ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ডিজিটাল বান্দরের হাতে ডিজিটাল বাংলাদেশঃ এদের সম্পর্কে বিস্তরিত জানা আপনার নাগরীক দায়িত্ব। (ত্বথ্য বহুল একটি টিউন)

ADs by Techtunes ADs

এরা বন্ধ করে ফেসবুকঃ প্রথমটা ডিগ্রী (পাছ) পাশ মন্ত্রী, দ্বিতীয়টা বিটিআরসি চেয়ারম্যান, ইনসেটে সচিব। বাংলাদেশ নিষিদ্ধ দেশ। এদেশটা মঘের মুল্লুক, তবে তা জনগনের জন্য না। এদেশের সরকারগুলো সবসময়ই মঘের মুল্লুকের ন্যায় কাজ করে। মূলত বাংলাদেশে কখনও গনতন্ত্র ছিল না, নেই ও ভবিষ্যতেও থাকার সম্ভাবনা নেই। এদেশে যেটা আছে এবং চলছে সেটা হলো ইজারাতন্ত্র। কয়দিন পর পর পাঁচ বছরের জন্য খালেদা হাসিনা বা জোর করে সেনাবাহিনী ইজারা নেয় আর দরজা জানালা বন্ধ করে স্বাধীন ভাবে খায়। এবার আসা যাক বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বলে দেশের পনের কোটি জনগনকে কতটা হাইকোর্ট দেখাচ্ছে ? মাত্র ১০ কেবির নেটগতির বাংলাদেশে এরা যা দেখাইছে এরা যদি সত্যি ডিজিটাল বাংলাদেশে যেতে পারে তবে এরা কি করবে তা ভাবতে গেলে হাসতে হাসতে পেটে খিল লেগে যাওয়ার অবস্থা হয়। একটা কথা বলি এই টোটাল ব্যাচটাকে যদি ১জিবি নেটের গতির দেশ জাপানে নিয়ে বসিয়ে দেয়া যায় সেখানে এরা সাত দিনে সব বন্ধ করে দেশটাকে নরক বানিয়ে দেবে। এরা পারলে সারা দুনিয়াটাই বন্ধ করে দিত যেমন গতকাল থেকে এই ডিজিটাল বান্দরেরা ফেসবুক বন্ধ করে দিছে। চলুন এদেশের ডিজিটাল বান্দরদের কর্মকান্ডগুলো একটু ডিটেইল দেখে আসি।

ভূমিকাঃ মাননীয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মহোদয় জনাব রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু গত ১৬/০৫ তারিখে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ দিবস উপলক্ষ্যে মিট দ্যা প্রেস ব্যানারে জাতির সামনে এধরনের ধাপ্পা বাজি টাইপ বক্তব্য দিয়ে গেলেন। তিনি বললেন বাংলাদেশ কয়েক বছরের মধ্যে আকাশে স্যাটালাইট উৎক্ষেপন(নিক্ষেপ) করতে যাচ্ছে-ঐখানে উপস্থিত সাংবাদিক ভাইয়েরা জ্ঞানীর মত মুখ চোখা করে সেখানে বসে থাকলেও কাঁঠাল-ভাঙ্গার-মাথা সমৃদ্ধ ম্যাংগোজনতা হিসাবে আমাদের প্রশ্ন ও প্রতিক্রিয়া উভয়ই আছে। স্যাটালাইট মারার স্বপ্ন ও বর্ননা আপনাকে জনাব সুনিল কর্মকার সচিব দিয়ে থাকবে কারন ইন্ডিয়া স্যাটালাইট নিক্ষেপ শিখছে আর অনেক টাকা ধান্দা হবে স্বজাতীরও টেকনিকেল নিয়ন্ত্রনতো হাতে থাকবেই।

বর্ননাঃ সেদিন প্রেসব্রিফিংয়ে মাননীয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী নিম্ন লিখিত প্রলাপগুলি বকেন। সরকার শিগগিরই ভিওআইপি (ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল) উন্মুক্ত করে দেবে। উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে দ্রুতগতিসম্পন্ন অপটিক্যাল ফাইবার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ ছাড়া কয়েক বছরের মধ্যে মহাশূন্যে একটি কৃত্রিম উপগ্রহ স্থাপনের মাধ্যমে বাংলাদেশকে তথ্যপ্রযুক্তিতে একটি উল্লেখযোগ্য পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে সরকারের। তিনি জানান, টেলিযোগাযোগ শিল্প সংস্থার মাধ্যমে সাশ্রয়ী মূল্যে ল্যাপটপ, মোবাইল, টেলিফোন সেট ইত্যাদি তৈরি ও সরবরাহের উদ্যোগ নেওয়া হবে। সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন টেলিযোগাযোগসচিব সুশীল কান্তি বোস, টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুজিবর রহমান, বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খবিরুজ্জামান, বিটিআরসির চেয়ারম্যান জিয়া আহমেদ প্রমুখ। প্রথমআলোঃ Click This Link

আলোচনাঃ জনাব মন্ত্রী মহোদয় আপনিতো করছেন জগন্নাথ কলেজ থাইক্কা বিএ (পাস) পাশ আর এখন হইছেন ডিজিটাল বাংলাদেশে কর্ণধার মন্ত্রী, ডিজিটাল বান্দর। অর্থাৎ ডিজিটাল বাংলাদেশর মেরুদ্ড যার উপর ডিজিটাল দেশটা দাড়াবে পরে হাটবে সেই টেলিযোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী আপনি। আপনার মত একটা বাই ফেইস ডিজিটাল অপদার্থকে যে ডিজিটাল বাংলাদেশের মেরুদন্ড গড়ার কাজ দেয় তার নিয়তে আমাদের সন্দেহ হয়। আপনাকে ডিজিটাল বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বানানোর ভেতর দিয়ে শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মানে কু-কমিটম্যান্ট স্পষ্ট ফুটে উঠেছে। জনাব এতক্ষন উপরে আপনি কি এসব কইলেন ? বোজেনতো ? কনতো খালি ঐ সম্প্রদায়গত ভাবেই চোর সচিব সুনিল কান্তিরা যা বুঝায় তাই মূখস্ত করে বলেন। তাহলে এবার শুনেন কাঁঠাল-ভাঙ্গার-মাথা সমৃদ্ধ ম্যাংগোজনতা কি বলে ?

১. ভিওআইপি ওপেন করা মানে তাজমহল বানানো না যে দুই বছর পার কইরা দিলেন। প্রতি মাসে ২০ কোটি টাকা ভাগাভাগি বন্ধ হইয়া যাবে, খুব কষ্ট তাই না ? দুই মাসের কথা বলছেন ভালো লাগলো তয় এই দুই আর পরে এক তৃতীয় মাসে প্রান্তিক উদ্দোক্তাদের কথা বিবেচনায় রেখে কয়েক হাজার লাইসেন্সের ভিওআইপি ওপেন ও পরবর্তী প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে না পরলে চতুর্থ মাসের প্রথমদিন থেকে আপনার আর মন্ত্রনালয়ে আসা লাগবো না। আপনার চাকরী নট। অবশ্য এর মধ্যেই আপনি স্বপরিবারে ভিওআইপি লাইসেন্স দেয়ার নামে খাওয়া দাওয়া শুরু করে দিয়েছেন। সম্প্রতি আপনার পরিবার চিটাগাং গেলে এক প্রার্থি ২ লাখ টাকার সপিং করে দেয়

২. আপনি বলছেন সরকার উপজেলা পর্যন্ত অপটিক ফাইবার স্থাপনের উদ্দোগ্য নিয়েছে। কোথায়, কবে, কি ভাবে, কি উদ্দোগ্য নিল ? উল্টাপাল্টা বোঝাবেন, না ? পাবলিকরে ধুর পাইছেন ? আপনারা গত ২০০৯ জানুয়ারী মাসে সারাদেশে অপটিক ফাইবার স্থাপনের জন্য অপটিক এট হোম নামক একটি মাত্র কোম্পানীকে লাইসেন্স দিয়েছে। আজ আবার রাষ্ট্রপতির সামনে বললেন আপনারা গ্রাম পর্যন্ত অপটিক ক্যাবল কানেকশন দিচ্ছেন। এত বড় মিথ্যা ! সূত্রঃ Click This Link কি হাস্যকর ব্যবস্থা। একটি মাত্র লাইসেন্সসে শুধু ঢাকা শহরের ক্যাবল ঢুকাতেই বিশ বছর লাগবে, সারা দেশ আবার উপজেলা পর্যন্ত ? রিয়েল মজা লন জনগনের লগে, তাই না ?

৩. স্যাটালাইট মারবেন মানে কৃতিম উপগ্রহ উৎক্ষেপন করবেন ? আবার হেই স্যাটালাইটে স্যাটালাইট টিভি ভাড়া দিবেন ? কেডা আপনেরে এইটুকু শিখাইয়া ছাইরা দিল ? স্যাটালাইট অনেক বড় কামের জিনিষ এটা খালি টিভি দেখার যন্ত্র না। শোনেন বিডিয়ার হেডকোয়ার্টারে যখন অফিসারদের হত্যা করা হচ্ছিল তখন আপনারা চাইলেই লাইভ স্যাটালাইট ভিডিও স্ট্রিমিং দেখতে পারতেন সেই সিকিউরিটি সাবস্ক্রিপশন সরকারের থাকা উচিত ছিল। এতে নিজের স্যাটালাইট নিক্ষেপ করন লাগে না। লোকজন এটা দিয়ে আজকাল বিশাল পার্কিং লটে ঘরে বসে গাড়ি পাহারা দেয়। আমাদের স্যাটালাইট লাগতে অনেক দেরী আছে। যখন লাগবে তখন আমরা ঐ স্যাটালাইট দিয়ে পদ্মার জাটকা পাহারা দিয়ে বছরে দুই হাজার কোটি টাকার পরিবর্তে বিশ হাজার কোটি টাকার ইলিশ উৎপাদন করবো। আর স্যাটালাইটের ইন্টারনেট সেবার আগে আপনি সাবমেরিন ক্যাবল নিয়া ভাবেন।

৪. ১৯৭৪ সালে মাগনা, ১৯৮৫ সালে মাগনা, ১৯৯৪ সালে অল্প টাকা দিয়ে ২০০ বছর আগের সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত না হয়ে পৃথিবীর সবচয়ে বড় গর্ধপ জাতি হিসাবে ২০০৭ সালে এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে সিমিউই৪ এ যুক্ত হয়ে আমরা করছি ? দেশে যেখানে এভারেজ স্পীড ৫ কিলোবিট পার সেকেন্ড সেখানে আপনার সাবমেরিন ক্যাবল কম্পানীর পদাধীকার বলে চেয়ারম্যান সচিব সুনিল কান্তি ঐ ক্যাবলের মোট ক্ষমতা ৪৫,০০০ (পয়তাল্লিশ হাজার) মেগাবিট এর মাত্র পাঁচ ভাগের একভাগ ১০,০০০ (দশ হাজার) মেগাবাইট সবগুলো ইন্টারনেট প্রভাইডার ও মোবাইল অপারেটর দের দিয়ে বাকি ৩৫০০০ (পয়ত্রিশ হাজার) মেগাবিট অব্যবহৃত রাখছে অর্থাৎ নষ্ট করছে। অথচ ঐ সবটুকু আপনাদের এই একযুগ আগের জিপিআরএস মোবাইল নেট ওয়ার্কেই দেয়া যায়। ৩২কেবি পর্যন্ত দিতে পারে আর আমরা পাই ০ থেকে ৫ কেবি। সুনিল ঐটুকুই ভারতে এক্সপোর্ট করার ধান্দায় আছে। সূত্রঃ http://www.bsccl.com.bd/

৫. বাংলাদেশের এক্সজিসটিং গনযোগাযোগ ইনফ্রাস্টাকচার যেখানে বলে এদেশে ওয়ালেস কানেক্টিভিটি একটি অপরিহার্য উপদান। সেখানে দশ বছর আগের টেকনোলজী থ্রজি মানে থার্ড জেনারেশন মোবাইল নেটওয়ার্ক গত পাঁচ বছর যাবৎ আপনার মন্ত্রনালয় দেই দিচ্ছি করছে। দুর্গমতম লোকেশনেও ব্রডব্যান্ড দেয়ার একমত্র বাস্তব মাধ্যম থ্রিজির ফাইল নিয়ে আপনার সচিব না না হিসাবে ব্যাস্ত, ওয়াইম্যাক্স আবার ধরা খাবে না তো ? ইত্যাদী। ৫. আপনার চোখের সামনে ভারতের এয়ারটেল মাত্র এক কোটি টাকা এসেট ভ্যালু দেখিয়ে আইন অনুযায়ী ৫.৫ শতাংশ অর্থাৎ ৩,৮৫,০০০ (তিন লক্ষ পচাশি হাজার) টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিয়ে ওয়ারিদের ৭০ শতাংশ শেয়ার ৭০,০০০০ সত্তুর লাখ টাকায় কেনা দেখিয়েছে বিরাট রাজস্ব ফাঁকি দিতে। সূত্রঃ Click This Linkপরে এই তিন লাখ টাকাও মাফ করে দিতে আইনের এ অংশটুকু বিধিমালা থেকে বাদ দিয়েছেন।

ADs by Techtunes ADs

৬. ভুল সংক্ষক ও চড়া মূল্যে ওয়াইম্যাক্স দেয়ার কারনে এটা দুই বছরেও ঢাকার অল্প কিছু অংশে মাত্র কভার করতে পেরেছে সে বিষয়টা আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষনও করতে পারে না। অথচ একটা ওয়ারল্যাস ব্রডব্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন যা আমাদের মত ব্যকওয়ার্ড দুর্গম এলাকা সমৃদ্ধ দেশের জন্য খুবই কাজের জিনিষ ছিল।

৭. গত আড়াই বছরে দুই ধাপে সরকার বাহাদুর প্রতিবার দুই তৃতীয়াংশ করে মূল্য কমিয়ে প্রতি মেগাবিট ব্যান্ডউইথ এর মূল্য ৮৪,০০০ (চুরাশি হাজার) টাকা থেকে মাত্র ১৭,০০০ (সতের হাজার) টাকায় নামিয়ে আলনেও এখনও যে ইন্টারনেট প্রভাইডারেরা আগের রেসিওতেই প্রতি মেগাবিটের বিপরীতে ২৫০ জন ইউজার বরাদ্দ করছে যেখানে দাম কমানোর রেসিওতে ৫ (পাঁচ) গুন বেশি ব্যান্ডউইথ নেটে দেয়া উচিত। এর বদলে আপনাদের কয়েক মেগাবিটের দাম ফাউ দিয়ে দিলেই যেখানে কাজ হয় সেখানে খামাখা কি উল্টাপাল্টা বলছি তাই না ?

৮. ব্যাপক আলোচনা ও আমাদের সুবিধা অসুবিধার কথা সবার সাথে আলোচনা না করেই আপনি ও আপনার সচিব ভারতে ভৃত্যর মনিবকে উপঢৌকনের আদলে উত্তর পূর্বঞ্চলে টেলিকরিডোর দিতে যাচ্ছেন। সূত্রঃ Click This Link

৯. কি বিবেচনায় আপনারা দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল নামে ভারতের চেন্নাই এর সাথে সংযুক্ত হতে যাচ্ছেন। দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের নামে ভারত নির্ভর সংযোগে সুনিল পোদ্দার এত আগ্রহী কেন ? সূত্রঃ Click This Link

১০. আপনার সচিবের চেয়ারম্যানসিপে স্পেকটাম ম্যানেজম্যান্ট কমিটি নামে যে কমিটি আছে তা যা ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোষনা শোনার পরও দুই বছরে চেতনাই আসলো না। অন্য সব দেশের যেখানে একই সমান এই ফ্রিকোসেন্সি সম্পদ দিয়ে ডিজিটাল তুফান তুলে দিয়েছে সেখানে আমরা পাঁচ শতাংশও ব্যাবহার করছি না ।

১১. কমিউনিটি রেডিও নিতীমালা ও ফ্রিকোয়েন্সি বরাদ্দ নিয়ে গত কেয়ার টেকার সরকার যে এনজিও লালন পালন নীতিমালা করে গেছে তাই নিয়ে বসে থেকে কমিউনিটি রেডিও-র এদেশের গ্রামীন অর্থনীতিতে ব্যপক সম্ভাবনা আপনারা নষ্ট করছেন।

১২. আপনার সচিব এর চেয়ারম্যানিতে সরকারী মোবাইল কম্পানী টেলিক ব্যাপক সম্পদ এবং সুযোগ সুবিধা ভোগ করে একটা চুরিচামারির হাট ছারা এখনও কিছুই হতে পারছে না। আবার এটাকে শেয়ার মার্কেটে নিয়ে আসার অর্থমন্ত্রীর বেঁধে দেয়া ছয় মাস সময় পরে সুনিল বলে এসেট ভ্যলুয়েশনে আরও দুই বছর লাগবে।

১৩. এরা দেশের পনের কোটি মানুষকে সংযুক্ত করার ক্ষমতা সম্পন্ন দ্বিতীয় টেরেস্টারিয়াল টিভি চ্যানেলটি বন্ধ করে রেখেছে, আদালতে নিজেরা রায় পাঠিয়ে কথায় কথায় টিভি চ্যানেল বন্ধ করে দেয়। আপনাদের তত্তাবধানে দেশের ফুল মাউন্টেড আর একটা ভিএইচএফ চ্যানেল অব্যবহৃত থাকছে সে বিষয়ে আপনার চেতনাই নেই আবার এই দিকে স্যাটালাইট টিভি চ্যানেল নিয়ন্ত্রনের নামে নিজেরাই কোর্টে বসে অযৌক্তিক রায় দিয়ে স্যাটালাইট চ্যানেলই বন্ধ করে দিচ্ছেন।

১৪. সেই দেড় বছর আগে কইলেন টেলিফোন শিল্প সংস্থা চেয়ারম্যান সুনিল ১২ হাজার টাকায় ল্যাপটপ বানাবে। জানেনতো ইতিমধ্যে ভারত ৭ হাজার টাকায় নোটবুক বানাইয়া ফালাইছে। আপনারে দিয়া কাম হবে না।

১৫. আইপি ফোনের জন্য মাত্র ১৮টা লাইসেন্স দিছেন অথচ এর লাইসেন্স সব সময় সবার জন্য যে কোন সময় ওপেন থাকা উচিত। আর আইপি টেলিভিশনের কথা কি ভাবছেন ?

ADs by Techtunes ADs

১৬. ডিজিটাল বাংলাদেশ করতে যেখানে অন্তত দেশের সরকারী অফিস আদালতে টেলিফোন, ওয়াসা, বিদ্যুৎ এর মত বিটিসিএল এর ইন্টারনেট থাকা অপরিহার্য সেখানে দেশের ১% নেট ইউজারও বিটিসিএল ব্যাবহার করে কিনা সন্দেহ আছে । উপরন্তু উপজেলা লেভেলে এখনও ৫০% ল্যাডফোন কানেকশন অব্যবহৃত রেখেছেন।

বিবিধঃ এছারাও আপনার মন্ত্রনালয় দৈনন্দিন কাজ থেকে শুরু করে সুদূর প্রসারী নীতের ক্ষেত্রেও একটা চোরের খনি এর ভেতর চলছে শুধু হরিলুট। ঠিক আছে আমরা বুঝি ইন্টারনেট টেলিকমিউনিকেশনের মত বিষয় আপনার বোঝার কথা না। বিষয়টা আপনার চেহারায় স্পষ্টাক্ষরে লেখা, মাইন্ড করে লাভ নাই। যে আপনার চেহারার ও বয়সের একজনকে ডিজিটাল বাংলাদেশের মেরুদন্ড গড়ার কাজ দেয় তার নিয়তে আমাদের সন্দেহ হয়। সমাধানঃ তবে উপরের আলোচনার পর আমরা যে ব্যাক্তিটিকে এই ডিজিটাল বান্দরের পালে সবচেয়ে শয়তান বান্দর হিসাবে পাই সেটা হলো ঐ ছচিব মহোদয়। দেশের অন্য সব সেক্টরের মত এখানেও এটাই মূল ও স্থায়ী হারামজাদা। একে ফোকাস করে এখন পজিটিভ একটা টিপস দেই তাহলে দেখবেন এই কঠিন কাজটাও পানির মত সোজা হয়ে যাবে।

টিপসঃ "আমরা সচিব পিডাই" কথাটির তাৎপর্য অনেক গভীর অনেক ব্যপক। সে বিষয়ে বিস্তারিত ধীরে ধীরে লেখা হবে। তবে কি কি ভাবে ও কত প্রকারে এই আমলারাই দেশের প্রতিটি সেক্টরের দৃশ্যমান ও অদৃশ্য অগ্রগতি ও নিম্নগতির আশি ভাগ অপকর্মের জন্য দায়ি তা ডিটেইল ও এদের কু কর্ম সহ ইতিহাস বলতে গেলে পদ্মা মেঘনার পানি শুকিয়ে যাবে তবু এই বিদেশি সিসটেমের চোরদের কাহিনি বলা শেষ হবে না। এখানে টিপসটা বোঝার সুবিদার্থে আমাদের দেশের ইন্টারনেট নিয়ে এরা যা করে আসছে এর সামান্য কয়েকটা সেয়ার করছি, আপনারা চাইলে আরও কয়েকটা উদাহরন যোগ করতে পারেন।

১. একমাত্র চুরি বিদ্যায় দক্ষ বাংলাদেশের আমলারা আমাদের বুইড়া অর্থব অথচ ডাকাতি বিদ্যায় পিতা পিতামহের ঐতিহ্যের সুযোগ্য ধারক রাজনীতিবিদের বোঝায়, এদেশে ইন্টারনেটের গতি বাড়লে বা এমবিপিএস গতি দিলে দেশের যুব সমাজ রসা তলে যাবে।

২. এই সকল আপাদ মস্তক চোর সংশ্লিষ্ট সচিব, যুগ্মসচিব ও প্রধান ইঞ্জিনিয়ারেরা সেই ২০০৫ সাল থেকে বলে আসছে মোবাইল অপারেটরদের থ্রিজি লাইসেন্স দিলে আমাদের যব সমাজ ধ্বংস হয়ে যাবে।

৩. সেই যে মনে আছে ১৯৯৪ সালে, যখন খালেদা জিয়া সাবমেরিন ক্যাবলে বাংলাদেশকে সংযুক্ত করার অনুমতি দেয়নি তখন কি হয়ে ছিল ? তখনও ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রনালয়ে একজন সচিব ছিল ও সংশ্লিষ্ট আমলারা ছিল। এরা সে সময় অনেক বুঝে মিটিং সিটিং করে মন্ত্রীকে, কমিটিকে ও তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীকে বুঝালো এ সংযোগ নিলে ওরা আমাদের সব তথ্য চু করে টান দিয়ে নিয়ে যাবে। কত বড় শয়তান ছিল একবার চিন্তা করেন ? যেহেতু এরা সরকারের কোটি কোটি টাকায় অসংখ্য দেশি বিদেশি ট্রেনিং নেয়া এক একটা সচিব অবশ্য ২০০ বছর আগে থেকে টেলিকমিউনকেশনে সাবমেরিন ক্যাবলের কথা কোথাও না কোথাও শুনেছিল এবং জানতো বিষয়টা কি। অথচ সেদিন এরা মূর্খ খালেদাকে বিষয়টি বোঝায়নি।

৪. আর এদিকে যেখানে পৃথিবীর সবাই ২০০০ সালের আগেই মোবাইলের সীমে ইন্টারনেট দেয়ার পার্মিশন দিয়ে দিয়েছিল সেখানে এরা সরকারকে বুঝিয়েছে মোবাইলে ইন্টারনেট দিলে ছাত্রসমাজ নষ্ট হয়ে যাবে। যার দরুন এই যে আপনার আজ যে জিপিআরএস ইন্টারনেটে ব্যবহার করেন তার পার্মিশন দেয়া হয় ২০০৬ সালে।

৫. সাবমেরিন ক্যাবলে ১৯০৪ সালে সংযুক্ত না হলেও ২০০২ সালে এই পরিবারের ৪র্থ ক্যাবল সিমিউই৪ এ সংযুক্ত হওয়ার প্রোপজাল যখন আসলো তখনও এই আমলারা এই সংযোগের ফলে দেশের তথ্য পাচার হয়ে যাবে কিনা বিষয়টি পরীক্ষা নিরিক্ষা করার নামে ৪ চার বছর ফাইলটি ঘাটাঘাটি করে তবেই পজেটিভ মতামত দেয় ২০০৫ সালে। যার ফলে ২০০৭ সালে এসে আমরা প্রথমবারের মত সাবমেরিন ক্যাবলে সংযুক্ত হই। ৬. অসংখ্য কুকর্ম করার সাথে সাথে এদের একটি উল্লেখযোগ্য মনোযোগ সব সময়ই আছে ওভারসী কল অর্থাৎ কি ভাবে ভিওআইপি আরও অনেক বছর বহাল রাখা যায়। এখানে এরা প্রতি ২০০ কোটি টাকা নগদ নারায়ন খেয়ে মাঝে মধ্যে ২ কোটি টাকার অবৈধ্য ভিওআইপি অভিযান পরিচালনা করে।

৭. আর সম্প্রতীকালে এই সকল প্রফেশনাল চোরেরা যা যা করে যাচ্ছে তার প্রতিটির কর্মফল বুঝতে আমদের মত সাধারন সচেতনদের পাচ বছর করে লাগবে। যেমন ১৯৯৪ সালের সাবমেরিন ক্যাবল বুঝতে বুঝতে আপনাদের প্রায় ২০০০ সাল মানে ছয় বছর লেগে গিয়েছিল।

উপসংহারঃ দেশের প্রতি দায়িত্ব হিসাবে উপজেলা চেয়ারম্যানরা তাদের কাজটি ঠিক মত করলেও যতদিন পর্যন্ত না কোন মন্ত্রী কোন সচিবকে থাপরা মাইরা সচিবালয় থেকে ফেলে না দিবে ততদিন এদের হুস হবে না। তাই মন্ত্রীদের বলছি, আপনারা তো বলেন আপনারা জনগনের কথা বলেন, জনগনের আশা পূরন করেন। একবার খোজ নিয়ে দেখেন স্বগোত্র ছারা এদেশের একটা জনগনও পান কিনা যে সচিব পাডানোর খায়েশ দীর্ঘ বছর যাবৎ তাদের মনে লালন করছে কি না ? তাই বলি সচিব পিডান দেশ বাঁচান। এক নজরে সচিবের বৈশিষ্ট। ১. এদের জিহবা মোটা প্রলেপ (কড়) যুক্ত ও কুকুরের মত এদের জিহবা এক হাত পরিমান বের হয়ে থাকে। কারন সারা জীবন তেল মেরে মেরে আর পা চেটে চামচমি করে করে পরিপক্কতা লাভ করেছে। চলবে। ২. এরা ডান দিকে আপনাকে দেখে যেমন রাজা মহারাজ আর আপনি সামান্য প্রজা এমন ভব নেয় সংগে সংগেই বাম দিকে নিজের বাপ, রাজনীতিবিদ দেখে হাত পা কচলিয়ে ঘারঘুর নিচু করে খালি পা টা চাটতে বাকি রাখে লেখাটি সামহয়্যারইন ব্লগ থেকে নেয়া । লেখক : প্রিন্সেস ঢাকা Source: http://www.somewhereinblog.net/blog/PrincessDhaka/29165827

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি MARUF AHMAD। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 379 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কোন কিছু বলবার মত নেই।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

বিদ্রহি ভাই, আপনাকে ধন্যবাদ দিয়ে ছোট করবো না। আপনি আমাদের অন্তরের কথাগুলো সুন্দর করে তুলে ধরেছেন। আমাদের ডিজিটাল সমাজের ধারক ও বাহক রুপী বান্দরেরা যেন এ গুলো পড়ে এবং নিজেদের কে গংগার জলে চুবিয়ে আনে। কি আর বলব লেখাগুলো যেন নিজেরই মনের কথা।

Level 0

আসলেই ভাই আপনি বিদ্রোহী। খুব সুন্দর ভাবে সবটুকু উপস্থাপন করেছেন সবকিছু। আপনি কি ভাই লেখক? লেখক হন বা না হন লেখকের চেয়ে কম ভালো লিখেন নাই। ধন্যবাদ

Level 0

vai jotil bidroho korlen.
but eta jodi digital bandor der kaan porjonto jeto taile r o valo hoto.
carry on

লেখাটি বাস্তবসম্মত বটে, টেকটিউনস-এর সকল পাঠকদের অনুরোধ করবো আমাদের এ দেশটিকে গড়ার জন্য এ ধরনের প্রতিবাদ ও গঠনমুলক সমালোচনা করার জন্য। যদিও এ জন্য আমাদের দেশের আমলারাই অধিকাংশ দায়ি…
সংযুক্ত আরব আমীরাত থেকে

বিদ্রোহী শুধু নামে নয় কাজেও …..

Abdullah Sayed ভাই আপনাকে অনেক ধন্যবাদ অনেক তর্থ বহুল একটা লেখা শেয়ার করার জন্য !!! সাথে ধন্যবাদ লেখক প্রিন্সেস ঢাকা কে !!!!

Like Button ta koi?

তথ্যটি শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।প্রথমে প্রিন্ট করলাম তারপর কয়েকবার পড়লাম ভাল উপস্থাপনা এবং তথ্য সমৃদ্ধ একটি রচনা এই জন্য লেখক অবষ্যই ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য তবে কিছু কিছু শব্দ আছে যা পরিহার করলেও পারতেন।এখানে একটা জিনিস স্পষ্ট আমাদের রাজনীতিবিদরা সর্বদা আমাদের মত সাধারন মানুষের সাথে নির্মম ভাবে খেলা করেন এই সব আজগুবি তথ্য দিয়ে আর আমরাও এতসব জ্ঞানগম্ভির কথা না বুঝে খুশিতে গদ্গদ হইয়া যাই।খনার বচনে পড়েছিলাম নেড়া দুইবার বেল তলায় যায় না কিন্তু আমরা(মানুষ)বার বার বেল তলায় যাই,দুই চক্রে পড়ে আছি সেই স্বাধিনতার পর থেকেই এখন সময় এসেছে পরিবর্তনের এভাবে আর কতদিন।

ভাই ২ বছর আগে আমার ১ পরিচিত লক ,তাকে lenovo লাপ্তপ দিয়েছিল বাংলাদেশ সরকার আর 9000 tk ছিল modem কেনার জন্ন
আমি তাকে বলি Gp connection নিতে ……………। কিছুদিন পর office order দিল aktel connection ও ৫৬kbps নিতে ….তা আবার তারাই supply দিল … জা দিয়ে gmail open করা জেত না (স্পীড ১-২kbps ) জার মাসিক বিল ৯০০টাকা …………আমি সেদিন বুজেছি …।।সরকার এর উপরে কোন গাধারা বসে থাকেন তারা কি করেন প্রাথমিক সিখা বাবস্থা কে digital korar এটাই ছিল প্রথম চেষ্টা ………তারা আজও এটাই use করে speed 3-4kbps আমি বার বার তাকাই আর ভাবি ( কিছু মানুষ কিছু টাকার জন্ন পুরা প্রাথমিক শিখা বাবস্থা কে সুরুতে আটকে দিল digital হতে দিল না ) আমার কাছে ডকুমেন্ট আছে

Level 0

এই টিউনটি নির্বাচিত করার যোগ্য মনে করছি

    আমারো তাই মনে হয়।

    LuckyFM , আতাউর রহমান ভাই এর সাথে সহমত প্রকাশ করছি ..

