ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

গেমস জোন [পর্ব-২৬৬] :: এসাসিন্স ক্রিড ইউনিটি (২০১৪) – প্রিভিউ

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

হিস্টোরিক্যাল একশন এডভেঞ্চার গেম সিরিজ এসাসিন্স ক্রিড এ বছর একই সাথে দুটি গেমস মুক্তি দিতে যাচ্ছে । একটি হচ্ছে Rogue এবং আরেকটি হচ্ছে Unity। ইউনিটি গেমটি পিসিতে খেলা গেলেও Rogue গেমটি শুধুমাত্র প্লে-স্টেশন ৩ এবং এক্সবক্স ৩৬০ গেমস কনসোলের খেলা যাবে।

ADs by Techtunes ADs

এসাসিন্স ক্রিড সিরিজের প্রথম গেম এসাসিন্স ক্রিড (২০০৭) এর এনভিল ইঞ্জিনের পরবর্তী সংস্করণ AnvilNext এর চোখ ধাধাঁনো গ্রাফিক্স নিয়ে এসাসিন্স ক্রিড ইউনিটি নভেম্বর ১১ তারিখে বাজারে আসবে। চোখ ধাঁধানো গ্রাফিক্স এবং একই সাথে লো পিসি ইউজারদের দুঃচিন্তা!!

এসাসিন্স ক্রিড ইউনিটি গেমটি নির্মাণ করেছে ইউবিসফট মনট্রিয়াল এবং গেমটি প্রকাশ করবে ইউবিসফট। গেমটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, প্লে-স্টেশন ৪ এবং এক্সবক্স ওয়ান কনসোলের জন্য বাজারে আসবে। গেমটি এসাসিন্স ক্রিড সিরিজের ৭তম মূল সংস্করণ হিসেবে আসবে।

এসাসিন্স ক্রিড ইউনিটি এর এক্সবক্স ওয়ান বেটা এর দুটি স্ক্রিণশট এবং একটি ১১ মিনিট এর গেম-প্লে কয়েকদিন আগে অনলাইনে লিক হয়ে গেছে। সেগুলো দেখে নাওঃ

http://www.youtube.com/watch?v=_IOeyI8Lt7w

এছাড়াও গেমটির ৩০ মিনিটের একটি গেম-প্লে ইউটিউবে ছাড়া হয়েছে সেটাও এক নজর দেখে নিতে পারোঃ

ADs by Techtunes ADs

http://www.youtube.com/watch?v=7eMoeet22kI

ইউনিটিতে আমরা কমবাট সিস্টেমকে নতুন রূপে দেখতে পাবো। নতুন সিস্টেমের জন্য গেমটির কমবাট সিস্টেমকে রিবিল্ট মানে নতুন করে সাজানো হয়েছে। সিরিজের আগের গেমসের অস্ত্র ছাড়াও গেমটিতে নতুন অস্ত্র হিসেবে আসবে Phantom Blade। এটি তীঁর-ধনুক ধাঁচের একটি সাইলেন্ট অস্ত্র যা দিয়ে দূরের অবজেক্টকে খায়েল করা যাবে। তবে এটি আগের গেমসগুলো Hidden Blade এরই কাজ করবে!

গেমটির ন্যাভিগেশন সিস্টেম কে ইউবিসফট দুটি ভাগে ভাগ করেছে। একটি হচ্ছে Parkour Up এবং অপরটি হচ্ছে Parkour Down। এই দুটি বিভাগের সাহায্যে গেমটিতে নতুন নতুন মুভমেন্ট এবং স্কিল শেখা যাবে।

এসাসিন্স ক্রিড ইউনিটিতে একদম নতুন ফিচার হিসেবে আসছে কো-অপারেটিভ মাল্টিপ্লেয়ার! এজন্য গেমটিতে তোমাকে Taverns নামক একটি সোসাল হাবের মাধ্যমে গেমটিতে তোমাকে তোমার বন্ধুর সাথে ক্যাম্পেইন খেলার সুযোগ করে দেবে। আর গেমটি একই সাথে চারজন কে নিয়ে তুমি কো-অপারেটিভ মাল্টিপ্লেয়ার মোডে খেলতে পারবে! কো-অপারেটিভ মোডে খেলার জন্য গেমটির অনেকগুলো মিশন এবং এক্টিভিটিস রয়েছে তবে কিছু স্টোরিলাইনের মিশনসমূহ শুধুমাত্র সিঙ্গেল প্লেয়ারেই খেলা যাবে।

গেমটির মূল প্লেয়ার চরিত্র হলো Arno Dorian । তার পিতা ফ্রান্সের একজন এসাসিন ছিলো, তবে তার পিতার খুনের পর তাকে টেম্পলার সম্প্রদায়ের এক সিনিয়র পরিবার পালক হিসেবে নেয়। তবে আর্নোর তা জানতো না।

ঘটনাক্রমে আর্নোর পালক পিতা ছিলেন টেম্পলার গ্র্যান্ডমাষ্টার এবং তিনিও খুনের শিকার হন। পালক পিতার খুনের জন্য আর্নো নিজেকে দোষী ভাবে এবং তার পালক পিতার খুনের প্রতিশোধের জন্য সে কাহিনীচক্রে এসাসিন্স সম্প্রদায়ে চলে আসে এবং ধীরে ধীরে তার স্কিল এবং ধৈর্যের মাধ্যমে এসাসিন্স র‌্যাঙ্ক বাড়াতে থাকে। এটা অনেকটা আলটায়ার ইবনে লা আহাদ এবং ইজিও অডিটোরের কাহিনীর মতোই যা আমরা সিরিজের প্রথম দুটি গেমে দেখে এসেছি।

গেমটিতে আর্নোর প্রেমিকা হিসেবে থাকবে একজন টেম্পলার!! যার নাম Elise De LaSerre। আর কাহিনী হলো Elise হচ্ছে আর্নোর পালক পিতা টেম্পলার গ্র্যান্ডমাষ্টার এর কন্যা! গেমটিতে Elise তোমাকে তার পিতার খুনের প্রতিশোধের জন্য বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করবে। আর এভাবেই গেমটিতে টেম্পলার এবং এসাসিন্স সম্প্রদায়ের মাঝে একটি পরিবর্তন আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দেখা যাক কি হয়!

গেমটির পটভূমি সেট করা হয়েছে প্যারিসে আর সময়কাল হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে ফ্রেঞ্চ রেভলুশনকে। গেমটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০১০ সালের এসাসিন্স ক্রিড ব্রাদারহুড গেমটির মুক্তি কিছুদিন পরেই। গেমটির মূল নির্মাতা হচ্ছে ইউবিসফট মনট্রিয়াল আর এরই সাথে Toronto, Kiev, Singapore, Shanghai, Annecy, Montpellier, Bucharest, Quebec এবং Chengdu এর ইউবিসফট স্টুডিওস গুলো গেমটিতে কাজ করেছে।

২০১৪ সালের ই৩ তে গেমটির কো-অপারেটিভ মাল্টিপ্লেয়ার এর ট্রেইলার দেখানো হয়। সেখানে সিরিজে প্রথম বারের মতো ৪ জন মিলে গেমটি কো-অপারেটিভ মাল্টিপ্লেয়ারে খেলা দেখানো হয়। সেখানে প্রায় ১০০০ জন সাধারণ মানুষ গেমটিতে দেখানো হয় যারা প্রত্যেকেই আলাদা এবং প্লেয়ারের ব্যবহারের সাথে নিজেরকে সামলে নেয়!

এসাসিন্স ক্রিড ইউনিটি এর পিসি সংস্করণটি এনভিডিয়ার গেমওর্য়াকস টেকনোলজির সাহায্যে আনা হয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে TXAA Anti-Aliasing, Advanced DX11 Tessellation এবং Nvidia PhysX টেকনোলজি। এনভিডিয়া এবং ইউবিসফটের মধ্যে পার্টনারশীপ রয়েছে বিধায়ই এগুলো হলো আর এরই জন্য আমার মতো এএমডি / এটিআই গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার কারীদের একটু বেগ পেতে হবে গেমটি খেলার সময়!!

ADs by Techtunes ADs

আর গেমটির প্রধান ডিজাইনার বেনজামিন প্লিচ বলেছে গেমটি এসাসিন্স ক্রিড সিরিজের সবচেয়ে কঠিনতম গেম হতে যাচ্ছে। গেমটিতে কাউন্টার বাটন নেই এবং গার্ডদের কে আরো এগ্রেসিভ করে তোলা হয়েছে। তিনি আরো বলেন গেমটি Synchronized Double Assassinations ফিচার করবে!

আগষ্ট, ২০১৪ সালের Assassin’s Creed Rogue গেমটির এনাউন্স করা হয় এবং বলা হয়েছে যে Rogue গেমটির স্টোরিলাইনের সাথে ইউনিটির কিছু সম্পর্ক থাকবে।

তো দেখা যাক গেমটি আমাদের জন্য কি কি চমক আনবে। নভেম্বর ১১ তারিখে মুক্তি পেলে উক্ত সপ্তাহের মধ্যেই বাংলাদেশে গেমটি পাওয়া যাবে বলে আমি আশা করি!

