ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ইউটিউবের সিক্রেট টিপস এবং কৌশল সফলতা না এসে যাবে কৈ Dainamic post

ইউটিউবের সিক্রেট টিপস এবং কৌশল।

সফলতা তো আসবেই।  না এসে যাবে কই

Dainamic Post

Youtube Secrets Tricks

এই পাতায় নতুন কিছু আপডেট হতে থাকবে প্রতি সপ্তাহে

কথা দিয়েছিলাম ইউটিবের কিছু সিক্রেট টিপস নিয়ে হাজির হব। তাই আজকে লিখতে বসে গেলাম এই বিষয় নিয়ে। প্রথমে সবাইকে আমার সালাম ও হিন্দুদের নমস্কার জানায়। সুকরিয়া জানায় মহান আল্লাহর নিকট যিনি আমাকে আজকে আপনাদের সামনে  কিছু লিখার জন্য হায়াত দিয়েছেন।

ADs by Techtunes ADs

ইউটিব চেনেল সকলের আছে আশাকরি, সবাই চেনেল খুলতে জানে, টুকি টাকি সেটিং গুলো তো সবাই জানে। আজ আমি খুব গভীর সেটিং নিয়ে আলোচনা করব।

আজ আমি ইউটিউবের ২৪  টি পইন্ট নিয়ে কথা বলব। এর মধ্যে আপনার কিছু পরিচিত হতে পারে।

এই ২৪ টি পইন্ট আপনি যদি ফলো করেন তাহলে আমি  ৯০% বলতে পারব আপনি সফল হবেনই।

সফল না হয়ে  যাবে কয়।

তাহলে মন দিয়ে সব মাথায় ডুকিয়ে নিন। কোন কাজ থাকলে এখন রাখেন। এই টিটোরিয়াল হয়ত আপনাকে সফলতা এনে দিতে পারে।

1. Unique name - ইউনিক নেইম

আপনি এমন একটি নাম দিয়ে চেনেল তৈরি করবেন, যে নামে আর কোন চেনেল নেই, যদি আপনার পছন্দের নাম টি অন্য একজন দখল করে থাকে তাহলে আপনি আপনার নামের সাথে প্রো অথাবা বিডি বা অন্যনা কিছু যুক্ত করে দিতে পারেন এইটাই হলো ইউনিক। তাছাড়া এমন একটি নাম দিবেন যাতে সবার লিখে সার্চ দিতে এবং মনে রাখতে সমস্যা না হয়। আপনার চেনেল কেটাগরির সাথে মিলিয়ে নাম দিলে বেশি ভালো হয়।

2. Discription and design - ডিসক্রিপ্সন ও ডিজাইন

ডিসক্রিপসনে লিখে দিবেন আপনার চেনেল সম্পর্কে কিছু, যেমন আপনার চেনেলে কি কি ভিডিও আপলোড করা হয়, কোন সময়ে করা হয় ইত্যদি। তারপর আপনার চেনেলটি ডিজাইন করে নিবেন। লিঙ্ক যুক্ত করবেন, যেমন আপনার ফেইসবুক লিঙ্ক টুইটার লিঙ্ক, ওয়েবসাইট, লিঙ্কডিন ইত্যাদি।

তারপর চেনেলের বেনার দিবেন বানারে আপনার চেনেলের নামটি বড় করে দিবেন। নামের নিছে  আপনার চেনেল ট্যগ দিবেন। এতে দর্শক আপনার চেনেল সম্পর্কে ধারনা পাবে। আপনার হোম পেইজে একটি সুন্দর চেনেল ট্রেইলার দিবেন। ভিসিটর যখন আসে তখন আপনার চেনেল ট্রেইলারটি চোখে পড়ে। এতে আপনি যদি ভালো কিছু দিয়ে আকর্ষিত করতে পারেন, তাহলে সে আপনার ভিডিও গুলো দেখতে চাইবে।

3. Topic Selection - বিষয় নির্বাচন

আপনি প্রথমে নির্বাচন করবেন যে, আপনি কি নিয়ে ভিডিও করতে চাচ্ছেন। কি নিয়ে ভিডিও করলে মানুষ দেখবে। কেন দেখবে আপনার এই ভিডিও। এমন একটি টপিক সিলেক্ট করুন যা মানুষের উপকারে আসবে, এবং সবাই দেখতে চাইবে। যেইটাকে কি ওয়ার্ড বলা হয়। ধরুন কালকে এস এস রেজাল্ট দেখাবে, তাহলে আমি ভিডিও করতে পারি কিভাবে রেজাল্ট দেখবে, কারন সবাই কালকে ইউটিবে সার্চ দিবে যে, কিভাবে রেজাল্ট দেখতে হয়। আপনি ভালো করে একটি অ্যাপস  অথবা ওয়েবসাইট দিয়ে দেখিয়ে দিতে পারেন। এই রকম আরো অনেক সময় আছে যা নিয়ে মানুষ ইউটিউবে সার্চ করে।  এই সময় গুলো আপনাকে কাজে লাগাতে হবে।

ADs by Techtunes ADs

4. Topic Recharge - টপিক রিচারজ

ধরুন আপনি একটি টপিক নিয়ে ভিডিও করতে চাচ্ছেন। তা নিয়ে কিছুক্ষন গুগল আর ইউটিউবে সার্চ দিয়ে দেখবেন।  যদি এই ভিডিও অলরেডি থাকে, তাহলে কি হবে। অলরেডি যে ভিডিও টি রয়েছে তা যদি ভালো মানের হয়। আপনাকে তাদের চেয়ে ভালো করতে হবে ভিন্ন কিছু দেখাতে হবে আপনার ভিডিওতে যা আগের ভিডিওতে নেই। তবে হ্যা আপনার টাইটেল টি আরেক রকম করে দিবেন। যাতে তার সাথে মিলে না যায়। তাছাড়া এই ভিডিওটি যদি ইংরেজী ভাষায় হয় তাহলে আপনি নিঃসন্দেহে কাজ চালিয়ে যেতে পারেন। মনে রাখবেন হুবহু তার মতো করলে কপিরাইট ধরতে পারে।

5. Longer video - লম্বা সময়ের ভিডিও

আপনি যেই ভিডিও করবেন তা একটু বড় করে করার চেষ্টা করবেন।  কম পক্ষে ১০ মিনিট করার চেষ্টা করবেন। এটি আপনার ভিডিও রেঙ্ক করতে সাহায্য করবে। ইউটিউব বেশি সময়ের ভিডিও গুলো কে মনে করে তথ্য বেশি আছে, তাই রেঙ্ক করে দে। আপনি একটি টপিক নিয়ে সার্চ করে দেখুন না। কোন ভিডিও টি আগে আসতেছে।  তাছাড়া আপনার ওয়াচ টাইম ও বেশি হবে। বেশি ওয়াচ টাইম ভিডিও রেঙ্ক। আপনার ভিডিওর উপর ভিত্তি করে যদি ওয়াচ টাইম বেশি হয় তাহলে আপনার ভিডিও রেঙ্ক এ।

6. Discuss all important talking - সব গুরুত্বপূর্ণ কথা আলোচনা

ভিডিওতে কোন ফালতু কথা বলে সময় নষ্ট করবেন না। থেমে থাকবেন না, ইন্ট্রো ও বেশি বড় করবেন না। এতে অনেকে স্কিপ করে করে দেখবে। এর ফলে আপনার ক্ষতি হবে। আপনার ভিডিও রেঙ্ক করবে না।  যেমন ধরুন আপনার ১টি ১৫ মিনিটের ভিডিও ১০০ জন দেখলো ১০ মিনিট করে। অন্য একটি  ১০ মিনিটের ভিডিও  ৮০ জন ১০ মিনিট করে দেখলো।

এগুলো ১ ঘন্টার মধ্যে। তাহলে এইখানে ২য় ভিডিও টি রেঙ্ক করবে। কারন ইউটিউব মনে করবে

এই ভিডিও বেশি ভালো তাই পুরো ভিডিও দেখেছে। সুতরাং ১ম ভিডিও থেকে ২য় ভিডিও টি রেঙ্ক করবে। দর্শক ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখার জন্য আপনি কয়েকটি  ট্রিক ফলো করতে পারেন।

তা হলো এমন কিছু ভিডিওর শুরুতে বলে দিন দর্শক কে, যে (ভিডিওর শেষে আপনাদের জন্য একটি সারপ্রাইজ রয়েছে) এমন কিছু গুরুত্ব পূর্ণ কথা ভিডিওর শেষে বলতে পারেন।

7. Better thumbnail - ভাল থাম্বনেইল -

আপনি কি একবার চিন্তা করে দেখেছেন আপনি ইউটিউবে বেশির ভাগ ভিডিওতে ক্লিক করেন

থাম্বনেইল দেখে.। অনেকে তো টাইটেল একদম দেখেই না। তাই আপনাকে মনোমুগ্ধকর থাম্বনেইল  তৈরি করতে হবে। থাম্বনেইল  করার জন্য কালারের প্রতি মনোযোগ দিতে হবে, যেমন আমি যদি ফেইসবুক নিয়ে ভিডিও করি তাহলে আমাকে দুটি কালাদের প্রতি লক্ষ রাখতে হবে তা হলো - সাদা আর নীল। এই রকম আপনি যে টপিক নিয়ে ভিডিও করবেন তা গুগল এ ইমেইজ সার্চ দিয়ে দেখবেন বেশির ভাগ কি কালার দিয়ে তৈরি, আপনি ও তাদের মতো ঐ রকম কালার দিয়ে থাম্বনেইল  তৈরি করবেন। থাম্বনেইল  যাতে জুম আউট করলে ও ভালো করে দেখা যায়, এইভাবে করতে হবে।

এমন থাম্বনেইল দিতে হবে যাতে রহস্য জনক হয়।

বাকি ট্রিকস গুলো জানতে ভিসিট করুন MR Laboratory তে। 

ADs by Techtunes ADs

সব কপি করা যাচ্ছে না।

 

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি Md Mijanur Rahaman। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 মাস 2 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 12 টি টিউন ও 3 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 5 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

সুপ্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি, আমি "মিজানুর রহমান"। আমি 1 দিন 4 ঘন্টা আগে বিশ্বের এই সর্ববৃহৎ বাংলা প্রযুক্তির সোসিয়াল নেটওয়ার্কের এর সাথে যুক্ত হয়েছি। আমি আপনাদের দারুন আর মানসম্মত টিউন নিয়মিত উপহার দিতে পারব বলে আশা করি। টেকটিউনস এর সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস