ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ফটোগ্রাফিতে কম্পোজিশান নিয়ে কিছু কথা –শেষ পর্ব

প্রথমেই ক্ষমা চাইব টিউনারদের কাছে অনিয়মিত হয়ে পড়ার জন্যে। সময়ের আসলে অনেক বড় অভাব হয়ে দাড়িয়েছে তারপর আবার ফটোগ্রাফির নেশা মাথায় উঠার কারণে অবসরটুকুও চলে যাচ্ছে সেখানে। তবে আজ এমন একটা দিন যে টিউন না করলেই নয়। সবাই ভালো করেই জানেন বোধহয় যে আমার প্রাণের মিত্র, Father of TT এর আজ শুভ জন্মদিন। সুতরাং আজকের এই টিউন তাকেই উৎসর্গ করে করা।

ADs by Techtunes ADs

যাই হোক, যারা এই কম্পোজিশনের প্রথম পর্বটি এখনও পড়ে নি, তাদের বলব এখান থেকে পড়ে নেয়ার জন্যে।

আসুন তাহলে কম্পোজিশানের বাকী ইলিমেন্টসগুলো দেখে নেয়া যাক –

ফ্রেমিং

frame-your-images

ফ্রেমিং কথাটা শুনলে প্রথমেই আমাদের মাথায় যে জিনিসটা আসে তা হল চারপাশে সুন্দর ডিজাইনের বাউন্ডারি দিয়ে বাধিয়ে আমাদের ড্রয়িং রুমে ঝুলিয়ে দেয়া। তবে আমরা যদি ছবি তোলার সময়ই আমাদের সাবজেক্টকে কোন না কোন ন্যাচারাল ফ্রেমে নিয়ে আসতে পারি তাহলে কিন্তু ছবির চেহারাটাই চেজ্ঞ হয়ে যেতে পারে।

পার্সপেক্টিভ

perspective

এটা নিয়ে আসলে অনেক বলার থাকলেও আসলে কিছুই বলার নাই। পার্সপেক্টিভ বলতে ফটোগ্রাফারের দৃষ্টিভঙ্গিকেই বোঝানো হচ্ছে। সুতরাং একটা সাবজেক্টকে আপনি কোন এ্যাঙ্গেলে দেখবেন সেটা সম্পূর্ন আপনার ক্রিয়েটিভিটি। এখানে শিখিয়ে দেয়া মত কিছু নেই। কোন জিনিসকে উপর থেকে শট করলে তা ছোট আবার নিচ থেকে সেই জিনিসের শট নিলে তাকে বড় দেখাতে পারে। তবে এ্যাঙ্গেল অব ভিউ সাবজেক্টের হাইটের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়াটাই বেটার। যেমন – বাচ্চাদের ছবি নিতে গেলে সাধারনত তাদের হাইটে একটু ঝুকে পোট্রট নিলে ভালো লাগে।

স্পেস

space

ছবিতে সবাই বলে যথা সম্ভব ফ্রেমকে ফিল আপ করা। একথা যেমন সত্য, তেমনি সত্য যে আপনাকে আপনার ছবিতে সাবজেক্টের জন্যে যথাযথ স্পেস ছাড়তে হবে। উপরের ছবিতে ধুমায়মান ম্যাচ কাঠিটি সাবজেক্ট। এখানে বোঝা যাচ্ছে যে ধোঁয়া কিভাবে ফ্রেমের উপর দিয়ে ফ্লো হচ্ছে। তবে এখন যদি কাঠিকে ফ্রেমের বড্ড উপরে তুলে ধরা হয় তখন আপনার ফ্রমে ধোঁয়ার উপস্থিতি বোঝা দায় হবে এবং ছবি এ্যাপিল হারাবে। তেমনি আপনি যদি নদীতে চলমান নৌকার ছবি তুলেন তাহলে নৌকার সামনের দিকে স্পেস দেয়াটা হবে বিচক্ষনতার কাজ।

ব্যালান্সিং

balance

ADs by Techtunes ADs

ছবিতে ব্যালান্সিং অনেক দরকারী টপিক। ছবিতে পয়েন্ট অব ইন্টারেস্ট সব একই জায়গায় জমা হলে অন্য দিক খালি হয়ে জেতে পারে। তাই আমরা চাইলে সহজেই ছবিতে ব্যালান্সিং করে পুরো ছবিটাকে আকর্ষনীয় করে তুলতে পারি। এতে ছবিতে দর্শকের পয়েন্ট অব ইন্টারেষ্ট ইউনিক থাকবে। যেমন উপরের ছবিটি।

রঙ

color

রঙই হচ্ছে ছবির প্রাণ। আপনাকে ছবির রঙ পছন্দের ব্যাপারে ক্রিয়েটিভ হতে হবে। কোন রঙ কি ধরনের এ্যাপিল  সৃষ্টি করে সেটা জানা থাকলে আরো ভালো হয়।

