কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য সুরক্ষা অ্যাপ এখন গুগল প্লে স্টোরে

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত
Level 6
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাস। যে ভাইরাসটি আমাদের গোটা বিশ্বকে স্তব্ধ করে দিয়েছে। দেশজুড়ে লকডাউন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাফেরার এই কঠোর নিয়ম সবার জীবনে নেমে এসেছে।

বহু গবেষণার পর এ ভাইরাসের টিকার উদ্ভব হয়েছে। যে টিকাটি পৃথিবীর প্রত্যেকটি দেশের জনগণকে দেওয়া হচ্ছে। ঠিক এর ব্যতিক্রম ও বাংলাদেশ নয়। শুরু হয়েছে কোভিড-১৯ এর টিকাদান কার্যক্রম কর্মসূচি। তবে টিকা টিকা নিতে হলে অবশ্যই সেই ব্যক্তিকে নিবন্ধন করতে হবে। সেজন্য বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি বিভাগ 'সুরক্ষা' নামে একটি অ্যাপ চালু করেছে।

যে অ্যাপটি অবশেষে গুগল প্লে স্টোরে সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। এজন্য গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে 'Surokkha' নামে লিখে সার্চ করলেই সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের (আইসিটি) তৈরি করোনার টিকা নিবন্ধনের অ্যাপটি পাওয়া যাবে। এছাড়াও আপনি চাইলে এখানেও ক্লিক করে ডাউনলোড করতে অথবা অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর থেকেও ডাউনলোড করতে পারেন। এ ছাড়া সুরক্ষা ওয়েবসাইটেও অ্যাপ ডাউনলোডের লিংক পাওয়া যাচ্ছে। তবে আপনি এখানে এক ক্লিকেই ডাউনলোড করতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২৭ জানুয়ারি করোনার টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এরপরেই টিকা পেতে নিবন্ধনের জন্য ওয়েবসাইট চালু হয়। সেই সময়ে ওয়েবসাইটের সঙ্গে মোবাইল অ্যাপ চালুর কথা থাকলেও তা হয়নি। এরপর এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম জানিয়েছিলেন, ৪ ফেব্রুয়ারি অ্যাপটি চালু হবে। তবে সেটি সেদিন ও চালু হয়নি।

তবে এই ধীর গতির জন্য এ বিষয়ে আইসিটি বিভাগ জানিয়েছিল, গুগলের রিভিউয়ের জন্য তাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে। যে কারণে চাইলেই এ অ্যাপটি সঙ্গে সঙ্গে চালু করা সম্ভব হয়নি। যে অ্যাপটি পরবর্তীতে ১৮ ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক উদ্বোধন করেন। যদিও সুরক্ষা অ্যাপটি সেদিন শুধু টিকাদান কেন্দ্রের স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়।

তবে অবশেষে গত ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে। সুরক্ষা অ্যাপটি এ পর্যন্ত গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করেছে প্রায় ১০ হাজার বার এর বেশি। এই অ্যাপটির ব্যবহার সুরক্ষা ওয়েবসাইটের মতোই, একইভাবে সাজানো। কাউকে ওয়েবসাইটে যে ধরনের তথ্য দিয়ে নিবন্ধন করতে হতো, অ্যাপটিতেও একই তথ্যে দিতে হবে। চলুন তবে নিচের দেখে নেয়া যাক অ্যাপটির কিছু ইন্টারফেস।

যদিও আজকের এই টিউনে আমি আপনাদেরকে এই অ্যাপটির সেটআপ সম্বন্ধে টিউন করবো না, সেজন্য আপনারা এই টিউনে ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করার প্রসেস গুলো জানতে পারবেন না। আজকের এই টিউন টি বিষয় হলো অ্যাপটির সম্বন্ধে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া। যদিও অ্যাপটিতে আপনারা রেজিস্ট্রেশন করে লগইন করতে পারবেন। যদি আপনারা এটি করতে না পারেন তবে ইউটিউবে অনেক ভিডিও টিউটোরিয়াল রয়েছে সেখান থেকে দেখে নিতে পারবেন। আমার মনে হয় না যে আপনাকে ইউটিউব এর কোন ভিডিও দেখে এই অ্যাপের মাধ্যমে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য আবেদন করতে হবে। আপনি চেষ্টা করলে নিজেই ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবুও নিচে কিছু স্ক্রীনশট দেখানো হলো।

১. আপনি অ্যাপটি ওপেন করার পর ঠিক নিচের মত দেখতে পাবেন। এখানে আপনাকে প্রথমে ভাষা সিলেক্ট করতে বলবে। স্বাভাবিক ভাবে আপনি এখানে বাংলা ভাষা টি দিয়ে দিবেন। কেননা অ্যাপ এর ভেতরের যেসব নির্দেশনাবলী দেওয়া রয়েছে সেগুলো আপনার পড়তে সুবিধা হবে। আর আপনি যদি ইংরেজি ভালো বোঝেন তবে ইংরেজি দিতে পারেন। এটি আপনার ইচ্ছা।

ভাষা সিলেক্ট করে দেওয়ার পর সেখানে পেয়ে যাবেন 'ভ্যাকসিন এর জন্য নিবন্ধন করুন' নামে একটি ট্যাব। আপনি সেখানে ক্লিক করে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন।

সুরক্ষা

২. অ্যাপটিতে চলে আসলে নিচের মতো এরকম দেখতে পাবেন। এখানে ওপরে 'নির্বাচন করুন' এর জায়গায় ক্লিক করলে কিছু অপশন চলে আসবে। যেখানে আপনি কোন সরকারি কর্মকর্তা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত কিনা এরকম কিছু অপশন আসবে। আপনি যদি এদের মধ্যে একজন হয়ে থাকেন তবে এখান থেকে আবেদন করতে পারবেন। যেগুলো আপনি ভালভাবে এখান থেকে পড়ে নেবেন। সেখানে আমার বয়স এবং পদবীর সঙ্গে কোন অপশন এর মিল না থাকায় আমি এখানে আবেদন করতে পারিনি। সে জন্য আপনাদেরকে এখান থেকে দেখানোও সম্ভব হয়নি।

এরপর নিচে জাতীয় পরিচয় পত্র এর নাম্বার দিতে হবে। যে নাম্বারটি নির্বাচন কমিশনের জাতীয় তথ্য ভাণ্ডার থেকে যাচাই করা হবে। তার ঠিক নিচের ঘরে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র অনুযায়ী জন্ম তারিখ বসাতে হবে। তারপর সেগুলো সাবমিট করলেই পরবর্তী ধাপে আপনাকে নিয়ে যাবে। সেখানে গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো দিলেই আপনি ভ্যাকসিনের পাবার জন্য নিবন্ধন হয়ে যাবেন। এছাড়াও আপনি যদি উপরের মেনুবারে ক্লিক করেন তবে আরো কিছু অপশন পাবেন। যেখান থেকে অ্যাপের বিষয়ে সাহায্য নিতে পারেন।

App interface

৩. এখানে আপনি 'সচরাচর জিজ্ঞাসা' নামে একটি অপশন পেয়ে যাবেন, যেখানে ক্লিক করার মাধ্যমে আপনি এই অ্যাপটির সম্বন্ধে অনেক প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। এছাড়া এখানে আরো কিছু অপশন রয়েছে, যেগুলো আপনি প্রত্যেকটি আলাদা আলাদাভাবে দেখে নিতে পারেন।

শেষ কথা

এই অ্যাপটির মাধ্যমে ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করতে বয়স অবশ্যই ৪০ বছর বা তার উর্ধে হতে হবে। এছাড়া আরও ক্যাটাগরিতে, সরকারি কর্মচারী, চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত লোক, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা গণ সহ আরো কিছু ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। আমি যেহেতু এসবের কোন শর্তের মধ্যে পড়িনা, সেজন্য আমি এখানে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য আবেদন করতে পারিনি বা পারবোও না।

আজকের টিউনটি করার উদ্দেশ্য ছিল অ্যাপটি সম্বন্ধে আপনাদের পরিচয় করে দেওয়া। আশা করছি এই অ্যাপটি সম্বন্ধে আপনারা জানতে পেরেছেন। আপনি গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপটির নাম লিখে সার্চ করলে প্রথমেই অ্যাপটি পাবেন না। অ্যাপটি একটু নিচে পেয়ে যাবেন। তবে আপনি যদি আপনি ডাউনলোড করতে চান এখানে ক্লিক করার মাধ্যমে ও গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।

তবে আজ এই পর্যন্তই। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। দেখা হবে পরবর্তী টিউনে আরো নতুন কিছু নিয়ে ইনশাআল্লাহ। আসসালামু আলাইকুম।

Level 6

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 99 টি টিউন ও 49 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 11 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটিতে ভুল রয়েছে।

কারণ:

টিউনের শিরোনাম, টিউন থাম্বনেইল, টিউন কন্টেন্ট এ বানান ভুল করা হয়েছে।

কোভিট => কোভিড

করণীয়:

টিউনের শিরোনাম, টিউন থাম্বনেইল, টিউন কন্টেন্ট এ ভুল বানান ঠিক করুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।