ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

৬ টি কারণে আজ থেকে না উইন্ডোজ না ম্যাক শুধু মাত্র লিনাক্স

টিউন বিভাগ লিনাক্স
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

লিনাক্স এমন এক বিস্ময়ের নাম যা ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৯১ সালে উদ্ভব হয়েছিলো অর্থাৎ প্রায় ২৬ বছর আগে। তখনো কেও কল্পনাও করতে পারেনি এটি একসময় এত চমকপ্রদ হবে। এটি মুলত একটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম যা উইন্ডোজ এবং ম্যাক এর চেয়ে সম্পুর্ন আলাদা। লিনাক্সে সব কিছুই ফ্রিতে পাওয়া যায় এবং এটি ওপেন সোর্স হওয়ায় এর সব কিছু নিজের ইচ্ছা মত করে করতে পারেন কোন কপিরাইট ইসু নেই। এছাড়াও এর আরো অনেক বিস্ময়কর দিক আছে। তবুও আমরা অনেকেই এখনো লিনাক্স সম্পর্কে জানিনা আবার এটাও জানিনা আমরা সবাই যে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করি সেটাও এক প্রকার লিনাক্স। যাই হোক চলুন কাজের কথাইয় আসি।

ADs by Techtunes ADs

১. লিনাক্স সম্পূর্ণ ফ্রি

আপনারা যারা উইন্ডোজ ব্যবহার করেন তারা হয়ত অধিকাংশই জানেন না যে আপনারা যে সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করেন সেগুলো অরজিনাল সফটওয়্যার না অধিকাংশই ক্র্যাক অথবা হ্যাক করা। আপনারা এটাও জানেন না আপনি যেই মাইক্রসোফট ওয়ার্ড, পাওয়ার পয়েন্ট ব্যবহার করেন সেগুলো টাকা দিয়ে কিনতে হয় এবং সেগুলোর মুল্য প্রতি বছরের জন্য ১২, ০০০ টাকা প্রায়। এমন কি আপনি যে উইন্ডোজে এখন আমার লিখাটি পরছেন হয়ত সেটিও ক্র্যাক করা যার মুল্য এক বছরের জন্য প্রায় ১৬, ০০০ টাকা। এছাড়াও আমরা অনেক এন্টিভাইরাস, ভিডিও কনভার্টার যাই ব্যবহার করি কিনা সেগুলো অনেক মুল্যবান, যা আমাদের বেশিরভাগেরই সাদ্ধের বাহিরে। কিন্তু আপনি যদি লিনাক্স ব্যবহারকারি হন তাহলে আপনি যেই সফটওয়্যারই ব্যবহার করেন না কেন তা পাবেন সম্পুর্নই ফ্রি।

২. সম্পূর্ণ নিরাপদ

উইন্ডোজ হোক আর ম্যাক উভয়েই আপনার গতিবিধি ট্র্যাক করে এবং আপনার সকল তথ্য তাদের কাছে থাকে। অপরদিকে লিনাক্সই একমাত্র  অপারেটিং সিস্টেম যা আপনাকে ট্র্যাক করেনা এবং এটি ১০০% নিরাপদ, কারন এটি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে এর মধ্যে কোন ভাইরাস/ম্যালওয়্যার ঢুকতেই না পারে। যে কারনে এই অপারেটিং সিস্টেমে কোন এন্টিভাইরাস প্রয়োজন হয়না। এছাড়াও লিনাক্সে আপনার দেয়া সকল তথ্যই থাকে একদম নিরাপদ।

৩. বিশাল অ্যাপ স্টোর

আপনি হয়ত ভাবতে পারেন উইন্ডোজ এবং ম্যাকে রয়েছে অনেক প্রয়জনীয় সফটওয়্যার সেগুলো লিনাক্সে কথায় পাব? কথাটি এক সময় সত্যি ছিল অনেকেই সফটওয়্যারের সল্পতার কারনে অনেকেই লিনাক্স ব্যবহার করতে চাইতেন না। কিন্তু দিনে দিনে এতই সফটওয়্যার আসছে লিনাক্সের জন্য যা কল্পনারো বাহিরে। আপনি লিনাক্সে অফিস, পাওয়ার পয়েন্ট সহ প্রায় সকল অ্যাপই পাবেন একদম ফ্রিতে।

৪. অনেক দ্রুত

ধরুন আপনার একটি অনেক পুরনো কম্পিউটার আছে যেটাতে উইন্ডোজ এতই স্লো যে মনে হচ্ছে পানিতে ফেলে দেই। কিন্তু বিশ্বাস করুন আপনি যদি সেই কম্পিউটারেও লিনাক্স ইন্সটল করেন তাহলে আপনি বুঝতেই পারবেন না আপনার কিম্পিউটার নতুন নাকি পুরনো। এখন একবার চিন্তা করুন এটি নতুন এবং পাওয়ারফুল কম্পিউটারে কতটা দ্রুত কাজ করতে পারে।

৫. লিনাক্স কোন পণ্য নয়

এত ফিচার থাকার পরেও মজার ব্যাপার হল লিনাক্স কোন পন্যই নয়। ইন্টারনেট জগতে আপনি অনেক অপারেটিং সিস্টেম পাবেন যেগুলো লিনাক্সে তৈরি কিন্তু সেগুলো কার ব্যক্তিগত ভাবে না। আমরা ইউটিউবে যেমন ভিডিও দেখি লিনাক্সও ঠিক তেমনই কে কখন কি অপারেটিং সিস্টেম বানায় তার কোন ঠিক ঠিকানা নেই। আপনি চাইলে যেকোন টা ব্যবহার করতে পারেন অথবা নিজেই একটি কাস্টমাইজ করে নিজের নামে বানিয়ে নিতে পারেন। আপনার নামে কোন কপিরাইট মামলাও করতে আসবেনা কেও।

৬. ডুয়াল বুট

আপনি যদি চান লিনাক্স এবং উইন্ডোজ একসাথে ব্যবহার করবেন তাহলে ডু্য়াল বুট আপনি সেটিও করতে পারবেন। তাহলে সাপ মরল আর লাঠিও ভাংলোনা। এক কম্পিউটারে আপনি দুইটি ব্যবহার করতে পারলেন।

শুধু এগুলোই নয় লিনাক্সের আরো অনেক আকর্ষনিয় বিষয় আছে যেগুলো বলে শেষ করে যাবে বলে মনে হয়না। আপনি চাইলে এখান থেকে ফ্রিতে লিনাক্স ডাউনলোড করে ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আশা করি ভাল লাগবে। আপনার মুল্যবান মতামত জানাতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি সজীব শাহরিয়ার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 6 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 4 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ধন্যবাদ ভাই।