যেমন – সাধারণত উজ্জল রঙ ছবি ভাইব্রেশান, এনার্জি এবং আকর্ষন সৃষ্টি করে থাকে। সবুজ এবং নীল রঙ দর্শকের মনে প্রশান্তির সৃষ্টি করে থাকে। তবে পছন্দ এবং ক্রিয়েটিভিটি সম্পূর্ন আপনার।

অনেক নিয়ম কানুনই আমরা ফটোগ্রাফিতে মেনে চলি তবে মজার আরেকটা নিয়ম হল আমরা যে কোন সময়েই নিয়মে ব্রেক আনতে পারি। সেটা সম্পূর্ণ ফটোগ্রাফারের মনের খুশি।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি দুঃসাহসী টিনটিন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 12 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 200 টি টিউন ও 1541 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 23 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ হিসেবে তেমন আহামরি কেউ নই আমি। সাটামাটা জীবনটাই বেশী ভালো লাগে। আবার মাঝে মাঝে একটু আউলা হতে মন চায়। ভালো লাগে নিজেকে টিনটিন ভাবতে .... তার মত দুঃসাহসী হতে মন চায় ..... কিন্তু ব্যক্তি জীবনে অনেকটা ভীতুই বটে ..... অনেক কিছুই হাতছাড়া হয়ে গেছে জীবনে এই কারনে ..... আবার...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

এত সুন্দর টিউনে কি যে মন্তব্য করবো বুঝতে পারছিনা । খুব ভাল লেগেছে অসাধারন !
অসংখ্য ধন্যবাদ ভাইয়া।

    হাহাহাহা ….. আপনি তাহলে সময় নিয়ে চিন্তা করে একটা মন্তব্য করবেন …… অপেক্ষায় থাকলাম

jotilssssssssss. ধন্যবাদ।

খুব ভাল লেগেছে,অসংখ্য ধন্যবাদ 😀

প্রথমে আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি টপটিউনারের তালিকায় প্রথমে আপনার নামটি দেখার জন্যে।
আজকাল অধির আগ্রহে টেকটিউন্সের দিকে তাকিয়ে থাকি কখন আপনাদের টিউন আসবে আর আমরা একটি ভাল টিউন পেয়ে নিজেকে উপকৃত করব,আরো একটু বেশি বেশি আসেন টিনটিন ভাই এখন আপনাদের মতন ভাল টিউনারের খুবই অভাব অনুভব করছি।আমি আপনার টিউনের ধারুন ভক্ত,অসাধারন টিউন করেন আপনি এবং খুবই মান সম্মত, ফটোগ্রাফিতে কম্পোজিশান নিয়ে টিউন শেষ করলেন আজ আশা করছি অতি তারাতারি অন্য কোন টিউন নিয়ে হাজির হবেন আমাদের মাঝে শুভকামনা রইল আপনার জন্য আর টিউনের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

    সত্যিই তাই, উনাদের টিউন বা মাঝে মাঝে সবাইর টিউনে উনাদের মন্তব্য দেখলে টেকটিউনসকে অনেক প্রানবন্ত মনে হয় ।

    সর্বদাই চেষ্টায় থাকি নিয়মিত থাকার জন্যে ….. তাই একটু সময় পেলেই টিউন মিস হয় না।

অনেক দিন পর আপনার টিউন পেলাম, ধন্যবাদ টিনটিন ভাই।

টেকটিনসে আপনারে রেগুলার না পাইলেও ফেসবুকে ঠিকই রেগুলার পাই….. সো…. দূরত্ব যতই হো কাছেই আছেন…. 😀
আর….টিউনের কথা তো কিছু বলার নাই….. ১০০% কাজে লাগার মত টিউন……
অন্তত আমার তো ১০০০% কাজে লাগবে……

    অন্তত আমার তো ১০০০% কাজে লাগবেই

    শুভর মনে হয় এখন একটা এসএলআর লাগে …………. কবে নিচ্ছ?

    গ্রাজুয়েশন শেষ না করা পর্যন্ত মনে হয় নেয়ে হচ্ছে না….. 🙁

ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর টিউন এর জন্য । আপনার ছবি গুলো আমাদেরকে দিয়ে দিবেন আশা করি ।

সুন্দর টিউন। কিন্তু আমি যদি সমুদ্রের ছবি তুলতে চাই তাহলে কোন পজিশনটা ভাল হবে?

