ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

সেরা ১০ টি ফ্রি আইফোন ইমুলেটর

টিউন বিভাগ আইফোন
প্রকাশিত

আইফোন এমুলেটর হ'ল এমন একটি প্রোগ্রাম যা কোনও আইফোনের হার্ডওয়্যার প্রতিলিপি করে যাতে আপনি অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমে আইওএস অ্যাপ্লিকেশন চালাতে পারেন। অ্যাপ্লিকেশন বিকাশকারীরা প্রায়শই উইন্ডোজ বা ম্যাক কম্পিউটারগুলিতে আইফোন সফ্টওয়্যার যা প্রোগ্রামিংয়ের জন্য ব্যবহার করেন সেগুলি পরীক্ষা করতে ইমুলেটর ব্যবহার করে।

ADs by Techtunes ADs

যদিও অ্যান্ড্রয়েডের জন্য প্রচুর এমুলেটর রয়েছে, কিন্তু উইন্ডোজ বা ম্যাকের জন্য এই ইমুলেটর খুব বেশি নাই। আপনাদের সাহায্যের জন্য আমি পিসি এবং ম্যাক এর জন্য তৈরি সেরা আইওএস ইমুলেটরগুলির একটি তালিকা তৈরি করছি। এখানের সবগুলো ইমুলেটর এ ফ্রি, এবং তা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ট্রায়াল দিয়ে ব্যবহার করতে দিবে। তো দেখে আসা যাক সেরা কয়েকটি ইমুলেটর :-

1: Appetize.io

আমি Appetize.io এখানে প্রথম স্থানে অন্তর্ভূক্ত করতেছি এর ফ্রি সার্ভিসের সহজলভ্যতার জন্য। প্রথমদিকে পিসি এবং ম্যাক এর জন্য আইওএস ইমুলেটর এর সঙ্গকট দেখা দিলে এটা প্রথম একটা দারুন সমাধান খুঁজে দেয়। যেখানে শুধুমাত্র আপনি এপটা আপলোড আপনি ভাল করে চলাতে পারবেন। ডেভেলপাররা ওয়েবসাইট বা অন্যান্য পর্যায়ে উন্নয়নের জন্য অথবা অ্যাপ্লিকেশনকে এম্বেড করার উদ্দেশ্যে আইওওস ইমুলেটরগুলি ব্যবহার করতে পারে। আই আইফোন ইমুলেটরটি আপনাকে অ্যাপসের জন্য ফ্রি ১০০ মিনিট ফ্রি স্ট্রিমিং সময় দেয়। আপনি ড্যাশবোর্ড থেকে আপনার ব্যবহারগুলি পর্যবেক্ষণ করতে পারেন এবং আপনার সীমাতে পৌঁছে গেলে সতর্কতা সেট আপ করতে পারেন। ফ্রি ইমুলেটর হিসেবে এটা অত্যন্ত ভালো একটি অপশন, যা আপনাকে প্রিমিয়াম ফিল দিবে।

2: Ripple

যেখানে Appetize.io পিসির জন্য ব্রাউজার ভিত্তিক আইফোন এমুলেটর, কিন্তু সেখানে রিপল একটি ক্রোম একটি ক্রোম এক্সটেনশন আকারে কাজ করে। জটিল সেটআপ প্রক্রিয়া ছাড়াই ক্রস-প্ল্যাটফর্ম মোবাইল এবং এইচটিএমএল 5 অ্যাপ্লিকেশনগুলির পরীক্ষার জন্য এটি জনপ্রিয়। ফোনগ্যাপ এবং ওয়েব ওয়ার্কের মতো প্ল্যাটফর্মগুলির দিকে লক্ষ্যযুক্ত, এমন ডেভেলপারদের রিপল এইমস দারুন সব ফিচার

দিয়ে সহায়তা করে যেমন এইচটিএমএল, ডম ইনসেপশন, অতোমেটেড টেষ্টিং, জেএস ডিবাগিং সহে আরো অনেক ফিচার প্রদান করে। একই সময়ে বিভিন্ন রেজুলশনের বা বিভিন ডিভাইসে অ্যাপ্লিকেশন রান করতে পারে। যদি আপনি নতুন কোন ডিভাইস কানেক্ট করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে কম্পিউটার রিস্টার্ট দেও্যার দরকার নাই, যেটা ডেভেলপারদের ব্যবহার অভিজ্ঞতা সুবিধাজনক করে তুলেছে।

3: iOS Simulator in Xcode

ম্যাকের জন্য অ্যাপলের এক্সকোড সফটওয়্যার আইওএস, টিভিএস, ওয়াচওএস এবং আইমেসেজের জন্য নিজস্ব অ্যাপ সিমুলেটোর নিয়ে আসে। সুতরাং, যদি কেউ এক্সকোডটিকে প্রাথমিক অ্যাপ্লিকেশন বিকাশ স্যুট হিসাবে ব্যবহার করে থাকে, তবে এটি বিভিন্ন ধরনের ইন্টারঅ্যাকশন যেমন ট্যাপস, ডিভাইস রোটেশন, স্ক্রোলিং এবং ব্যবহারকারীর দ্বারা সম্পাদিত অন্যান্য ক্রিয়াকলাপ অনুকরণ করার পক্ষে যথেষ্ট।

ম্যাক ব্যবহারকারীরা সরাসরি তাদের অ্যাপসটি এক্সকোড থেকে চালু করতে পারবেন। অন্যান্য ফ্রি আইফোন এমুলেটরগুলির তুলনায় এক্সকোডের মধ্যে সাফারি অ্যাক্সেস করে ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনগুলি পরীক্ষা করার সুযোগ দেয়।

ADs by Techtunes ADs

4: TestFlight

টেস্টফ্লাইট, যা এখন অ্যাপলের মালিকানাধীন, ডেভেলপাররা প্রায়’ই জামারিন(Xamarin) ব্যবহার করে আইওএস অ্যাপ্লিকেশন বিটার কোড পরীক্ষা করতে ব্যবহার করেন। অ্যাপ্লিকেশন গুলো  পরীক্ষার জন্য এটি অ্যাপলের অফিশিয়ালি প্রস্তাবিত পদ্ধতি হিসাবে বিবেচনা করতে পারেন।

টেস্টফ্লাইটের বিস্তৃত ডকুমেন্টেশন হ'ল আইওএস এমুলেটরটির পিসির জন্য একটি প্লাস পয়েন্ট। এই অ্যাপ্সে ফ্রি তে  আইওএস, ওয়াচওএস, টিভিএস এবং আইমেসেজের অ্যাপ গুলো সাপোর্ট করে। এটিতে চূড়ান্ত পর্যালোচনার আগে অ্যাপ্লিকেশনগুলির বহিরাগত বিটা পরীক্ষার জন্য একটি বিকল্প পদ্ধতি রয়েছে। এই এমুলেশন পরিষেবাদির ক্ষতিগুলি তুলনামূলকভাবে প্রযুক্তিগত সেটআপ এবং এটিকে একটি অ্যাপ স্টোর বিতরণ প্রোফাইল তৈরি করা দরকার।

5: Electric Mobile Studio

ইলেক্ট্রিক মোবাইল স্টুডিও হচ্ছে উইন্ডোজে আইওএস অ্যাপ চালানোর জন্য একটা প্রিমিয়াম অ্যাপ্স, তবে তারা ৭ দিনের জন্য পুরো ফ্রি ট্রায়াল দেয় তাই আমি এটাকে এ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছি। এর প্রধান বৈশিষ্টগুলোর মধ্যে আইফোন, আইপ্যাড, সাধারণ কাজের সেটআপের জন্য দুটি মেশিনে একই পণ্য ব্যবহার করার ক্ষমতা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

ডেভেলপররা এই আইফোন ইমুলেটর পছন্দ করে কেননা উইন্ডোজ ১০ এর জন্য কারন ইন্টিগ্রেটেড ওয়েবকিট এবং ক্রোম ডিবাগিং টুলস গুলোর জন্য কাজ আরোও সহজ হয়। তাদের পছন্দের শর্টকাট ম্যাপ করার জন্য হট-কী নেভিগেশন কী যুক্ত করতে পারেন। উইন্ডোজ ব্যবহারকারীরা সহজেই এই সরঞ্জামটি আইওএস অ্যাপের জন্য ভিজ্যুয়াল স্টুডিওর সাথে সহজেই ইন্ট্রিগেটকরতে পারে।

6: Remoted iOS Simulator for Windows

আপনার উইন্ডোজ পিসিতে আইওএস অ্যাপ্লিকেশন পরীক্ষা করার জন্য আর একটি জনপ্রিয় অপশন হল রিমোটেড আইওএস সিমুলেটর।  এটি একটি ডেভেলপার কেন্দ্রিক টুলস যা ভিজুয়াল স্টুডিওতে জামারিনের অংশ হিসাবে প্রি-লোডেড হিসেবে আসে। মাইক্রোসফ্ট এর ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ডকুমেন্টেশন রয়েছে যা ব্যবহারকারীরা আইওএস সিমুলেটারের সাহায্যে তাদের অ্যাপ্লিকেশনগুলি অনুসরণ এবং পরীক্ষা করতে পারবেন।

এই টুলটিতে একটু টুলবার রয়েছে যেখানে অনেক প্রয়োজনীয় অপশন রয়েছে যেমন হোম, লক, সেটিংস এবং স্ক্রিনশটের মত দরকারী। সেটিংস থেকে আপনি টাচ আইডি এনেবল করতে পারবেন, স্থির এবং চলমান অবস্থার সিমুলেট করতে পারেন, রোটেশন বা ঝাকাতে ও পারেন। এই টুলস আইফোনের মতই টাচ ও স্টাইলিশ ইনপুট সরবরাহ করে।

7: Ipadian 

ADs by Techtunes ADs

আইপ্যাডিয়ানের মত অনেক টুলস রয়েছে যা পিসি বা ম্যাকের মধ্যে আইফোন বা আইপ্যাডের অভিজ্ঞতা পাওয়া যায়, যা অনেক জনপ্রিয়। তবে, সেই সমাধানগুলি আপনাকে আপনার অ্যাপ্লিকেশন / কোডটি আপলোড করতে এবং এটি পরীক্ষা করতে দেয় না - পরিবর্তে, তারা আপনার ওএসের শীর্ষে একটি কাস্টম স্তরের মতো কাজ করে এবং তাদের অ্যাপ স্টোর থেকে কোনও আইওএস-এর মতো অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করতে পারে। সহজ কন আইফোন ইমুলেটর ইউজ করতে চাইলে আপনি আইপ্যাডিয়ান ইউজ করতে পারেন যা আপনার কাজকে অনেক সহজ করে দিবে।

8: BrowserStack

ব্রাউজারস্ট্যাক অ্যাপল আইওএস এবং গুগল অ্যান্ড্রয়েডের মোবাইল এমুলেটরগুলির একটি অনন্য দারুন উদ্ভাবন এবং উভয়ই সত্যিকারের ডিভাইসের মতো 99% সমান।

ব্রাউজারস্ট্যাক সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য ওয়েব এবং মোবাইল পরীক্ষামূলক প্ল্যাটফর্ম হিসাবে পরিচিত। এটি ইউজারের প্রত্যাশা পূরনের জন্য আপনাকে বিভিন্ন ডিভাইস এবং ডেস্কটোপ ব্রাউজার গুলোতে পরিক্ষা চালানোর অনুমতি দেয়। ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস ও দারুন API সিস্টেমের জন্য আপনার কাজকে মোটামোটি সহজলভ্য করে তুলবে। আপনি সহজেই মোবাইল, পিসি বা ম্যাকের মধ্যে স্যুইচ করতে পারেন।

9: XCODE 

Xcode হল আইওএস ডেভেলপারদের জন্য সেরা এমুলেটর কারণ এটি অ্যাপল তৈরি করেছিল। এটি সবধরনের অ্যাপল ডিভাইসকে এমুলেট করতে পারে, এতে আপনি দেখতে পারবেন কোন ডিভাইসে কোন রেটিনা রেজুলেশনে অ্যাপ্স কেমন পরিবর্তিত হয় তা। এতে আপনি নিশ্চিত করতে পারবেন আপনার অ্যাপ্স কোথায় পিছিয়ে আছে, কোথায় উন্নতি করত হবে।

এক্সকোড আপনাকে ডিভাইস এবং আইওএস সংস্করণের উপর নির্ভর করে সেটিংস পরিবর্তনের সুযোগ দেয়। আপনার অ্যাপ্লিকেশন পোট্রেট এবং ল্যান্ডস্কেপ উভয় মোডেই কাজ করে তা নিশ্চিত করার জন্য যখন স্ক্রিনটি ঘোরানো হয় তখন কীভাবে আচরণ করে তা পরীক্ষা করতে পারেন।

10: ScreenFly

স্ক্রিনফ্লাই এমন একটা সাইট যা ডেভেলপারদের বিভিন্ন স্ক্রিন আকারে ওয়েবসাইট বা অ্যাপটি পরিক্ষা করতে সহায়তা করে। এটিতে সাধারনত আইফোন 6 & 6 সাপোর্ট করে। এর একটি অন্যতম সুবিধা হলো এটি রেজুলেশনকে পিক্সেলে ভেঙ্গে নেয় যাতে তা সামঞ্জস্য করে নিতে পারে। এটিতে কোয়েরি সিগন্যালগুলিও রয়েছে যা ক্লায়েন্টদের তাদের ওয়েব সাইটটি কেমন লাগবে এবং কেমন লাগবে তা পরীক্ষা করার জন্য পাঠানো যেতে পারে যাতে সেখান থেকে সেখানে কোনও পরিবর্তন আনা যায়।

এখানে আমি বেস্ট ও টপ ১০ টা ইমুলেটর অ্যাপ্স নিয়ে আলোচনা করেছি। এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ফ্রি ও বেস্ট ইমুলেটর রয়েছে যা ডেভেলপাররা চাইলে ব্যবহার করতে পারে।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি মোতাছিম জোবায়ের। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 1 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস