ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ইউএসবি সি সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

ইউএসবি-সি ধীরে ধীরে বিভিন্ন ডিভাইসে ডাটা পাঠাতে এবং সে সকল ডিভাইস চার্জ করতে একটি মান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। বর্তমানে আমাদের মুখে মুখে এ শব্দটি বহুল প্রচলিত হলেও শুধু মাত্র নাম ছাড়া এর গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে আমরা কিছুই জানিনা। এই ইউএসবি-সি কি জিনিস এবং কেন এটি বাকি ইউএসবি সংস্করণ থেকে আলাদা তা জানাতেই আজকে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছে প্রযুক্তিকথন টিম। সুবিধার জন্য নিচের ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ADs by Techtunes ADs

https://www.youtube.com/watch?v=ten1MyTHFmg

এখানে মূলত ৪ টি বিষয় আলোচিত হবে। প্রথমে আমরা জানবো ইউএসবি-সি এর উদ্ভব হলো কেন। তারপর জানবো এটি আসার ফলে আমরা কি সুবিধা পেয়েছি। তৃতীয়ত, ডিভাইস চার্জ প্রসঙ্গ এবং সবশেষে ইউএসবি-সি এর সাথে ডাটা ট্রান্সফার রেট এর সম্পর্ক।

১) ইউএসবি-সি মূলত প্রকাশিত হয় ২০১৪ সালে। তখন এটি ভাত না পেলেও বর্তমানে এটি চালে ডালে খিচুড়ি পেয়ে বেড়াচ্ছে। এর অবস্থান এখন সর্বত্র লক্ষ করা যাচ্ছে। ফোন, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ সবকিছুতেই তার উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। আমরা ইউএসবি-এ এর সাথে সর্বাধিক পরিচিত ছিলাম। সে ইউএসবি-এ এর বিভিন্ন সংস্করণ আমরা দেখতে পাই যা যথাক্রমে ইউএসবি-১, ইউএসবি-২ এবং ইউএসবি-৩। কিন্তু ইউএসবি পোর্ট টা একই থেকে যায় যা সাইজের দিক দিয়ে বিবেচনা করলে বেশ বড়। এদিকে দিন দিন আমাদের ডিভাইসের সাইজ ছোট হয়ে আসছিলো। তাই অত বড় সাইজের পোর্ট ডিভাইসে ফিট করা বেশ সমস্যার বিষয় হয়ে দাঁড়ালো। উদ্ভব হলো মাইক্রো এবং মিনি কানেক্টর এর। সেই উদ্ভাবনের মাঝখানে আমরা খুঁজে পেলাম ইউএসবি-সি কে। যেটি ইউএসবি-এ এর সাইজের তুলনায় অনেক ছোট।

২) এটি আসার ফলে আমরা কিছু সুবিধা পেয়েছি। প্রথমেই যে সুবিধা নজর কেড়েছে সেটি হচ্ছে ইউএসবি-সি এর পোর্ট উল্টানো। যারা আমরা আগে ইউএসবি-এ ব্যবহার করেছি তারা জানি যাই কিছু হোক না কেন প্রথমবারে কখনোই তা সংযুক্ত করা যেত না। একটু ঘুরিয়ে দেয়ার পর তা যুক্ত হতো। ইউএসবি-সি আপনি যেভাবেই লাগান না কেন প্রথমবারেই সফল হতে পারবেন। প্রথমবারেই চোখ বন্ধ করে ইউএসবি লাগাতে পেরে নিজেকে একটু বিজ্ঞানী বিজ্ঞানীও মনে হতে পারে। আরেকটা বড় সুবিধা হচ্ছে আগে বিভিন্ন ডিভাইসের জন্য ভিন্ন ভিন্ন পোর্টযুক্ত ইউএসবি ব্যবহার করা লাগতো। এখন প্রায় সব ডিভাইস মোবাইল, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ এই একটি কানেক্টর দিয়ে কানেক্ট করা সম্ভব।

৩) এবার আসা যাক ডিভাইস চার্জ করার প্রসঙ্গে। প্রচলিত ইউএসবি সংস্করণ থেকে মোবাইল বা ট্যাবলেট চার্জ দেয়া সম্ভব। তার বেশি কিছু করার ক্ষমতা প্রচলিত ইউএসবি গুলোর নেই। কিন্তু ইউএসবি-সি মোবাইল, ট্যাবলেট এর পাশাপাশি ল্যাপটপও চার্জ করতে সক্ষম। ইউএসবি-সি প্রায় ১০০ ওয়াট পর্যন্ত পাওয়ার প্রদান করতে পারে যে জাগায় প্রচলিত ইউএসবি গুলো মাত্র ২.৫ ওয়াট পাওয়ার প্রদান করতে পারে। এর পাওয়ার প্রদান করার ক্ষমতা দ্বিমুখী। ফাইল ট্রান্সফার করতে করতে যে কোন ডিভাইসে চার্জ আদান প্রদান করার ক্ষমতা রাখে ইউএসবি-সি।

৪) সর্বশেষে আমরা জানবো ইউএসবি-সি আর ডাটা ট্রান্সফার রেট এর সম্পর্ক। অনেকেরই একটা ভুল ধারনা কাজ করে। তারা মনে করে ইউএসবি-সি ব্যবহার করলেই ডাটা দ্রুত কম সময়ে পাঠানো যাবে। এটি ভুল। ইউএসবি-সি শুধুমাত্র একটি কানেক্টর। হতে পারে এর ভিতর ইউএসবি ২.০ থাকায় ডাটা একটু ধীরে ট্রান্সফার হবে। ইউএসবি ১.০, ২.০, ৩.০ এই সংস্করণ এর মধ্যে ইউএসবি ৩.০ সবচেয়ে দ্রুত ডাটা ট্রান্সফার করতে পারে। তাই কিনার সময় শুধু ইউএসবি-সি কানেক্টর দেখেই কিনবেন না। ভিতরে ইউএসবি ৩.০ ব্যবহার হয়েছে কিনা তা দেখে নিবেন।

বিস্তারিত জানতে নিচের ভিডিওটি দেখতে পারেন।

https://www.youtube.com/watch?v=ten1MyTHFmg

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি কটকট কটকট। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস