ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

নতুনদের জন্য মাইক্রোসফট ওয়ার্ড [পর্ব-০৩] :: Edit মেনুর বিস্তারিত

আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালোই আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় আল্লাহর রহমতে ভালো আছি।

ADs by Techtunes ADs

গত পর্বে আমরা শিখেছিলাম মাইক্রোসফট ওয়ার্ড –এর File মেনুর বিস্তারিত, আজকে আমরা শিখব মাইক্রোসফটওয়ার্ড-Edit মেনুর বিস্তারিত,

তাহলে চলুন শুরু করা যাক আজকের পর্ব, Edit মেনুর বিস্তারিত...

এডিট মেন্যু (Edit Menu)
মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের দ্বিতীয় মেনুর নাম হল Edit Menu এই মেনু দিয়ে ডকুমেন্টের বিভিন্ন সম্পাদনার কাজে ব্যবহার হয়। যেমনঃ আনডু, রিডু, কপি, পেস্ট, সিলেক্ট, খোঁজা, রিপ্লেস ইত্যাদি।

১. Undo (কী-বোর্ড শর্ট কাট কী Ctrl+Z)
মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ডকুমেন্ট –এ ভুলবশত কোন কাজ যদি হয়ে যায় তাহলে পূর্বের অবস্থায় ফেরৎ যাওয়ার জন্য এই সাব মেন্যুটি ব্যবহার হয়। এজন্য Edit মেনু থেকে Undo তে ক্লিক করলে হবে অথবা কিবোর্ডে Ctrl+Z কী দিয়ে কাজটি দ্রুত করা হয়।

২. Redo (কী-বোর্ড শর্ট কাট কী Ctrl+Y)
আপনি যদি ভুলবশত অনেকবার আনডু করেন তাহলে আপনাকে আবার বর্তমানে আসতে হবে। এই পদ্ধতির নাম Redo, এজন্য Edit মেনু থেকে Redo তে ক্লিক করতে হবে। (এখানে অনেকসময় Redo লেখার পাশে Clear, Typing ইত্যাদি থাকে। সর্বশেষ যে কাজ করা হয় তা থাকে।

৩. Cut & Paste (কী-বোর্ড শর্ট কাট কী Ctrl+X & Ctrl+V)
মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ডকুমেন্ট –এর লেখা একস্থান থেকে অন্যস্থানে নিয়ে যাওয়ার জন্য এই সাবমেনু দুটি ব্যবহার হয়। এটি দুই ধাপে কাজ করে থাকে। প্রথম ধাপে আপনি যেই লেখা একস্থান থেকে অন্যস্থানে নিয়ে যাবেন সেই অংশটুকুকে প্রথমে ব্লক/সিলেক্ট করে নিন। তারপর Edit >Cut এ ক্লিক করুন। তাহলে লেখাটি ওখান থেকে কেটে গিয়ে ক্লিপবোর্ডে মেমোরিতে জমা হবে। এরপর ডকুমেন্ট এর যে জায়গায় কাট করা লেখাটা নিতে চান সেখানে কার্সর রাখুন। তারপর Edit > Paste এ ক্লিক করুন। তাহলে লেখাটি ডকুমেন্ট এর কার্সর স্থানে চলে আসবে।

৪. Copy & Paste (কী-বোর্ড শর্ট কাট কী Ctrl+C & Ctrl+V)
মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ডকুমেন্ট –এর লেখা একস্থান থেকে অন্যস্থানে নিবেন কিন্তু লেখাটি দুই জায়গাই থেকে যাবে এমনটি করতে হলে এই পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। এক্ষেত্রে পদ্ধতিটি আগের মতই। শুধুমাত্র Cut এর স্থলে Copy করতে হবে। তাহলে লেখাটি পূর্বের স্থানেও থাকবে এবং বর্তমান স্থানেও চলে আসবে।

৫. Office Clipboard
আপনি ইতিমধ্যেই যে লেখাগুলো কাট বা কপি করেছেন তা এখানে মেমোরিতে জমা হয়েছে। আপনি এগুলো এখানে থেকে ব্যবহার করতে পারবেন। এমএস ওয়ার্ডের আগের ভার্সনগুলিতে মাত্র একটি লেখা ক্লিপবোর্ড এ জমা হত। কিন্তু ২০০৩ এর পরের ভার্সনগুলিতে ২৪ টি পর্যন্ত রাখা যায়। এখান থেকে কোন আইটেমে ক্লিক করলেই তা ডকুমেন্টের কার্সরের স্থলে লেখা পেস্ট হবে।

৬. Paste Special
ক্লিপবোর্ডে থাকা লেখাগুলো অন্য ফরমেটে পেস্ট করতে হলে এই মেন্যুর সাহায্য নিতে হয়। যেমনঃ কোথাও থেকে ছবিসহ কোন লেখা কপি করেছেন কিন্তু এখন চাইছেন শুধুমাত্র লেখাগুলো পেস্ট করতে সেক্ষেত্রে এখান থেকে Unformatted Text সিলেক্ট করে ওকে করতে হবে।

৭. Clear
কোন লেখাকে মুছে ফেলার জন্য দুটি অপশন আছে যথা- Formats & Contents কোন লেখা সিলেক্ট করে প্রথম অপশন দিলে লেখার ফরমেটিং (বোল্ড, ইটালিক, কালার) মুছে যাবে ও লেখা অক্ষত থাকবে। আর দ্বিতীয় অপশনটি দিলে ফরমেটিংসহ মূল লেখাটি মুছে যাবে। দ্বিতীয় অপশনটি কিবোর্ডের ব্যাকস্পেস বা ডিলিট বাটন দিয়ে করা যায়।

৮. Select All (কী-বোর্ড শর্ট কাট কী Ctrl+A)
কোন কারনে ডকুমেন্টের সবগুলো লেখা বা ছবি সিলেক্ট করতে হলে এই সাবমেন্যুর সাহায্য নিতে হয়। এজন্য ডকুমেন্টের যে কোন স্থান থেকে Edit এ ক্লিক তারপর Select All এ ক্লিক করুন তাহলে ডকুমেন্ট-এর পুরা লেখা সিলেক্ট/ব্লক হবে।

৯. Find (কী-বোর্ড শর্ট কাট কী Ctrl+F)
ডকুমেন্টের মধ্যে কোন লেখা খুজে পেতে হলে এই সাব মেন্যু ব্যবহার করতে হয়। এজন্য প্রথমে Edit থেকে Find এ ক্লিক করতে হবে। তারপর একটি উইন্ডো আসবে। এখানকার Find What বক্সে আপনি যা খুজতে চাইছেন তা লিখে Find Next এ ক্লিক করতে হবে। আপনার কাংখিত শব্দটি যদি ডকুমেন্টে থাকে তাহলে সেটি হাইলাইট/ব্লক করে দেখাবে। আপনি যদি আরও খুজতে চান তাহলে একইভাবে Find What এ লিখে Find Next এ ক্লিক করুন।

১০. Replace (Ctrl+H)
ডকুমেন্টের একাধিক জায়গায় অবস্থিত কোন শব্দকে অন্য কোন শব্দ দ্বারা প্রতিস্থাপন করার জন্য এই সাবমেন্যুটি কাজে লাগে। ধরুন কোন ডকুমেন্টে ১০০+ জায়গায় Noakhali লেখা আছে। এখন আপনি এর সবগুলোকে পরির্বন করে Sonaimuri লিখতে চাইছেন। সেক্ষেত্রে এই সাবমেন্যুর সাহায্যে করতে হবে। এজন্য প্রথমে Edit থেকে Replace এ ক্লিক করতে হবে। এরপর এখানে Find What বক্সে যেটি পরিবর্তন করবেন সেটি লিখতে হবে এবং Replace With বক্সে পরিবর্তন হয়ে যা হবে তা লিখতে হবে। তারপর Replace এ ক্লিক করলে একটি শব্দ পরিবর্তন হবে। Replace All এ ক্লিক করলে ডকুমেন্টের সব শব্দগুলো পরিবর্তন হয়ে যাবে।

১১. Goto (Ctrl+G)
মাউস বা কিবোর্ডের সাহায্যে আমরা ডকুমেন্টের একস্থান থেকে অন্যস্থানে যেতে পারি। কিন্তু যদি ৭৫ পেজ বিশিষ্ট একটি ডকুমেন্টের ২০ নং লাইনে কার্সর নিতে হলে তা বেশ সময় সাপেক্ষ হবে। কিন্তু Go To মেন্যুর সাহায্যে সহজেই সেখানে যাওয়া যাবে। এজন্য প্রথমে Edit এ ক্লিক তারপর Go To এ ক্লিক করতে হবে। তারপর Go To What বক্সে Page সিলেক্ট করে পেজটির নম্বর দিন। তারপর অবার বাম থেকে Line Number সিলেক্ট করে লাইন নম্বর দিয়ে Go To এ ক্লিক করুন। তাহলে কার্সর সেইল লাইনে চলে যাবে। এরপর Close এ ক্লিক করে Go To উইন্ডো থেকে বের হয়ে আসুন।

ইনশাআল্লাহ আগামী পূর্বে MS WORD –এর মেনুবারের View মেনু সম্পর্কে ধারনা দেওয়া হবে।

ভালো লাগলে কমেন্ট জানাতে ভুলবেন না, আজ এই পর্যন্ত।

আল্লাহ হাফেজ

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি হোছাইন আহম্মদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 486 টি টিউন ও 2515 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 11 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি হোছাইন আহম্মদ, কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টারে আছি শিক্ষক হিসাবে। ভালবাসি ব্লগিং, ডিজাইনিং এবং তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত যে কোন কিছু, খুবই সামান্য যা জানি শেয়ার করি এবং কিছু শেখার চেষ্টা করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় টিউনার,

আপনি ভুল ভাবে আপনার চেইন টিউনের শিরোনাম গুলো দিচ্ছেন। আপনি পর্ব হিসেবে টিউনের শিরোনাম গুলো –

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০১] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু …

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০২] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু ….

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০৩] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু

এর অর্থ প্রথমে চেইন টিউনের নাম, এরপর স্কয়ার ব্রাকেটের ( [ ] ) মধ্যে পর্ব হাইফেন (-) দিয়ে দুই সংখ্যায় পর্বের নম্বর। স্কয়ার ব্রাকেটের ( [ ] ) ভিতরে কোন স্পেস দিবেন না। এরপর ডাবল কোলন (::) এর পরে চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু এভাবে লিখুন।

টেকটিউনস থেকে আপনার টিউন গুলো চেইন করে দেওয়া হবে। চেইন টিউন কীভাবে প্রক্রিয়া হয় তা জানতে ‘টেকটিউনস সজিপ্র’ https://www.techtunes.co/faq এর ‘চেইন টিউন’ অংশ দেখুন। ধন্যবাদ।

খুবই ভাল আপনার শিখানোর স্টাইল চালিয়ে যান…

হোছাইন ভাই নতুনদের জন্য চালিয়ে জান আমরা আছি আপনার পাশে, ধন্যবাদ অনেক সন্দর হয়েছে।

হোছাইন আহম্মদ ভাই আপনাকে অসংখ্যা ধন্যবাদ নিঃস্বার্থে পরোপকারী হয়ে বিগেনারদের জন্য সহায়ক প্রযুক্তি জ্ঞান বিস্তারের জন্য। ভাই আমি মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ড্রিপলি শিখতে ভীষণ আগ্রহী। আমি আছি আপনার পাশে আপনি চালিয়ে যান। আমি যদি আপনার করা টিউনে মন্তব্যের মাধ্যমে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড সম্পর্কে আমার না জানা প্রশ্ন করি তাহলে আপনি কী আমাকে শিখতে সহযোগিতা করবেন?আমি বেশ অনেক দিন যাবৎ নিয়মিত ওয়ার্ডের কাজ করি। কাজ করার ক্ষেত্রে আমার সামনে কিছু প্রশ্ন এসে হাজির হয়। আমি আসলে আপনার মতই যে কিনা ওয়ার্ড শিখার জন্য টিউন করবে তার অপেক্ষায় ছিলাম………আর আপনার গত টিউনেও মন্তব্য করেছিলাম কেন জানি তা প্রকাশ হয়নি। আরেকটা কথা আপনার টিউন থেকে আরো বেশি ওয়ার্ডের বিরল অর্থ্যাৎ যা সবাই সচরাচর পারে না এরকম কিছু প্রত্যাশা করি।

    @jamal sheikh: ধন্যবাদ সুন্দর মন্তব্যর জন্য ইনশাআল্লাহ মাইক্রোসফট ওয়ার্ড -এর খুটিনাটি এবং ধারাবাহিক টিউন করব, এবং মাইক্রোসফট ওয়ার্ড এর কোন প্রশ্ন থাকলে জানাতে পারেন।

ধন্যবাদ হোছাইন আহম্মদ।ভাই থাকবেন………

    ধন্যবাদ হোছাইন আহম্মদ।ভাল থাকবেন………

ধন্যবাদ ধন্যবাদ হোছাইন আহম্মদ ভাই।ভাল থাকবেন………

ভাইয়া আপনাকে আনেক আনেক ধন্যবাদ । আমি আনেক কিছু শিখেছি আপনার টিউন থেকে । আল্লাহ আপনাকে উত্তম বদলা দান করুন ।