ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

গুজব, ঘটনা বা রটনা কিভাবে তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পড়ে :: অসুন দেখে নেই!!!

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম। আসসালামুআলাইকুম । সবাইকে আমার আন্তরিক প্রীতি, সম্মান, শুভেচ্ছা ও ভালবাসা জ্ঞাপন করছি। আশাকরি আল্লাহ্‌র অশেষ রহমতে সবাই ভালো আছেন।

ADs by Techtunes ADs

এই গুজবের অংকটা “ইয়াকভ পেরেলমান” এর মূল লেখা থেকে অনূবাদ করা হলো।  ভাবানুবাদ করা হয়েছে। লেখাটি ভালো না লাগলে দয়া করে ইয়কভ পেরেলমানকে দোষারূপ করবেন না সব দ্বায়ভার অনূবাদকারীর। উল্লেখ্য পেরেলমান যখন এই লেখাটি লিখেছিলেন তখন মিডিয়ার এত প্রভাব ছিলো না ; দয়া করে কেউ মিডিয়াকে টেনে আনবেন না।

গুজব, ঘটনা বা রটনা যে কতো তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পড়ে তা আমরা সবাই জানি। একটা ঘটনা বা র্দুঘটনা হয়তো সরাসরি চোখে দেখেছে মাত্র কয়েক জন। অথবা বানোয়াট কোনো কথাও হতে পারে। কিন্তু দু’এক ঘন্টার মধ্যে লোকের মুখে মুখে রটিয়ে পড়ে সারা শহরে। এর অসাধারণ গতি দেখলে অবাক হতে হয়। কেউ কি ভেবে দেখেছেন এত দ্রুত কিভাবে ছড়ায়।

কিন্তু সমস্ত ব্যাপারটা অংকের সাহায্যে দেখলে  দেখা যাবে এর ভিতর তেমন কোনো চমক লাগানো ব্যাপার নেই।

আসুন অংকের মাধ্যমে ব্যাপারটি দেখি 

রাজধানী থেকে একটা চমকপ্রদ খবর নিয়ে একজন লোক তার নিজের শহরে এলো। ধরুন সেই শহরে ৫০,০০০(পঞ্চাশ হাজার) লোক বাস করে। সে নিজ শহরে এসে তিনজন মাত্র লোককে কথাটি বললো। মনে করুন তাতে তার সময় লাগলো ১৫মিনিট।

তাহলে, লোকটি পৌঁছাবার ১৫মিনিট পরে, ধরা যাক ৮ টা ১৫ মিনিটে খবরটা জানলো মাত্র চারজন। সে নিজে আর স্থানীয় তিনজন বাসিন্দা।

এই তিনজনের প্রত্যেকেই অন্য তিনজনকে খবরটা বলতে বেরিয়ে গেলো। এতে লাগলো আরও ১৫মিনিট। তাহলে আধাঘন্টা বাদে, ৪+(৩x৩)=১৩ জন লোকের ভেতর সংবাদটা জানাজানি হয়ে গেলো। শেষ যে নয়জন কথাটা জেনেছিলো, তারা আবার তিনজন করে বন্ধু বান্ধবকে ঘটনাটা জানালো। সকাল ৮ টা ৪৫ মিনিটে খবরটা জানলো : ১৩+(৩x৯)=৪০ জন বাসিন্দা।

চমকপ্রদ গুজবটি যদি এভাবে ছড়াতে থাকে, অর্থাৎ শোনবার ১৫ মিনিটের ভেতর প্রত্যেকেই যদি আর তিনজনকে খবরটা বল, তাহলে ফলাফলটা এমন দেখাবে।

ADs by Techtunes ADs

সকাল ৯টার সময় খবরটা জানবে ৪০+(৩x২৭)=১২১ জন

সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে খবরটা জানবে ১২১+(৩x৮১)=৩৬৪

সকাল ৯টা ৩০মিনিটে খবরটা জানবে ৩৬৪+(৩x২৪৩)=১০৯৩ জন।

তার মানে দাঁড়াচ্ছে দের ঘন্টার ব্যাবধানে খবরটা জানাজানি হবে প্রায় ১১০০জনের মধ্যে। ৫০,০০০ জনের শহরে অবশ্য ১১০০জনকে তেমন বেশী মনে হচ্ছে না। কেউ কেউ ভাবতে পারেন সমস্ত শহরে গুজবটি জানতে সময় লাগবে।

দেখা যাক পরবর্তি ধাপগুলো।

সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে খবরটা জানবে ১০৯৩+(৩x৭২৯)=৩২৮০

সকাল ১০টা নাগাদ খবরটা জানবে ৩২৮০+(৩x২১৮৭)=৯৮৪১

সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে খবরটা জানবে ৯৮৪১+(৩x৬৫৬১)=২৯,৫২৪ (শহরের জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশী মানুষ)

দেখা যাচ্ছে সকাল ৮টার সময় যে খবরটি জানতো একজন  সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে খবরটা শহরের সবাই জেনে যাবে।

ADs by Techtunes ADs

খবরটা ছড়ানোর সংখাগুলোর দিকে একটু নজর দিলে দেখা যাচ্ছে-

১+৩+(৩x৩)+(৩ x ৩ x ৩)+(৩ x ৩ x ৩ x ৩)+ ……এভাবে...............

আমার ব্যাক্তিগত মতামত গুজব, ঘটনা বা রটনা  আরও দ্রুত ছড়ায়। এখানে ১৫মিনিটে ১জন ৩জনের কাছে খবরটি পৌঁছে দিচ্ছে। গ্রামের একটি চায়ের দোকানে মনগড়া একটি কাহিনী বলার কিছুক্ষন পড়ে সাড়া গ্রামে ছড়িয়ে যাবার অনেক প্রমাণ আছে। এই গুজব ছড়ানোর অংক দেবার সাথে আমার একটি ঘটনা মনে পড়ছে। ৮-১০বছর আগেকার কথা। আমার এক দুষ্টো বন্ধু আমার আর এক বন্ধুর এইডস হয়েছে বলে কয়েক জনকে জানালেন। পরবর্তি ২-৩ দিনের মধ্যে লোকজনের প্রচুর আনাগোনা লক্ষ্য করা গেলো। বেচারার হয়েছিলো জন্ডিস!!!

কষ্ট করে আমার এই টিউনটি দেখার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমি আপনাদের ভালবাসায় সিক্ত ও পরিতৃপ্ত। আপনাদের ব্যাপক সাড়া আমার নিত্যদিনের প্রেরণা।

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি মোঃ আসিফ- উদ-দৌলাহ্। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 116 টি টিউন ও 1147 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

মা ও বাংলা ভাষার কাঙ্গাল


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

মোটামুটি এমএলএম এর অংকের মত লাগলো।যতই জানছি ততই এই গনিতবিদের প্রতি স্রদ্ধা বাড়ছে।

Level 0

Apnito genius vai, ak onko die polynomial ,series ,permutation ,combination sob bujie dilen . Awesome

নতুন কিছু জানলাম

Level 0

ভাই এটাতো পুরাই M.L.M business্‌

Level 0

নবাবে খেপছে। ধুমাই টিউন মারতেছে খালি। ভাল মানের টিউন তাই পরতেও ভাল লাগে। কিন্তু মাথ ভাল পারি না বইলা আমারে ক্লাস ৯ এ কমার্স দিছিল, তাই মাথ দেখেলেই ভয় লাগে 🙁

    @শরীফ ভাই: জাবেদা, ফাইনাল একাউন্ট, নগদান এইগুলো আমি মোটেও জানি না। এ্ই সাবজেক্ট গুলো আমার মাথায় ঢোকে না। ভয় পাই!!!
    তবে কমর্সের একটা প্রশ্ন আমি অনেককেই করি আপনাকেও করছি-
    শরীফ সাহেবের ঘরে আগুন লেগে ৫লক্ষ টাকার মালামাল পুরে গেলো। এটা কি ডেভিড নাকি ক্রেডিট?

      @মোঃ আসিফ- উদ-দৌলাহ্: আপনি আগুন্টা শরীফ সাহেবের গুদামঘরে লাগালে জবাব দেবার চেস্টা করতাম 😛 ঘরে লাগাতে ব্যক্তিগত হিসাব আর মূলধন হিসাবে গোলযোগ লাগছে।পুরো জাবেদা দেখতে হবে।তাহলে পারবো। 😀 আমিও ইন্টারে কমার্সে ছিলাম

        @Ochena Balok: বাহ্!!! সম্পার্ট উত্তর।
        আর একটা প্রশ্ন। এটা অবশ্য সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য।
        পুরোনো দিনের বিল্ডিং কিংবা প্রসাদ গুলোর দরজা জানালার উপরটা অর্ধবৃত্ত বা কার্ভ হয় কেনো?

Level 0

হে হে আমারে কমার্স দিলেও তো আমি কমার্স পরি নাই। ঢেলা মাইরা সাইন্স নিচিলাম। 😛 তাই আমিও জানি না। তয়ে ভার্সিটি তে একবার কমার্স এর কিছু জিনিস পড়তে হইছিল, কঠিন লাগে নাই ল 🙂

সুন্দর টিউন ভাইয়া, বেশ সহজে বুঝতে পারলাম । আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

সুন্দর টিউন ছোট নবাব

আপনার প্রতিটি টিউন ই একটু অন্যরকম…………জতিল……………পরবরতি টিউন কবে পাবো?