    আপনি কখন এবং কোন পজিশনে ছবি তুলবেন সেটা আপনার ব্যাপার … তবে হ্যাঁ সেই পজিশনে ভালো ছবি তোলার জন্যে কোন এক্সপার্টের টিপস নিতেই পারেন। আপনার ছবি কিন্তু আপনাকেই তুলতে হবে

Level 0

ফটোগ্রাফি
আমার একটা দুর্বার শখ
কিন্তু আমি ছবি তোলার সময় আমার অনন্য ব্যপারটি তুলে ধরার চেষ্টা করি
টিউনদ্বয় আমার জন্য উপকারি হয়েছে
ধন্যবাদ দিবোনা, কারন এখনও রেগুলার হননি। হলে অবশ্যই বকেয়া পরিশোধ করা হবে

Level 0

24838-1st 1
27523-2nd 1

2685টা টিউন ব্যবধান !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!
ভাই রেগুলার চাই

    এইটা কিসের হিসাব? ঠিক বুঝলাম না ………

    এই জায়গায় একটু বুদ্ধি খাটাতে হবে,তাহলেই বোঝা যাবে লাকি ভাই আসলে কি বুঝাতে চেয়েছেন।
    আপনার ১ম পর্ব এর লিঙ্ক এর শেষ দিকে 24838। (https://www.techtunes.co/photography/tune-id/24838/)
    আর এই পর্ব এর লিঙ্ক এর শেষ দিকে আছে 27523। (https://www.techtunes.co/photography/tune-id/27523/)

    2685টা টিউন ব্যবধান !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

    ১৯ মে, ২০১০ থেকে ২২ জুন, ২০১০ পর্যন্ত; ২৬৮৫ টি টিউন হয়েছে বলে মনে হয় না।

    আগের কমেন্ট এ দুটি লিঙ্ক দেয়ার কারণে মডারেটর ভাই এর কাছে চলে গেসে।তাই আবার দিচ্ছি।
    এই জায়গায় একটু ভাল করে দেখতে হবে,তাহলেই বোঝা যাবে লাকি ভাই আসলে কি বুঝাতে চেয়েছেন।
    আপনার ১ম পর্ব এর লিঙ্ক এর শেষ দিকে 24838। (techtunes{ডট}com{ডট}bd/photography/tune-id/24838/)
    আর এই পর্ব এর লিঙ্ক এর শেষ দিকে আছে 27523। (http://techtunes{ডট}com{ডট}bd/photography/tune-id/27523/)

    LuckyFM says:
    ২৩ জুন, ২০১০ at 5:55 পুর্বাহ্ন
    2685টা টিউন ব্যবধান !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

    ১৯ মে, ২০১০ থেকে ২২ জুন, ২০১০ পর্যন্ত; ২৬৮৫ টি টিউন হয়েছে বলে মনে হয় না।

    আসলেই জটিল হিসাব ….. আমার মত খর্ব মস্তিস্ক সম্পন্য মানুষের জন্যে একটু বোঝা দায়ই বটে

    @ ১৯ মে, ২০১০ থেকে ২২ জুন, ২০১০ পর্যন্ত; ২৬৮৫ টি টিউন হয়েছে বলে মনে হয় না।
    ===টিউন প্রকাশিত না হলেও (ড্রাফট করা থাকলে) ….সেটির একটি নাম্বার থাকে
    সেক্ষেত্রে ২৬৮৫ টি টিউন হওয়াটা অস্বাভাবিক নয় বলে আমি মনে করি

ধন্যবাদ সোহান ভাই ( শেষ কমেন্ট )

ভাল লাগল। তবে শেষ করলেন কেন বুঝতে পারলাম না। নতুন কোন ধারাবাহিক নিয়ে আসছেন?? নাকি, দায় মুক্তির ইতি টানলেন? উত্তরের অপেক্ষায় আছি।

Level 0

what a tune, great u r great u’r felling, keep continue brother.

খুবই সুন্দর টিউন। ধন্যবাদ।

কিন্তু টিউনটা স্টিকি হইল কেন বুঝলাম না।

Top of the top tuner

@ টিনটিন ভাই…
আমার ছবি গুলা একটু দেখবেন?
ফটোগ্রাফি সম্মন্ধে আমার বিন্দু মাত্র কোন ধারনা নাই
ভুল ত্রুটি গুলা একটু ধরিয়ে দিবেন?
লিংক: My Photo Gallery

বি:দ্র: ফাইল গুলি Ziddu তে আপলোড করা

হে হে হে জটিল অনিয়মিত টিনটিন ভাই 😉 আপনাকে অনেক ধন্যবাদ টিউন এর জন্য ।

Level 0

খুব সুন্দর হয়েছে ভাই। এতো সুন্দর করে িটউন করেন িকভােব বুজেত পাির না ???????????

চমতকার হয়েছে টিন্টিন ভাই। 🙂 🙂 🙂

শেষ পর্যন্ত টিউনটা শেষ করলেন। জুবায়ের ভাইয়ের থেকে আপনারটা ভালো হয়েছে । সহজ সুন্দর প্রাঞ্জল ভাষা।

ভাল লাগল।