গেমস জোন [পর্ব-১৬৭] :: The Crew – প্রিভিউ (2014)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

হ্যালো! কেমন আছো তোমরা? টিউনের শুরুতেই কিছু কথা বলতে চাই। টেকটিউনসে পিসি গেমস নিয়ে আরো একটি চেইন টিউন রয়েছে “গেমস ওর্য়াল্ড” শিরোনামে। কথা হলো যে, “গেমস ওর্য়াল্ড” এর সাথে আমি অর্থ্যাৎ “গেমস জোন” একত্র হয়ে একটি গ্রুপের মতো ছিলো । তবে এখন তা আর নেই! আমি আমার গেমস জোন এবং নভোজিত ভাই উনার গেমস ওর্য়াল্ড নিয়ে আছেন তোমাদের মাঝে। তাই এখন থেকে আমাদের কে বন্ধু নয়, শত্রুও নয় > প্রতিদদ্ধি হিসেবে দেখবে। ঠিক আছে? শুধু শুধু আমাকে ফেসবুকে হয়রানি করার কোনো মানেই হয় না! দুনিয়াটা চামচা দিয়ে ভরে গিয়েছে! সাথে বাড়ছে বৈঈমানের সংখ্যাও!

আশা করবো আমাদের মাঝের “প্রতিযোগীতা” তোমাদের জন্য আরো ভালো ভালো টিউন উপহার দিতে পারবো আমরা। যাই হোক টিউনে চলে যাই, আজ বহু দিন পর প্রিভিউ লিখছি! গেমস জোনের অন্যতম মূল আর্কষণ হলো প্রিভিউ!

নিড ফর স্পিড এর সাথে প্রতিযোগীতায় নামতে আসছে “দ্যা ক্রিউ”। দ্যা ক্রিউ একটি “ওপেন ওর্য়াল্ড” রেসিং ভিডিও গেম যা বর্তমানে নির্মাণাধীন রয়েছে। গেমটি নির্মাণ করছে ইভোরি টাওয়ার এবং ঊবিসফট রিফ্লেকশনস এবং প্রকাশ করবে ঊবিসফট। গেমটি বাজারে আসবে ২০১৪ সালের শেষের দিকে। উল্লেখ্য যে গেমটি শুধুমাত্র পরবর্তী প্রজন্মের কনসোল (এক্সবক্স ওয়ান এবং প্লে-স্টেশন ৪) এবং মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ভিক্তিক পিসিতে খেলা যাবে।

গেমটির প্রধান বৈশিষ্ট্য এর ওপেন ওর্য়াল্ড ফিচার। যেটি টেস্ট ড্রাইভ আনলিমিটেড গেমস সিরিজে রয়েছে। গেমটির পটভূমিতে রয়েছে আমেরিকার বিভিন্ন প্রদেশ। এর এক প্রদেশ হতে অন্য প্রদেশে ভ্রমণ করতে প্রায় ৯০ মিনিট সময় লাগবে! গেমটির সিঙ্গেল প্লেয়ার ক্যাম্পেইনটি ৩৫ ঘন্টার গেম-প্লে ফিচার করবে। গেমটির কাহিনীতে থাকছে বিভিন্ন ক্রিমিনাল গ্রুপের নিজস্ব কাহিনী। গেমটি মূলত মাল্টিপ্লেয়ার গেম হলেও গেমটির সিঙ্গেলপ্লেয়ার ফিচারও রয়েছে। “দ্যা ক্রিউ” ব্যাতিক্রমী ফিচার হলো গেমটিতে ইন-গেম লোডিং ক্রিণ এবং pause সিস্টেম নেই! গেমটির গাড়িসমূহকে প্লেয়াররা একটি টাই-ইন এ্যাপ (Tie-in App) এর মাধ্যমে কাস্টোমাইজেশন করতে পারবে। এ্যাপটি iSO এবং Android তে ব্যবহার করা যাবে।

গেমটির নির্মাতাদের দলে রয়েছেন আরেকটি জনপ্রিয় “ওপেন ওর্য়াল্ড” রেসিং গেম “টেস্ট ড্রাইভ আনলিমিটেড” সিরিজের নির্মাতা “ইডেন গেমস” এর কর্মীরা। বিভিন্ন অনলাইন ম্যাগাজিন “দ্যা ক্রিউ” গেমটিকে “নিড ফর স্পিড” এর যোগ্য প্রতিদন্ধি হিসেবে দেখছে। দেখা যাক গেমাররা গেমটিকে কিভাবে নেয়।

