ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

সেরা দশ থেকে বেছে নিন আপনারটি [পর্ব-০৮] :: ফটোগ্রাফি এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন দুটোই হোক এবার এক সাথে! বিশ্বসেরা সফটওয়্যার তো সাথে থাকবেই!!

সেরা দশ থেকে বেছে নিন আপনারটি

————————–— بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ ————————–—

সুপ্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি সবাইকে আমার সালাম এবং শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি সফটওয়্যার সমুদ্রে লাখো কোটি সফটওয়্যারের ভিড়ে সেরা সফটওয়্যার খুঁজে পাবার নিমিত্তে আমার চেইন টিউনের ৮ম পর্ব।

ADs by Techtunes ADs

ফটোগ্রাফি এবং ফটো এডিটিং বর্তমান সময়ে খুব জনপ্রিয় একটি বিষয়। মোবাইল ফোনের ক্যামেরার উন্নতির সাথে যে জিনিসটা মানুষের মাঝে বেশি আবির্ভূত হয়েছে সেটা হলো ফটোগ্রাফির নেশা। যেমন তেমন মোবাইলেই আজকাল ভালো মানের ক্যামেরা পাওয়া যায়। কিন্তু একটা বিষয় মনে রাখতে হবে ভালো ক্যামেরা হলেই ভালো ফটোগ্রাফার হওয়া যায় না। ছবিকে প্রাণবন্ত করে তোলার জন্য প্রয়োজন ছবি এডিটিংয়ে পর্যাপ্ত জ্ঞান। ফটোশপ দিয়ে আমরা প্রায় সব ধরনের কাজ করতে পারলেও ফটোশপ শেখা খুব সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। আমি চাচ্ছিলাম খুব কম পরিশ্রমে আপনারা যেন ফটো এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনে এক্সপার্ট হতে পারেন। সেই জন্য বরাবরের মতো খুঁজে চলা সেরা সফটওয়্যারের মাঝে পেয়ে গেলাম সেরাটি। আজকের সফটওয়্যারটি ড্রয়িং, ফটো এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য গত কয়েক বছর ধরে সেরাদের মধ্যে স্থান দখল করে আছে।

২০১৫ সালে তালিকায় শীর্ষে থাকা সফটওয়্যারগুলোর নাম

২০১৫ সালে তালিকায় শীর্ষে থাকা ফটো, গ্রাফিক্স এবং ড্রয়িং করার সফটওয়্যারগুলোর নাম নিচে দেওয়া হলো। ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতার আলোকে এবং সফটওয়্যারগুলোর ফিচারের ভিত্তিতে নিচের লিস্টটি করা হয়েছে।

এক নজরে দেখে নিন সেরাদের তালিকায় কোন কোন সফটওয়্যার স্থান দখল করে আছে
  • 01. Xara Photo & Graphic Designer
  • 02. DrawPlus
  • 03. Autodesk SketchBook Pro
  • 04. ArtRage Studio Pro
  • 05. Real-Draw Pro
  • 06. Corel Painter Essentials
  • 07. OpenCanvas
  • 08. Sketsa SVG Editor

উপরের লিস্টটি থেকে আপনারা হয়তো নিশ্চিত হয়েছেন যে তালিকায় প্রথমে থাকা Xara Photo & Graphic Designer সফটওয়্যারটিই হলো সবার সেরা সফটওয়্যার। যাহোক, ডাউনলোড শুরু করার আগে চলুন সফটওয়্যারটির ফিচার সম্পর্কে একটু জেনে নিই।

Xara Photo & Graphic Designer

এই সফটওয়্যারটির অসংখ্য ফিচারের মধ্যে অন্যতম হলো এর সাহায্যে এডোবি ইলাস্ট্রেটর এর মতো ভেক্টর গ্রাফিক্স ডিজাইন করা যায়। এই জন্য ড্রয়িং সফটওয়্যারের তালিকায় এটাকে প্রথমে রাখা হয়েছে। যারা ভেক্টর গ্রাফিক্স সম্পর্কে জানেন না তাদের বলছি ভেক্টর গ্রাফিক্স হলো এমন এক জিনিস যেটাকে জুম করা হলেও ছবির কোয়ালিটির কোন পরিবর্তন হবে না। অর্থাৎ এর ক্ষুদ্রতম পিক্সেল আপনি কোনদিন দেখতে পারবেন না। তবে ভেক্টর গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যারটির অসংখ্য ফিচারের মাঝে মাত্র একটি, আরও যে সমস্ত ফিচার সেগুলোর আলোচনায় আজকের টিউনের মুল বিষয়। প্রথমেই চলুন সফটওয়্যারটি সম্পর্কে একটা ওভারভিউ দেখে নেই।

এক নজরে দেখে নিন সফটওয়্যারটি সম্পর্কে সাধারন তথ্য

অসাধারন ফটো রিটাচিং

    • আপনি খুব নিখুত এবং সুন্দর ভাবে ফটো রিচাচিং করতে পারবেন। ছবিতে অপ্রয়োজনীয় দাগ দূর করা, স্কিনের উজ্জলতা বাড়ানো কমানো, কালার কন্ট্রোল ইত্যাদি কাজ খুব কম পরিশ্রমে এবং সুন্দরভাবে করতে পারবেন।

    ফটো স্কেচ তৈরী

      • যেকোন ছবি থেকে এক ক্লিকে তার স্কেচ তৈরী করে ফেলতে পারবেন। সেগুলো পরিপূর্ণ ডিটেইল দিয়ে এতোটাই প্রাণবন্ত করতে পারবেন যে দেখে মনে হবে সত্যিকারের পেন্সিলে আঁকা ছবি।

      কনটেন্ট অ্যাওয়ার টুল

        • এই টুলসটি খুব গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। এর সাহায্যে যেকোন ছবি থেকে অপ্রয়োজনীয় অংশ এমন ভাবে দূর করতে পারবেন যে দেখে কোন ভাবেই বুঝা যাবেনা যে আগে ঐ জিনিস সেখানে ছিলো। নিচের ছবি দেখলেই সব বুঝতে পারবেন।

        প্যানোরমিক ছবি তৈরী

          • খুব সহজেই তৈরী করতে পারবেন চমৎকার এবং মুনমুগ্ধকর প্যানোরমিক ছবি। প্যানোরমিক ছবি হলো যে ছবিতে চারপাশের সব কিছু দেখা যায়।

          ভেকটর গ্রাফিক্স তৈরী এবং সহজে ইমপোর্ট এক্সপোর্ট সুবিধা

            • সফটওয়্যারটির সাহায্যে খুব সহজে ভেকটর গ্রাফিক্স তৈরী করতে পারবেন। তাছাড়া বিভিন্ন ফরমেটের যেকোন গ্রাফিক্সকে খুব সহজে ইমপোর্ট বা এক্সপোর্ট করতে পারবেন।

            ADs by Techtunes ADs

            পিডিএফ এবং পিএসডি সাপোর্ট

              • সফটওয়্যারটি পিডিএফ এবং পিএসডি ফাইল সাপোর্ট করে। সুতরাং যেকোন পিএসডি বা পিডিএফ ফাইলকে সফটওয়্যারটির সাহায্যে এডিট করতে পারবেন।

              এছাড়াও যে সমস্ত সুবিধা রয়েছে-

              • ছবির কোন প্রকার ক্ষতি ছাড়ায় খুব দ্রুত গতিতে কাজ করতে পারবেন।
              • সফটওয়্যারটিতে রয়েছে প্রয়োজনীয় ফটো এডিটিং টুলস
              • সফটওয়্যারটিতে রয়েছে এডভান্স ফটোম্যানুপুলেশন সুবিধা
              • অসংখ্য সুপার ক্রিয়েটিভ ইফেক্ট রয়েছে ছবিকে প্রাণবন্ত করার জন্য
              • চমৎকার ফটোস্কেলিং সুবিধা যার সাহায্যে ক্যানভাস ঠিক রেখে মুল ফোকাসকে অনেক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।
              • সফটওয়্যারটিতে রয়েছে অসাধারন ড্রয়িং টুলস।
              • এতে রয়েছে এডভান্স টেক্সট হ্যান্ডলিং ফিচার।
              • খুব সহজে তৈরী করতে পারবেন ৩ ডাইমেনশনাল গ্রাফিক্স।
              • খুব সহজে অ্যানিমেটেড ফ্ল্যাশ ফাইল তৈরী করতে পারবেন।
              • শুধু মাত্র মাউস ড্রাগ এন্ড ড্রপ করেও আপনার কাঙ্খিত কাজ করতে পারবেন।

              এতো কিছু দেখার পর মনে হয় আত্বতৃপ্তিতে ভুগছেন এই ভেবে যে সব কিছু দেখে ফেলেছেন। আসলে আপনি মেইন ফিচারের সামান্য কিছু অংশ দেখেছেন মাত্র। বাকি ফিচারগুলো যখন সফটওয়্যারটি ব্যবহার করবেন তখনি বুঝতে পারবেন। ফটোগ্রাফি বিষয়ে যেকোন একটা সফটওয়্যারের প্রতি আকৃষ্ট না থেকে হাতের কাছে যা পাবেন সবগুলো ব্যবহার করার চেষ্টা করে দেখতে পারেন। কে জানে কোনটা কার চেয়ে ভালো।

              ডাউনলোড & ফুল ভার্সন ইনস্টলেশন

              ডাউনলোড Xara Photo & Graphic Designer Full:

                • সফটওয়্যারটির ফিচারগুলো যদি আপনার ভালো লেগে থাকে এবং আপনার প্রয়োজনের সাথে যদি মিলে যায় তাহলে নিচের অফিশিয়াল ডাউনলোড লিংক থেকে মাত্র ৭৫ মেগাবাইটে সফটওয়্যারটির ৩০ দিনের ট্রায়াল ভার্সন ডাউনলোড করে নিন।
                ডাউনলোড | সাইজ ৭৫ মেগাবাইট
                  • এরকম ভাবার কোন কারন নেই যে ট্রায়াল ভার্সন হাতে ধরিয়ে দিয়ে বিদায় নিবো। সফটওয়্যারটি সারা জীবনের জন্য ফ্রি ব্যবহার করতে চাইলে নিচের ডাউনলোড লিংক থেকে সফটওয়্যারটির জন্য আমার দেওয়া ১১ মেগাবাইটের মেডিসিন ফাইলটি সংগ্রহ করুন।
                  ডাউনলোড মেডিসিন ফাইল | সাইজ ১১ মেগাবাইট

                  ফুল ভার্সন ইনস্টলেশনঃ

                  • সফটওয়্যারটি যদি মেডিসিন ফাইল সহ সফল ভাবে ডাউনলোড করে থাকেন তাহলে স্বাভাবিক নিয়মে ইনস্টল করুন। কিন্তু ইনস্টলেশন প্রক্রিয়া শেষে দয়া করে সফটওয়্যারটি ওপেন করবেন না। ওপেন হয়ে গেলে তো কিছু করার নেই, তাড়াতাড়ি বন্ধ করে ফেলুন। এবার আমার দেওয়া মেডিসিন ফাইলটি খুলুন এবং ভেতরে যা কিছু পাবেন সবকিছু ৬৪ বিট উইন্ডোজের জন্য C:\Program Files (x86)\Xara\Xara Photo Graphic Designer 10 লোকেশনে এবং ৩২ বিট উইন্ডোজের জন্য C:\Program Files\Xara\Xara Photo Graphic Designer 10 লোকেশনে পেস্ট করুন। ফাইল ওভার-রাইট করতে চাইলে অনুমতি দিন।
                  • এবার ফায়ারওয়াল দিয়ে সফটওয়্যারটির মেইন ফাইলের ইন্টারনেট এক্সেস ব্লক করে দিন। কীভাবে ফায়ারওয়্যাল ব্যবহার করতে হয় যদি না জানেন তাহলে নিচের লিংকে দেখুন।
                  • এবার নিশ্চিন্তে সফটওয়্যারটি ওপেন করুন এবং সারাজীবন ফুল ভার্সন ব্যবহার করুন। তবে সফটওয়্যারটি ওপেন করার পর একটি এরর মেসেজ দেখাতে পারে। সেক্ষেত্রে এরর মেসেজ আসলে আপনি Current Option সিলেক্ট করুন। আশা করি এই পর্যন্ত আসতে কারো কোন সমস্যা হবে না। সমস্যা হলে নিজে নিজে কয়েকবার চেষ্টা করুন। তারপরও যদি সমস্যা হয় সেক্ষেত্রে আমি তো আছিই।

                  শেষ কথা

                  টিউনটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে অথবা বুঝতে যদি কোন রকম সমস্যা হয় তাহলে আমাকে টিউমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। কারন আপনাদের যেকোন মতামত আমাকে সংশোধিত হতে এবং আরো ভালো মানের টিউন করতে উৎসাহিত করবে। সর্বশেষ যে কথাটি বলবো সেটা হলো, আসুন আমরা কপি পেস্ট করা বর্জন করি এবং অপরকেও কপি পেস্ট টিউন করতে নিরুৎসাহিত করি। সবার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি। দেখা হবে আগামী টিউনে।

                  আপনাদের সাহায্যার্থে আমি আছি-

                  ফেসবুক | টুইটার | গুগল-প্লাস

                  ADs by Techtunes ADs
                  Level 6

                  আমি সানিম মাহবীর ফাহাদ। Supreme Tuner, Techtunes বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 179 টি টিউন ও 3526 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 112 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

                  অন্য আর দশটা মানুষের মতোই একদিন এই পৃথিবীতে আসছিলাম। তারপর থেকে নিজের মতো করেই নিজের পৃথিবীতে বেঁচে আছি। এরপর একদিন টুপ করে জীবন্ত পৃথিবী থেকে ঝরে পড়বো। জীবনতো এটাই, তাই না?


                  টিউনস


                  আরও টিউনস


                  টিউনারের আরও টিউনস


                  টিউমেন্টস

                  ধন্যবাদ অসাধারণ সব সফটওয়্যার আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

                  বরারবরের মত কাজের এবং সেরা সফটওয়্যার গুলো আপনি তুলে ধরতেছেন, আর শুধু নাম তুলে পালিয়ে যাচ্ছেন না সাথে দিয়ে যাচ্ছেন ফ্রিতে এর চাইতে বেশি কি আর চাওয়ার থাকতে পারে আমাদের….অসংখ্য ধন্যবাদ

                    @হাবিব উল্লাহ: ভোগে সুখ নাই ভাই, ত্যাগেই প্রকৃত সুখ। বাংলার মানুষের কাছে সেরা কিছু সফটওয়্যার পৌছে দিতে পারছি এটাই সব চেয়ে আনন্দের ব্যাপার!!!

                    **বরাবরের মতো সুন্দর টিউমেন্টের জন্য ধইন্যার বন্যা 🙂 আশা করি ভেসে যাবেন………

                  ধন্যবাদ ভাই।

                  ধন্যবাদ দিলে ছোট করা হবে । সত্যি কথা বলতে গেলে , এখন আপনার জন্যই এখানে আসি ।

                  অনেকদিন বাদে এই সিরিজের টিউন করলেন । ধন্যবাদ

                  আপনি সিরিজ শেষ করে ফেললে আমরা এতো অসাধারণ সেরা সফটওয়্যার গুলো কোথায় পাবো?? চালিয়ে যান। অনেক ধন্যবাদ।

                    সব কিছুইতো এক সময় শেষ করতেই হয়। তবে ১৫-২০টা পর্ব পর্যন্ত অবশ্যই করবো। তবে তারমানে এই না যে সিরিজ ছাড়া সফটওয়্যার পাবেন না। সেরা সফটওয়্যার সিরিজ ছাড়াও শেয়ার করা হবে।

                    **টিউমেন্টের জন্য ধন্যবাদ বেলায়েত হাসান লিমন ভাই 🙂

                  ডাউনলোড করতে বাধ্য হলাম