আব্দুল্লাহ সায়িদ ভাই , ধন্য বটে আপনার নাম বিদ্রোহী । আমি শুধু শুধু ধন্যবাদ দিয়ে আপনার উপস্থাপনাকে মূল্যায়ন করতে চাই না । সত্যি বলতে কি , বার বার মনে হচ্ছে এ যেন আমারই কথা , আমাদের কথা । আমি টেকটিউনস কর্তৃপক্ষকে এই টিউনটি “নির্বাচিত” করার সবিনয় অনুরোধ জানাচ্ছি । এটুকুন প্রিন্সেসকে , আমি সামহ্যোয়ার ইন–এ প্রকাশিত আপনার টিউনটি পড়লাম । সত্যি অসাধারণ ! ধন্যবাদ দিয়ে তৈলাক্ত করে আপনাকে বিব্রত করতে চাই না ।
কেন যেন আজ খুব কবিতা লিখতে ইচ্ছে করছে , যদিও টেকটিউনস কবিতা লেখার জন্য নয় । তবুও আমার এই কাব্যাংশটুকুন আব্দুল্লাহ সায়িদ এবং প্রিন্সেসসহ সকল নতুন প্রজন্মকে ——————————

বিদ্রোহী এ মন আজ ক্ষেপেছে ভীষণ
মান্ধাত্বার এই সামাজিকতাটাকে মেরে,
করবো বিদেয় আধাঁর কালো, গড়বো
সব কায়দা কানুন নতুন করে ঝেড়ে ।
——————————–বিষকবি

শরাফিয়া , জেদ্দা , সৌদি আরব ।
[email protected]

    আমাদের জাতির বোন (শেক হাসিনা ) এর মন্ত্রী সভার কাসে কিভাবে তুনে তি পাঠান জায়

    ধন্যবাদ ভাই।
    আমি এই লেখাটি একবার পরেই প্রিন্সেস ঢাকা-এর বিরপট ফ্যান হয়ে গেছি।
    তথ্যগুলো আমার কাছে খুবই মূল্যবান মনে হলো বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে তাই অন্যদেরকে না জানিয়ে থাকতে পারলাম না।
    আমি মনে করি জনগুরুত্বপূর্ণ এসব লেখার কোনো কপিরাইটের দরকার নেই। তাই লেখকের নাম প্রকাশ করে আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম।
    আমাদের সকলেরই সত্য ঘটনা জানার অধিকার আছে ।
    তাই টেকটিউন কর্তৃপক্ষ লেখাটির গুরুত্ব বিবেচনা করে তা নির্বাচিত” টিউন হিসেবে প্রকাশ করতে পারে।

      Level 0

      @জাকির: @বিদ্রোহী Abdullah Sayed: @বিদ্রোহী Abdullah Sayed: ভাই পোষ্টটি আমার ছিল, এই নিকটি দুইবছর আগে সামু ব্যান করে দেয়।সহজপৃথিবী, চরমপত্র, মুক্তিরপ্রজন্ম সহ আরও কয়েকটি নিকে আরও গুরুত্বপূর্ন তথ্য পাবেন।এ বিষয়ে আমি আরও অসংখ্য পোষ্ট ও স্ট্যাটাস দিলেও এখানে আপনাদের আগ্রহ, প্রশংসা ও বিষয়টি বোঝার মাত্রা দেখে খুব ভালো লাগলো।যাক আমার চেষ্টা বৃথা যাচ্ছে না।আমার ফেইসবুক আইডিটি দিলাম, এই টেক ব্লগের সদস্যদের আমার ফ্রেন্ডলিস্টের ভিআইপি তালিকায় রাখবো। fb.com/rafins

ফেইসবুক বন্ধ করারর বিষয় টি বাদ দিয়ে আপনার লেখাটি অসাধারন হয়েছে
আমাদের দেশে রাজনীতে করে এমন কোন লোক আইটি সম্পর্কে জানেই না আর জানলে কি এমন করত ওরা জানে পকেট নিতি

ভাই আপনাকে আমার বিপ্লবী সালাম। ধন্যবাদ আমাদের মনের কথাটা বলার জন্য।

Level 2

লাল সালাম। সত্যি সেলুকাস কি বিচিত্র এই দেশ আর কি বিচিত্র আমরা বাঙ্গালি। বারবার ওদেরকেই নির্বাচিত করি আর …………………!!!!!!!!!!!!!!!!!…………..

ভাইরে কি লিখলেন এটা ,
আমি শেষ…