ট্রু কলার কিভাবে কাজ করে?

টিউন বিভাগ কী কেন কীভাবে
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 6
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

আশাকরি সকলেই আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। অপরিচিত নাম্বার কার সেটি জানার জন্য সবচাইতে জনপ্রিয় অ্যাপ হচ্ছে ট্রু কলার। আজকে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব এই ট্রু কলার কিভাবে কাজ করে?

ট্রুকলার মোবাইলে ইন্সটল করা থাকলে, কোন অপরিচিত নাম্বার থেকে কল আসলে সেটি কার নাম্বার বা সে ব্যক্তির নাম মোবাইল স্ক্রিনে ভেসে ওঠে। যদিও আপনার ফোনে সে নাম্বারটি সেভ করা না থাকে। তবুও অনেক ক্ষেত্রে অপরিচিত নাম্বারের ব্যবহারকারীর নাম খুব সহজে বলে দিতে পারে ট্রু কলার।

অপরিচিত নাম্বার সেটি কার, এটি খুব সহজে বলে দেওয়াতে ট্রু কলার কে আপনার ম্যাজিকের মত মনে হতে পারে। কিন্তু এটি মোটে ও ম্যাজিক না। ট্রু কলার আসলে আপনার তথ্য ব্যবহার করে আপনাকেই সাহায্য করে থাকে। এবার চলে আসি মূল আলোচনায়।

ট্রু কলার এটি কিভাবে করে?

How to true caller work

আমি প্রথমেই বলেছি যে, ট্রু কলার আপনার তথ্য ব্যবহার করে আপনাকেই সাহায্য করে থাকে। এখন আপনার মনে হতে পারে, আমি আসলে তাদের কিভাবে তথ্য দিলাম। আপনি যখন ট্রু কলার অ্যাপে সাইন আপ করেছিলেন তখনই আপনি তাদেরকে আপনার জানাতে কিংবা অজান্তেই তথ্য দিয়েছিলেন এবং অ্যাপ ব্যবহার করা অবস্থায় বর্তমানেও তথ্য দিয়েই যাচ্ছেন।

মূলত আপনি যখন ট্রু কলার অ্যাপে সাইন আপ করেছেন, তখনই আপনার কন্টাক্ট লিস্টে থাকা সমস্ত নাম্বার ট্রুকলার তাদের সার্ভারে আপলোড করে নিয়েছে। সেই সাথে আপনি কোন নাম্বারটি কি নাম দিয়ে সেভ করে রেখেছেন সেটি হুবহু তারা রেখে দেয়। আপনার থেকে নেওয়া নাম্বারগুলো অন্য ট্রু কলার ব্যবহারকারীদের ইউজারনেম দেখাতে কাজে লাগাবে ট্রু কলার।

মনে করুন, আপনার ফোনে কেউ কল দিয়েছে যার নাম্বার আপনার ফোনে সেভ করা নেই। তখন যদি আপনার ফোনে ট্রু কলার ইনস্টল করে লগইন অবস্থায় করা থাকে, তাহলে সেই নাম্বার ট্রু কলার তাদের সার্ভারে খুঁজে দেখবে এই নাম্বারে কোন নাম তাদের সার্ভারে সেভ করা রয়েছে কি না। যদি তারা তাদের সার্ভারে নাম্বারটি খুঁজে পায় তবে আপনার সামনে সেই নামটিই প্রদর্শিত হবে। এক্ষেত্রে ট্রু কলার যার কাজ থেকে এই নাম্বারটি সংগ্রহ করেছিলো, সে যে নামটি দিয়ে তার কন্টাক্টে সেভ করে রেখেছিল সে নামটিই আপনার সামনে প্রদর্শিত হবে। ওই ব্যক্তির নাম যদি হয় আবুল, আর সে যদি লিখে রাখে আব্দুল রহিম, তাহলে কিন্তু সে নামটিই আপনার সামনে প্রদর্শিত হবে।

ট্রু কলারে সাইন আপ করার সময় কোনো নাম্বার যে নামটি দিয়ে সেভ করা রয়েছে, সেটিই ট্রু কলার তাদের সার্ভারে আপলোড করে নেয়। যার ফলে কিন্তু ট্রু কলার থেকে সঠিক মালিকের নাম বের নাও করতে পারেন। তবে বর্তমানে ট্রু কলারের ব্যাপক ব্যবহারকারীর কারণে আপনি সঠিক নামটিই খুঁজে পেতে পারেন। আপনি কিন্তু সব নাম্বারের মালিকের নাম ট্রু কলারে পাবেন না। কেননা সেই নাম্বারটি যদি ট্রু কলারের সার্ভারে না থাকে এবং অন্য কোনো ট্রু কলার ব্যবহারকারী যদি সে নাম্বারটি তাদের কন্টাক্ট লিস্টে সেভ না করে তবে এটি ট্রু কলারের সার্ভারে থাকবে না এবং সেটি আপনিও পাবেন না।

ট্রু কলার এতো নাম্বারের তথ্য কিভাবে সংগ্রহ করে?

true caller information

এটি বোঝানোর জন্য আপনাকে একটি ছোট্ট উদাহরণ দেই। মনে করুন আপনার গ্রামের জনসংখ্যা এক হাজার জন। তাদের মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা দুইশত জন এবং তাদের মধ্যে ট্রু কলার ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১০ জন। আপনি লক্ষ্য করবেন, আপনার গ্রামের প্রায় লোকের নাম্বার কিন্তু আপনার ফোনে সেভ করা রয়েছে। এছাড়া শুধু আপনার গ্রামের লোকদের নাম্বারই নয় বরং অন্য এলাকার লোকের নাম্বারও সেভ করা রয়েছে।

আপনি যদি ট্রু কলার ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার ফোনে কারো নাম্বার সেভ করা মানে ট্রু কলারের সার্ভারে সেভ করা। এতে করে যদি সেই ব্যক্তিটি অন্য কোনো ট্রু কলার ব্যবহারকারীর কাছে ফোন দেয়, তবে আপনার ফোনে সেভ থাকা নামটি তার ডিসপ্লে তে ভেসে উঠবে।

ট্রু কলার ব্যবহারকারীর সংখ্যা যত বাড়বে ট্রু কলারের সার্ভারে তত তথ্যের পরিমাণও বাড়তে থাকবে। যার ফলে বর্তমানে ট্রু কলারের ব্যাপক ব্যবহারের ফলে এদের তথ্য সংগ্রহের পরিমাণও বেড়েছে। যার ফলে প্রায় সব নাম্বারের মালিককে খুঁজে পাওয়া যায় ট্রু কলারে। তবে অনেক সময় অনেক নাম্বারের মালিককে খুঁজে পাওয়া যায় না। কেননা এই নাম্বারটি হয়তোবা এখনও কোনো ট্রু কলার ব্যবহারকারী তার ফোনে সেভ করেনি। যার ফলে আপনি সেই নাম্বারের মালিককে খুঁজে পাচ্ছেন না।

ট্রু কলার ব্যবহারের অসুবিধা সমূহ

ট্রু কলারের মাধ্যমে যেমন অপরিচিত নাম্বারের মালিককে খুঁজে পেতে সমস্যা হয়না ঠিক তেমনিভাবে অনেক সময় পড়তে হয় বিড়ম্বনায়। মনে করুন, আপনার পরিবারের চার জন সদস্য রয়েছে যারা সবাই ট্রু কলার ব্যবহারকারী। এখন নাম হলো সিয়াম। এ নামটি আপনার বোন "ভাইয়া" লিখে সেভ করেছে আবার আপনার মা সেটি "ছেলে" লিখে সেভ করে রেখেছে। এক্ষেত্রে ট্রু কলার কিন্তু আপনার নাম্বারের নামটি অন্য ব্যবহারকারীদের একেক সময়ে একেকটি দেখাবে। কেননা ট্রু কলার অন্য ট্রু কলার ব্যবহারকারীদের কাছ থেকেই নাম এবং নাম্বারগুলো সংগ্রহ করে। সেক্ষেত্রে সেটি হুবহু থাকে তাদের সার্ভারে।

তবে এটির ছোট্ট একটি সমাধান রয়েছে। এজন্য আপনি ট্রুকলারে আপনার নাম এবং ফোন নাম্বার অনুযায়ী একটি ইউজার আইডি বা ট্রুকলারের ভাষায় কলার আইডি (Caller ID) তৈরী করতে পারেন। এতে করে আপনার নাম এবং নাম্বারটি ট্রু কলার অরিজিনাল নাম হিসেবে সেভ করে রাখবে এবং সে নামটি অন্য ব্যবহারকারীদের দেখাবে।

ট্রু কলার ব্যবহারের ফলে কি প্রাইভেসির ক্ষতি হয়?

true caller privacy

ট্রু কলারে সাইন আপ করার সময় যেহেতু এটি আপনার কন্টাক্ট লিস্টে থাকা সমস্ত নাম্বার নিয়ে নিয়ে নেয়, তাহলে এটি আপনার প্রাইভেসির ক্ষতি বলাই যেতে পারে। কেননা আপনি যে নাম্বারটিই আপনার ফোনে সেভ করেন না কেন সেটি ট্রু কলার তাদের সার্ভারে আপলোড করে নেয়। যদিও তা না হলে ট্রু কলার আজকের এই পর্যায়ে যেতে পারতো না।

তবে আপনি চাইলে ট্রু কলার থেকে আপনার নাম এবং নাম্বার ডিলিট করে দিতে পারেন। ট্রু কলার থেকে নাম্বার ডিলিট করার জন্য আপনাকে তাদের ওয়েবসাইটে চলে যেতে হবে এবং এখান থেকে আপনার নামটি ডিলিট করে নিতে পারবেন।

বন্ধুরা এই ছিল ট্রু কলার সম্পর্কে টিউন। আশা করি টিউনটি আপনাদের কাছে অনেক ভালো লেগেছে। আজ এ পর্যন্তই। দেখা হবে পরবর্তী টিউনে ইনশাআল্লাহ।

Level 6

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 100 টি টিউন ও 49 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 12 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

টিউন শেয়ার করে সাবমিট করা হয়নি। টিউন শেয়ার করে সাবমিট করুন।