ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

YouTube থেকে আয় শুরু করবেন যেভাবে

YouTube হল বিশ্বের ১ম ভিডিও শেয়ারিং Search Engine. YouTube এ সাধারনত ৩ ধরনের ব্যাবহাকরী থাকে।

ADs by Techtunes ADs
  •  Viewer
  • Advertiser
  • YouTube Partner। এই ৩ ধরনের ইউজার নিয়ে ইউটিউব পরিচালিত হচ্ছে।

বিস্তারিত জানার আগে আমার টেকনোলজি বিষয়ক চ্যানেলে Subscribe করে রাখুন

১. Viewer : যারা কোন কোন দেখার, শিখার বা বিনোদনের জন্য ভিবিন্ন ভিডিও দেখে থাকেন।

২. Advertizer : YouTube এর ভিডিওগুলোতে বিভিন্ন কোম্পানী বা সংস্থার কিছু বিজ্ঞাপণ দেখা যায়। এর এই ধরনের বিজ্ঞাপণ গুলো সাধারনত সেই কোম্পানী বা সংস্থাগুলোই শর্ত সাপেক্ষে ইউটিউবের কাছে বিজ্ঞাপণ দিয়ে থাকে।

৩. YouTube Partner : ইউটিউব পার্টনার হল যারা ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করেন। ইউটিউব পার্টনারদের সাধারনত Content Creator ও বলা হয়। যারা নিজে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও তৈরী করে আর সেই ভিডিও আপলোড করেন। আর এই ভিডিও’র মাধ্যমেই ইউটিউব পার্টনারশীপ এর মাধ্যমে একটা অংশ আয় করার সুযোগ করে দিয়েছে। আজ আমরা এই বিষয়টা নিয়েই আলোচনা করব।

আয় করার জন্য কি দরকার?

১. ভিডিও টপিকস নির্বাচন করা।

২. জিমেইল একাউন্ট ও নতুন চ্যানেল ক্রিয়েট করা।

৩. মোবাইল নম্বরের মাধ্যমে চ্যানেল ভেরিফাই করা। আর এর মাধ্যমেই পার্টনার ভেরিফাই করা যায়।

৪. চ্যানেল এ লগো, Channel Art Image সেট করা ও চ্যানেল কাস্টমাইজ করা।

ADs by Techtunes ADs

৫. টপিকস অনুযায়ী ভিডিও তৈরী করা ও আপলোড করা।

৬. ইউটিউব নিয়ম অনুযায়ী টার্গেট পূরন করে মনিটাইজেশন এর জন্য Google Adsense এর জন্য আবেদন করা।

এবার উপরের কিছু গুরুত্বপূর্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।

১. ভিডিও টপিকস নির্বাচন : YouTube  কাজ শুরু করার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন বিষয় হল Topics Selection। অনেকেই এই টপিকসের কথা ভাবতে ভাবতে বছরের পর বছর সময় চলে যায়। আর টপিকস সিলেকশন এর ক্ষেত্রে যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে তা হল আপনি যে বিষয়ে সবথেকে বেশী Expert বা ভাল জানেন, বুঝেন। যেমন : আপনি যদি গান ভালবাসেন তাহলে আপনি নিজের গান নিয়ে মিউজিক চ্যানেল করতে পারেন। যদি আপনি IT & Technology বিষয়ে ভাল জানেন তাহলে আপনি  এই বিষয় নিয়েই ভিডিও বানাবেন।

২. চ্যানেল কাস্টমাইজ : আপনার চ্যানেল বানানোর পর আপনি চ্যানেলটার জন্য প্রফেশনাল মানের লগো ও ব্যানার বানাবেন ও তা সেট করবেন। এবং চ্যানেলে আপনার সোস্যাল মিডিয়ার পেইজ গুলো এড করবেন। চ্যানেলের জন্য একটা ভাল Intro বানাতে হবে। এবং চ্যানেলের হোম পেইজটা খুবই সুন্দর ভাবে সাজাতে হবে।

ভিডিও আপলোড করার পর কি করতে হবে :

আপনি যখন ভিডিও বানাবেন এবং তা আপলোড করার পর আপনার ভিডিওতে ভিউ ও সাবস্ক্রাইবার আনার জন্য নিচের কাজগুলো করতে হবে।

  1. SEO Friendly Title
  2. SEO Friendly Description
  3. SEO Friendly Tag
  4. Keyword Research for Video Title, Description and Tag
  5. Custom Unique Thumbnail
  6. Embed Video for Blog
  7. Social Media Sharing

ইউটিউব ও আইটি বিষয়ক অনেক গুলো ভিডিও আমার চ্যানেলে আছে। ভিজিট করার আমন্ত্রন জানাচ্ছি ও উপকৃত হবেন আশা করি।

আমার চ্যানেলের Subscribe করুন এখান থেকে

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি Era IT। CEO, Era IT, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 121 টি টিউন ও 86 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 28 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস