ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

PHP MySQL শিখুন সহজ করে [পর্ব-০২] :: এইচটিএমএল এ ফর্ম তৈরি,ডাটাবেজ ও টেবিল তৈরির কৌশল

টিউন বিভাগ প্রোগ্রামিং
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

এই টিউনটি চেইন টিউনের অন্তর্ভুক্ত আপনি চাইলে অন্য টিউন গুলো দেখতে  পারেন.........

ADs by Techtunes ADs

ভুমিকাঃ

আস্সলামুয়ালাইকুম। আশা করি আল্লাহ্‌র রহমতে আপনারা সবাই ভাল আছেন। পর সমাচার আমি আবার আপনাদের সাথে কিছু শেয়ার করার জন্য আসলাম।
এই টিউনটি শুরু করার আগে [পর্ব-০১] টিউনটি পড়ে নিলে ভাল হয়। না পড়লে আমরা সামনে যেতে পারব না। মনে করি সবার টিউনটি পড়া হয়ে গেছে। তো সামনে চলুন।

এই টিউনে কি কি থাকবে?

  • কিভাবে এইচটিএমএল এ ফর্ম ডিজাইন করা যায়
  • কিভাবে মাইএসকিউএল এ ডাটাবেজ ও টেবিল তৈরি করা যায়
  • এইচটিএমএল কোডিং এবং কোডিং এর ব্যাখ্যা
  • পিএইচপি কোডিং এবং কোডিং এর ব্যাখ্যা
  • প্রয়োজনীয় স্ক্রীনশট

শুরু করা যাকঃ

১. ধরে নেই আমাদের কম্পিউটারে প্রয়োজনীয় সফটওয়্যারগুলো ইন্সটল দেওয়া আছে। তো এখন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করে দেই.........
২. প্রথমে আমরা একটি ফর্ম ডিজাইন করব। বলে রাখা ভাল আমরা শুধু মূলত কাজটাই দেখব। তাতে শুধু এইচটিএমএল কোডিং জানলেই হবে। না জানলে সমস্যা নেই আমি সাহায্য করছি.........
৩. এখন ড্রিমওয়েভার সফটওয়্যারটি অপেন করুন এবং এইচটিএমএল ফাইলে ক্লিক করুন।

Allah is One

৪. নিন্মের কোড গুলো টাইপ করুন অথবা কপি করুন এবং সেভ করুন information_form.html নামে। অন্য নামে সেভ করলেও চলবে তবে স্যিক্যুয়েন্স ঠিক রাখার জন্য আমরা যে নামের কথা বলা হয় সেই নামেই সেভ করলে ভাল হয়।

<html>
<head>
<title>Friends Information Colection Form</title>
</head>
<body>
<form name="information_form" method="post" action="information_form_process.php">
<h2 align="center">Friends Information Table</h2>
<table align="center" width="277" border="0">
  <tr>
    <td width="89">Name</td>
    <td width="172"><input name="name" type="text" maxlength="20"></td>
  </tr>
  <tr>
    <td>Address</td>
    <td><textarea name="address" cols="20" rows="5"></textarea>
    </td>
  </tr>
  <tr>
    <td>Sex</td>
    <td>
    <input name="sex" type="radio" value="male">Male
    <input name="sex" type="radio" value="female">Female
    </td>
  </tr>
  <tr>
    <td>Email</td>
    <td><input name="email" type="text" maxlength="30"></td>
  </tr>
  <tr>
    <td>Mobile No</td>
    <td><input name="mobile" type="text" maxlength="11"></td>
  </tr>
  <tr>
    <td><input name="reset" type="reset" value="Reset"></td>
    <td><input name="reset" type="submit" value="Add Friend"></td>
  </tr>
</table>
</form>
</body>
</html>

Allah is almighty

৫. কোড বিশ্লেষণঃ

এইচটিএমএল কোড লেখা অনেক সহজ আশা করি সহজে সবাই বুঝতে পারবেন।

  • এইচটিএমএল কোডিং লিখতে হয় ট্যাগ(tag) ব্যবহারের মাধ্যমে। অনেকটা কমান্ডের মতো, যেমন লেখা বোল্ড করতে চাইলে <b> ট্যাগটি ব্যবহার করতে হয়। প্রত্যেকটি ট্যাগ শুরু করতে হয় ওপেনিং ট্যাগ দিয়ে (<b>) এবং শেষ করতে হয় ক্লোজিং ট্যাগ দিয়ে (</b>). ক্লোজিং ট্যাগে (/) ব্যবহার হয়। তাহলে html এর ওপেনিং ট্যাগ হবে <html> দিয়ে এবং ক্লোজিং ট্যাগ হবে </html> দিয়ে। information_form.html ফাইল টি যেহেতু একটি এইচটিএমএল ফাইল তাই এর কোডিং শুরু হয়েছে <html> দিয়ে এবং শেষ হয়েছে </html> দিয়ে। মনে রাখতে হবে <html> এবং </html> এর মাঝে আমাদের যাবতীয় কোড লিখতে হবে।
  • এরপর <head> ট্যাগ শুরু হয়েছে। হেড ট্যাগ নিয়ে কিছু লিখলাম না তবে হেড সেকশনের মধ্যে <title> ট্যাগ নিয়ে লিখছি। টাইটেল ট্যাগের কাজ হল এই ট্যাগের মধ্যে যা লেখা হবে তা ব্রাউজারের টাইটেল বারে দেখা যাবে। যেমন আমি Friends Information Colection Form লিখছি বলে ব্রাউজারে Friends Information Colection Form লেখাটি দেখা যাচ্ছে। নীচে দেখুন...

Allah is One

  • আমরা ব্রাউজারের মধ্যে যা কিছু দেখতে পাই তা সবই বডি ট্যাগের মধ্যে লেখা হয়। বডি ট্যাগের শুরু <body> এবং শেষ </body> ।
  • যেহেতু আমরা ফর্মের মাধ্যমে ডাটা / তথ্য ইনপুট নিব তাই ফর্ম <form> ট্যাগটি  নেওয়া হয়েছে। ফর্মের নাম name="information_form"  দেই। অন্য নাম দিলে সমস্যা নেই। মেথড হিসেবে আমরা পোস্ট ব্যবহার করব। কারণ আমরা যদি পোস্ট মেথড ব্যবহার করি তাহলে ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবারে ডাটাগুলো দেখা যাবে না এর গেট মেথড ব্যবহার করলে ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবারে ইনপুটকৃত ডাটাগুলো দেখা যাবে। গেট মেথড ব্যবহার করলে কি হয় তা নীচে ছবির মাধ্যমে দেখানো হল। ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবার লক্ষ করুন।

Allah is One

ADs by Techtunes ADs
  • এবার পোস্ট মেথড ব্যবহার করলে কি হয় তা দেখুন। ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবার লক্ষ করুন।

Allah is almighty

  • ফর্মের ইনপুটকৃত ডাটা প্রসেস করার জন্য পিএইচপি কোড দরকার। পিএইচপি কোড যে ফাইলে লেখা আছে সেই ফাইলের নাম অ্যাকশনে action="information_form_process.php" দিতে হবে। একই ফাইলে ফর্ম ও পিএইচপি প্রসেস কোড লিখে ডাটা ডাটাবেজে স্টোর করা যায়, তবে আমরা সেদিকে এখন যাব না। আর যেহেতু এখানে পিএইচপি মাইএসকিউএল আলোচনার মূল বিষয় তাই এইচটিএমএল নিয়ে আর না আগানোই ভাল। তবে যেহেতু নতুনদের জন্য এই টিউন তাই একটু আলোচনার খাতিরে লিখতে হল। আর টেকটিউনসে এইচটিএমএল নিয়ে অনেক টিউন আছে, একটু দেখে নিলে ভাল হয়।

৬. মোটামুটি একটা ফর্ম তৈরি হল। এখন আমরা ফর্মের ডাটা প্রসেস করার জন্য information_form_process.php ফাইলে কোড লিখব তবে কোড লিখার আগে আমাদের ডাটাবেজ তৈরি করে নিতে হবে। এখন আমরা ডাটাবেজ তৈরি করা শিখবো। আমরা গ্রাফিক্যালি(GUI) শিখবো।

৭. এখন ওয়াম্প সফটওয়্যারটি ওপেন করুন এবং যেকোনো একটি ব্রাউজার( মজিলা, অপেরা ইত্যাদি) ওপেন করুন। ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবারে localhost লিখুন এবং এন্টার বাঁটন চাপুন। নীচের মতো ওপেন হবে।

Allah is One

৮. পিএইচপি মাইঅ্যাডমিন লিংকে ক্লিক করি অথবা ব্রাউজারে localhost/phpmyadmin/  লিখে এন্টার বাঁটন চাপুন। নীচের মতো আসবে।

Quran is the complete code of life

৯. ডাটাবেজ লিংকে ক্লিক করি। create new database এ friends_form নাম দেই এবং create বাঁটনে ক্লিক করি। Database friends_form has been created মেসেজ দেখাবে।

Allah is almighty

১০.বাম দিকের প্যানেল থেকে Friends_form ডাটাবেজে ক্লিক করি name box এ add_information এবং number of columns box এ 6 লিখে GO বাঁটনে ক্লিক করুন।

Allah is One

ADs by Techtunes ADs

১১. আলাদা একটি উইন্ডো আসবে। নীচের মতো পূরণ করে Save বাঁটনে ক্লিক করি।

Column

Type

Length/Values

Others  Item…b

Others

Item

.........

Index

A.I

ADs by Techtunes ADs
idINT255PRIMARYClick ON
nameVARCHAR20
addressVARCHAR50
sexVARCHAR6
emailVARCHAR30
mobileVARCHAR11

১২. ডাটাবেজ তৈরির কাজ শেষ। এখন আমরা information_form_process.php তৈরি  করব। এজন্য এখন ড্রিমওয়েভার সফটওয়্যারটি অপেন করুন এবং পিএইচপি ফাইলে ক্লিক করুন।

১৩. নিন্মের কোড গুলো টাইপ করুন অথবা কপি করুন এবং সেভ করুন information_form_process.php নামে।

<?php
	mysql_connect("localhost","root","") or die("Could not Connect Mysql.");
	mysql_select_db("friends_form") or die("Could not Select Database.");
$id="";
$name=$_POST['name'];
$address=$_POST['address'];
$sex=$_POST['sex'];
$email=$_POST['email'];
$mobile=$_POST['mobile'];
$br="</br>";
	$sql="Insert Into add_information Values
						(
							'$id',
							'$name',
							'$address',
							'$sex',
							'$email',
							'$mobile'
						)
						";
			if (mysql_query($sql))
			{
				echo '<center>Congratulations !  ' .$name. "  Successfully added your Information. </center>".$br ;
			}
			else
				{
					echo "<center>Please Input Correct Data.</center>";
				}
?>
<h2 align="center"><a  href="information_form.html">Add another</a></h2>

১৪. কোড বিশ্লেষণঃ

  • পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল আসলে কঠিন কোন বিষয় নয়, আসল বিষয় হচ্ছে আপনি এর পিছনে কতটুকু সময় দিচ্ছেন। যাই হোক information_form_process.php  ফাইলে প্রথমেই <?php দিয়ে শুরু হয়েছে। পিএইচপি কোডিং এর শুরুই করতে হয় <?php দিয়ে এবং শেষ করতে হয় ?> দিয়ে, তবে <? দিয়েও শুরু করা যাবে যদি পিএইচপি’র কনফিগারেশন ফাইল php.ini তে শর্ট ট্যাগের ব্যবহার এনাবল করা থাকে[ short_open_tag=on ]। আমরা সেদিকে এর বিস্তারিত যাচ্ছিনা।
  • মাইএসকিউএল এর ডাটাবেজে ডাটা স্টোর করার জন্য এখন আমাদের মাইএসকিউএল এর সাথে কানেক্ট হতে হবে। এর জন্য mysql_connect  ফাংশন ব্যবহার করা হয়েছে। মাইএসকিউএল এর সাথে কানেক্ট হওয়ার জন্য আমাদের তিনটি বিষয় উল্লেখ করতে হবে। ১. হোস্টনেম [আমাদের হোস্টনেম  localhost ] ২. মাইএসকিউএল এর ইউজারনেম [ডিফল্ট হিসাবে root ই থাকে, যদি নতুন নামে ইউজার তৈরি করেন তাহলে তার জন্য নতুন নাম দিতে হবে ] ৩. পাসওয়ার্ড [আমি পাসওয়ার্ড ব্যবহার করিনি তাই পাসওয়ার্ডের জন্য ডাবল কোটেশনের (“  ”) মধ্যে কিছু লেখিনাই, কেউ যদি পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন তাহলে root এর পর ডাবল কোটেশনের (“  ”) মাঝে পাসওয়ার্ডটি লিখবেন]।
  • দেখুন এরপর or die("Could not Connect Mysql."); লেখা আছে। এর অর্থ হল যদি মাইএসকিউএল এর সাথে কানেক্ট করতে না পারে তাহলে কি মেসেজ দিবে তা জানিয়ে দেওয়া। আপনি অন্য যে কোন মেসেজ লিখতে পারেন। যেমন “Sorry Mysql Error! We could not find it!” ।
  • মাইএসকিউএল এর সাথে কানেক্ট হওয়ার পর আমাদের ডাটাবেজের সাথে কানেক্ট হতে হবে। এর জন্য আমরা এখন ডাটাবেজটি সিলেক্ট করার জন্য mysql_select_db ফাংশনটি ব্যবহার করব। ডাবল কোটেশনের মাঝে আমদের তৈরি করা ডাটাবেজের(friends_form) নাম দিতে হবে। যদি ডাটাবেজটি সিলেক্ট করতে না পারে তবে একটি মেসেজ দিয়ে দিব। যেমন এখানে Could not Select Database মেসেজটি দেওয়া হয়েছে।
  • এই পর্যন্ত আমরা কেবল মাইএসকিউএল এর সাথে কানেক্ট হওয়ার বিষয় গুলো দেখলাম। এবার আমাদের information_form.html ফাইল থেকে সাবমিটকৃত ডাটাগুলো সংগ্রহ করতে হবে তারপর ডাটাবেজে ডাটাগুলো স্টোর করতে হবে।
  • আসুন প্রথমে ডাটাগুলো সংগ্রহ করার জন্য প্রয়োজনীয় কোড লিখি। ডাটাগুলো সাময়িক ভাবে জমা করার জন্য এখানে এখন আমরা ভ্যারিয়েবল ব্যবহার করব। ভ্যারিয়েবলের নামের পূর্বে $ সাইনটি দিতে হয়। দেখুন $id=" "; এখানে আইডি নাল বা খালি রাখা হয়েছে কারণ আইডি নাম্বার [সিরিয়াল নাম্বার হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে] অটোমেটিক জেনারেট হবে(১,২,৩,... এভাবে)। যদি  $id=" "; ডিফাইন না করি তাহলে এরর মেসেজ দেখাবে। এরপর $name=$_POST['name']; লেখা হয়েছে।
  • এখানে লক্ষণীয় বিষয় হল ভ্যারিয়েবলের নাম আমি যে ভাবেই দেই না কেন, $_POST['name']; পোস্টের পর যে নাম থাকবে তা information_form.html ফাইলের নেম ফিল্ডের name=” যা থাকবে তাই দিতে হবে”। যেমন আমরা name=”name” ব্যবহার করেছি। ছবি দেখুন...

Quran is the complete code of life

  • আর আমার $_POST[' পোস্ট এই জন্য ব্যবহার করেছি যে আমরা ফর্মের মেথড হিসাবে পোস্ট ব্যবহার করেছিলাম। ছবি দেখুন...

Allah is almighty

  • যদি গেট(get) মেথড ব্যবহার করতাম তাহলে এখানে $_GET[‘  ব্যবহার করতাম।
  • ফর্মের বাকি ফিল্ডগুলোর জন্যও একই রকমভাবে কোড লেখা হয়েছে।

এখন আমাদের ডাটাবেজে ডাটা প্রবেশ করাতে হবে। এজন্য আসুন আবার কোড লিখি। কি বোরিং লাগছে তাহলে আসুন একটু  মনটা ভাল করে নেই, তারপর বাকি কোড লিখব।

মন ভাল করার প্রসেসিং চলছে.........

আশা করি আপনাদের মনটা ভাল আছে। টিউনটি অনেক বড় হয়ে যাচ্ছে দেখে মনে করছিলাম  যে টিউনটি ২ ভাগে লিখি কিন্তু তাতে পাঠকদের মনের কথা চিন্তা করে এই টিউনেই মোটামুটি ডাটাবেজে ডাটা জমা করার বিষয়টি দেখাচ্ছি।

  • এই পর্যায় $sql="Insert Into add_information Values কোডটুকু লক্ষ করুন এখানে ডাটাবেজের টেবিলের মধ্যে ডাটা প্রবেশের কোড লিখা হয়েছে। Insert Into দ্বারা প্রবেশ করাও কমান্ড দেওয়া হয়েছে, আর add_information দ্বারা কোথায় ডাটা প্রবেশ করাতে হবে তা বলা হয়েছে। মনে রাখতে হবে add_information নামটি আমারা ডাটাবেজে যে টেবিল তৈরি করেছিলাম সেই টেবিলের নাম। যদি কেউ অন্য নামে টেবিল তৈরি করে থাকেন তবে সেই নাম উল্লেখ করতে হবে। পরবর্তীতে যখন আমরা একাধিক টেবিল নিয়ে কাজ করব তখন বিষয়টি আরও পরিষ্কার হবে।

Quran is the complete code of life

  • এরপর Values( ) দ্বারা টেবিলে কি কি ডাটা প্রবেশ করাব তা উল্লেখ করতে হবে। একটা বিষয় এখানে অবশ্যই লক্ষ করতে হবে আমরা যেসকল নামে ভ্যারিয়েবল হিসাবে ডিফাইন করেছিলাম সেই নামই দিতে হবে এবং সিরিয়াল ঠিক রাখতে হবে। যেমন প্রথমে আমরা ভ্যারিয়েবল হিসাবে $id, $name, $address ইত্যাদি ডিফাইন করেছিলাম তাই Values( ) এর এখানে $id, $name, $address ইত্যাদি এই নাম গুলোই ব্যবহার করতে হবে। মনে রাখতে হবে নামের বানান যেন ঠিক থাকে যেমন $ID, $Name, $Address  না হয়ে যায়।
  • আর ডাটাবেজে যে সিরিয়ালে টেবিল সাজানো হয়েছে Values( )  মধ্যে সেই সিরিয়ালে ভ্যারিয়েবল গুলোর নাম উল্লেখ করতে হবে, এখানে ভ্যারিয়েবল গুলোকে সিঙ্গেল কোটেশনের মধ্যে রেখে কমা(,) দ্বারা আলাদা আলাদা করতে হবে। আমি সহজে বোঝার জন্য নীচে নীচে লিখেছি যদি পাশাপাশি [‘$id’, ‘$name’, ‘$address’, ’$sex’, ’$email’, ’$mobile’] লেখা হয় তবে কোন সমস্যা নেই। লক্ষণীয় বিষয় শেষ ভ্যারিয়েবলের পর কমা দিতে হবেনা।  পূর্বের ছবি দেখুন ’$mobile’ এর পর কমা দেওয়া হয়নি।
  • এরপর if (mysql_query($sql)) কোডটি লিখা হয়েছে। এখানে mysql_query( ) ফাংশন দ্বারা আমাদের ডাটাবেজের টেবিলটিকে ক্যুয়েরী করার মাধ্যমে ডাটাবেজে ডাটা প্রবেশ হয়েছে কিনা তা যাচাই করছি। if দ্বারা যদি ডাটা সফলভাবে টেবিলের মধ্যে প্রবেশ করে থাকে তাহলে কি হবে তাই বোঝানো হয়েছে, আমরা এখানে নীচের মেসেজটি দিয়েছি...

echo '<center>Congratulations !  ' .$name. "  Successfully added your Information.

ADs by Techtunes ADs
  • এখানে echo দ্বারা প্রিন্ট কর বোঝানো হয়েছে। দেখুন Congratulations !  ' এর পর (.) ব্যবহার করা হয়েছে ((.) operator) দ্বারা দুটি আলাদা আলাদা ভ্যারিয়েবলকে একত্র বা যোগ করা হয় যাকে কনকেটেনেশন বলে। আমরা এখানে মেসেজ এবং ভ্যারিয়েবলকে যোগ করে দিয়েছি।
  • else  দ্বারা যদি ডাটাবেজের টেবিলে ডাটা প্রবেশ না করে তা হলে কি হবে তা বলা হয়েছে। আমরা বলেছি...  Please Input Correct Data.
  • পিএইচপি কোডিং ?> দ্বারা শেষ করার পর আমরা <a  href="information_form.html">Add another</a> লিখেছি। <a> ট্যাগকে অ্যাংকর ট্যাগ বলে। সাধারণত লিংক করার জন্য এই ট্যাগটি ব্যবহার করা হয়। href=” ” এর মধ্যে যাকে লিংক করব তার অ্যাড্রেস লিখতে হয়। আমার information_form.html ফাইলটি লিংক করেছি। আমরা যেহেতু একবার ডাটা প্রবেশ করানোর পর আবার ডাটা প্রবেশ করাতে চাই তাই Add another এ ক্লিক করলে যেন information_form.html  ফাইলটি ওপেন হয় অর্থাৎ ডাটা ইনপুটের ফর্মটি দেখা যায়।

কোডিং মোটামুটি এখানেই শেষ।

১৫. ওয়াম্প ফোল্ডারের www ফোল্ডারে একটি php project নামে ফোল্ডার তৈরি করি এবং information_form.html  ও information_form_process.php ফাইল দুটি php project ফোল্ডারে কপি করি। ফাইল সেভ করার সময় php project ফোল্ডারে সেভ করলে ভাল হয়; তাহলে আর কপি করার প্রয়োজন নেই।

১৬. এখন কি করতে হবে তা  পিএইচপি মাইএসকিউএল [পর্ব-১] :: ডাটাবেজে যেভাবে ডাটা জমা করব(গ্রাফিক্যালি)  টিউনের ৭ নং পয়েন্ট থেকে দেখুন।

সমালোচনাঃ এখানে কতগুলো বিষয় লক্ষণীয়:-

১. আমি এখানে এইচটিএমএল এর কোড ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেছি এটা পিএইচপি ও মাইএসকিউএল নিয়ে টিউন হওয়ার কারনে কাজটি ঠিক হয়নি। যেহেতু টিউনটি নতুনদের উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছে, তারা যেন অথবা যারা প্রথম দেখছেন তারা যেন সহজে পুরো কোডিংগুলো বুঝতে পারে তাই এই প্রচেষ্টা।

২. কোডিংএর মধ্যে বিনোদন বিষয়টি ঠিক মানায় না। কারণ প্রফেশনালরা কোডিং নিয়েই পড়ে থাকেন [ তারা পুরোটাই বুঝেনতো ! ], কিন্তু নতুনদের কোডিং করতে করতে বোরিং লাগতে পারে বলে এই চেষ্টা।

৩. ভাষাগত অনেক ত্রুতি থাকা অসম্ভব কিছু না। তাছাড়া আমিও যে টিউনার হিসেবে নতুন তাওতো দেখতে হবে।

৪. পিএইচপি মাইএসকিউএল [পর্ব-১] :: ডাটাবেজে যেভাবে ডাটা জমা করব(গ্রাফিক্যালি) এ যে ফাইল শেয়ার করা হয়েছে তাতে পাসওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে বলে অনেকে একটু বিরক্ত প্রকাশ করেছেন। বিষয়টা আমি যেভাবে দেখি.........

“যে জিনিস যত সহজে পাওয়া যায় সেই জিনিসের কদর তত কম হয়। যারা আসলেই কাজ শিখতে চান বা আগ্রহ আছে তারা একটু কষ্ট করে শিখলে তা অনেক দিন মনে থাকবে। ফাইলে পাসওয়ার্ড দেয়ার কারণ হল আপনার যদি কাজ শিখতে ইচ্ছা হয় তবে কষ্ট করে শিখুন। তাতে আমার চাইতে যিনি শিখবেন তার লাভ বেশী হবে। আর যার কাজ শেখার আগ্রহ নেই তার ফাইল ডাউনলোড করার কি দরকার আছে ?” আশা করি বিষয়টা সবাই বুঝতে পেরেছেন।

বিশেষ দ্রষ্টাব্যঃ

১. যে কেউ লেখা শেয়ার করতে পারবেন তবে নিজের নাম বলে চালিয়ে দিবেন না। যদি কোন বিষয় বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট বক্সে লিখুন।

২.যদি আমার লেখা বুঝতে সমস্যা হয় তবে জানালে খুশি হব।

ADs by Techtunes ADs

৩. যদি পাঠকদের ভাল না লাগে তাহলে আমি আর লিখব না। ভাল লাগলে মন্তব্য করুন।

৪. আপনাদের ভাল লাগলে পরবর্তী টিউন হবে...

পরবর্তী টিউনঃ PHP MySQL শিখুন সহজ করে [পর্ব-০৩] :: ডাটাবেজ থেকে ডাটা সংগ্রহ করা

প্রশ্নঃ এই টিউনে কি থাকবে ?

উত্তরঃ ডাটাবেজে জমাকৃত ডাটাগুলো কিভাবে ব্যবহার করতে পারি ?!!!

লেখকঃ এ.এম. রবিউল ইসলাম

সৌজন্যেঃ আবিশার ১৪

ADs by Techtunes ADs
Level New

আমি রবিউল ভাই। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 9 টি টিউন ও 97 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় টিউনার,

আপনি ভুল ভাবে আপনার চেইন টিউনের শিরোনাম গুলো দিচ্ছেন। আপনি পর্ব হিসেবে টিউনের শিরোনাম গুলো –

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০১] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু …

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০২] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু ….

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০৩] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু

এর অর্থ প্রথমে চেইন টিউনের নাম, এরপর (স্পেস দিয়ে) স্কয়ার ব্রাকেটের ( [ ] ) মধ্যে পর্ব হাইফেন (-) দিয়ে দুই সংখ্যায় পর্বের নম্বর। স্কয়ার ব্রাকেটের ( [ ] ) ভিতরে কোন স্পেস দিবেন না। এরপর (স্পেস দিয়ে) ডাবল কোলন (::) এর পরে (স্পেস দিয়ে) চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু॥ এই ফরমেটে চেইন টিউনের শিরোনাম গুলো লিখুন।

এই চেইনের পূর্বের পর্ব গুলোর শিরোনাম গুলোও যদি ‘টেকটিউনস চেইন টিউনের’ শিরোনাম মোতাবেক করা না থাকে তবে সব গুলো এখনই সংশোধন করুন ও পরবর্তী সকল চেইন টিউনে সঠিক ভাবে চেইন টিউনের শিরোনাম দিন।

টিউনের শিরোনাম গুলো ‘টেকটিউনস চেইন টিউনের’ শিরোনাম মোতাবেক সঠিক ভাবে সংশোধন করে আপডেট করে এই টিউমেন্টটির প্রতুত্তর (রিপ্লাই) দিন। টেকটিউনস থেকে আপনার টিউন গুলো চেইন করে দেওয়া হবে।

চেইন টিউন কীভাবে প্রক্রিয়া হয় তা জানতে ‘টেকটিউনস সজিপ্র’ https://www.techtunes.co/faq এর ‘চেইন টিউন’ অংশ দেখুন। ধন্যবাদ।

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউন যেহেতু প্রোগ্রামিং সংক্রান্ত টিউন ও টিউনে কোডের ব্যবহার রয়েছে তাই বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের কোড যেমন HTML, CSS, JS, PHP ইত্যাদি কোড সুন্দর ও সঠিক ভাবে দেখাতে টেকটিউনসের রয়েছে নিজেস্ব “কোড হাইলাইটার”। টেকটিউনসের “কোড হাইলাইটার” কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা জানতে এই টিউনটি দেখুন

ধন্যবাদ।

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউন গুলো খুবই ভাল হচ্ছে।

➡ তবে আপনি আপনার টিউনে প্রয়োজনীয় ছবি ও স্ক্রীনসট ব্যবহার করুন।

ছবি ও স্ক্রীনসট আপনার টিউনের মানকে ও টিউডার (টিউন রিডার) কে আকৃষ্ট করার মান আরও বাড়িয়ে তুলবে। কীভাবে টিউনে ছবি ও স্ক্রীনসট যোগ করবেন তা দেখার জন্য টেকটিউনসের ‘টিউন করা শিখে নিন’ ভিডিও টিউট গুলো https://www.youtube.com/iTechtunes দেখুন।

➡ আপনার টিউন আর সুন্দর করে ফরমেট করুন।

বিভিন্ন পয়েন্ট গুলো বুলেট আকারে দিন।
টিউনের প্রধান টপিত গুলো H2 করে দিন।
সাব হেডিং গুলো H3 করুন।
টিউনের কোন অংশে কখনও H1 হেডিং ব্যবহার করবেন না।
নিজের সাইট বা কোন লিংক টিউডারের কাছে আকৃষ্ট করার জন্য কখনও কোন লিংকে হেডিং (h1,h2,h3) বা বড় টেক্সট করে দিবেন না। আপনার সাইটের লিংক দেবার জন্য টিউনের নিচে ব্লককোট করে “সৌজন্যে:” লিখে সাইটের লিংক দিন। এই টিউনটি https://www.techtunes.co/internet/tune-id/188009 লক্ষ করুন টিউডার ও টিউজিটরদের কোন প্রকার অযাচিত আকৃষ্ট না করে টিউনের শেষে; নিচে কীভাবে ব্লককোট করে “সৌজনে:” লিখে লিংক দেয়া হয়েছে। এতে আপনার টিউনের টিউডার ও টিউজিটরা আপনার প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করবে।
টিউনে কখনও বিভিন্ন টেক্সট ভিন্ন ভিন্ন কালার ব্যবহার করবেন না এতে টিউডার টিউনে পড়তে বিরক্তি বোধ করবে।

কীভাবে সুন্দর করে টিউন ফরমেট করবেন তা জানতে টেকটিউনসের টিউন করা শিখে নিন ভিডিও টিউট গুলো https://www.youtube.com/iTechtunes দেখুন।

➡ নিচে কিছু দারুন ও সুন্দর ভাবে ফরমেট করা টিউনের উদহরণ দেয়া হল। লক্ষ করুন

টিউন গুলোতে কিভাবে প্রাসঙ্গিক ছবি => https://www.techtunes.co/freelancing/tune-id/141620
প্রয়োজনীয় স্ক্রিনসটের ব্যবহার => https://www.techtunes.co/tips-and-tricks/tune-id/102544
ঠিক ভাবে হেডিং ও সাব হেডিং এর ব্যবহার => https://www.techtunes.co/reports/tune-id/111219
বিভিন্ন পয়েন্ট গুলোকে বুলেট পয়েন্ট করে দেখানো => https://www.techtunes.co/reports/tune-id/111219
টিউনের মাঝে নির্দিষ্ট প্যারা তৈরি করা => https://www.techtunes.co/tips-and-tricks/tune-id/129685
টিউনে স্ক্রিনসট সহ টিউটোরিয়ালের বিভিন্ন ধাপ দেখানো => https://www.techtunes.co/featured/tune-id/95448
টিউনে কোড থাকলে তা কোড হাইলাইটারের মাধ্যমে উপস্থাপন => https://www.techtunes.co/web-design/tune-id/77692/

ইত্যাদি করে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।

এই টিউনের ফরমেট গুলোকে আদর্শ হিসেবে নিয়ে সবসময় আপনার টিউন গুলোকে সুন্দর ফরমেটে উপস্থাপন করুন। এতে আপনার টিউনের পাঠযোগ্যতা টিউডার ও টিউজিটরের কাছে বহুগুণে বৃদ্ধি পাবে।

➡ আপনার টিউনে যদি প্রোগ্রামিং সংক্রান্ত টিউন হয় ও টিউনে কোডের ব্যবহার থাকে তাহলে বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের কোড যেমন HTML, CSS, JS, PHP ইত্যাদি কোড সুন্দর ও সঠিক ভাবে দেখাতে টেকটিউনসের রয়েছে নিজেস্ব “কোড হাইলাইটার”। টেকটিউনসের “কোড হাইলাইটার” কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা জানতে এই টিউনটি https://www.techtunes.co/web-design/tune-id/77692/ দেখুন।

➡ টিউন করার আগে কিছু সময় নিয়ে পরিকল্পনা করুন।

➡ টিউডার ও টিউজিটররা বিস্তারিত, যত্ন নিয়ে, প্রয়োজনীয় ছবি যোগ করা ও সাবলীল ভাষার টিউনারদের খুবই পছন্দ করে। তাই সময় নিয়ে সুন্দর ভাবে, পরিপাটি করে ভাষা গুছিয়ে, আপনার মেধার পূর্ণ প্রয়োগ করে বিস্তারিত টিউন করুন।

অসম্পূর্ণ, অগোছালো, সুনির্দিষ্ট নয়, নাম মাত্র টিউন বা কোন রকম টিউন – এ ধরনের টিউন না করে সময় নিয়ে, সুন্দর ভাষার সুষ্ঠু প্রয়োগ করে, মেধার পূর্ণ ব্যবহার করে বিস্তারিত ভাবে টিউন করুন।

➡ কিছুদিন পর পর বা বেশ সময় ব্যবধানে টিউন না করে নিয়মিত টিউন করে কমিউনিটিতে আপনার বিশ্বস্থতা ধরে রাখুন। নিয়মিত টিউনারদের টিউডাররা খুব পছন্দ করে ও আস্থা রাখে। টিউন করার জন্য সপ্তাহের দুটি দিন বেছে নিন। এতে আপনার নিয়মিত টিউন করার ধারাবাহিকতা থাকবে।

টেকটিউনস বিজ্ঞান প্রযুক্তি চর্চার এক উন্মুক্ত সৌশাল নেটওয়ার্ক। টেকটিউনসে আপনার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির চিন্তা চেতনা মনন, অভিজ্ঞতার প্রকাশ ঘটান। আপনার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির জানা বিষয় গুলো প্রযুক্তির এই সুবিশাল নেটওয়ার্কে অন্যদের মাঝে ছড়িয়ে দিন। নিজেকে একজন মানসম্মত, দ্ক্ষ, কমিউনিটির অন্যদের সাথে বন্ধু ভাবাপন্ন টিউনার হিসেবে গড়ে তুলুন। হয়ে উঠুন একজন আদর্শ টেকটিউনার।

ভাই, অসাধারণ লাগলো। শুধুমাত্র এই টিউন এ কমেন্ট করার জন্য login করলাম। পরের পর্ব কিন্তু তাড়াতাড়িই চাই। অসংখ ধন্যবাদ আপনাকে।

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি টেকটিউনস চেইন টিউন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অভিনন্দন আপনাকে!

টেকটিউনসে চেইন টিউন কীভাবে প্রক্রিয়া হয় তা জানতে টেকটিউনস সজিপ্র এর https://www.techtunes.co/faq “চেইন টিউন” অংশ দেখুন।

নিয়মিত চেইন টিউন করুন। এখন থেকে আপনার নতুন করা চেইন টিউন গুলো টেকটিউনস থেকে চেইন এ যুক্ত করা হবে। চেইন টিউনে যুক্ত হবার ফলে চেইনের প্রতিটি পর্ব একসাথে থাকবে।

চেইনে নতুন পর্ব যুক্ত হলে তা টেকটিউনসের প্রথম পাতায় দেখা যাবে এবং “সকল চেইন টিউনস” https://www.techtunes.co/chain-tunes/ পাতায় চেইন টিউনটি যুক্ত হবে।

নিয়মিত চেইন টিউন করে নতুন নতুন টিউন আপনার চেইনে যুক্ত করুন এবং অসম্পূর্ণ না রেখে আপনার চেইন টিউনে নিয়মিত পূর্ণাঙ্গ রূপ দিন।

মেতে থাকুন প্রযুক্তির সুরে আর নিয়মিত করুন চেইন টিউন!

ধন্যবাদ।

Tune kora bondo korle kintu dao dia valo pamu. Jit raho bachche.

    ভাই দোয়া করুন। যেন তাড়াতাড়ি আপনাদের কাছে নতুন টিউন নিয়ে আবার ফিরে আসতে পারি।

ভালো হয়েছিল!