ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

যে টাকার জন্য মানুষ এত উৎসুক এক পলক দেথুন হয়তো দুধের স্বাধ ঘোলে মিটতে পারে ? আর জেনে রাখুন কাজে লাগতে পারে ।

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত

প্রিয় টিউনার ভাইয়েরা সবাইকে পবিএ  ঈদের শুভেচ্ছা , ঈদের  দিন ছোটদের সেলামী দেওয়ার রেওয়াজ বহু যুগ ধরে , আর সেটা যদি হয় নতুন নোট তাহলে ছোটদের খুশির  অন্ত থাকে না ।  তাই সবাই চেস্টা করেন নতুন নোট সংগ্রহ করতে । আমিও তার ব্যতিক্রম নই তাইতো ছুটে গিয়ে ছিলাম বাংলাদেশ ব্যাংক এ , আর যা আভিজ্ঞতা হলো সেটা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়।  তাই দুধের সাধ ঘোলে মিটানোর এই প্রয়াশ ।

ADs by Techtunes ADs

একটি দুই টাকার নোট এর বৈশিস্ট :

  • ১. অর্থসচিব মোহাম্মদ তারেক স্বাক্ষরিত এ নোটের সাইজ ১০০ × ৬০ মিলিমিটার।
  • ২. নোটটি সিনথেটিক ফাইবার মিশ্রিত অধিক টেকসই কাগজে মুদ্রিত।
  • ৩. কাগজে জলছাপ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি; প্রতিকৃতির নিচে অতি উজ্বল ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপে 2 লেখা আছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির বামপাশের উপরের দিকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের উজ্বলতর ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপ রয়েছে।
  • ৪. নোটে ২ মিলিমিটার চওড়া এমবেডেড্ নিরাপত্তা সুতা ব্যবহার করা হয়েছে। সুতাটি কাগজের ভিতরে অবস্থিত। আলোর বিপরীতে উভয় পিঠ হতে সুতাটি দেখা যাবে।
  • ৫. নোটের সামনের দিকে বাম পাশে লাইন প্যাটার্ন এর সাথে সরু রেখাটি অতি সুক্ষমভাবে BANGLADESH BANK শব্দদ্বয় পুনঃ পুনঃ মুদ্রিত রয়েছে। যা শুধু আতশী কাঁচ (Magnifying Glass) দ্বারা দেখা যাবে।
  • ৬. নোটের সামনের দিকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি এবং পটভূমি বা ব্যাকগ্রাউন্ডে জাতীয় স্মৃতি সৌধ হালকা রংয়ে মুদ্রিত রয়েছে।
  • ৭. নোটের পিছনের দিকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ছবি মুদ্রিত আছে।

একটি ৫ টাকার নোট এর বৈশিস্ট :

 

  • ১. গভর্নর আতিউর রহমান স্বাক্ষরিত এ নোটের সাইজ ১১৭ × ৬০ মিলিমিটার।
  • ২. নোটটি সিনথেটিক ফাইবার মিশ্রিত অধিক টেকসই কাগজে মুদ্রিত।
  • ৩. কাগজে জলছাপ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি; প্রতিকৃতির নিচে অতি উজ্বল ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপে 5 লেখা আছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির বামপাশে বাংলাদেশ ব্যাংকের মনোগ্রামের উজ্বলতর ইলেক্ট্রোটাইপ  জলছাপ রয়েছে।
  • ৪. নোটে ২ মিলিমিটার চওড়া এমবেডেড্ নিরাপত্তা সুতা ব্যবহার করা হয়েছে। সুতাটি কাগজের ভিতরে অবস্থিত। আলোর বিপরীতে উভয় পিঠ হতে সুতাটি দেখা যাবে।
  • ৫. নোটের সামনের দিকে বাম পাশে লাইন প্যাটার্ন এর সাথে সরু রেখাটি অতি সুক্ষমভাবে BANGLADESH BANK শব্দদ্বয় পুনঃ পুনঃ মুদ্রিত রয়েছে। যা শুধু আঁতশী কাঁচ (Magnifying Glass) দ্বারা দেখা যাবে।
  • ৬. নোটের সামনের দিকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি এবং পটভূমি বা ব্যাকগ্রাউন্ডে জাতীয় স্মৃতি সৌধ হালকা রংয়ে মুদ্রিত রয়েছে।
  • ৭. নোটের পিছনের দিকে কুসুম্বা মসজিদ, নওগাঁ এর ছবি মুদ্রিত আছে।

একটি ১০০ টাকার নোট এর বৈশিস্ট :

 

  • ১. গভর্নর আতিউর রহমান স্বাক্ষরিত এ নোটের সাইজ ১৪০ × ৬২ মিলিমিটার।
  • ২. নোটটি সিনথেটিক ফাইবার মিশ্রিত অধিক টেকসই কাগজে মুদ্রিত।
  • ৩. কাগজে জলছাপ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি; প্রতিকৃতির নিচে অতি উজ্বল ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপে ১০০ লেখা আছে।
  • ৪. বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির জলছাপের বামপাশে বাংলাদেশ ব্যাংকের মনোগ্রামের উজ্বলতর ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপ রয়েছে।
  • ৫. নোটের সামনের দিকে ইন্টাগিথও কালিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি মুদ্রিত।
  • ৬. উপরের ডানদিকের কোণায় OVI কালিতে ‘100' লেখাটি সরাসরি তাকালে সোনালী এবং তির্জকভাবে তাকালে সবুজ রং দেখা যাবে।
  • ৭. নোটের ডানদিকে আড়াআড়িভাবে ইন্টাগিথও কালিতে ৭টি লাইন আছে; হাতের স্পর্শে এগুলো সহজেই অনুভব করা যাবে।
  • ৮. নোটের বাম পাশে ৪ মিলিমিটার চওড়া নিরাপত্তা সুতা; যাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের লগো ও ১০০ টাকা লেখা আছে; সরাসরি তাকালে ‘লগো' ও ‘১০০' লেখা সাদা দেখাবে; কিন্তু পাশ থেকে দেখলে বা ৯০ ডিগ্রী-তে নোটটি ঘুরালে তা কালো দেখাবে।
  • ৯. নোটের নিচের বর্ডারে সুপ্ত বা লুকানো অবস্থায় ‘১০০' মুদ্রিত আছে, নোটটি কৌণিকভাবে ধরলে লুকানো লেখাটি দেখা যাবে।
  • ১০. নোটের ডানদিকে অন্ধদের জন্য ৩টি ছোট বিন্দু রয়েছে যা হাতের স্পর্শে উচু-নিচু অনুভূত হবে।
  • ১১. নিরাপত্তা সূতার বামপাশে খালি চোখে ১টি সরলরেখা দেখা যাবে, যেগুলোয় ‘BANGLADESH BANK 100 TAKA' কথাগুলো পুনঃ পুনঃ মুদ্রিত রয়েছে। লেখাগুলো অতি ছোট আকারের হওয়ায় আঁতশী কাঁচ ব্যতীত খালি চোখে দেখা যাবে না।
  • ১২. নোটের পটভূমি বা ব্যাকগ্রাউন্ডে হালকা অফসেটে জাতীয় স্মৃতিসৌধ মুদ্রিত রয়েছে।
  • ১৩. নোটের পেছন দিকে ইন্টাগিথও কালিতে ঢাকার তারা মসজিদ মুদ্রিত আছে।
  • ১৪. নোটের উভয় পিঠের অধিকাংশ লেখা ও ডিজাইন (সামনে বর্ডার, বাংলা ১০০, ইংরেজী 100, মধ্যভাগের লেখা, পেছনে তারা মসজিদ ও বর্ডার) ইন্টাগিথও কালিতে মুদ্রিত হওয়ায় হাতের আঙ্গুলের স্পর্শে সেগুলো অসমতল বা উঁচু-নিচু অনুভূত হবে।

একটি ৫০০ টাকার নোট এর বৈশিস্ট :

 

  • ১. গভর্নর আতিউর রহমান স্বাক্ষরিত এ নোটের সাইজ ১৫২ × ৬৫ মিলিমিটার।
  • ২. নোটটি সিনথেটিক ফাইবার মিশ্রিত অধিক টেকসই কাগজে মুদ্রিত।
  • ৩. কাগজে জলছাপ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি; প্রতিকৃতির নিচে অতি উজ্বল ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপে ৫০০ লেখা আছে।
  • ৪. বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির জলছাপের বামপাশে বাংলাদেশ ব্যাংকের মনোগ্রামের উজ্বলতর ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপ রয়েছে।
  • ৫. নোটের সামনের দিকে ইন্টাগিথও কালিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি মুদ্রিত।
  • ৬. উপরের ডানদিকের কোণায় OVI কালিতে ‘500' লেখাটি সরাসরি তাকালে সোনালী এবং তির্জকভাবে তাকালে সবুজ রং দেখা যাবে।
  • ৭. নোটের ডানদিকে আড়াআড়িভাবে ইন্টাগিথও কালিতে ৭টি লাইন আছে; হাতের স্পর্শে এগুলো সহজেই অনুভব করা যাবে।
  • ৮. নোটের বাম পাশে ৪ মিলিমিটার চওড়া নিরাপত্তা সুতা; যাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের লগো ও ৫০০ টাকা লেখা আছে; সরাসরি তাকালে ‘লগো' ও ‘৫০০' লেখা সাদা দেখাবে; কিন্তু পাশ থেকে দেখলে বা ৯০ ডিগ্রী-তে নোটটি ঘুরালে তা কালো দেখাবে।
  • ৯. নোটের নিচের বর্ডারে সুপ্ত বা লুকানো অবস্থায় ‘৫০০' মুদ্রিত আছে, নোটটি কৌণিকভাবে ধরলে লুকানো লেখাটি দেখা যাবে।
  • ১০. নোটের ডানদিকে অন্ধদের জন্য ৪টি ছোট বিন্দু রয়েছে যা হাতের স্পর্শে উচু-নিচু অনুভূত হবে।
  • ১১. নিরাপত্তা সূতার বামপাশে খালি চোখে ১টি সরলরেখা দেখা যাবে, যেগুলোয় ‘BANGLADESH BANK 500 TAKA' কথাগুলো পুনঃ পুনঃ মুদ্রিত রয়েছে। লেখাগুলো অতি ছোট আকারের হওয়ায় আঁতশী কাঁচ ব্যতীত খালি চোখে দেখা যাবে না।
  • ১২. নোটের পটভূমি বা ব্যাকগ্রাউন্ডে হালকা অফসেটে জাতীয় স্মৃতিসৌধ মুদ্রিত রয়েছে।
  • ১৩. নোটের পেছন দিকে ইন্টাগিথও কালিতে বাংলাদেশের কৃষি কাজের দৃশ্য মুদ্রিত আছে।
  • ১৪. নোটের উভয় পিঠের অধিকাংশ লেখা ও ডিজাইন (সামনে বর্ডার, বাংলা ৫০০, ইংরেজী 500, মধ্যভাগের লেখা, পেছনে কৃষি কাজের দৃশ্য ও বর্ডার) ইন্টাগিথও কালিতে মুদ্রিত হওয়ায় হাতের আঙ্গুলের স্পর্শে সেগুলো অসমতল বা উঁচু-নিচু অনুভূত হবে।

একটি ১০০০ টাকার নোট এর বৈশিস্ট :

 

  • ১. গভর্নর আতিউর রহমান স্বাক্ষরিত এ নোটের সাইজ ১৬০ × ৭০ মিলিমিটার।
  • ২. নোটটি সিনথেটিক ফাইবার মিশ্রিত অধিক টেকসই কাগজে মুদ্রিত।
  • ৩. কাগজে জলছাপ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি; প্রতিকৃতির নিচে অতি উজ্বল ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপে 1000 লেখা আছে।
  • ৪. বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির জলছাপের বামপাশে বাংলাদেশ ব্যাংকের মনোগ্রামের উজ্বলতর ইলেক্ট্রোটাইপ জলছাপ রয়েছে।
  • ৫. নোটের সামনের দিকে ইন্টাগিথও কালিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি মুদ্রিত।
  • ৬. উপরের ডানদিকের কোণায় OVI কালিতে ‘1000' লেখাটি সরাসরি তাকালে সোনালী এবং তির্জকভাবে তাকালে সবুজ রং দেখা যাবে।
  • ৭. নোটের ডানদিকে আড়াআড়িভাবে ইন্টাগিথও কালিতে ৭টি লাইন আছে; হাতের স্পর্শে এগুলো সহজেই অনুভব করা যাবে।
  • ৮. নোটের পিছনের দিকে ইন্টাগিথও কালিতে জাতীয় সংসদ ভবন মুদ্রিত।
  • ৯. নোটের বাম পাশে ৪ মিলিমিটার চওড়া নিরাপত্তা সুতা; যাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের লগো ও ১০০০ টাকা লেখা আছে; সরাসরি তাকালে ‘লগো' ও ‘১০০০' লেখা সাদা দেখাবে; কিন্তু পাশ থেকে দেখলে বা ৯০ ডিগ্রী-তে নোটটি ঘুরালে তা কালো দেখাবে।
  • ১০. নোটের নিচের বর্ডারে সুপ্ত বা লুকানো অবস্থায় ‘১০০০' মুদ্রিত আছে, নোটটি কৌণিকভাবে ধরলে লুকানো লেখাটি দেখা যাবে।
  • ১১. নোটের ডানদিকে অন্ধদের জন্য ৫টি ছোট বিন্দু রয়েছে যা হাতের স্পর্শে উচু-নিচু অনুভূত হবে।
  • ১২. নিরাপত্তা সূতার বামপাশে খালি চোখে পরপর ২টি সরলরেখা দেখা যাবে, যেগুলোর একটি ‘1000 TAKA' এবং অন্যটি ‘BANGLADESH BANK' কথাগুলো পুনঃ পুনঃ মুদ্রিত রয়েছে। লেখাগুলো অতি ছোট আকারের হওয়ায় আঁতশী কাঁচ ব্যতীত খালি চোখে দেখা যাবে না।
  • ১৩. নোটের পটভূমি বা ব্যাকগ্রাউন্ডে হালকা অফসেটে জাতীয় স্মৃতিসৌধ মুদ্রিত রয়েছে।
  • ১৪. নোটের পেছন দিকে ইরিডিসেন্ট ব্যান্ড বা স্ট্রাইপে BANGLADESH BANK লেখা আছে; নোটটি নাড়াচাড়া করলে এর রং পরিবর্তন হয়।
  • ১৫. নোটের উভয় পিঠের অধিকাংশ লেখা ও ডিজাইন (সামনে বর্ডার, বাংলা ১০০০, ইংরেজী 1000, মধ্যভাগের লেখা, পেছনে সংসদ ভবন ও বর্ডার) ইন্টাগিথও কালিতে মুদ্রিত হওয়ায় হাতের আঙ্গুলের স্পর্শে সেগুলো অসমতল বা উঁচু-নিচু অনুভূত হবে।

সবাইকে ধন্যবাদ

তথ্য সুত্র : বাংলাদেশ ব্যাংক  , ডাউনলোড লিংক

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি Rex। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 53 টি টিউন ও 79 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

জীবনে ছোটখাট ভুল থেকে অনেক কিছু শিখতে পেরেছি তাই এখন ও ভুল করি ইচ্ছাকৃত বা অনিচ্ছাকৃত ।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

Totthobohul tune ,onek kichhu jante parlam,share korar jonno thnx bro

দারুন
ধন্যবাদ
ঈদ মোবা ROCK 😛

Level 0

ধন্যবাদ

Level 0

Rex ভাই. ভাই, থুব ভাল লাগল জেনে !!! তথ্য বহুল টিউন ধন্যবাদ।

বিষ, দশ, একশ কই গলিস্তান গেলেত সব দেখতে পাবেন আমি ৫দিন আগে ঢাকাতে ছিলাম তখন এগলো ১টা করে নি এসেছি।

Level 0

It is very good tune. But it is very bad for our politics. Don’t mind, i’m not support any political party. It is very harmfull for our mind and economic.

Level 0

thanx 4 d share

vai cholen dakati kore sob taka manush ke diye dei jate sobai dekhte pare hahahahahaha

thax ,আমি দুই টাকার নোট দুই বান্ডিল নিয়েছি সালামি দিব বলে।

ভাই আমি এই টাকা এখনো দেখিনাই। আমাকে সব গলো নোট একটা করে সেলামি দেন।

ঈদের দিন আমার সাথে নামাজে গেলে অবশ্যই সেলামি দিব। তবে ভাইয়া একটা কেনো ৫টা দেব।

ভালো লাগল

cartoon cartoon লাগে নতুন টাকা গুলোকে

nice……….

Level 0

ভাল টিউন। অনেক কিছু জানতে পারলাম। কিন্তু আমার মনে হয় তথ্যগুলো একটু বেশি হয়ে গেছে। জালওয়ালারা আপনার টিউন থেকে অনেক উপকৃত হবে…হাহাহা। ঈদের শুভেচ্ছা রইল।

Level 0

Darun===========0)

Level 0

সব নোট গুলা ই তো “Display Only”। বাট ২ টাকার নোট এ কোন সিরিয়াল নাম্বার নাই, কাহীনি একটু অজানা থেকে গেল।

নাহ টাকা গুলোর ডিজাইন বেশি ভালো করতে যেয়ে খারাপ করে ফেলেছে।তবে টাকা গুলো দূর থেকে দেখতে মনে হয় অনেক কালারফুল।যদিও এখনও আমি কোন নতুন টাকাই হাতে পাই নাই 🙁

Level 0

digital note