ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আমি একজন গর্বিত বাঙালি বলছি,আমিই জাগ্রত করি বাঙালির আবেগ “আমরা বাঙালি গর্বে গর্বিত আমরা বাঙালি,আমরা গর্বিত আমরা বাঙালি”!!!

 বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম

ADs by Techtunes ADs

এককালে যে জাতিকে “Useless Bangali” বলা হত তারা আজ জ্ঞানে কত পরিপূর্ণ । অনেক সফটওয়ার ডেভেলপার,গেমারু,ফ্রিল্যান্সার,গ্রাফিক্স ডিজাইনার আজ বাঙালিরা । তাই বাঙ্গালির কথা চিন্তাভাবনা করে আমার এই খুদ্র জ্ঞান দিয়ে বাঙালির গর্ব,বাঙ্গালির অহংকার,পাওয়া-না পাওয়া ইত্যাদি তুলে ধরবো আপনাদের কাছে । আশা করছি খারাপ লাগবেনা আপনাদের । আর এটি প্রযুক্তিমূলক ব্লগ বিধায় বাঙালি জাতির প্রযুক্তিমূলক বিষয় এতে প্রাধান্য পাবে ।

পাওয়ার প্লে ১

আগে বলা হত বাঙ্গালিরা কি পারে? কিন্তু সময়ের বিবর্তনে প্রশ্নটা আসলে চেঞ্জ হয়ে গেছে । এখন প্রযুক্তিতে বাঙালিদের প্রতি প্রশ্ন বাঙালিরা কি পারে না? তথ্য-প্রযুক্তি,জ্ঞান-বিজ্ঞান,ইন্টারনেট এ বাঙ্গালি জাতি এখন কতটা পরিপূর্ন ! বাঙালিদের মধ্যে এখন আছে অনেক ফ্রিল্যান্সার,সফটওয়ার ডেভেলপার,গেম এডিটর,গ্রাফিক্স ডিজাইনার ,ওয়েব ডিজাইনার ইত্যাদি ইত্যাদি । তাই বাংলাদেশ আর ভারত দুই বাংলাভাষাভাষীদেশ এখন অনেক উন্নত । এমন মুখ অজানা নয় যারা প্রবাসে পাড়ি দিয়েও স্বদেশিয় প্রযুক্তিতে অমূল্য অবদান রেখে যাচ্ছেন । এককালে কম্পিউটারকে মনে করা হত প্রভাবশালী সাদা চামড়াওয়ালাদের সামগ্রি হিসেবে,বলতে গেলে বাঙালিদের নাগালের বাহিরে । আর এখন স্কুল-কলেজ,দোকানপাঠ,অফিস-কলেজ,এমনকি পকেটেও কম্পিউটারের বসবাস । মানুষ আজ আর ৩২ পাতার নিউজপেপারের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই । এখন বিভিন্ন ব্লগ,ফোরামে ঠু মারা মানুষের একটা নীতিতে পরিনত হয়েছে । আজ সামান্য ১৪ বছরের দামাল ছেলেরা ইন্টারনেটে অন্যদের টিপস দিয়ে বেড়াচ্ছে । জ্ঞান অর্জনের জন্য কত কিছুই না করছে তারা । সত্যিই ভাবতে অবাক লাগে যে বাঙালিরা আর ইউজলেস বাঙালি নই । আজ সাদা চামড়াওয়ালা বিজনেসম্যানেরা তাদের কাজ করিয়ে নেওয়ার জন্য বাঙালিদেরকেই ভরসা করছে  ।  কোর্ট-প্যান্ট পরা বিদেশিরা মাঝে মধ্যে আমার মত টিনেজারদেরকেও বস বলে ডাকে । তবুও বাঙালিরা এত কিছু জেনেও ওই সাদাচামড়া ওয়ালাদেরকেই সন্মান করে স্যার বলে । ভাবতে পারি না(আমার ছোট মাথায় অমন চিন্তা-ভাবনা আর ধরতে চায় না ) ইউজলেস বাঙালিরা আজ ইংরেজী বলতে  শিখে গেছে । আমরা ওদের সাথে কথা বলি ওদের ভাষায় কিন্তু ওরা আমাদের ভাষায় কথা বলতে পারে না । অর্থাৎ এক্ষত্রেও এই ইউজলেস বাঙালিদের কাছে ওই  সাদা চামড়াওয়ালারা আজ পরাস্ত ।

আহ পরম শান্তি,মাঝে মাঝে চিতকার করে বলতে ইচ্ছা করে আমরা বাঙালিরা আর পরনির্ভরশিল নই ।

 

পাওয়ার প্লে ২

একটু লক্ষ করুন আজ বাঙ্গালীরা তথ্য প্রযুক্তিতে বিনা লাভে কত কাজ করে যাচ্ছে । যেমন ধরুন আমি পোস্ট লিখে কি কোন টাকা পাই ? পাই না । তাহলে বিনা পয়সায় খাটুনি করি কেন ?

পরিচিত হওয়ার জন্য (না উত্তরটা বোধহয় পুরোপুরি ঠিক হয় নি )

জ্ঞানার্জনের জন্য (না তাও পুরোপুরি ঠিক হলো না )

তাহলে কিসের জন্য বিনাপারিশ্রমিকে পোস্ট লিখি ?

আসলে মন থেকে শান্তি পাই । পোস্ট লিখে যখন সিনিয়রদের কমেন্ট পাই । কেমন একটা সস্তিবোধ হয় । আর মনটাকে শান্তি দেওয়ার জন্য আজ মানুষ বিনা পারিশ্রমিকে গুগল,ইয়াহু একাকার করে আমাজনের মহাবন থেকে সফটওয়ার সংগ্রহ করে দেয় । শুধু সফটওয়ারটাই নয় সেটা কিভাবে ঝালাই করে ফ্রি বানিয়ে দেওয়া যায় সেটাতেও সাদা চামড়াওয়ালা বাবুরা আমাদের কাছে পরাস্ত । আসলেই কি পারেনা এই ইউজলেস বাঙ্গালি !!!! শুধুতাই নয় শুধু একটা ক্লিকে আজ কি-বোর্ডের সব ইংরেজী অক্ষরকে সরিয়ে আজ আমরা বাংলা লিখি । এক্ষত্রে অভ্র আর বিজয় বাংলার অঙ্গীকার ।

ADs by Techtunes ADs

ননপাওয়ার প্লে

তবে কিছু ক্ষেত্রে বাঙ্গালি এখনো বোকাই রয়ে গেছে । আমরা যে অপারেটিং সিস্টেমগুলো ইউস করি সেগুলোতে প্রথমেই বাংলা ফন্ট দেওয়া থাকে না । তাই অনেকেই বাংলা দেখতে পারেন না । আর সেই মানুষদের সাথে ফেইসবুকে চ্যাটে বাংলায় লিখলে রিপ্লে আসে ‘Avoid Bangla Please’ ‘Dur Miya Ki Je Lekhen Bujhtei To Parchi Na’ । লক্ষ করুন নয় মাস সংগ্রামের পরও স্বাধীন বাংলায় হরফগুলো কিভাবে ইংলিশ হরফে পরিনত হয়েছে । আমার ফোনেও আমি বাংলা ঠিকমত লিখতে পারি না । আবার ফোনটাকে বর্জনও করতে পারি না । ইংরেজরা আজ আমাদের কোনঠাশা করে রেখেছে । কারন আমরা ফোন কোম্পানিতে সুপ্রতিষ্টিত নয়,অপারেটিং সিস্টেম বানালেও প্রচলিত করতে পারি না ইত্যাদি ইত্যাদি আবার বর্জনও করতে পারি না । নিজেরা শুধু এডিট করতে পারি মাত্র ।

পাওয়ার প্লে ৩

তবুও সালাম জানাবো সেই ছেলেটিকে যে কিনা টিফিনের টাকা বাচিয়ে ইন্টারনেটে প্রযুক্তি বিষয়ক ব্লগ পড়ে । সালাম জানাই সাইবার আর্মিকে বিডি এন্টি*** বানিয়ে কিছুটা হলেও বাঙ্গালি জাতিকে মুক্তির পথে নিয়ে যাওয়ার জন্য । এতে করে মানুষ খারাপ জিনিসে না গিয়ে আজকাল প্রযুক্তিকে জানার দিকে পা বাড়িয়েছে । সালাম জানাই ডিজিটাল ভাষাসৈনিক মেহেদি হাসান,মোস্তফা জব্বারকে । সালাম জানাই সেইসব সেনাদের যারা বিনামূল্যে একজন আরেকজনকে সফটওয়ার খুজে দেয় । সালাম জানাই সেইসব প্রবাসিদের যারা এখনও বিনামূল্যে দেশিয় প্রযুক্তিতে অবদান রাখছে । সালাম জানাই সেইসব এডমিনদের যারা নিজের টাকা খরচ করে সাধারনদের ব্লগিং প্লাটফর্ম বানিয়ে দিয়েছেন । সালাম জানাই সেইসব হ্যাকারদের যারা অন্যন্য দেশের সাথে সাইবার যুদ্ধ করে তাদের অন্যায়ের প্রতিবাদ করছেন । সালাম জানাই সেইসব ডেভেলপারদের যারা নিজের মেধা খাটিয়ে ভালো জিনিস বানিয়ে সেটা মানুষদের ফ্রিতে দিয়ে দেন । সালাম জানাই সেইসব ফ্রিল্যান্সারদের যারা নিজের মেধাকে কাজে লাগিয়ে সাদাচামড়াওয়ালাদের ভরসার পাত্র হয়ে রয়েছেন ।