 

নির্মাতা এবং প্রকাশকঃ

 

সিরিজঃ

 

ইঞ্জিণঃ

 

খেলা যাবেঃ

 

মুক্তি পাচ্ছেঃ

 নভেম্বর ১১, ২০১৪

ADs by Techtunes ADs

ধরণঃ

একশন-এডভেঞ্চার,

স্টেলথ

খেলার ধরণঃ

সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

মিনিমামঃ

উইন্ডোজ ভিসতা ৩২ বিট অপারেটিং সিস্টেম,

কোর ২ কোয়াড ২.১৩ গিগাহার্জ গতির প্রসেসর,

জিফোর্স ৮৮০০ জিএস কিংবা রাডিয়ন এইচডি ৩৮৭০ গ্রাফিক্স কার্ড

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

ডাইরেক্ট এক্স ১০ ,

৩০ গিগাবাইট হার্ডডিক্স এর জায়গা

ভালোভাবে খেলতে হলেঃ

উইন্ডোজ সেভেন ৬৪বিট অপারেটিং সিস্টেম

ADs by Techtunes ADs

কোর আই ৫-২৪০০এস ২.৫ গিগাহার্জ গতির প্রসেসর,

৬ গিগাবাইট র‌্যাম,

জিফোর্স জিটিএক্স ৪৭০ কিংবা রাডিয়ন এইচডি ৭৭৯০ গ্রাফিক্স কার্ড

ডাইরেক্ট এক্স ১১,

৩০ গিগাবাইট হার্ডডিক্স এর জায়গা

ADs by Techtunes ADs
Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 663 টি টিউন ও 436 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 81 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমার সবচাইতে প্রিয় গেম সিরিজ। তবে গেমটার সবচাইতে বিরিক্তিকর দিক হল full sync fail & easily detected হয়ে যাওয়া। তারউপর চিট নাই। কিন্তু তারপরও গেম টা আমার সবচাইতে প্রিয়।

আমি খেলতে পারাম না!!আরেকটা কথা, Assassin’s Creed Unity এর সঠিক বাংলা অনুবাদ হবে “গুপ্তঘাতকের ধর্মবিশ্বাস ঐক্য”

    আমি জানি ক্রিড মানে ধর্মবিশ্বাস / নীতিমালা। কিন্তু সিরিজের কাহিনীচক্রের উপর ভিক্তি করেই নামটি নির্বাচন করেছি।

    এ কথা ফেসবুক পেজে বহু বার বলা হয়েছে। 🙂

আপনার রিভিউ পড়ে মারাত্মক মজা পাইলাম। আমি ভাবছিলাম আমার পিছি তে চলবে না। কিন্তু এখন দেখি পানির মত চলবে।

Onek din opekkhay chilam games zone er jnne……. Osthir hoise nd cant wait for this one……. hope so black flag er moto jotil hobe…….

    জ্বী তা তো হবেই। টেম্পলার এবং এসাসিন্সদের মধ্যে বন্ধুত্ব হতে যাচ্ছে মনে হয়।

পর্ব-২৬৬ । 😀 আপনার ধৈর্য আর লেখনি দুটোই অসাধারন । চালিয়ে যান 😀 (Y)

    আশা করি ১০০০ পর্ব পর্যন্ত চালিয়ে যেতে পারবো 😀

মিনিমাম রিকোয়ারমেন্ট তো আছে।আর কি লাগে??:D
আপনাকে ধন্যবাদ।

Level 0

Graphics card shomporke temon dharona chilo nah….. pc kenar shomoy tai….. nVidia gt210
kine felsi ……… ekhn ei graphics ee ami ki ki game khelte parbo ???
amr cpu er full specs dilam…

Processore-core i3 3.4 ghz
mother board-Gigabyte 81m
ram-4gb
hdd-1 tb
Graphics card- 1gb nvidea gt_210

graphics card sara onno kichute shortage thakle bolben plz …..

    আপনার এই পিসি দিয়ে আগামী ৫ বছরের সকল গেমস মিডিয়াম সেটিং দিয়ে খেলতে পারবেন ।

AMD FX-8350 Black Edition Vishera 8-Core 4.0GHz
RAM-4 gb
GPU-amd radeon r7 200 2gb
motherboard-gigabyte 945g-s3.
What do u Think Bro,ami ki Assassins Creed Unity game ta চালাতে পারবো???Graphics Settings Kemon hote pare??

    প্রথমে ডিফল্ট সেটিংয়ে ট্রাই করুন। ভালো পারফরমেন্স পেলে হাই সেটিং দিবেন।

ধন্যবাদ গেমওয়ালা।

vai amar pc ta oto valo na dehken na amar pc te cholbe naki

nvdia geforce 210

ram 3 gb ddr3

cpu 2.60 ghk

hdd 520 gb

kintu amar pc te ac blag flag ta valo vabe cholselo
eti ki cholbe