মিড বাজেটের সেরা ড্রোনঃ জেজেআরসি এক্স ১২ অ্যারোরা স্পেসিফিকেশন

মিড্রোনের সাথে আমরা সবাই কমবেশি পরিচিত। বিশেষ করে যারা একটু ভিন্ন ধরনের ভিডিও বানাতে চাই, তারা এই জিনিসটিকে খুব ভালো মতোই চিনে। কিন্তু, ভালো জিনিসের দাম তো ভালো হবেই। সেটা তো আর কম দাম দিয়ে কেনা সম্ভব নয়।

তবে, এই কথা মাথায় রেখে কিছু ব্র্যান্ড বাজেটের মধ্যে তৈরী করা শুরু করে দিয়েছে বিভিন্ন ড্রোন। যেগুলোর দাম থাকবে আপনার হাতের কাছেই। এরকমই একটি বাজেট ড্রোন বাজারে আনে 'জেজেআরসি' গ্যাজেট ব্র্যান্ড৷ এই ব্র্যান্ডটি কিছু বছর ধরে গ্যাজেট প্রেমীদের কাছে ভালোই জনপ্রিয় হয়ে আসছে।

কিছুদিন আগে এই ব্র্যান্ড রিলিজ করেছিলো তাদের একটি বাজেট ড্রোন 'এক্স ১২ অ্যারোরা'। চলুন নিচে গিয়ে এর ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে আসা যাকঃ

➡মডেলঃ

জেজেআরসি এক্স ১২ অ্যারোরা।

➡ডিমেনশনঃ

ফোল্ডেড: ১৭৭×৯০×৫৫ মি.মি.। বাইরের ফোল্ডেড: ১৭৭×১৯৬×৭০ মি.মি.।

ওজনঃ ৪৩৭ গ্রাম।

➡ব্যাটারীঃ

২৪০০ এমএইচ। ফ্লাইটে সময় নেয় ২৫ মিনিট।

➡ক্যামেরাঃ

১২ মেগাপিক্সেলের ছবি এবং ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং।

➡ফিচারঃ

গেসচার কন্ট্রোল, কলিসন ডিটেকশন জিপিএস এবং জি.এল.ও.এন.এ.এস.এস।

বাহ্যিকভাবে, অবশ্যই আপনি বিদ্যমান মডেলগুলিতে নিজেকে আলোকিত করেন। আমার কাছে ড্রোন এর ডিজাইনটি ভালো লেগেছে। এছাড়াও সরঞ্জামগুলি সম্পর্কে সমস্ত কিছু ভালভাবে পড়ে: একটি ৩-অক্ষ গিম্বল এবং ব্রাশহীন মোটর (তবে উভয়ই স্বতঃস্পষ্ট হওয়া উচিত) বিজ্ঞাপণ দেওয়া হয় এবং ২৫ মিনিট অবধি উড়ানের সময়কাল আশ্বাসজনক মনে হয়।

নির্মাতা এবং অনলাইন দোকান বৈশিষ্ট্যগুলির বর্ণময় প্রতিশ্রুতি দেয়। পজিশনিং জিপিএসের পাশাপাশি একটি অপটিক্যাল ফ্লো সেন্সর এবং আল্ট্রাসাউন্ডের মাধ্যমেও করা হয়। এখানে ওয়ে পয়েন্টস, পিওআই, ট্র্যাকিং অবশ্যই একটি ফেইল সেফ ফাংশন এবং আরটিএইচ পাশাপাশি ১২০০ মিটার অবধি রয়েছে।

বিশেষত ক্যামেরাটি স্থিরকারী ফ্যাক্টর হওয়া উচিত, সর্বত্র "৪কে" স্লোগানটি আপনার বিরুদ্ধে নিক্ষেপ করা হয়। অতিরিক্ত স্বাদযুক্ত হিসাবে, ক্যামেরায় একটি জুম থাকা উচিত।

ড্রোনটি জিপিএস + গ্লোনাস (রাশিয়ান উপগ্রহ সিস্টেম) নিয়ে আসে, যা এটিকে টপ গ্যাজেট ব্র্যান্ড ডিজেআই কোয়াডকপ্টারের মতো স্থিতিশীল করে তোলে। এটি কোনও প্রভাব ছাড়াই বেশ নির্ভুলভাবে ঘোরাতে পারে এবং যে জায়গাটি ছেড়ে গেছে তার থেকে সর্বোচ্চ ২ মিটার দূরত্বে ঘরে ফিরে আসতে পারে।
ড্রোনটি সর্বোচ্চ ৫০০ মিটার উচ্চতায় পৌঁছায়, তবে এমন একটি সেটিংস রয়েছে যা প্রাথমিকভাবে আপনাকে ১২০ মিটারের জন্যই উড়তে দেয়।
এই ড্রোনটি 'অপ্টিক্যাল ফ্লো' স্থিতিশীলতার সাথে আসে যা নীচে একটি ক্যামেরা দ্বারা সম্পন্ন হয়।

এটি মূলত এমন একটি ক্যামেরা যা ড্রোনকে একটি নিদর্শন খুঁজে পেতে এবং একই অবস্থানে স্থির থাকতে সহায়তা করার জন্য স্থলটির স্টিল করে। এটি ১০ মিটারের চেয়ে বড় কোনও উচ্চতায় কাজ করে না, তবে আপনার যদি জিপিএস থাকে তবে এটি কেবল একটি বোনাস হিসেবে কাজ করতে পারে। তবে এটি ২টি আল্ট্রাসনিক সেন্সর সহ আসে। এগুলি সনারকে মাটিতে এবং ড্রোনটিতে ফিরে এসে সঠিক উচ্চতার গণনা করতে সহায়তা করে। এগুলোর সংমিশ্রণে একটি ব্যারোমিটারও ব্যবহার করে।

বাজেটের হিসাবে এই ড্রোনটি সত্যিই অসাধারন ছিলো। এর ডিজাইন ছিলো খুবই প্রিমিয়া কোয়ালিটির। এটি সাদা এবং কালো রঙ এর ভ্যারিয়্যান্টে পেয়ে যাবেন। প্যাকেটিং এর ব্র্যান্ড এটিকে বাজারে ছেড়ে দিয়েছে একটি ব্যাগের মধ্যে। যেটাকে আপনি চাইলে অন্য কাজেও ব্যবহার করতে পারবেন। ব্যাগটি খুলেই পাবেন কাঙ্খিত ড্রোনটি। সাথে আরও পাবেন ডাবল জয়স্টিক এবং এন্টেনার একখানা কন্ট্রোল রিমোট। ফোনের সাথে কানেক্টেড করে উড়ানো যাবে এই ড্রোনটি।

এর আরেকটি অসাধারন দিক হচ্ছে, এটির চার্জ কমতে থাকলে এটি নিজে থেকেই যেখান থেকে উড়ে গিয়েছিলো সেখানেই আবার এসে ল্যান্ড করবে।

খারাপ কিছু দিকের কথাও থাকছে এই ড্রোনটিতে। সেটা হচ্ছে এই ড্রোনে দেয়া হয়েছে মাইক্রো ইউএসবি চার্জিং পোর্ট, যেটা বর্তমান যুগে একটু খারাপই দেখায়। পরে এর ব্যাটারী ব্যাকআপ সব মিলিয়ে ২০ মিনিটের কাছাকাছি ছিলো। যেটা এর আরেকটা খারাপ দিক। তবে, বাজেটের দিকে তাকালে এগুলো কিছুই মনে নাও হতে পারে।

বর্তমানে এই ড্রোনটির দাম হচ্ছে ২৫, ৫০০টাকা। এই দামে এরকম একটি ড্রোন পাওয়াটাই অনেক বড় ব্যাপার।

Level 0

আমি মোঃ ইউসুফ আলী। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 10 টি টিউন ও 9 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘ট্রাসটেড টিউন’ হিসেবে বিবেচিত হলো না।

কারণ:

টেকটিউনস ‘ট্রাসটেড টিউন’ হিসেবে শুধুমাত্র স্পেসিফিকেশন ভিত্তিক ফোন রিভিউ ও গ্যাজেট রিভিউ টেকটিউনস ‘ট্রাসটেড টিউন’ হিসেবে বিবেচিত হয় না। টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে আপনার ফোন রিভিউ ও গ্যাজেট রিভিউ ফরমেট অবশ্যই এই টিউনের মত হতে হয়।

করনীয়:

টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে আপনার ফোন রিভিউ ও গ্যাজেট রিভিউ করতে রিভিউ ফরমেট অবশ্যই এই টিউনের মত করুন

আপনার পরবর্তী টিউনে নির্দেশিত এই গাইডলাইন মেনে টিউন করুন।