ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

টাইটানে এলিয়েন থাকার প্রমাণ মিলেছে!!!!

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত

সম্প্রতি শনির সবচে বড় চাঁদ টাইটানে এলিয়েন বা মহাজাগতিক প্রাণী থাকার প্রমাণ পেয়েছেন নাসার গবেষকরা। নাসার ক্যাসিনি থেকে পাঠানো ডেটা বিশ্লেষণ করেই গবেষকরা টাইটানে এ সূত্র খুঁজে পেয়েছেন।

ADs by Techtunes ADs

গবেষকদের বরাতে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, শনির অনেকগুলো চাঁদের মধ্যে একমাত্র টাইটানের আবহাওয়াই প্রাণ ধারণের উপযোগী। আর চাঁদের এই আবহাওয়ায় জীবনের উৎপত্তি হয়েছে এবং তারা শ্বাস নিতে পারছে। এমনকি জানা গেছে, এ ভ‚পৃষ্ঠের জ্বালানি খেয়েই নাকি বেঁচে আছে টাইটানের এইসব এলিয়েনরা।

অবশ্য এর আগে জ্যোতির্বিদরা দাবি করেছিলেন, টাইটানের আবহাওয়া প্রাণধারণের পক্ষে অসম্ভব শীতল। এ গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে ‘ইকারাস‘ এবং ‘জিওফিজিক্যাল রিসার্চ’ সাময়িকীতে।

এদিকে ইকারাস সাময়িকীর বরাতে জানা গেছে, টাইটানের হাইড্রোজেন গ্যাস গ্রহটির আবহাওয়ামন্ডলে প্রবাহিত হচ্ছে, কিন্তু পৃষ্ঠদেশে এসে এটি হারিয়ে যাচ্ছে। হাইড্রোজেন গ্যাসের এই প্রবাহ থেকেই প্রমাণিত হয় টাইটানে বসবাসরত এলিয়েনরা শ্বাস নিতে সক্ষম। অন্যদিকে জিওফিজিক্যাল রিসার্চ সাময়িকীর বরাত জানা গেছে, টাইটানের ভূপৃষ্ঠে রাসায়নিকের ঘাটতি আছে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, টাইটানের আবহাওয়ায় প্রাণ ধারণ সম্ভব। সূর্যরশ্মির সঙ্গে এ গ্রহের বায়ুমন্ডলে থাকা রাসায়নিক পদার্থগুলো বিক্রিয়া করে অ্যাসিটিলিন গ্যাস তৈরি করে বলে গবেষকরা ধারণা করছেন। যদিও ক্যাসিনির পাঠানো ডেটা থেকে এ ধরনের কোনো প্রমাণ তারা পাননি।

নাসার অ্যাস্ট্রোবায়োলজিস্ট ক্রিস ম্যাককেই-এর বরাতে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, মানুষ যেভাবে পৃথিবীতে বেঁচে থাকার জন্য শ্বাস নিতে অক্সিজেন ব্যবহার করে তেমনি টাইটানের এলিয়েনরা হাইড্রোজেন-এ শ্বাস নিয়ে টিকে আছে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, ৪০০ কোটি বছর পরে আমাদের সূর্য যখন লাল বামন দৈত্যের আকার নেবে তখন টাইটানে বাস করাটাই হবে উপযুক্ত। কারণ তখন এটিই হবে স্বর্গতুল্য।

তথ্যসূএ-http://tech{ডট}bdnews24{ডট}com/details.php?shownewsid=906

বি:দ্র - মন্তব্য দিতে ভুলবেন না।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level New

আমি তুসিন আহমেদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 50 টি টিউন ও 559 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি তুসিন আহমেদ । আমার ব্লগ http://tusin.wordpress.com/ফেইসবুকে আমি facebook.com/tusin.ahmed and yahoo তে [email protected]


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভালো একটা খবর জানালেন…..

তথ্যটি শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

ধন্যবাদ গুরুত্বপূর্ন তথ্য শেয়ার করার জন্য।

এ তো সাংঘাতিক খবর। কিছুদিন আগে স্টিফেন হকিং বললো মহাজাগতিক প্রাণীদের নিয়ে ঘাটাঘাটি করা আমাদের জন্য ঠিক হবে না। যদি এই দুটি ঘটনা সত্যি হয় তাহলে তো অনেক ভয়ের কথা এটা।

    হুম ..ভয়ের কথা .. না জানি কবে মহাজাতিক প্রানীরা পৃথীবিতে হমলা করে।….

Level 0

টিউন এর জন্য ধন্যবাদ।আচ্চা এলিয়েন এর কোন পিকচার তো তারা তুলতে পারেনাই। আর এলিয়েন বলে কোন প্রানী আছে বলে আমার মনে হয় না।আল-কোরআন ভিত্তিক রিসার্চ করে এগুলু বিশ্বাস করা যাবে যে পৃথীবি ছাড়া অন্য গ্রহে প্রান আছে কিনা। নাসা এর বৈজ্ঞানিকগন তো আর মুসলমান নন তাদের কথাই বিশ্বাস করা আমাদের মুসলমানদের ঠিক হবে?

    আল্লাহ কুরআনে বলেছে যে মানুষ ত্ত জীন ছাড়া আর কোন প্রানী নেই ……..কিন্তু আর এলিয়েন কাদের বলি .? আমরা এলিয়েন বলি ভিন্ন গ্রহের প্রানীদের এমন তো হতে পারে যে অন্য কোন গ্রহে মানুষের মত কোন প্রানী আছে। সৌরজগত আরত্ত রয়েছে. .. তাতে কি থাকতে পারে না কোন বুদ্ধিমান প্রানী । হতে পারে তা মানুষ , হাতি , বানর যাই হউক না কেন তা কি থাকতে পারে না । ……..

    আজ থেকে ৫০০ বছর আগে কি মনুষ কখনো চিন্তা করছে মানুষ চাঁদে যাবে । চিন্তা করেনি।………..কিন্তু আজ .!!!
    আপনি যা বলছেন কি
    বৈজ্ঞানিকগন তো আর মুসলমান নন তাদের কথাই বিশ্বাস করা আমাদের মুসলমানদের ঠিক হবে?
    আপনি একটু ভেবে দেখেন আপনার কথাটা কতটুকু ঠিক। আপনি যে নেট ব্যবহার করছেন এটা কাদের আবিষ্কার , কম্পিউটার , লাইট , কারেন্ট এগুলো কাদের আবিষ্কার…………………………………….!!!!!! আপনি যদি বৈজ্ঞানিকগন কথা বিশ্বাস না হল তাহলে অসুখ হলে কেন ডাক্তারের কাছে যান ? কেন নেট ব্যবহার করেন ???
    এভাবে বলা্আমি মনে করি উচিত না । এই ব্যাপরে আমি সবার মন্তব্য আশা করি।

    tusn ahmed ভাই একটা সংশোধনি আছে আল্লাহ পবিত্র কোরানে কোথাও বলেনাই যে মানুষ এবং জ্বীন ছাড়া আর কোন প্রানী নাই,বরং কোরানের একটা সুরাই আছে যার নাম আনকাবুত অর্থাৎ মাকড়শা তাছাড়াও অনেক প্রানির নাম উল্লেখ আছে পবিত্র কোরানে শুধু বলা হইছে জান্নাত আর জাহান্নামের বাসী শুধু জ্বীন আর মানুষের মাঝ থেকেই হবে,কেয়ামতের দিন শুধু এই দুই জাতিরই বিচার হবে আর কারো নয়।
    আল্লাহ রব্বুল আলামীনের সৃষ্টি জগত যে কত বড় তাহা একমাত্র আল্লাহই ভাল জানেন ইহা মানুষের কল্পনার অতিত কোন বিজ্ঞানিও আজ পর্যন্ত আবিষ্কার করতে পারেনাই কেয়ামত পর্যন্তও পারবেনা,বিজ্ঞান এখনো প্রথম আসমানেই সীমাবদ্ধ এরও উপরে আরো ৬ টি আসমান আছে যাক সে কথা আল্লাহর পবিত্র কোরানের কোথাও বলে নাই আমাদের পৃথীবির মত আর কোন পৃথিবী নাই বরং আল্লাহর বিশাল সৃষ্টির মাঝে আরো পৃথিবি থাকতে পারে এবং সেখানে প্রানিও থাকতে পারে বিজ্ঞান যদি আজ কোথাও প্রানির সন্ধান পায় তাহলে তা কোরানের বিরুদ্ধে যাওয়ার কোন কারন নাই।
    ইসলামের কোথাও বলা নাইযে চিকিৎসার জন্য ডাক্তারের কাছে যাওয়া যাবেনা বরং আমরা হাদিস দ্বারা প্রমান পাই রোগ হইলে নবী(সঃ) ডাক্তারের কাছে যাইতে নির্দেশ দেয়েছেন,শুধু এখানেই শেষ নয় ইসলাম আরো বলে আপনার যদি জীবন নাশের আশংকা থাকে আর আপনাকে হারাম বস্তু দিয়ে চিকিৎসার দরকার হয় সেখানেও ইসলাম অনুমতি দিয়েছে।
    আজকের বিজ্ঞানের যত আবিস্কার ইহার প্রায় সব গুলুই পবিত্র কোরান রিচার্চ করে করা হয়েছে তাই বিজ্ঞানের সাথে কোরানের কোন সংঘর্শ নাই আর যদি বিজ্ঞানের কোন কথা কোরানের বিপরিত হয় তা হলে আমি কোরান কে অগ্রাধিকার দিব(যেমন ডারউইনের বানর থেকে মানুষ হওয়ার কাহিনী)
    মন্তব্যটা বড় হওয়াতে আমি সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি,আমি চেষ্টা করছি ইসলাম এবং বিজ্ঞানের সম্পর্কটা আসলে কি তাহা সবাইকে জানাইতে কেউ যেন ভুল না বুঝে ধন্যবাদ সবাইকে।
    বি,দ্রঃ-আরেকটা কথা বিজ্ঞানের কথা পরিবর্তনশীল আজকে একজন একটা থিউরি দিচ্ছে আবার কিছুদিন পর আরেক জন অন্য থিউরি পেশ করছে কিন্তু কোরান কেয়ামত পর্যন্ত একই কথা বলে যাবে।

    “” আজকের বিজ্ঞানের যত আবিস্কার ইহার প্রায় সব গুলুই পবিত্র কোরান রিচার্চ করে করা হয়েছে “”

    @ আতাউর ভাই, দাড়ি রেখে এরকম ডাহা মিথ্যা কথা বলা কি ঠিক ? আপনাদের মত মানুষগুলোর জন্যই মুসলিম বিশ্ব পিছিয়ে যাচ্ছে দিনদিন। নিজেরা কিছু পারবেননা কিন্তু অন্যরা করলে তার পরিশ্রম/সাধনাকে ছোট করে ফেলবেন।

    লিটলবয় আপনি দয়া করে আরো শালিন ভাষায় কথা বলার চেষ্টা করবেন,যেখানেই ইসলাম নিয়ে কোন কথা হয় সেখানেই আপনার কটুক্তি মুলক বক্তব্য লক্ষ্য করছি,আমি কোথায় কাকে ছোট করলাম আমি কোথায়ও কি বলেছি বিজ্ঞানের সব আবিষ্কার মুসলমানরা করেছে!আমি শুধু বলেছি কোরান গবেষনা করে বিজ্ঞানের এত আবিষ্কার,কোরান কি শুধু মুসলমানরাই পড়ে ইহা সকল ধর্মের লোকই পড়ে এবং ইহা নিয়ে গবেষনা করে ইহা কি মিথ্যা কথা!ব্যক্তিগত আক্রমন থেকে বিরত থাকুন এবং গঠন মুলক বিরোধিতা করুন যুক্তি দিয়ে আর সেটাই মনে হয় শোভনিয় হবে।

    আতাউর রহমান ভাই প্রথম আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি আপনার মূলবান মন্তব্যরের জন্য। আমি বলিনি যে কুরআনে বলা হয়েছে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে। আমি বলিছি tonmony ভাই যে বলেছে
    বৈজ্ঞানিকগন তো আর মুসলমান নন তাদের কথাই বিশ্বাস করা আমাদের মুসলমানদের ঠিক হবে?

    ১.আমি এই কথাটাই বুঝাতে চেয়েছিলাম । যদি বৈজ্ঞানিকগন এর কথা ভাল না লাগে তাহলে ত্তদের আবিষ্কার কেন ব্যবহার করে ? এই কথা বুঝতে চেয়েছিলাম।
    ২. আর লিটলবয় কাউর ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে এভাবে আঘাত করা উচিত নয়। এখানে আলোচনা সমালোচনা হবেই তাই আমাদের
    কটুক্তি মূলক কথা পরিহার কথা উচিত। যুক্তির মধ্যমে কথা বলতে হবে।

    “” আজকের বিজ্ঞানের যত আবিস্কার ইহার প্রায় সব গুলুই পবিত্র কোরান রিচার্চ করে করা হয়েছে “”

    আপনি কিভাবে শিউর হলেন যে বিজ্ঞানীরা কোরান রিসার্স করে আবিষ্কার করছে ? যদি তারা উল্টোটা বলে “তোমরা কোরান অনুসরন করো বলেই কিছু আবিষ্কার করতে পারছো না। আমরা সেটার অনুসারী না বলেই সব করতে পারছি” তখন কি বলবেন ?

      brother you are so logical and free thinker.are you from science background?do you believe in religion?

    লিটল বয়। আমি জানি না আপনি কোন ধর্মের। আমার মনে হয় আপনার জাকির নায়েকের কুরআন ও আধুনিক বিজ্ঞান শিরোনামের লেকচার টা দেখা উচিত।

আমি ভয় পাচ্ছি কখন না আবার এলিয়ানরা আমাদের গ্রহে আক্রমণ করে বসে।

    ভয়ের কারন নাই সজীব ভাই ………. এলিয়েন আমাদের গ্রহে আসলে আমার এলিয়েনদের গ্রহে চলে যাব হা…হা…….!!

প্রতিবেদনটি পেপারে পড়েছি। তারপরও তথ্য দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

তথ্যটি শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

হুম।খবরটা আগেই শুনেছি,কিন্তু আপনি কষ্ট করে আমাদেরকে জানিয়েছেন তাই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ 🙂 আরো বিস্তারিত জানার কোন লিঙ্ক থাকলে জানাবেন Plz…

    কষ্ট করে মন্তব্য লিখেছেন তাই আমি কষ্ট করে লিখে ধন্যবাদ দিচ্ছি।

ধন্যবাদ সুন্দর তথ্যটি শেয়ার করার জন্য।

হে হে হে ৪০০ বছর বাচলে টাইটান থেকে ঘুরে আসতাম 😉 । তর্থ টা শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ !!!!!

হুম ফাহিম ভাই ভালই বলেছেন। আরত্ত ৪০০ বছর বাঁচার অনেক ইচ্ছা আছে দেখি বাকিটা বাঁচি কি না বাকিটা আল্লাহর হাতে…..!!! হা……হ….হা….

আরে ভাই কোরোর কোন চিন্তা নাই আমাদের ধোলাই খালের মালামালে জিঞ্জিরাতে এমুন একটা রুকেট বানাতেছে না । স্যালো মেশিনের ইঞ্জিন দিয়া কুন চিন্তা নাই ৪০০ বচর বাচার দরকার নাই ৫-১০ বছরের মধো টাইটান যাওয়া যাইবে।

    ভাই আমারে ত্ত নিয়া যাইয়েন……হা..হা…………ধণ্যবাদ..

ধন্যবাদ ভাল একটি তথ্য শেয়ার করার জন্য ।

ধন্যবাদ স্বপ্না আপু

ভাই আপনি কি বলেন ত ?? এত কিছু বলা হয় তার পর ও কথা শুনেন না । কিছু দিন আগে আসলো জয় তার বিখ্যাত এক ব্লগ নিয়ে 🙁 🙁 এর ও আগে আইছিলো এক আপা তার আর এক বিখ্যাত সাইট মুনবিডি .কম নিয়ে , আপনারা হয় ত জানেন না এই মুনবিডি .কম গুগল কে কিনে নিয়েছিলো 😉 😉 । এবার আইছে সব্যসাচী তার বিখ্যাত ব্লগ onlinetips24 নিয়ে । ভাই এভাবে কমেন্ট এ নিজের লিঙ্ক না দিয়ে নিজের ব্লগ এর পিছনে একটু শ্রম দিন দেখবেন ভাল হলে এমনেই ভিজিট পাইবেন 🙂 ।

মুনবিডি .কম কে নিয়ে আমার একটা টিউনঃ
এত বড় মানের ওয়েব সাইট ! এত নিম্ন মানের বিজ্ঞাপন ?

tusn ahmed ভাই এটা কি বললেন (আপনি পুরুষ কি না তা আমার মনে প্রশ্ন জাগছে) হে হে হে কথা জটিল হয়েছে !!! 😉 😉

ফাহিম ভাই এই ধরনের মানুষের কোন লজ্জ্বা নাই । এগুলো হল ত্তদের কাছে ডাল ভাত। তবু যদি কাজ হয়।

Amader aktai problem,seta holo je, kono kisu gobesona na kore..Believe kora..Age gobesona than believe kora…Apnar tt ar sate 50/50 akmot poson korsi…Karon alian ra to manush na…Alianra to akta pipraw hote pare…Thanks for ur nice tt

মুসলিম শরীফের হাদিস “পৃথিবী ছাড়া অন্য গ্রহেও বৃদ্ধিমান প্রানী আছে”

সহমত ।