ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

C প্রোগ্রামিং চেইন টিউন [পর্ব-০২] :: বিট , বাইট , মেমোরি এড্রেস , কম্পাইলার

টিউন বিভাগ প্রোগ্রামিং
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

C প্রোগ্রামিং

কেমন আছেন সবাই ? আবার দেখা হইয়ে গেলো C programing চেইন টিউন এ । আগের টিউন এ আমি আপনাদের C Programing কি , কেন শিখবো এইসব ব্যাপারে বলেছিলাম । তবে C Programing শিখার জন্য আর অনেক কিছু জানার দরকার । আজকে আলোচনা করবো বিট, বাইট , কম্পাইলার ইত্যাদি বিষয়ে । তাহলে আর কথা না বাড়াই ।

ADs by Techtunes ADs

বিট এবং বাইট কি ?

বিট এবং বাইট হল কম্পিউটার এর বিভিন্ন ডাটার অতিক্ষুদ্র একক । কম্পিউটার সাধারণত '০' আর '১' নিয়ে কাজ করে । অর্থাৎ কম্পিউটার বাইনারি পদ্ধতিতে কাজ করে । আর এই বাইনারি সিস্টেমে প্রতিটি ডাটার একক হল বিট । কিন্তু এই বিট কে শুধুমাত্র '০' আর '১' এর মাধ্যমে প্রকাশ করা যায় ।

তাই বাইনারি সিস্টেমের এই সীমাবদ্ধতাকে কাটানোর জন্য কতগুলু বিটকে এক করে ব্যাবহার করা হয় যাকে বলে বাইট । ৮ বিট = ১ বাইট  । অর্থাৎ ৮ টা বিট মিলে হয় ১ বাইট । অর্থাৎ যদি বলা হয় যে কোন Software মেমোরিতে যদি 5MB জায়গা দখল করে তার মানে হল যে সে মেমোরিতে ১০২৪*১০২৪*৫ বাইট  জায়গা দখল করল ।

  • ৮ বিট = ১ বাইট
  • ১০২৪ বাইট  = ১ কেবি
  • ১০২৪ কেবি = ১ এমবি
  • ১০২৪ এমবি = ১ জিবি
  • ১০২৪ জিবি = ১ টেরা বাইট

মনে রাখা দরকার যে কম্পিউটার একটা  অক্ষর রাখার জন্য মাত্র ১ বাইট  জায়গা নিবে ।

C programing

মেমোরি এড্রেস কি ?

মেমোরি হল একটা কম্পিউটারের প্রধান অংশগুলুর মধ্যে একটা । সাধারণত কম্পিউটার প্রতিটি ডাটা তার মেমোরি থেকে অপারেট করে। কিন্তু এই মেমোরি এড্রেস টা আসলে কি? আমরা যদি একটা ক্লাসরুম এর সকল ছাত্র-ছাত্রীকে এক একটা Cell বিবেচনা করি তাহলে দেখা যাবে যে প্রত্যেকরই একটি আলাদা বৈশিষ্ট্য আছে । তেমনি কম্পিউটারের মেমোরি হল একটা ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস যা অনেকগুলা Cell এর সমষ্টি । প্রত্যেক টা Cell ই সমান ডাটা বহন করে । কিন্তু এখন কোন ডাটাটা কোন Cell  এ আছে সেইটা বুঝার জন্য আবার প্রত্যেকটা Cell এর ই আলাদা এড্রেস/ক্রমিক আছে যাকে বলা হয় মেমোরি এড্রেস ।

এখন কথা হল C প্রোগ্রাম লিখব কোথায় ? C প্রোগ্রাম লিখতে হলে আমাদের Compiler লাগবে ।

কম্পাইলার এবং ইন্টারপ্রিটার কি ?

আমরা জানি যে কম্পিউটার সুধু  মেশিন Language বুঝে । কিন্তু C Programing Language তো কম্পিউটার এর বোধগম্য না । তাই এমন কিছুর দরকার যেইটা কিনা এই ভাষা কে কম্পিউটার এর বোধগম্য করে দিবে । আর সেইতা করার জন্য আমাদের দরকার কম্পাইলার / ইন্টারপ্রিটার ।  কম্পাইলার  যেকোনো প্রগ্রামিং Language কে Computer Machine Language এ রুপান্তরিত করে তাকে কম্পিউটার এর ব্যাবহার উপযোগী করে তোলে । এখন কথা হল গিয়ে কম্পাইলার আর ইন্টারপ্রিটার যেহেতু একই কাজ করে তাহলে এদের মধ্যে পার্থক্য টা কোথায় ।

ADs by Techtunes ADs

কম্পাইলার C Programing Language কে Compile করে তাকে Machine Code এ Convert করে Executable File তৈরি করে যা পরবর্তীতে সহজভাবে কোন কম্পাইলার ছাড়াই ব্যাবহার করা যায় ।কিন্তু Interpreter সম্পূর্ণ Code কে Machine Code এ রূপান্তরিত করে না যার ফলে প্রতিবার প্রোগ্রাম ব্যাবহারের জন্য Interpreter এর দরকার পরে ।আর তাছাড়া কম্পাইলার ইন্টারপ্রিটার থেকে অনেক দ্রুত কাজ করে । তাই ইন্টারপ্রিটার থেকে কম্পাইলার অনেক বেশি জনপ্রিয় ।

এখন কথা হল গিয়ে কি ধরনের Compiler ব্যাবহার করা ভাল । অনেক ধরনের Compiler আছে । আমার জানামতে বর্তমানে সবচেয়ে ভাল Compiler গুলুর মধ্যে

CodeBlock , Dev C++ , NetBeans IDE এবং Microsoft Visual Studio ই উল্লেখযোগ্য ।

আজকে এই পর্যন্তই । আবার দেখা হবে ।

========================= HAPPY PROGRAMING ==============================

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি আসিফ খান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 6 টি টিউন ও 25 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি Asif Khan ।আমি একজন Computer Science & Engineering ছাত্র । Blogging এর নেশা থেকেই techtunes এ Sign up করা ।আশা করি আপনাদের ভাল কিছু উপহার দিতে পারব ।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাল লিখেছেন ! চালিয়ে যান

প্রিয় টিউনার,

আপনি ভুল ভাবে আপনার চেইন টিউনের শিরোনাম গুলো দিচ্ছেন। আপনি পর্ব হিসেবে টিউনের শিরোনাম গুলো –

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০১] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু …

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০২] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু ….

চেইন টিউনের নাম [পর্ব-০৩] :: চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু

এর অর্থ প্রথমে চেইন টিউনের নাম, এরপর (স্পেস দিয়ে) স্কয়ার ব্রাকেটের ( [ ] ) মধ্যে পর্ব হাইফেন (-) দিয়ে দুই সংখ্যায় পর্বের নম্বর। স্কয়ার ব্রাকেটের ( [ ] ) ভিতরে কোন স্পেস দিবেন না। এরপর (স্পেস দিয়ে) ডাবল কোলন (::) এর পরে (স্পেস দিয়ে) চেইন টিউনের ভিতরের বিষয়বস্তু॥ এই ফরমেটে চেইন টিউনের শিরোনাম গুলো লিখুন।

এই চেইনের পূর্বের পর্ব গুলোর শিরোনাম গুলোও যদি ‘টেকটিউনস চেইন টিউনের’ শিরোনাম মোতাবেক করা না থাকে তবে সব গুলো এখনই সংশোধন করুন ও পরবর্তী সকল চেইন টিউনে সঠিক ভাবে চেইন টিউনের শিরোনাম দিন।

টিউনের শিরোনাম গুলো ‘টেকটিউনস চেইন টিউনের’ শিরোনাম মোতাবেক সঠিক ভাবে সংশোধন করে আপডেট করে এই টিউমেন্টটির প্রতুত্তর (রিপ্লাই) দিন। টেকটিউনস থেকে আপনার টিউন গুলো চেইন করে দেওয়া হবে।

চেইন টিউন কীভাবে প্রক্রিয়া হয় তা জানতে ‘টেকটিউনস সজিপ্র’ https://www.techtunes.co/faq এর ‘চেইন টিউন’ অংশ দেখুন। ধন্যবাদ।

    @টেকটিউনস মেন্টর V: ধন্যবাদ Techtunes কে ।

অসাধারণ অনেক কিছু শিখতে পাড়লাম… ধন্যবাদ…

    @iTpoka: আপনাকেউ ধন্যবাদ । সাথে থাকুন ।

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি টেকটিউনস চেইন টিউন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অভিনন্দন আপনাকে!

টেকটিউনসে চেইন টিউন কীভাবে প্রক্রিয়া হয় তা জানতে টেকটিউনস সজিপ্র এর https://www.techtunes.co/faq “চেইন টিউন” অংশ দেখুন।

নিয়মিত চেইন টিউন করুন। এখন থেকে আপনার নতুন করা চেইন টিউন গুলো টেকটিউনস থেকে চেইন এ যুক্ত করা হবে। চেইন টিউনে যুক্ত হবার ফলে চেইনের প্রতিটি পর্ব একসাথে থাকবে।

চেইনে নতুন পর্ব যুক্ত হলে তা টেকটিউনসের প্রথম পাতায় দেখা যাবে এবং “সকল চেইন টিউনস” https://www.techtunes.co/chain-tunes/ পাতায় চেইন টিউনটি যুক্ত হবে।

নিয়মিত চেইন টিউন করে নতুন নতুন টিউন আপনার চেইনে যুক্ত করুন এবং অসম্পূর্ণ না রেখে আপনার চেইন টিউনে নিয়মিত পূর্ণাঙ্গ রূপ দিন। ধন্যবাদ আপনাকে।

মেতে থাকুন প্রযুক্তির সুরে আর নিয়মিত করুন চেইন টিউন!

অসংখ্য ধন্যবাদ Techtunes কে ।

বন্ধ করলেন কেন ? Next tune কবে পাব ?
আমরা আছি প্রতিক্ষায় ।

Khub sundor hoyechhe.
thanks