : টিউটর ডট কম-এ আপনি ছাত্রদের Homework সম্পন্ন করতে সাহায্য করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এই সাইটের তিনটি আলাদা আলাদা মেম্বারশিপ প্লান বা পাকেজ আছে, যা ছাত্ররা ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনার থেকে সাপোর্ট নিবে আর পেমেন্ট করবে। এই সাইটটিতে কাজ করার জন্য অবশ্যই আপনাকে পড়াশোনায় খুব ভালো আর দক্ষ হতে হবে। কারন আপনি না জানলে আপনি কাউকেই পড়াতে পারবেন না।
  • SutterStock: এটি এমন একটি সাইট যেখানে একজন ফটোগ্রাফার তার তোলা ভাল মানের আর সুন্দর ছবিগুলো বিক্রয় করতে পারবে। এই ওয়েবসাইটে আপনি যদি আপনার তোলা ছবিগুলো বিক্রয় করে টাকা ইনকাম করে টাকা ইনকাম চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই একটি মিনিমাম সাইজের ছবি আপলোড করতে হবে। আপাতত সাটারস্টক সর্বনিম্ন ৪ মেগাপিক্সেল সাইজের ছবি সাপোর্ট করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, আপনি কখনই ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করে সেই ছবিটি আপলোড করতে পারবেন না। যদি অন্য কার কপিরাইট করা চবি আপনি ব্যবহার করার চেষ্টা করেন তাহলে কোন পূর্ব নোটিশ ছাড়াই আপনার একাউন্ট চিরস্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিতে পারে।
  • Helium : এখানে আপনি আপনার লিখিত যেকোনো ভাল মানের কন্টেন্টসমুহ পাবলিশ করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে আপনাকে অবশ্যই নিজের লেখা কন্টেন্ট বা টিউনসমূহ পাবলিশ করতে হবে। আপনি ভুল করেও অন্যের লেখা কপি করে নিজের নামেচালিয়ে দিরতে পারবেন না। এতে আপনার এক্উন্ট নষ্ট হওয়ার রিস্ক থেকে জায় এবং ইনকাম করাটাও সম্ভব হবে না। মনে রাখবেন যে, কোন কিছুই সহজে পাওয়া যায়না। কোন কিছু অর্জন করার জন্য আপনাকে অবশ্যই কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।
  • YouTube : YouTube –এ আপনি ভিডিও আপলোড করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনি হয়তো ভাবছেন যে, ইউটিউব থেকে আবার কিভাবে টাকা ইনকাম করা সম্ভব? আমি বলছি - যেমন ধরুন আপনি Clickbank অথবা Amazon এর একটি আফিলিয়াট প্রোডাক্ট লিঙ্ক নিয়ে যদি আপনি আপনার ইউটিউব ভিডিও এর description এ ব্যবহার করেন তাহলে নিঃসন্দেহে আপনি ওই লিঙ্ক এ ট্রাফিক পাবেন। সুতরাং এটাও সম্ভব যে আপনি উক্ত লিঙ্ক থেকে সেল পাবেন, আর যা আপনাকে ভালো অঙ্কের টাকা ইনকাম করতে সাহায্য করবে।
  • iTunesPlay Store : iTunes ও Google Play Store-এ আপনি আপনার তৈরিকৃত আইওএস(IOS) ও এন্ড্রএড(Android) সফটওয়্যার বিক্রয় করে ভালো অঙ্কের টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যেমন ধরুন আপনার সফটওয়্যার এর মুল্য মাত্র $১ এবং আপনার সফটওয়্যারটি মাসে ১০০০ বার ডাউনলোড হয়। তাহলে আপনার ইনকাম দাড়ায় মাসে $১০০০। আমি মনে করি আমাদের মতো বাংলাদেশীদের জন্য এটা খুব একটা কম নয়। তবে এই পথ থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে অবশ্যই প্রোগ্রামার হতে হবে।
  • Microworkers : ফ্রিলাঞ্চিং মার্কেটপ্লেসে যদি বিড করার পাশাপাশি ছোট ছোট কাজ করে সামান্য পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনি এই সাইটটি ব্যবহার করতে পারেন। এই সাইটের মিনিমাম মানে সর্বনিম্ন পেমেন্ট এমাউন্ট হল $৯।
  • TextBroker : টেক্সটব্রোকারে আপনি আপনারা আর্টিকেল বিক্রয় করে টাকা ইনকাম করতে পারেন।
  • Amazon Web Store : একখানে আপনি আপনার নিজস্ব একটি স্টোর তৈরি করে আপনার প্রোডাক্ট বিক্রয় করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। এখান থেকে আপনি আপনার প্রডাক্টের জন্য ইন্টারন্যাশনাল কাস্টমার পাবেন বলে আশা রাখি।
  • HubPages : হাবপেজে আপনি টিপস, রিভিও এবং কনটেন্ট পাবলিশ করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। হাবপেজ মূলত Google Adsense এর একটি পার্টনার সাইট, সুতরাং ভালো কনটেন্ট হলে আপনি হাবপেজের সহায়তায়, অ্যাডসেন্স থেকে ভালো টাকা পেতে পারেন।
  • Google Adsense : আপনার যদি নিজের ওয়েবসাইট থাকে, তাহলে আপনি আপনার ওয়েবসাইট-এ গুগল আদসেন্সে-এর বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।
  • ClickBank & ClickSure : এই দুইটি সাইট হলো অ্যাফিলিয়েট সাইট। এখানে আপনি নিজের পুরপুরি অথবা অন্যদের প্রোডাক্টের সেল করে একটি নির্দিষ্ট পরিমানের কমিশন পেতে পারেন।

আজ এ পর্যন্তই থাক। আগামি পর্ব থেকে চেষ্টা করব এই সকল ওয়েবসাইটে কিভাবে কাজ করবেন তার টিউটোরিয়াল প্রকাশ করতে। এই টিউনটি আপনাদের কেমন লাগলো আশা করি টিউমেন্ট করে জানাবেন। আর কোন ভুল ত্রুটি থাকলে দয়া করে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আমার লেখা টিউনটি সময় দিয়ে পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি ওয়াহেদুজ্জামান তুহিন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 12 টি টিউন ও 41 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

I'm a student of Computer Science & Engineering.


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

মান সম্পন্ন টিউন। পড়ে ভাল লাগলো। শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। আচ্ছা নিজে ব্লগ সাইট তৈরি করে আয় করা যাবে তো!!

    @ফেরী ওয়ালা: @ফেরী ওয়ালা: হ্যা, অবশ্যই আপনি আপনার ব্লগ সাইট তৈরি করে আয় করতে পারবেন । এই ক্ষেত্রে প্রথমেই আপনাকে আপনার ব্লগ তৈরির পর মার্কেটিং করে ট্রাফিক বাড়াতে হবে । তারপর আপনি চাইলে Google Adsense অথবা অন্য যেকোনো সাইটের Ads ব্যবহার করতে পারবেন যা আপনাকে আয় করতে সহায়তা করবে…।

tx, tune ti darun laglo……. web analysis, domain research, etc fektu uncmn reelancing market er kaz guli niye janar essa, tune krle upokrito hobo,

অনলাইন এ আয় করার জন্য একটি ভালো সাইট
staff.com………………………………………………