নির্মাতা:

ইভোরি টাওয়ার এবং ঊবিসফট রিফ্লেকশনস

প্রকাশ করবে:

ঊবিসফট

খেলা যাবে:

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ,

প্লে-স্টেশন ৪ ,

এক্সবক্স ওয়ান

মুক্তি পাচ্ছে:

২০১৪ সালের শেষের দিকে

ধরণ:

রেসিং

খেলার ধরণ:

সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

ট্রেইলার:

 www.youtube.com/watch?v=1cD33Gz_Qcs

http://www.youtube.com/watch?v=Suglvx3pGr0

http://www.youtube.com/watch?v=9aJxOCbqWz4‎

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস:

মিনিমাম:

কোর ২ ডুয়ো ২.৪ গিগাহার্জ অথবা এথলন ৬৪ এক্স২ ডুয়াল কোর প্রসেসর,

জির্ফোস জিটি ৫৪৫ ডিডিআর ৩ কিংবা রাডিয়ন এইচডি ৫৫৭০ মডেলের গ্রাফিক্স কার্ড,

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

উইন্ডোজ এক্সপি সার্ভিস প্যাক ৩ অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্ট এক্স ৯.০সি

অফিসিয়াল:

কোর ২ কোয়াড ২.১৩ গিগাহার্জ কিংবা ফেনম ৯৬০০ কোয়াড কোর প্রসেসর,

জিফোর্স জিটিএস ৪৫০ কিংবা রাডিয়ন এইচডি ৬৭৫০ মডেলের গ্রাফিক্স কার্ড,

৪ গিগাবাইট র‌্যাম,

উইন্ডোজ সেভেন (৬৪বিট) অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্ট এক্স ১০

ভালো ভাবে খেলতে হলে:

কোর আই ৫ - ৬৫৫কে ৩.২ গিগাহার্জ কিংবা ফেনম ডাবল আই এক্স৪ ৯০০ই প্রসেসর,

জিফোর্স জিটিএক্স ৬৪০ কিংবা রাডিয়ন এইচডি ৭৯৭০ মডেলের গ্রাফিক্স কার্ড,

৬ গিগাবাইট র‌্যাম,

উইন্ডোজ সেভেন (৬৪বিট),

ডাইরেক্ট এক্স ১১

***হার্ডডিক্স জায়গা কতটুকু খাবে তা নিশ্চিত নয় তবে কমপক্ষে ১০গিগাবাইট ফ্রি জায়গা লাগবে***

রেসিং গেমস জগতে “টেস্ট ড্রাইভ: আনলিমিটেড” সিরিজটি স্পেশাল হয়ে আছে গেমারদের মনে। কারণ গেমটি শুধুমাত্র ড্রাইভিং গেমে সীমাবদ্ধ থাকে নি। তবে গেমটির কনট্রোল একটু কঠিন হওয়ার জন্য গেমটি নিড ফর স্পিড এর সাথে পাল্লা দিতে পারে নি। তবে সেই “টেস্ট ড্রাইভ: আনলিমিটেড” এর নির্মাতারা ঊবিসফট এর সাথে মিলিত হয়ে আমাদের জন্য নিয়ে আসছে “দ্যা ক্রিউ”। বলতে পারো গেমটি “টেস্ট ড্রাইভ: আনলিমিটেড” গেমটির উন্নত সংস্করণ এবং নিড ফর স্পিড এর সাথে পাল্লা দেওয়ার “যোগ্য”। কারণ গেমটি গত ৫ বছর ধরে নির্মাণ করা হচ্ছে, সেই মোতাবেক পুরো ৬টি বছর নির্মাণের পর গেমটির মুক্তি দেওয়া হবে ২০১৪ সালে।

২০১৩ সালের ই৩ প্রেস কনফারেন্সে গেমটির উন্মোচন করা হয়। সেখানে ঊবিসফট তাদের সর্বোচ্চটা দিতে চেষ্টা করেছে গেমটিতে যাতে গেমটি নিড ফর স্পিড / বার্নআউট সিরিজের মতো হয়। তবে টেস্ট ড্রাইভ গেমটি কোনো প্রকাশ কাহিনী ছাড়াই জনপ্রিয় হয় কিন্তু “দ্যা ক্রিউ” গেমটিতে থাকছে একটি পূর্ণাঙ্গ কাহিনী। যেখানে তোমাকে ক্রিমিনাল এবং পুলিশ, দুটোরই মুখোমুখি হতে হবে। কাহিনীর বিস্তারিত এখনো জানা যায় নি কারণ গেমটির কাহিনীর নির্মাণের কাজ এখনো চলছে! ভাই আরো বছর খানেক লাগবে গেমটি মুক্তি পেতে আর এতো আগেই কাহিনীর কাজ শেষ করে দেবে নাকি!? হেহেহে!

তবে গেমটির ডেমো সংস্করণে খেলে যা মনে হলো যে, গেমটি নিড ফর স্পিড এর ধারে কাছেও যায় না! তবে প্রত্যেকটি গেমসের নিজস্ব আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। “দ্যা ক্রিউ” গেমটিতে পটভূমি হিসেবে রয়েছে USA , তবে আগে কখনো আমরা রেসিং গেমসে পুরো একটি দেশ পাইনি পটভূমি হিসেবে। রয়েছে শিকাগো, মায়ামী, নিউ ইর্য়ক সিটি, ল্যাস ভেগাস, লস এঞ্জেলস, স্যান ফ্রান্সিস্কো, ড্যালাস সহ আরো অনেক প্রদেশ। যাদের এক একটি প্রদেশে যাত্রা করতে সময় লাগবে ৯০ মিনিট! বলে কি! যদিও গেমটির গেম প্লে ২০ ঘন্টার তাহলে অবশ্যই একটি দ্রুত পদ্ধতি থাকবে যাত্রার জন্য। গেমটির পটভূমির উপকরণ হিসেবে আমরা পাবো গ্রাম্যঅঞ্চল, পাহাড় পর্বত, জঙ্গল, মরুভূমি, তুষারপূর্ণ অঞ্চল থেকে শুরু করে Dirt ও থাকছে।

গেমটি ল্যান্ডমার্ক থাকছে ১০০০ হাজারের উপর। প্রতি বার এক একটি ল্যান্ডমার্ক খুঁজে পেলে একটি কাটসিন আনলক হবে যেটায় উক্ত ল্যান্ডমার্কের বিস্তারিত সম্পর্কে বলা হবে। আমেরিকার বিখ্যাত অঞ্চলের ভ্রমণের মজা এবার ঘরে বসেই উপভোগ করা যাবে!

যেহেতু গেমটিতে থাকছে কাহিনী, তাই গেমটির শুরুতেই সমস্ত ফিচারসমূহ আনলক থাকবে না। কাহিনীর অনুসারে তোমাকে গেমটির বিভিন্ন ফিচার আনলক করতে হবে। তবে গেমটির প্রথম মিশনেই তোমার ৩ ঘন্টা লেগে যাবে!!!

গেমটির শহরটি ৫টি ভিন্ন ভিন্ন জোনে বিভক্ত। প্রতিটি জোনে রয়েছে ১০টি করে মোট ৫০টি লেভেল। তাই গেমটি তাড়াহুড়ো করে না খেলে ধৈর্য্য নিয়ে খেলতে হবে গেমটিতে বোঝার জন্য। গেমটি ম্যাপ টি টেস্ট ড্রাইভ আনলিমিটেড গেমটির ম্যাপ সিস্টেমের মতোই আবার অনেকটা গুগল আর্থ স্টাইলেরও!

গেমটিতে আরো একটি ফিচার রয়েছে তা হলো HUD টি কাস্টমাইজেশন করা যাবে নিজের। এই ফিচারটি বহু আগের নিড ফর স্পিড গেমসগুলোতে বিদ্যমান ছিল।

এক নজরে ফিচারসমূহ:

> গেমটি ওপেন-ওর্য়াল্ড রেসার ভিক্তিক গেম। যেখানে USA এর যেকোনো জায়গা তোমার জন্য উন্মুক্ত!

> গেমটি প্রধানত মাল্টিপ্লেয়ার ভিক্তিক গেম। মাল্টিপ্লেয়ারে না খেললে গেমটির আসল মজার স্বাদ পাওয়া যাবে না।

> গেমটিতে কাস্টমাইজেশন মানে নিজস্বতার অনেক অপশন রয়েছে। এর আগে কোনো রেসিং গেমসে এতটা কাস্টমাইজেশন ফিচার নেই।

> গেমটির কাহিনীর কাজ এখনো চলতে তাই এখন কাহিনীটির সম্পর্কে তেমন কিছু বলা যাচ্ছে না “তবে” গেমটির কাহিনী অনেকটা নিড ফর স্পিড আন্ডারকভার গেমটির মতো।

> গেমটিতে থাকছে ফুল ড্যামেজ সিস্টেম। যা লাইভ গজের (Life Gauge) বারের সাহায্যে প্রর্দশিত হবে। তবে ড্যামেজ নিজে নিজেই রিকোভার হয়ে যাবে < হালকা সময়ের মধ্যে!

> গেমটির মেনুর কাজ করবে আলাদা এপ! যা বিভিন্ন স্মার্টফোনে ডাউনলোড করা যাবে।

> প্রত্যেকটি অঞ্চলের প্রত্যেকটি জোনের পরিবেশ এবং আমেজ সর্ম্পূণ ভিন্ন হবে!

> গাড়ির হ্যান্ডেল জোন ভিক্তিক পাল্টাবে! মানে পাকা রাস্তার স্মুথ হ্যান্ডেল আর বরফের রাস্তায় পিছলা হ্যান্ডেল!

> বাস্তবে আমেরিকার এক প্রদেশ হতে অন্য প্রদেশে ভ্রমণের যতোটুকু সময় ব্যয় হয় ঠিক তেমনি করে গেমটির পরিবেশ বানানো হচ্ছে!

> কাস্টমাইজেশনের বিশালতা বুঝাতে আমি বলতে পারি যে, একটি McLaren গাড়িকে তুমি কাস্টমাইজেশন করে অফ-রোড মেগা ট্রাক বানিয়ে ফেলতে পারো! (বলে কি!)

> গেমটির দিন-রাত্রির পরিবর্তন হবে প্রতি দুই ঘন্টায়।

শেষ কথা একটাই, আশা করছি FIFA ও PES নিয়ে যেমনটি বির্তক রয়েছে আমাদের গেমাদের মধ্যে, ঠিক তেমনি করে কেউ আসুক NFS এর সাথে বির্তকে জড়াতে!

চকচকা গ্রাফিক্স!
অসাম নাইট্রো
রাস্তার বাহিরে নিয়ন্ত্রণ কঠিন!
ম্যাপের একাংশ
যাত্রা হলো শুরু!
কার সাথে রেসে নামা যায়?
এই গাড়িটা আসলেই আমার পছন্দের!
চোখে কুছতা দেহি নাহ!
খাড়া! আইতেছি!
ধুলোরে!
চকচকা গাড়ি!

জ্ঞাতব্য:

> গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।

> গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই

> গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।

> গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড  তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।

> ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।

> সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।

> গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

> বর্তমানে গেমস জোন  লেখক এর দ্বারা নিচের ব্লগ সমূহে টিউন করা হচ্ছে:

http://www.tunerpage.com

http://www.techtunes.co

> গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ http://www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন fb.com/talented.fahad

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আপনাদের প্রতিযোগীতা টা নজরে থাকল। দেখি কার উপহার গুলো আলমারিতে রাখার মত। ভাল টিউন হয়েছে।

    যতদিন এটা “সুস্থ” প্রতিযোগীতা হিসেবে থাকে . . . . . .

গেমওয়ালা ভাইয়া, ওটা ইউবিসফট হবে।উবিসফট না।

Love you man.আপনার গেম এর পোস্ট না পেলে গেম খেলাও ভাল লাগে না। চালিয়ে যান। আমি আছি আপনার সাথে।

otirikto chokchoka…
nice tune

ভাইয়া দা ক্রুর অফলাইন মোডে খালি গাড়ি কাস্টোমাইজ করতে পারবেন কিন্তু মিশন খেলতে হবে অনলাইনে মানে অরিজিনাল কেনা বাদে কোন উপায় নাই এবার 🙁 🙁