এডসেন্স দিয়ে ইনকাম করা টাকা হালাল নাকি হারাম

টিউন বিভাগ গুগল
প্রকাশিত

আবারো নতুন কিছু নিয়ে হাজির হলাম।

আর হা ভালো লাগ্লে আমাদের সাইট থেকে ঘুরে আসবেন।

এডসেন্স দিয়ে ইনকাম করা টাকা হালাল নাকি হারাম এ সম্পর্কে জানতে হলে প্রথমে জানতে হবে,

 ১. Google AdSense দিয়ে কিভাবে আর্ন হয়?

একজন ব্লগার ব্লগ তৈরী করে সেখানে গুগলের অ্যাডস বসিয়ে ইনকাম করে, আবার একজন ইউটিউবার ইউটিউবে চ্যানেল তৈরি করে ভিডিও তে অ্যাডস বসিয়ে ইনকাম করে।

আমরা অনেকেই জানি, ওয়েবসাইটে কোন ভিজিটর ভিজিট করে যদি Ads এ ক্লিক করে তাহলে ওয়েবসাইটের মালিকের আর্ন হয়।

আবার ইউটিউব চ্যানেলেও যদি কোন ভিউয়ারস কোনো চ্যানেলের ভিডিও দেখার সময় Ads দেখে বা ক্লিক করে তাহলে ওই ইউটিউব চ্যানেলের মালিকের আর্ন হয়।

২. AdSense এর টাকা হালাল না হারাম?

এডসেন্স দিয়ে উপার্জিত টাকা হালাল।

কারন একজন ব্লগার বা ইউটিউবার কষ্ট করে কন্টেন্ট তৈরী করে আর ভালো মানের কন্টেন্ট তৈরী করার কারনে ভিজিটররা টিউন পড়ে, দু একটা Ads এ ক্লিক করে ; তাই বলা যায় এডসেন্স দিয়ে ইনকাম করা টাকা হালাল।

আবার ইউটিউবের পদ্ধতি টাও সেম।

অনেক বুদ্ধিমানরা মনে করেন ওয়েবসাইটে বা ইউটিউবের ভিডিও দেখার সময় খারাপ Ads শো করে আর এ খারাপ অ্যাডস থেকে উপার্জিত টাকা হারাম, কেনো একজন ভিজিটর বা ভিউয়ারসকে খারাপ Ads দেখানো হয় তা নিচের প্যারাটি পরেই বুঝতে পারবেন।

৩. AdSense ভিজিটরদেরকে খারাপ অ্যাড দেখায় কেন?

একজন লোক যে ডিভাইস থেকে Google এ গিয়ে যা কিছু সার্চ করে তা গুগল সেভ করে রাখে।

এবং যখনই ওই কাঙ্ক্ষিত ভিজিটরটি কোনো ওয়েবসাইট ভিজিট করে তখন ওই ভিজিটরের পূর্বের সার্চ লিস্ট চেক করে এবং সেই অনুযায়ী তাকে Ads দেখায়।

এখানে গুগল এডসেন্সের বা কন্টেন্ট ক্রিয়েটরের কোনো দোষ নেই, এটা কাঙ্ক্ষিত ভিজিটরের সার্চ করার ফল মাত্র।

৪. Adsense দিয়ে ইনকামের টাকা অনেকে হারাম বলে কেন?

অনেক ব্লগে টিউন এবং চ্যানেলের ভিডিও দেখেছি তা থেকে যা বুঝতে পারলাম তা হলোঃ

অনেক যুক্তি দিয়ে থাকে একজন ব্লগার নিজে আর্টিকেল না লিখে অন্যের আর্টিকেল কপি করে নিজের ওয়েবসাইটে পাবলিশ করে Google AdSense দিয়ে ইনকাম করে।

এখানে তাদের কথার উত্তর দিয়ে নেই, অন্যর আর্টিকেল কপি পেস্ট করে এডসেন্স একাউন্ট টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়, গুগল এডসেন্স টিম সর্বদা এডসেন্স এপ্রুভাল সাইটটির অ্যাকটিভিটি মনিটর করে ; যদি কোনো রুলস অমান্য করে তাহলে Ads Limit বা এডসেন্স একাউন্ট সাসপেন্ড করে দেয়।

আবার ইউটিউব চ্যানেলেও অন্যের ভিডিও আপলোড করে ইনকাম করার সুযোগ নেই, তা ও সেম অ্যাকশন নিয়ে থাকে গুগল এডসেন্স টিম।

৫. Google AdSense থেকে উপার্জিত টাকা সম্পুর্ন হালাল এতে কোনো সন্দেহ নেই

একজন Content Creature তার মাথা ভাঙ্গা শ্রম, ধৈর্য ও সততা দিয়ে অক্লান্ত পরিশ্রম করে কন্টেন্ট তৈরী করে এ লাইনে টিকে থেকে উপার্জন করে।

আর যারা কষ্ট না করে অন্যের লেখা বা ভিডিও চুরি করে ইনকাম করতে গিয়ে সাসপেন্ড হয়েছে বা ইনকাম করতে ব্যার্থ হয়েছে তারাই শুধু ইউটিউবে বা বিভিন্ন ব্লগে Google AdSense দিয়ে ইনকাম করা টাকা হারাম হারাম বলে চিল্লাচিল্লি করে।

Level 0

আমি নিলা খান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 3 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 8 টি টিউন ও 4 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 13 টিউনারকে ফলো করি।

https://www.tipsnewsbd.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আপনার লেখাটি পড়ে ভাল লাগলো। হালাল বা হারাম এটা আমরা ইচ্ছামত যেখানে খুশি ব্যবহার করতে পারিনা।এটার জন্য যেমন বিজ্ঞান বা আইটি জ্ঞান থাকা লাগবে তেমনি ইসলামিক জ্ঞানও থাকা লাগবে।তাই কোন কিছু হালাল হারাম বলার আগে ঐ বিষয়ে ইসলাম কি বলে সেটা জেনে বলাই ভাল। আশা করি বুঝাতে পেরেছি।ধন্যবাদ।

welcome…..