ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

অনলাইনে মুভি ডাউনলোড করেন? সাবধান হওয়ার সময় এসেছে!

হলিউড মুভি 'The Hurt Locker' অনলাইনে দেখেছেন অথবা ডাউনলোড করেছেন এমন ৫০,০০০-এর বেশি ব্যাক্তির নামে আইনি নোটিস জারি হয়েছে। এরা সবাই অনলাইন ফাইল শেয়ারিং নেটওয়ার্ক, পিয়ার-টু-পিয়ার নেটওয়ার্ক থেকে ডাউনলোড করেছেন, অথবা সরাসরি অনলাইনে প্রদর্শিত মুভি সাইটে সিনেমাটি দেখেছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সবাইকে অফার দেওয়া হয়েছে আদালতের বাইরে আপোষ করে নেওয়ার এবং জরিমানা নির্ধারন করে সেইটা পেয়ে গেলেই আর আইনি পদক্ষেপ নেবেনা কর্তৃপক্ষ। এতে রাজি নাহলে আদালতে মামলা দায়ের হবে অভিযুক্তদের নামে।

ADs by Techtunes ADs

কিকরে অভিযুক্ত ব্যাক্তিদেরকে খুঁজে পাওয়া হলো? এর জন্য সমস্ত ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে ভোল্টেজ পিকচারর্স নামে সিনেমা প্রডিউসার সংস্থাটি, অবশ্যই আইনি সহায়তা নিয়েই তা করা হয়েছে। সব আইএসপি সংস্থা আইপি এড্রেস এবং ইউজারের আইডেন্টিটি সরবরাহ করেছে। এইভাবে ৫০,০০০-এরও বেশি ব্যাক্তিকে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে।

তথ্যটি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি কারন আপনারাও অনেকেই অনলাইনের মুভি সাইটে যান, ডাউনলোড করেন। নিশ্চিন্তে থাকার মতো কিছুই নেই, আপাতত এই আইনের মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া শুরু হলেও অন্যান্য দেশেও এই একই পদ্ধতিতে এগোনোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে Recording Industry Association of America বা RIAA; অন্যান্য মামলায় প্রায় ৩০,০০০-এর মতো অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে ২০০৮ সালের হিসাব অনুযায়ী। এবং, এটা শুধুই মুভি ডাউনলোডের ক্ষেত্রে নয়, প্রযোজ্য হবে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতেও।

অনেক দেশেই কপিরাইট আইন, পাইরেসি আইন কঠোর ভাবে প্রযোজ্য নেই, কিন্তু দিন যতো এগোচ্ছে এইসব আইন শক্তভাবে প্রয়োগের চিন্তাধারায় এগোচ্ছেন প্রডিউসাররা। তারা একলা নন, তৈরী হয়েছে তাদের সংগঠন, ব্যবস্থা নিচ্ছে সেই সংগঠনের মাধ্যমেই। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, গুগল কয়েক মাস আগে ন্যাশানাল সিকিউরিটি এজেন্সির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে, ফলে যারা ফ্রি ব্লগেও মুভি ডাউনলোড দিচ্ছেন কিম্বা সাইটে গিয়ে ডাউনলোডের লিঙ্ক নিচ্ছেন সবার আইপি গুগলও দিয়ে দিতে পারবে।

সুতরাং অনলাইনে ফ্রি মুভি পেলেই ডাউনলোড করবেন না। যারা এইসব সাইট/ব্লগ বানিয়েছেন তারাও সাবধান হোন। আজকে নিশ্চিন্তে থাকলেও কাল নিশ্চিন্তে নাও থাকতে পারেন।

মূল লেখাটি ইংরাজীতে: ‘The Hurt Locker’ piracy: 50,000 people sued

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি রিয়া। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 96 টি টিউন ও 362 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

জীবনের সব ভুল, যদি ফুল হয়ে যায়... জীবনের সব কালো, যদি আলো হয়ে যায়...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

সতর্কবাণীটি উন্মচন করার জন্য ধন্যবাদ

আমি তো খুব করি, আমার কি হবে?! আবার মুভি নিয়ে একটা ওয়েবও আছে!!!??

    যত দ্রুত সম্ভব এলাকা ছেড়েদেন নইলে কিন্তু পুলিশ ডেকে???????????????

বাংলাদেশে কিছুই হওয়ার সম্ভাবনা নাই ।

কাম সারছে!!!!!!

আমার কালেকশনের ৪০০০ সিনেমার মধ্যে ৩৫০০ই তো ডাইনলোড করা।
কিন্তু ভালো প্রিন্টের জন্য তো ইন্টারনেটই ভরসা, আর দেশে যে সব ডিভিডি পাওয়া যায়, সেগুলোও তো পাইরেটেড

    চেঙ্গাবেঙ্গা ভাই আপনার এত কালেকশন ! ! ! একদিন আপনার কাছ থেকে কিছু শেয়ার করা দরকার।

    4000 :-O :-O অবাক হইলাম

    আমিও অবাক হইলাম ………………………

    Level 0

    ভালাই………আপনার কালেকশান যতই হোক শেয়ার করা শুরু করেন নয়ত খবর আছে…………

    খাইছে আমারে আমিত এই ভাইয়েরে Theret দিয়া ফালাইছি…।

    এই থেরেট ততক্ষন পর্যন্ত কার্যকর থাকবে …।যতক্ষন না শেয়ার সুরু করবেন

ভাল তথ্য দিলেনতো এই কাজটার সাথে প্রায় ৯০ ভাগ লোকই জরিত তাই সময় এসেছে সাবধান হওয়ার।বিপদ কখনো বলে কয়ে আসেনা।রিয়া আপুকে ধন্যবাদ বিপদ সংকেতটি প্রকাশ করার জন্য।

    আতাউর রহমান ভাইয়ার সাথে আমি একমত পোষণ করছি। তবে আমি কখনোই ইন্টারনেট থেকে মুভি ডাউনলোড করি না ।কখনো মুভি দেখতে ইচ্ছা করলে শপিং মল থেকে কিনে নিয়ে আসি :D। রিয়া আপুকে ধন্যবাদ ব্যাপারটা আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

    আমিও একমত পোষণ করছি।

এরকম একটা তথ্য আমি কিছুদিন আগে শুনেছিলাম,
ধন্যবাদ…

Level 0

আপু আমি তো কিছু দিন আগে ‘The Hurt Locker’ এর ব্লু রে প্রিন্ট ডাউনলোড করছি । আমার কি হবে ??? :!

Level 0

কান ধরে ওঠ-বস করছি, আর না !

Hurt Locker movie টা একটু আগে বন্ধুর পেনড্রাইভ থেকে নিলাম। দেখার ইচ্ছা আরও বাইরা গেলো। আমি ডাউনলোড করি না। সব আমার বন্ধুদের জারিজুরি 😀

ha ha ha আমার p2 to p2 block করা আছে
ধন্যবা রিয়া আপু জাননোর জন্য।

Level 0

ভালো তবে…………………।।আমি ১০০% না হলেও ৯০% নেট থেকে DL করি আর বাকিটা SERVER থেকে……

আমিতো অনেক মুভি ডাউনলোড করি, তাহলে কি ডাউনলোড পুরো পুরি বন্দ করে দিবো?

আপু কি বললেন। মাথাটা নষ্ট করে দিলেন কেনো?
আমি আবার মুভি পাগল। মুভি তো মাগনা পাওয়া যায় না।
আমার তো মুভি দেখতে হবে। কি করব ভেবে পাচ্ছি না।
আপনার কথায় মুভি দেখা ছেড়ে দিব? আরে আপু আপনি নিজে কি পাইরেটেড ছাড়া জীবনে কোন ছবি দেখছেন?
সবাই পাইরেটেড মুভি দেখে অব্যস্থ। তাহলে কি সবাইকে জেলের ভাত খেতে হবে?

    ঢাকায় থাকতে প্রচুর সিডি/ডিভিডি পেতাম, গুলশান মার্কেটে আমার চেনা দোকান ছিল, ওরা আমাকে বিনামূল্যেই দিতো দেখার জন্য। একদিন/দুইদিন দেখে ফেরত দিয়ে আসতাম। সেইসব মুভি ছিল পাইরেটেড। ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করতেই হয়নি আমাকে। আর এখন যেখানে থাকি, এখানে মাসে ৫০ টাকা ভাড়ায় মুভি ক্লাব থেকে ইংরাজী/হিন্দী অরিজিনাল ডিস্ক পাই ৩০ টাকায়, আর বাংলা সিনেমা ২০ টাকায়। আমার প্রয়োজন আর পড়েনা পাইরেটেড মুভি দেখার।

    রেপিডশেয়ার একাউন্ট ৬০০ টাকা দাম এখানে। এই টাকায় ওই মুভি ক্লাবের ৫০ টাকা মাসের ভাড়া দিয়েও আরো ১৮’টা সিনেমা দেখার টাকা হয়ে যাবে আমার। আমি কেন ডাউনলোড করতে যাবো? হ্যা হতে পারে রিলিজের কিছুদিন পরে দেখতে পাই, অরিজিনাল রিলিজ হলে। এটা মেনে নিতে পারলেই আর অসুবিধা নেই।

এহ ..! মুভি কি মাগনা ডাউনলোড করি নাকি,নেটের ভারা দেই না…..? ফাইজলামি পাইছে……………………..।

সতর্কবাণীটি উন্মচন করার জন্য ধন্যবাদ