ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আসুন জেনে নেই বিভিন্ন ভিডিও কনটেইনার ফরমেট FLV, MKV, AVI, MOV, MP4, WMV, MPG এবং ভিডিও Codec আসলে কী? কেন এবং কিভাবে এগুলো ব্যবহার করবো এবং আমাদের জন্য কোনটা উপযোগী? [মেগা টিউন]

- بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ -

ADs by Techtunes ADs

সুপ্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি সবাইকে আমার সালাম এবং শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমার আজকের টিউন।

আমরা জানি এমন অনেক ভিডিও প্লেয়ার আছে যেগুলো সব ধরনের ভিডিও ফরমেট সাপোর্ট করে। যেমন আমার সব চেয়ে ভালো লাগে Pot Player (আমি এটা নিয়ে এর আগে একটা টিউনও করেছিলাম। আপনারা চাইলে এখান থেকে দেখে নিতে পারেন)। আমরা যখন বিভিন্ন ভিডিও ফরমেট নিয়ে আলোচনা করবো তখন স্বাভাবিক ভাবেই FLV, MKV, AVI, MOV, MP4, WPV, MPG এই ফরমেট গুলো আমাদের সামনে চলে আশাকরি কোনটা আপনার কাছে ভালো লাগে? তাহলে একেক জন একেক রকম ভাবে উত্তর দিবে। কিন্তু আসলেই কি আমরা জানি কোনটা সব চাইতে ভালো ফরমেট বা আমাদের কোন ফরমেট গুলোকে অধিক প্রাধান্য দিতে হবে যখন আমরা DVD রিপ করবো অথবা ইন্টারনেট থেকে ভিডিও ডাউনলোড করবো?

সব চাইতে ভালো ভিডিও ফরমেট বাছাই করাটা সত্যিই একটা কঠিন কাজ। কারন আমাদের অধিকাংশই এতো দিন ধরে জেনে আসছিলাম যে এসব ভিডিও ফরমেট শুধু মাত্র ফাইল এক্সটেনশন ছাড়া আর কিছুই না। কিন্তু এগুলো যে শুধুমাত্র একটি করে ফাইল এক্সটেনশন না সেটা আমার টিউনটি পড়া শেষ করে আপনার জানতে পারবেন। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

আমরা যে এক্সটেনশন গুলো নিয়ে আলোচনা করবো সেগুলো হলো বিভিন্ন ভিডিও কোডেক এবং এর কনটেইনার। যেমন আপনারা অনেক সময় মুভি ডাউনলোড করার পর এক্সটেনশন এর আগে দেখতে পাবেন DivX or x264 অথবা MPEG-4 or H.264 লেখা আছে। এগুলো হলো ভিডিও কোডেক। আসুন তাহলে জেনে নিই ভিডিও কোডেক এবং কনটেইনার কী?

কোডেক কী?

আমরা যে সমস্ত ভিডিও ফাইল আমাদের মিডিয়া প্লেয়ারে দেখে থাকি সেগুলো আসলে একটা কম্প্রেসড ফরমেট। কারন ভিডিও গুলোকে আমাদের মিডিও প্লেয়ারের উপযোগী করতে অনেক সঙ্কোচন প্রয়োজন হয়। বুঝতে পারছেন না হয়তো, তাহলে একটা উদাহরণ দিয়ে বুঝিয়ে বলছি।

আমরা যে সমস্ত ব্লু-রে ভিডিও দেখি সেটার আসল ফাইল সাইজ ৩০-৫০গিগাবাইট পর্যন্ত হতে পারে। এখন আপনি যদি একটা ভিডিও ডাউনলোড করতে চান তাহলে এটা আপনার জন্য প্রায় অসম্ভব হয়ে যাবে। কারন আপনার কম্পিউটার স্পেস এবং ইন্টারনেট স্পিড এবং প্যাকেজ এই দুইটাই এর জন্য যথেষ্ঠ না। ট্যাব বা এন্ড্রোয়েড এর কথা বাদই দিলাম। একারনে এ সমস্ত ভিডিও গুলোকে সহজে ব্যবহার উপযোগী করার জন্য এদের সামান্য কিছু ভিডিও কোয়ালিটি কমিয়ে কম্প্রেস করতে হয়। সুতরাং কোডেক হলো এমন একটি কম্প্রেসড ডাটা যেটা আপনাকে বলে দিবে কিভাবে ভিডিও ফাইলটি আপনি মিডিয়া প্লেয়ারে চালাবেন বা আপনার মতো করে ব্যবহার করবেন। আমাদের কম্পিউটারে ডিফল্ট ভাবেই অনেক রকম ভিডিও কোডেক ইনস্টল দেওয়া থাকে। নিচে কিছু কোডেক উল্লেখ করা হলো-

  • FFmpeg (এটা হলো MPEG-2 এবং MPEG-4 কোডেকের সমন্বিত কোডেক। এখানে জেনে রাখা ভালো যে, MPEG-2 ব্যবহার করা করা হয় DVD তে ডাটা স্টোর করার জন্য এবং MPEG-4 কোডেকটি এপল তাদের আইটিউন স্টোরে ব্যবহার করে)।
  • DivX কোডেকটি MPEG-4 এর সাথে কাজ করতে পারে। তাছাড়া HD ভিডিও তৈরীতে DVD রিপ করতে DivX কোডেকটি ব্যবহার করা হয়।
  • XviD কোডেকটি হলো DivX এর একটি ওপেন সোর্স প্রজেক্ট। ওপেন সোর্স হওয়াতে পাইরেটেড মুভিগুলোতে এই কোডেক বেশি ব্যবহৃত হয়।
  • x264, এটা H.264 (MPEG-4 AVC) ফরমেটের ভিডিওগুলোকে কম্প্রেস করে এবং প্রধানত HD ভিডিওগুলোতে এই কোডেক ব্যবহার করা হয়।

আমরা দেখলাম আমাদের কাঙ্খিত কাজের জন্য বিভিন্ন ধরনের কোডেক রয়েছে। এতোগুলো কোডেক এর মধ্যে আমরা কোনটা ব্যবহার করবো এটা আমাদের অধিকাংশ সময় দ্বিধায় ফেলে দেয়। তবে খুশির কথা হলো সবগুলোয় MPEG (Moving Picture Experts Group) স্ট্যান্ডার্ড হওয়াতে আপনি আপনার প্রয়োজন মতো যেকোনটি ব্যবহার করতে পারবেন।

কনটেইনার কীঃ

ADs by Techtunes ADs

এতোক্ষন আমরা বিভিন্ন প্রকার কোডেক সম্পর্কে জানলাম। এখন তাহলে চলুন কনটেইনার সম্পর্কে জানি। কনটেইনার শব্দটির সাথে আমরা সকলেই পরিচিত। কোন কিছু ধারন করাটাই কনটেইনারের কাজ। তবে মিডিয়া কনটেইনার বলতে আমরা সাধারনত বুঝবো অনেকগুলো ফাইলের সমষ্টি। মুলত কনটেইনার গঠিত হয় ভিডিও কোডেক এবং অডিও কোডেকের সমন্বয়ে (যদিও এটা সাবটাইটেলও ধারন করে)। এই কনটেইনারের কারনেই আমরা ভিডিও থেকে অডিও ফাইল কিংবা সাবটাইটেল আলাদা করতে পারি। এবং ইচ্ছামত আমরা আমাদের ভিডিওর সাথে অডিও কিংবা অডিওর সাথে ভিডিও আলাদা কিংবা সমন্বয় করতে পারি। এর সাহায্যে আপনি নিয়ন্ত্রিত ভাবে ভিডিও রিপ করতে পারবেন। তবে চলুন তাহলে বিভিন্ন ভিডিও কনটেইনার সম্পর্কে জেনে নিই।

  • Flash Video Format (.flv)


    এটি অনেক জনপ্রিয় একটি কনটেইনার ফরমেট। ফ্লাশ ভিডিওগুলো ফ্লাশ মুভিতে ব্যবহার উপযোগি। প্রায় সবধরনের ব্রাউজার ফ্লাশ ভিডিও ফরমেট সাপোর্ট করে। আপনি এ ধরনের ভিডিও ফরমেটের ফাইল প্রোগ্রেসিভ এবং স্ট্রিমিং দুই ধরনের ডাউনলোড এর সময় সাপোর্টেড। এবং এটা অনেক বেশি কমপেক্ট।

  • AVI Format (.avi)

    এর মানে হলো Audio Video Interleave। মাইক্রোসফ্ট কর্পোরেশন সর্বপ্রথম এটা ডেভেলপ করে। যদিও এই কনটেইনার প্রধানত M-JPEG, অথবা DivX ব্যবহার করে তারপরেও এটা তার ডাটা স্টোর করার জন্য এগুলো ছাড়াও প্রায় সব ধরনের কোডেক ব্যবহার করে করে। ফলে কোডেকগুলো আলাদা করাও সহজ হয়। এটা কম ডাটা কম্পেস করে এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছে এটি জনপ্রিয় একটি কনটেইনার ফরমেট।
    এই কনটেইনার ফরমেট উইন্ডোজ এবং ম্যাক সহ অন্য অপারেটিং সিস্টেম এর প্রায় সব ধরনের মিডিয়া প্লেয়ারে সাপোর্ট করে।

  • Matroska (which uses the extension MKV)

    এটা হাই ডেফিনিশন ভিডিও কনটেইনার। সাধারনত ওয়াইড স্ক্রিন ডিসপ্লেতেতে ভিডিও দেখার জন্য এটা ব্যবহার করা হয়। সাধারন মানের ভিডিও প্লেয়ারে এটি সাপোর্ট করেনা তবে ভালো মানের প্রায় সব প্লেয়ারে এটি চলে। উচ্চমানের ভিডিও রিপিংয়ের জন্য এটা ব্যবহার করা হয়।

  • Quicktime Format (.mov)

    এপল সর্বপ্রথম এই কনটেইনার ফরমেট তৈরী করে। এটা সাধারণত ইন্টারনেট এ বেশি ব্যবহৃত হয়। এই কনটেইনারে ভিডিও এবং অডিও কোডেকের সাথে টেক্সট ইফেক্ট ও ব্যবহার করা যায়। উইন্ডোজ এবং ম্যাক উভয় প্লাটফর্মেই এটা সাপোর্ট করে। আপনি Quicktime অথবা Pot Player ব্যবহার করতে পারেন এটা চালানোর জন্য।

  • MP4 Format (.mp4)

    সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ফরমেটগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। এটা সাধারনত অডিও, ভিডিও সহ থ্রি ডাইমেনশনাল ভিডিও কন্টেন্ট ধারন করতে পারে। কম বিট রেটের এনকোডিংয়ের জন্য এর কোন বিকল্প নেই। এই কন্টেইনার ভিডিও গুলোকে MPEG-4 কোডেক এবং অডিও গুলোকে AAC ফাইলে কম্প্রেসড করে। প্রায় সব ধরনের মিডিয়া প্লেয়ারে এটা সাপোর্ট করে।

  • Mpg Format (.mpg)

    এটা MPEG (Moving Picture Experts Group) এর একটি কমন ভিডিও কনটেইনার ফরমেট। এটা সাধারনত MPEG-1 এবং MPEG-2 কোডেক ব্যবহার করে অডিও এবং ভিডিও ডাটা কম্প্রেস করে। ডাউনলোডেবল ফাইল তৈরী করতে এই ফরমেট বেশি ব্যবহৃত হয়। ডিফল্টভাবে Apple QuickTime এবং Microsoft Windows Media Player এটা সাপোর্ট করে।

  • Windows Media Video Format (.wmv)

    এটা মাইক্রোসফট কর্পোরেশেন কর্তৃক ডেভেলপকৃত একটি কনটেইনার ফরমেট। এই বিষয়ে বেশি কিছু বলতে চাচ্ছিনা কারন এটা উইন্ডোজ ছাড়া অন্য কোন অপারিটিং সিস্টেমে সাপোর্ট করেনা। এটা চালানুর জন্য আলাদা কোন সফটওয়ার সাধারনত পাওয়া যায়না।

  • 3GP File Extension (.3gp)

    এটা সাধারনত অডিও ও ভিডিও কোডেকের সমন্বয়ে তৈরী। এটা তৈরী করা হয় মোবাইলফোনগুলোর জন্য। সাধারনত 3G ফোনগুলোতে ডাটা ট্রান্সফারের জন্য এটা তেরী করা হয়। আমরা যদি লক্ষ্য করি তাহলে দেখবো এটা প্রধানত ফোন ছাড়া অন্য কোথাও ব্যবহৃত হয়না।

কোনটা আমরা ব্যবহার করবো?

আমি প্রত্যেকটি কোডেক এবং কনটেইনার সম্পর্কে সংক্ষেপে আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। এই বিষয়ে আমার জ্ঞানও খুব সীমিত। আমি ইন্টারনেটে কোন বাংলা রিসোর্স খুঁজে পাইনি এ ব্যাপারে। আপনারা যতোটুকু জেনেছেন সেখান থেকে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন কোনটা আপনার জন্য উপযোগী। তবে আপনি যদি ওয়াইড স্ক্রিন এর জন্য ভিডিও তৈরী করতে চান বা দেখতে চান তাহলে অবশ্যই H.264 and MKV ব্যবহার করবেন আর যদি ট্যাবলেট বা ছোট পর্দার জন্য ভিডিও তৈরী চান তাহলে H.264 and MP4 ব্যবহার করবেন।

শেষ কথা

টিউনটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে অথবা বুঝতে যদি কোন রকম সমস্যা হয় তাহলে আমাকে টিউমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। কারন আপনাদের যেকোন মতামত আমাকে সংশোধিত হতে এবং আরো ভালো মানের টিউন করতে উৎসাহিত করবে। আর আপনাদের যাদের টেকটিউনসে একাউন্ট নেই তারা আমার ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজ লিংক থেকে আমার টিউনে টিউমেন্ট করতে পারবেন। পেজে লাইক দিয়ে আমার সকল টিউন বিষয়ে আপডেট থাকুন। সর্বশেষ যে কথাটি বলবো সেটা হলো, আশাকরি এবং অপরকেও কপি পেস্ট টিউন করতে নিরুৎসাহিত করি। সবার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি। দেখা হবে আগামী টিউনে।

আপনাদের সাহায্যার্থে আমি আছি.

ফেসবুক | টুইটার | গুগল-প্লাস

ADs by Techtunes ADs
Level 6

আমি সানিম মাহবীর ফাহাদ। Supreme Tuner, Techtunes বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 179 টি টিউন ও 3526 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 109 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

অন্য আর দশটা মানুষের মতোই একদিন এই পৃথিবীতে আসছিলাম। তারপর থেকে নিজের মতো করেই নিজের পৃথিবীতে বেঁচে আছি। এরপর একদিন টুপ করে জীবন্ত পৃথিবী থেকে ঝরে পড়বো। জীবনতো এটাই, তাই না?


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Jana Cilo.. Tobuo Tnx

টিউনের জন্য ধন্যবাদ ।
দুইটা জিনিস জানার ছিল !
১. দরিদ্র.কম এর মুভিগুলো ৪০০-৭০০ এম্বির মধ্যে ভালো কোয়ালিটি রেখে কম্প্রেস করে কিভাবে ?
২. তারা মুভিরে টেক্সট (যেমন দরিদ্রে.কম) দেয় কিভাবে ?

    @এস. এম. জুবায়ের: ধন্যবাদ টিউমেন্টের জন্য । দরিদ্র.কম মুভিগুলো কম্প্রেস করার জন্য সাধারনত MKV কনটেইনার ফরমেট ব্যবহার করে আর মুভিতে টেক্সট দেওয়ার জন্য সাধারন ভিডিও এডিটিং জ্ঞানই যথেষ্ট।

    @এস. এম. জুবায়ের: mkv merge use kore movie te text add kore doridroo

      @তাহমিদ বোরহান: May Be Or Might Be.

      @তাহমিদ বোরহান: mkv merge diye
      SUB add kora jay !

      @তাহমিদ বোরহান: কিছু ডুয়াল অডিও মুভি তে দেখা যায় পাশে language এর পাশে ওদের সাইট এর নাম লিখে দেয় যেমন English[300mbmovies.com] / Hindi[300mbmovies.com] – এটা কিভাবে করে ?
      আবার কিছু Movie এর title যেটা Media player এ শো করে সেটির সাথে মুভি name এর(যে নামে সেভ করা আছে) মিল থাকে না যেমন কোন মুভি নাম হয়ত SAW কিন্তু মিডিয়া player এ শো করে Saw-300mb.com এটা কিভাবে করে ?

দারুন লাগলো

নতুন বেশ কিছু জিনিস জানা গেল……টিউনের জন্য ধন্যবাদ 🙂

    @neophyte:আপনাকেও ধন্যবাদ টিউমেন্টের জন্য। আপনাদের নতুন কিছু জানাতে পারাটাই স্বার্থকতা।

ভালো লিখেছেন। পরে বেশ কিছু জানতে পারলাম। ধন্যবাদ পোস্ট করার জন্য।

    @আবু বক্কর সিদ্দীক পলাশ: অনুপ্রেরনার জন্য ধন্যবাদ। আপনাদের নতুন কিছু জানাতে পারাটাই স্বার্থকতা।

সুন্দর টিউন। নতুন কিছু শিখলাম। প্রিয় ও মনোনীত।

ধন্যবাদ ভাই, এমন তথ্যবহুল একটি পোস্টের জন্য।
দরিদ্র, ৩০০এমবিফিল্মস.কম….. এদের রিপ গুলোর মান ভাল এবং ফাইল সাইজও বেশ কম।
এভাবে কম্প্রেস করার জন্য কোন সফটওয়্যার ভাল হবে ?

    @ভিটামিন আর: আপনার সুন্দর টিউমেন্টের জন্য ধন্যবাদ। কোন ধরনের সফটওয়ার দিয়ে এটা করা যাবে সেটা আমি জানিনা। আপনি গুগলে সার্চ করতে পারেন। আমি অত্যন্ত দুঃখিত।

টিউনারের নামটা দেখেই টিউন পড়ায় মনযোগ এসে গেল।
ধন্যবাদ ফাহাদ ভাই, সুন্দর একটা টিউনের জন্য।
বরাবর আপনার টিউন ভালো হয়। be Continue ………

    @আতিকুর রহমান সোহেল: ধন্যবাদ আতিক। এতোটা আস্থা রাখবার মতো যোগ্য ব্যক্তি এখনো হতে পেরেছি কিনা জানিনা। তবে সব সময় চাইবো তোমাদের আস্থার মর্যাদা রাখতে। সব সময় পাশে যেন পাই….

“ধন্যবাদ” সুন্দর একটি টিউন উপহার দেয়ার এর জন্য,

অনেক কিছু জানতে পারলাম। ধন্যবাদ।

সত্যি ই মেগা পোস্ট ।
বাট দুটো প্রস্ন – কিছু ডুয়াল অডিও মুভি তে দেখা যায় পাশে language এর পাশে ওদের সাইট এর নাম লিখে দেয় যেমন English[300mbmovies.com] / Hindi[300mbmovies.com] – এটা কিভাবে করে ?
আবার কিছু Movie এর title যেটা Media player এ শো করে সেটির সাথে মুভি name এর(যে নামে সেভ করা আছে) মিল থাকে না যেমন কোন মুভি নাম হয়ত SAW কিন্তু মিডিয়া player এ শো করে Saw-300mb.com এটা কিভাবে করে ?

    @নীলোৎপল বেদী: টিউমেন্টের জন্য ধন্যবাদ। আপনার প্রথম প্রশ্নের উত্তর হলো, যেকোন ভিডিও এডিটিং সফটওয়ার দিয়ে কাজটি করা যায়। দ্বিতীয় প্রশ্নের উত্তর হলো, ভিডিও ট্যাগ এবং রিনেম সফটওয়ার দিয়ে আপনি কাজটি করতে পারবেন।

      @সানিম মাহবীর ফাহাদ: থ্যাংকস । যেসব ভিডিও এডিটিং সফটওয়ার দিয়ে কাজটি তাদের নাম টা একটু বললে ভাল হয় , একটু দেখবেন যদি কম সাইজ এর কিছু থাকে ।