গেমস জোন [পর্ব-৯৩] :: Crysis 3 রিটিউন ২০১৩ কোর আই ৩

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

গেমটি পিসির জন্য সংঙ্কট এনে দেয় বটে! তিনটা পিসির মধ্যে দুইটাতে ই গেমটি চললো না!! একটি তো পেন্টিয়াম ৪ ল্যাপটপ যাহাতে গেমটি চললে ল্যাপটপটি ঐতিহাসিক হইয়া যাইবো। আরেকটি ডুয়াল কোর ৫১২ মেগার গ্রাফিক্স ওয়ালা পিসি। ওটাতেও মাঝে মাঝে ক্রাশ খায়। তয় বাকি রইল আমার গেমিং পিসি। কোর আই ৭ লগে ২ গিগা গ্রাফিক্স। চলছে না দৌড়াইছে!!

এতদিন শুদ্ধ ভাষায় গেমস জোন টিউন করেছি আজকে নিজের স্বাভাবিক ভাষায় গেমস জোন রচনা করলাম। দেখি তোমাদের ফিডব্যাক কি হয়।!

হ! লইয়া আইলাম গেমস জোনের নয়া এপিসোড। আইজক্কা থাকবো ক্রাইসিস সিরিজের সর্বশেষ গেম ক্রাইসিস ৩।

ক্রাইসিস ৩ একটা পরথম পারসন শুটার ভিডিও গেম বানাইছে জার্মান গেম নির্মাতা ক্রাইটেক লগে প্রকাশকনায় আছে ইলেক্ট্রনিক আর্টস ওরফে EA। গেমটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, প্লে-স্টেশন ৩ আর এক্সবক্স ৩৬০ গেমিং কনসোলের জন্য মুক্তি পাইছে এ বছরের ১৯ই ফেব্রুয়ারী, ২০১৩। গেমটি ক্রাইসিস সিরিজের মেইন ৩য় সংস্করণ এবং ক্রাইসিস ২ গেমটির সিকুয়্যাল। ২০১৩ সালে অন্যতম সফল এবং জনপ্রিয় গেম। গেমটি কোর আই ৩ এর নিচে খেইল্লা তেমন মজা পাইবা না যদি না তুমার কাছে সেইরকম গ্রাফিক্স কার্ড না থাকে।

ক্রাইসিস ৩

 

নির্মাণ করছে:

ক্রাইটেক

প্রকাশ করছে:

EA

সিরিজ:

ক্রাইসিস

ইঞ্জিণ:

ক্রাই ইঞ্জিণ ৩

খেলা যাইবো:

পিসি, প্লে-স্টেশন ৩, এক্সবক্স ৩৬০

ধরণ:

পরথম পারসন শুটার

খেলার ধরণ:

একলা এবং বহু প্লেয়ার

ট্রেইলার:

http://www.youtube.com/watch?v=vBZ0geRXV44

http://www.youtube.com/watch?v=iIJDa2x_2gA

সিস্টেম যা যা খাইবো:

সার্পোটেড অপারেটিং সিস্টেম: ভিসতা (সার্ভিস প্যাক ২), সেভেন (সার্ভিস প্যাক ১) এবং এইট

কমপক্ষে:

ইন্টেল কোর ২ ডুয়ো ২.৪ গিগাহার্জ অথবা এএমডি এথলণ এক্স২ ২.৭ গিগাহার্জগতির প্রসেসর,

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

জিফোর্স জিটিএস ৪৫০ অথবা রাডিয়ন এইচডি ৫৭৭০ গ্রাফিক্স কার্ড,

১৭ গিগাবাইট ফ্রি হার্ডডিক্স স্পেস (রিপ্যাক ভার্সন),

ডাইরেক্ট এক্স ১১

ভালা ভাবে খেলতে চাইলে মামু দেইক্ষ্যা লও:

ইন্টেল কোর আই ৫ ২.৮ গিগাহার্জ অথবা এএমডি ফেনম ২এক্স৪ ৮০৫ গতির প্রসেসর,

৬ গিগাবাইট র‌্যাম,

জিফোর্স জিটিএক্স ৫৬০ অথবা রাডিয়ন এইচ ডি ৫৮৭০ গ্রাফিক্স কার্ড,

২০ গিগাবাইট ফ্রি হার্ডডিক্স স্পেস,

ডাইরেক্ট এক্স ১১ লগে শেডার মডেল ৪.০

সার্পোটেড সিপিইউ  লিষ্ট:

http://www.game-debate.com/games/index.php?g_id=3953&canMyCpuRunIt=Crysis%203

সার্পোটেড জিপিইউ লিষ্ট:

http://www.game-debate.com/games/index.php?g_id=3953&canMyGpuRunIt=Crysis%203

কাহিনী:

গেমটিতে তুমারে প্রফেট এর ভূমিকায় খেলতে হইবো। যেখানে হে নিউ ইর্য়াকে ফিরছে ২০৪৭ সালে। ক্রাইসিস ২ গেমটির ২৪ বছর পর। সেখানে প্রফেট আইসা দেখে যে পুরাটা সিটিকে একটা বিরাট ন্যানোডোম দিয়ে এনকেইসড করে রাখছে দুর্ণীতিগ্রস্থ সেল করপোরেশন।

ক্রাইসিস ২ এর ইভেন্টের পর, প্রফেট এর নিজস্বতা লগে হের মেমোরি আলক্যাট্রাজ এর বডির ন্যানোসুইটে স্টোর করা হইছে। প্রফেট এখন বুঝতে পারে যে সে নিজেরে নিজের মাইরা লাইছে গুলি কইরা। অহন প্রফেট আলক্যাট্রাজ এর বডিতে মেমোরী লাগাইয়্যা বাঁইচ্চা আছে।

এরপর প্রফেট সাইকোর লগে টিম আপ করে। তাগো লগে ছিলো এলাইট ন্যানোসুইট সোল্জারস। তারা পুরা বিশ্ব ঘুড়তে থাকে আলফা স্যাপ এর খোঁজে। আলফা স্যাপ হইলো আল্টিমেইট স্যাপ এর লিডার। একের পর এক সোল্জারজা তাগো আশা ছাইড়্যা দেয় কারণ হেরা মনে করছে যে হগল স্যাপ ধ্বংস হইয়া গেছে। তয় প্রফেট আর সাইকো রাশিয়াতে আলফা স্যাপরে ট্রেস করতে সক্ষম হইবার পারে। তবে এর কিছুক্ষণ পরেই সেল একটা ধুমধারাক্কা ইএমপি অস্ত্রের সাহায্য লইয়া প্রফেট কে বন্ধ কইরা দেয়। সেল অহন গ্লোবাল ডমিনেশন অফ ল্যান্ড এন্ড টেকনোলজির খোঁজে আছে।

বাকি ন্যানোসুইট সোল্জাদেরও সেল বন্দি করে এবং তাগো ন্যানোসুইট খুইল্লা ফেলে। প্রফেকটে হেরা নিউ ইর্য়াকে লইয়া যায়।

কার্ল ইরনষ্ট রাচ স্যাপ টেকনোলজি ব্যবহার করে হের লাইফস্প্যান বাড়িয়ে লয় এবং স্যাল এর দুর্নীতে নিজের চক্ষে দেখতে থাকে। তারপর হে তার পদ হইতে পদত্যাগ করে এবং হের যাবতীয় রির্সাচ মুইচ্ছা ফেলে। পরে সে রেসিসটেন্স এ গিয়ে সাইকো, লেজি ডেইন এবং ব্যান্ডটিডকে লগে লইয়া প্রফেটকে ছাড়িয়ে লয় কারণ একমাত্র প্রফেটই শেষ ন্যানোসোল্জার যে সেল এর কাজ কাম বন্ধ করবার পারবো।

সাইকো প্রফেটকে গত ২০ বছরের সমস্ত ঘটনা খুলে বলে। সেল স্যাপ এর টেকনোলজি ব্যবহার করে আনলিমিটেড ফ্রি এনার্জি পাইছে। বলতে গেলে সেল অহন একটি মেগা করপোরেশন হইয়া গেছে এবং বিশ্বের অধিকাংশ পাওয়ার সাপ্লাইয়ের মালিক হইয়া গেছে এবং এইটার বদ ব্যবহার কইরা সবাইরে ঋণী বানাইছে।

ক্রাইসিস ২ এর টারা রেসিসটেন্সকে রাজনীতিক ভাবে সাহায্য করে তবে সেল এর রাজনীতিতেও বড় ক্ষমতা তাই সে কিছু করবার পারে না। সেল এর গোটা দুনিয়া ব্যাপি পাওয়ার এর মুল সোর্স এর নাম সিস্টেম এক্স। যেইটা নিউ ইর্য়ক এর পরিত্যাক্ত অঞ্চলে অবস্থিত। নিউ ইর্য়ক অহন একটা জঙ্গলে পরিণত হইছে এবং মানুষ গুলোও জঙ্লী হইয়া গেছে।

সাইকো অহন সিস্টেম এক্সরে ধ্বংস করবার চায় আর দুনিয়াটারে ওগো হাত থেইক্কা বাচাইবার চায়।

সাইকো আর প্রফেট ডোমে প্রবেশ করে। কিছু সেল ফোর্সের লগে যুদ্ধ করে। হেগো পরথম টার্গেট হইলো সিস্টেম এক্স এর বাহিরের ডিফেন্স একটা অসীম পাওয়ারওয়ালা ডিভাইস। এর পরে কিতা হইলো হেইড্যা গেমডা খেইল্লাই যাইন্না নিও। আর টাইপ করতে মুন চায় না!

সিরিজের আগের গেমগুলোর মতোই এইডাতেও পরথম পারসন শুটার লগে অস্ত্র কাস্টমাইজেশন সিস্টেম ফিচার করা হইছে। তুমি নিজের মতো গেম-প্লে স্টাইল পছন্দ করবার পারবায়। গেমটিতে একলগে ১৬ মিল্লা খেলবার পারবায় নেটো। গেমটার বানানির কাজ শুরু হয় কবে হেইডা জানি না তয় পরথম খোঁজ পাই এপ্রিল ২০১২ সালে।

গেমটির নির্মাতা ক্রাইটেক এর সিইও বলেন যে ক্রাইসিস ৩ গেমটি বহু পিসিকে গিলে খাইয়া ফেলবো এর উচ্চ গ্রাফিক্স কোয়ালিটি। গেমটির পিসি ভার্সনটি চালাইতে হইলো ডাইরেক্ট এক্স ১১ লাগবো। গেমটি ক্রাইইঞ্জিন ৩ এর নয়া নয়া কুছতা ফিচার আনছে। তয় এইসব নয়া নয়া ফিচার এর স্বাদ পাইতে হইলে গেমটারে সর্বউচ্চ কোয়ালিটি সেটিং দিয়া খেলতে হইবো। গেমটির বেটা ভার্সন বাজারে আসার এক বছরের মধ্যেই প্রায় ৩ মিলিয়ন লোক বেটা ডাউনলোড করছে!!! মাগো!! কয় কিতা!

মে ৩০, ২০১৩ সালে গেমটার নয় ডাউনলোডেবল কনটেন্ট “দ্যা লস্ট আইল্যান্ড” মুক্তি দেওয়া হয়।

ডাউনলোড:

ftp://fast.2fun.ge/games/Crysis%203.rar

পাসওর্য়াড চাইলে সোর্স দেখতে পারো:

http://2fun.ge/v2/index.php?newsid=11388

আমার বিশ্রি ভাষার জন্য আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আসলে মজা করার জন্যই এমনটি করলাম। তবে এই রিভিউ যদি তোমরা বুঝতে না পারো তবে টিউমেন্টে বলবে আবারো “শুদ্ধ” ভাষায় টিউন করবো।

http://www.facebook.com/games.zone.bd

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

ভাই আমার প্রসেসর Intel Pentium E5300 @ 2.60GHz র‌্যাম 3.00GB DDR2 গ্রাফিক্স কার্ডGeForce 9400 GT এইটা নিয়ে Crysis 3 চালাতে পারি নায়।যদি এই কনফিগারে গেমটা চালানো কোন উপায় থাকে তাহলে আবশ্যয় জানাবেন

Level 0

আমার Pentium Dual Core E6600 3.06 ghz (OC: 3.3ghz) আর HD 6670 2gb ddr3 দিয়া 1366×768 regulation এ smoothly খেলতে পারতেছি 🙂

Level 0

ভাই ৪৫০০ টাকায় গ্রাফিক্স কার্ড কোনতা কিনলে DirectX 11 ও স্যাডো সাপোট করবে এবং এই গেমটা খেলা যাবে ।