এবার যেকোন ওয়াই ফাই হ্যাক করে ফেলুন খুব সহজেই মাত্র দুই মিনিটে

Level 4
টিউনার, সেনবাগ রেসিডেন্সিয়াল দাখিল মাদ্রাসা, নোয়াখালী

আশাকরি সবাই আল্লাহর রহমতে ভালো এবং সুস্থ রয়েছেন। আর টেকটিউনসের সাথে থাকলে সুস্থ থাকারই কথা। আজকে আমি হাজির হয়ে গেছি আরো একটি মজাদার টিউনস নিয়ে। আশা করি অনেক ভালো লাগবে, এবং অনেক উপকারে আসবে। আজকে যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো তা ইতিমধ্যে আপনারা টাইটেল দেখেই বুঝে ফেলেছেন। আজকের বিষয় হচ্ছে কিভাবে যেকোন ওয়াই ফাই হ্যাক করা যায়।

আমাদের বেশিরভাগ মানুষের মনেই ওয়াই ফাই হ্যাকিং নিয়ে অনেক কৌতুহল থাকে। ইশ একজন আরেকজনের ওয়াই ফাই হ্যাক করে ফেলেছে, কিন্তু আমি কেন করতে পারছি না। এবার থেকে আর অন্যকে দেখে আফসোস করতে হবে না। নিজেই করতে পারবেন যেকোন ওয়াই ফাই হ্যাক।

ওয়াই ফাই হ্যাক করতে হলে আমাদের কিছু জিনিস দরকার। প্রথমত হলো আপনি যে ওয়াই ফাই হ্যাক করবেন সে ওয়াই ফাই যার মোবাইলে কানেক্ট করা আছে সেটা লাগবে। কারণ ওয়াই ফাই হলো একটি লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক এটি যেকোন জায়গা থেকে এক্সেস করা যায় না। তাই ওয়াই ফাই কানেক্টকৃত মোবাইলটি লাগবে। একটা কথা বলে রাখি আমি যে পদ্ধতিতে ওয়াই ফাই হ্যাকিং দেখাবো সেটা অনেক ক্ষেত্রেই কাজ করবে।

ওয়াই ফাই কানেক্টকৃত মোবাইলটি নেওয়ার পর জানতে হবে ওয়াই ফাইটির আইপি এড্রেস। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ওয়াই ফাই এর আইপি এড্রেস হয়ে থাকে 192.168.0.1। তবুও নিশ্চিত হওয়ার জন্য সেটিংস থেকে ওয়াই ফাই অপশনে যাবেন।

যাওয়ার পর যে ওয়াই ফাইটি কানেক্ট আছে সেটাতে ক্লিক করবেন। ক্লিক করার পর দেখতে পাবেন IP address নামে একটি অপশন আছে। এবং সেখানে আইপি এড্রেসটি রয়েছে, এটি মুখস্থ করে নিবেন।

এবার যেকোন একটি ব্রাউজারে গিয়ে তা লিখে সার্চ করবেন। সার্চ করার পর এই রকম একটি ইন্টরফেস দেখতে পাবেন। বা একটু ভিন্ন ধরনেরও হতে পারে, তা কোন সমস্যা নয়।

 

এখানে আপনি একটি লগিন ফর্ম দেখতে পাবেন। সেখানে রয়েছে দুটি বক্স। প্রথম বক্সটিতে লিখবেন admin এবং দ্বিতীয় বক্সটিতেও লিখবেন admin এবার লগিন এ ক্লিক করবেন। আপনার যদি ভাগ্যভালো থাকে তাহলে তা লগিন হয়ে যাবে। এটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে কাজ করে তাই টেস্ট করে দেখতে পারেন। যদি লগিন হয় তাহলে আপনি ওয়াই ফাইটির এডমিন প্যানেলে প্রবেশ করে যাবেন।

এবং সেখান থেকে যে কোন কিছু পরিবর্তন করতে পারবেন। ওয়াই ফাইটির পার্সওয়ার্ড দেখতে মেনুতে wireless অপশনটাতে ক্লিক করুন। এবার পার্সওয়ার্ড বক্সটিতে ক্লিক করলে আপনি কাঙ্গিত পাসওয়ার্ডটি দেখতে পাবেন। এভাবে যেকোন ওয়াই ফাই হ্যাক করতে পারবেন।

এই টিউনটি শুধু মাত্র আপনাদের জানানোর জন্য। তাই কেউ খারাপ কাজে ব্যবহার করবেন না। এটি আপনার জানা থাকলে আপনিও আপনার ওয়াই ফাইটাকে সুরক্ষিত রাখতে পারবেন। আশা করি টিউনটি ভালো লেগেছে। আজকের মতো এই পর্যন্ত আল্লাহ হাফেজ।

Level 4

আমি রাশেদুল ইসলাম। টিউনার, সেনবাগ রেসিডেন্সিয়াল দাখিল মাদ্রাসা, নোয়াখালী। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 52 টি টিউন ও 56 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 9 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটিতে ভুল রয়েছে।

কারণ:

টিউনের টিউন থাম্বনেইলের শিরোনাম/টেক্সট আন্ডারলাইন ব্যবহার করা হয়েছে।

টেকটিউনস স্ট্যান্ডার্ড টিউন ফরমেটিং গাইডলাইন অনুযায়ী টিউনের টিউন থাম্বনেইলের শিরোনাম/টেক্সট এ আন্ডারলাইন ব্যবহার করা যায় না।

আপনাকে এসাইন করা ‘টেকটিউনস টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট গাইডলাইন’ অনুযায়ী টেমপ্লেটটিতে এই ৩টি এলিমেন্ট ছাড়া অন্য কোন এলিমেন্ট এই টেমপ্লেটটিতে চেঞ্জ করা যায় না। ভুল বসতও চেঞ্জ করা যায় না। কারণ তা না হলে টেমপ্লেটটির কনসিসটেন্টসি নষ্ট হয়ে যায়। তাই আপনাকে এসাইন করা ‘টেকটিউনস টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট গাইডলাইন’ এ নির্দেশিত এলিমেন্ট ছাড়া অন্য কোন এলিমেন্ট টেমপ্লেটে চেঞ্জ করা যায় না।

মনে রাখবেন, আপনাকে এসাইন করা ‘টেকটিউনস টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট’ দিয়ে টিউন থাম্বনেইল তৈরি করার সময় এই

  1. টেমপ্লেট এ লক থাকা কোন এলিমেন্ট আন-লক করা যাবেনা। কোন এলিমেন্ট লক থাকলে লক রেখেই কাজ করতে হবে কোনভাবেই আন-লক করা যায় না।
  2. টেমপ্লেটের কোন এলিমেন্ট রিসাইজ করা যায় না।
  3. টেমপ্লেটের কোন এলিমেন্ট মুভ করা যায় না।
  4. টেমপ্লেটের কোন এলিমেন্ট এর পজিশন চেঞ্জ করা যায় না।
  5. টেমপ্লেটের কোন টেক্সট এর ফন্ট, ফন্ট সাইজ, ফন্ট এলাইনমেন্ট, ফন্ট লাইনহাইট, ফন্ট স্পেসিং, লেটার স্পেসিং চেঞ্জ করা যায় না।
  6. নির্দেশনা না থাকলে টেমপ্লেটের কোন টেক্সট এর কালার চেঞ্জ করা যায় না।

আবার রিপিট করা হচ্ছে আপনাকে এসাইন করা ‘টেকটিউনস টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট’ দিয়ে টিউন থাম্বনেইল তৈরি করার সময় আপনি টেমপ্লেটের কোন এলিমেন্ট আন-লক, রিসাইজ, মুভ, পজিশন চেঞ্জ, টেক্সট এর ফন্ট চেঞ্জ, টেক্সট এর ফন্ট সাইজ চেঞ্জ, টেক্সট এর ফন্ট এলাইনমেন্ট চেঞ্জ, টেক্সট এর ফন্ট লাইনহাইট চেঞ্জ, টেক্সট এর ফন্ট স্পেসিং চেঞ্জ, টেক্সট এর লেটার স্পেসিং চেঞ্জ করবেন না। ভুল করেও যেন কোন এলিমেন্ট রিসাইজ ও মুভ, টেক্সট এর ফন্ট চেঞ্জ, টেক্সট এর ফন্ট সাইজ চেঞ্জ হয়ে না যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আপনাকে এসাইন করা ‘টেকটিউনস টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট গাইডলাইন’ অনুযায়ী আপনি শুধু মাত্র নির্দেশিত এলিমেন্ট গুলো এডিট করবেন। এলিমেন্ট রিসাইজ ও মুভ না করে এলিমেন্ট গুলো জায়গারটা জায়গাই থাকবে আপনি শুধু এই গাইডলাইনের নির্দেশ মোতাবেক এডিট করবেন।

যদি ভুল বসত কোন এলিমেন্টের পজিশন চেঞ্জ হয়ে যায় বা রিসাইজ হয়ে যায় তবে ক্যানভা এর টুলবার থেকে Undo বাটন চেপে অথবা কিবোর্ড থেকে Ctrl+Z চেপে আনডু করে এলিমেন্ট আবার আগের অবস্থায় নিয়ে আসবেন।

করণীয়:

টিউনের টিউন থাম্বনেইলের শিরোনাম/টেক্সট এ আন্ডারলাইন অপসারণ করুন।

পরবর্তিতে একই ধরনের ভুল হওয়া থেকে সতর্ক থাকুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।