ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস গেম সম্পর্কে কিছু কথা

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস হলো একটি বিনামূল্যের অনলাইন ভিডিও গেম; তবে অর্থ ব্যয় করে রত্ন কিনে এতে দ্রুত উন্নয়ন করা যায়। ২০১২ সালে সুপারসেল এই গেমটি তৈরি করে। বর্তমানে সুপারসেল এর সদর দপ্তর ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কিতে অবস্থিত।

গেমটি ২০১২ সালের ২ আগস্ট আইওএস প্লাটফর্মে মুক্তি দেওয়া হয়। অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে কানাডা ও ফিনল্যান্ডে ২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর মুক্তি দেওয়া হয় এবং পরবর্তীতে ২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর গুগল প্লেতে আন্তর্জাতিকভাবে গেমটি মুক্তি দেওয়া হয়। এটি অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি গেম। বর্তমানে এটি গুগল প্লে এর সর্বোচ্চ ডাউনলোড হওয়া গেমের তালিকায় ৯৬ তম অবস্থানে আছে। এছাড়াও এটি এখনো পর্যন্ত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আয় করা গেম, প্রতিদিন এই গেম থেকে প্রায় এক মিলিয়ন ডলার আয় হয় দেখুন ভিডিওতে

এটি মূলত একটি কৌশলগত গেম। শুরুতেই খেলোয়াড় একটি গ্রাম পায়। গ্রামে বিভিন্ন ধরনের ঘর থাকে, বিভিন্ন স্থাপনা থাকে। গ্রামের মূল অংশটি হলো "টাউনহল"। এটির উন্নয়ন করালে বিভিন্ন সুবিধা খুলে যায়। টাউন হল এখন সর্বোচ্চ ১১ ধাপ পর্যন্ত উন্নীত করা যেতে পারে।

খেলোয়াড়রা অন্য খেলোয়াড়দের গ্রামকে আক্রমণ করে স্বর্ণ, এলিক্সার ও ডার্ক এলিক্সার আনতে পারে। এছাড়া একাধিক খেলোয়াড় একসাথে হয়ে সর্বোচ্চ ৫০ জনবিশিষ্ট দল গঠন করতে পারে, যাকে ক্ল্যান বলা হয়। একটি ক্ল্যানের সদস্যরা (ন্যূনপক্ষে ১০ জন) অন্য ক্ল্যানের সদস্যদের গ্রামে আক্রমণ করার মাধ্যমে ক্ল্যান যুদ্ধ করতে পারে; যার ফলাফলের প্রভাব যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী সকল খেলোয়াড়রাই ভোগ করে। এই ক্ল্যান যুদ্ধকেই গেমটির জনপ্রিয় হওয়ার অন্যতম কারণ হিসেবে দেখা হয়। এছাড়াও ক্ল্যানের সদস্যরা নিজেদের মধ্যে আলাপচারিতা, বন্ধুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জ ও সৈন্য প্রদান করতে পারেন। এসব ক্ল্যানের প্রধান থাকেন একজন নেতা; যিনি তাঁর ক্ল্যানের সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। নেতা ছাড়াও তুলনামূলক সীমিত ক্ষমতা নিয়ে যথাক্রমে সহনেতা, অগ্রজ ও সদস্য থাকে। খেলোয়াড়রা ইচ্ছা করলেই এসব ক্ল্যান পরিবর্তন করে অন্য ক্ল্যানে যেতে পারে অথবা নতুন ক্ল্যান তৈরি করতে পারে।

বিস্তারিত দেখতে ভিডিওটি দেখুন

চাকরি সম্পর্কিত  ওয়েবসাইট সময় হলে ঘুরে আসবেন।

টিউনটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। 

ফেইসবুকে আমি

Level 3

আমি জুয়েল আহমদ লিটন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 61 টি টিউন ও 16 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 5 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

আমি জুয়েল আপনাদের উৎসাহ আর উদ্দীপনা পেলে টেকনোলজি সম্পর্কে নতুন কিছু শেয়ার করার চেষ্টা করব।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস