ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ব্লগ/ওয়েবসাইট কন্টেন্ট কপি আটকানো যায়না কেন

ওয়েবসাইট কিম্বা ব্লগের লেখা চুরি এবং সেটা আটকানোর নানাবিধ উপায়স্বরূপ অনেকেই অনেক কিছু ইতিমধ্যেই লিখেছেন। সেইসব টউনের মন্তব্যের ঘরে দেখেছি এক্সপার্টরা তার পরেও কপি করে লেখা পেস্ট করে দেখিয়েছেন। কিন্তু মূল কথাটি হচ্ছে কন্টেন্ট কপি রুখে দেওয়ার মতো ব্যবস্থা করা আসলেই কঠিন। পুরোপুরি রুখে দেওয়া যাবেনা একেবারেই। যেটুকু করা যাবে তা হল কপি করাকে অনেকটাই কঠিন করে দেওয়া যাবে। না, আমার এই লেখা আরেকটা টিপস এবং ট্রিকস নিয়ে লেখা নয়। অনেকেরই মনে এই নিয়ে প্রশ্ন আছে কিভাবে কন্টেন্ট চুরি আটকানো যাবে। উত্তর একটাই - আটকানো যাবেনা।

ADs by Techtunes ADs

কেন আটকানো যাবেনা? সেটাও জেনে রাখা ভালো। খুব সহজ এবং সরল কারনেই আটকানো যাবেনা। ব্যাপারটা সামান্য ভেবে দেখলেই বুঝতে পারবেন (যারা এই বিষয়ে জানেন না এবং উপায় খুঁজে চলেছেন)। আমাদের ব্রাউজারে যখনই কোনো ওয়েবসাইট লোড হয়, ব্রাউজার দেখে এবং পড়ে সেই ওয়েবসাইটের কোড'কে। সেই কোড অনুযায়ী ব্রাউজার আমাদেরকে সেই ওয়েবসাইট দেখতে সাহায্য করে।

আমরা যদি এই কোড উধাও করে দিতে পারি, তাহলেই কন্টেন্ট চুরি রুখে দেওয়া সম্ভব হতো।

কিন্তু যদি আমরা সোর্স কোড উধাও করে ফেলি, তাহলে মানুষের সাথে সাথে ব্রাউজারও দেখতে পাবেনা ওই কোড, ফল স্বরূপ আমরা ওয়েবসাইটটাই দেখতে পারবোনা ব্রাউজারে। প্রযুক্তির এটা খুবই বেসিক একটা ব্যাপার। এই সামান্য ব্যাপারটা যারা জানেন না কিম্বা এইভাবে ভেবে দেখেননি, তারাই নিরন্তর খুঁজে চলেছেন কিভাবে কোন উপায়ে কন্টেন্ট চুরি আটকানো যায়।

আগেই বলেছি, চুরি আটকানো যাবেনা, কিন্তু যা করা যাবে তা হল চুরি করাকে আরো কঠিন করে তোলা যাবে। এই বিষয়ে অনেক টিউনার অনেক উপায় বলেছেন, সেইসব অনুসরণ করতে পারেন আপনারা। কপি প্রোটেক্ট করুন, রাইট ক্লিক বন্ধ করুন, আর সেইসাথে আমি দুটি টিপস জুড়ে দিচ্ছি কেবল - ওয়েব পেজের হেডার থেকে ENTER বোতাম চেপে body অংশটি অনেক নিচে নামিয়ে দিতে পারেন। এতে করে পেজের সোর্স দেখতে চেষ্টা করলে চোর কিছুটা হলেও ধন্দে পড়ে যাবে যে আসল লেখার অংশটি কই গেল। মূল অংশটি থাকবে, কিন্তু স্ক্রোল বার টেনে অনেক নিচে গেলে তবেই সেটা দেখা যাবে। আরেকটি কাজ করতে পারেন, এতে কন্টেন্ট চুরি আটকাবেনা, তবে আপনার আইডেন্টিটির ছাপ থাকবে যে মূল লেখা আপনার। লেখার মাঝে বেশ কিছু স্থানে নিচের দেখানো কোডের মতো লিখে দিন।

akashprodip.wordpress.com

স্বাভাবিক চোখে ওয়েবসাইট দেখা/পড়ার সময়ে এটা দেখা যাবেনা, কিন্তু সিলেক্ট করে কপি করে ফেললে এইটাও কপি হয়ে যাবে। যে ওয়েবসাইটে এটা কপি হয়ে পেস্ট হবে তার সোর্স কোডেও এইটা দেখা যাবে, গুগল রোবট এটা দেখতে পাবে। এর পরে আপনি চোরকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারবেন যে লেখাটি আপনার। আর, সার্চ ইঞ্জিনের রোবট যেহেতু এই কোড দেখতে পায়, তাই মূল লেখক আপনিই থেকে যাবেন, অন্য ওয়েবসাইটে লেখা প্রকাশ হলেও। (উপরে দেখানো কোডের মধ্যে http:// দেবেন না, তাহলে সাধারন চোখেই তা ধরা পরে যাবে)

ADs by Techtunes ADs

এই ট্রিক অনুসরণ করলে চোরকে সহজেই কপি করতে দেবেন। কপি প্রোটেক্ট কিম্বা রাইট ক্লিক বন্ধ করে রাখবেন না। চোর যেন স্বাভাবিকভাবে এবং সহজেই সবটা কপি করে নিতে পারেন। তাহলেই তিনি স্বাভাবিকভাবে চিন্তাই করবেন না যে এইভাবে কোনো লুকানো কোড লেখা আছে। আমার এই লেখাটা সম্পুর্ণ কপি করে অন্য কোথাও পরীক্ষামূলকভাবে পেস্ট করে ব্লগ পোস্ট প্রকাশ করেই দেখুন, সোর্স কোডে দেখা যাচ্ছে কিনা আমার ওই লেখা কোডটা? অত্যন্ত স্বাভাবিক কপি/পেস্ট করেই দেখুন, আমাকে জানান।

আপাতত কন্টেন্ট চুরি রুখে ফেলার চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলুন কারন যতোদিন না এমন প্রযুক্তি বের হচ্ছে যাতে সোর্স কোড হাইড করলেও ব্রাউজার সেটা দেখতে পাবে অন্য কোনো উপায়ে, ততোদিন পর্যন্ত কন্টেন্ট চুরি আটকানোর কোনো পথ নেই।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি রিয়া। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 96 টি টিউন ও 362 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

জীবনের সব ভুল, যদি ফুল হয়ে যায়... জীবনের সব কালো, যদি আলো হয়ে যায়...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

নতুন ইউজার/ চোর রা ধরা খাইতে পারে ………. বুদ্দিমান চোর রা ধরা খাবে না. আসলে কপি বন্ধ করা যাবে না.

Level 0

এটাও চুরি করা সম্ভব, কিন্তু বেশ ঝামেলা করতে হয়। দেখা যাবে, খাজনার চেয়ে বাজনাতেই বেশী খরচ হয়ে গেছে।
আমার বেশ কয়েকজন বন্ধু আছে, যারা বেশ কিছুদিন হল ব্লগিং শুরু করেছে। তাদের সাথে ছোটখাট কিছু কাজ করেছিলাম। তখন এই কাজ করতাম, কিন্তু কিছুদিন পরেই মনে হল ধুর! কপি করা আটকে কী হবে? কী ছাতা-মাথাই বা লিখছি? এরচেয়ে ঢের ভাল ভাল লেখা পরে আছে। সেগুলোই চুরি ঠেকানো যাচ্ছে না আর আমারটা তো কোন ছার।
বেশ কিছু সাইট আছে এদের ইমেজ লিঙ্ক কপি করে বেশ বিব্রতকর অবস্থায় পরতে হয়েছিল। ২৪ ঘন্টা পর যে ইমেজ কপি করেছিলাম তা চেঞ্জ হয়ে………………। এরপর থেকে ইমেজলিঙ্ক কপি করতে হলে খুব সাবধানে করি। আবার অনেক সাইটে দেখলাম ইমেজ সেভ করে রাখলেও লাভ হয় না (একদম ছোট হয়ে যায়)। এই কাজটা কিভাবে করে জানেন নাকি?

    মাঝের প্যারাগ্রাফে আপনি বেশ সুন্দর বেশ দামী কথাই লিখেছেন। আমি আপনার সাথে একমত এই ব্যাপারে। আর, শেষে যেটা লিখেছেন সেটা hotlink protection এবং image protection দিয়ে করা যায়। হোস্টিং প্যানেল থেকেই এটা করা যাবে।

ঠিক বলেছেন রিয়া আপু। আপু নতুন একজন। আপু আপনার টিউন গুলি আমার খুব ভালো লাগে।

Level 0

আপু ধন্যবাদ টিউন এর জন্য।এবং দোয়া করছি তারাতাড়ি জর যেনো সেরে যায়।

চুরি করলে সমস্যা নেই যদি প্রোপার ক্রেডিট দেয়া হয়।

    প্রপার ক্রেডিট দিলে কি আর সেটা চুরি থাকে?

ভালো টিউন ……… and its true …….

Level 0

আমি কেন রাইট ক্লিক বাটন বন্ধ করতে পারছি না?

    আপনার প্রশ্ন আমার কাছে পরিষ্কার হয়নি। রাইট ক্লিক বাটন বন্ধ করতে পারছেন না মানে কি? একট বুঝিয়ে বলুন ঠিক কি করতে গিয়ে আটকে গিয়েছেন, তাহলে নাহয় উপায় বলার চেষ্টা করতে পারি।

    Level 0

    এই ভাবে লিখলে এইচ টি এম এল ইরোর দেখাচ্ছা, সেভ হচ্ছে না।

লিগ্যাল কোড টা কি রিয়া আপু আর একবার দিবেন?