ফ্রি-হিট

টিউনটা ছোটই করলাম যেন প্রতিটা লাইনকে জীবনের অস্ত্র হিসেবে নেন । বড় করলে  শুধু পড়েই যাবেন কাজের কাজ কিচ্ছুই হবে না । আমি টিউনটাতে কি বলেছি আশা করি বুঝতে পেরেছেন । আজ থেকে যেন কারো কাছে শুনতে না হয় ‘Avoid Bangla Please’ । আমি এইমাসটাই হয়তোবা নিয়মিত লিখতে পারবো । তারপর কলেজলাইফ আর হোস্টেলে থাকার কারনে লিখা সম্ভব হবে না । ছুটিছাটায় বাড়িতে এলে আবার লিখবো । এতদিন হয়ত সবাই ভূলে যাবেন আমার কথা । তবে কথা দিচ্ছি টিউন না করতে পারলেও মোবাইলে সবার টিউনগুলো নিয়মিত পড়বো ।

পরিশেষে

আসুন সবাই হাতে হাত রেখে বলি “ আমরা বাঙালি গর্বে গর্বিত আমরা বাঙালি,আমরা গর্বিত আমরা বাঙালি ।

বিঃদ্রঃ মনের ভাষা প্রকাশে লেখাই যথেষ্ট । তাই টিউনে কোন ইমেজ দিলাম না । আমার জন্য দোয়া করবেন । আমি অত্যন্ত ছোট । তাই কোন কিছু ভূল হলে ক্ষমা করে দেবেন । আর কমেন্ট করতে কিপ্টামু করবেন না ।

   

ফেইসবুকে আমি

ফেইসবুকে চিরকুমার সংঘ(টেকটিউনস গ্রুপ)

টেকটিউনসে আমার টিউনসমূহের ডিরেক্ট  URL :    http://www.techtunes.co/tuner/tishad77

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level New

আমি মোঃ আসেফ হাবীব তিসাদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 17 টি টিউন ও 326 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

দারুণ প্রতিবেদন। স্যালুট আপনাকে!

চমৎকার।এই আবেগ বাংলার জন্য এই ভালবাসা আমিও বুঝি,আমার মনে ধারন করি।শুধু একটাই অনুরোধ এই আবেগটাকে জীবিত রাখবেন।আমি প্রবাসে থাকি,এখানে বাঙ্গালির ভাল কিছু দেখলে গরবে মাথা উচু হয়ে যায় আবার যখন বাঙ্গালির কাছেই দেশের নিন্দা শুনি বলতে শুনি “১৯৭১ এর যুদ্ধ না হলে তারা নাকি আজকে দামি চালে ভাত খেতেন” ,তখন খুব বিচিত্র একটা ক্রোধ জন্মায় কিন্তু বড় বলে চুপ থাকতে হয়।অপেক্ষায় আছি একদিন সবাইকে দেখাব আমি কেন বাঙালি।তাই নিজের ভিতরটাকে বাচিয়ে রাখবেন। শুভকামনা

বাঙ্গালী জাতির প্রাণোজ্জীবিত টিউনটি পড়ে খুবই ভালো লাগলো । বাঙ্গালী জাতি হিসাবে মাথা উঁচু করে এভাবেই সারাজীবন চলুন । ফ্রিল্যান্সিং বা অনলাইনে অর্থ উর্পাজনের নামে ভিখারীদের মত আচরণ করে নিজেদের মাথাকে সাদা চামড়াওয়ালাদের কাছে কিছুতেই নীচু হতে দেবেন না । আমরা তাদের গোলাম নই । একদিন আমরাই তাদের গোলাম বানাবো । ফ্রিল্যান্সিং এর নামে নিজেদের মেধা, মান-মর্যাদা তাদের কাছে বিক্রি করবো না । তাদের দেশের ভিক্ষুকও ফ্রিল্যান্সারদের চাইতে দিনে বেশি ইনকাম করে । এভাবে বাঙ্গালী জাতির মর্যাদাকে তাদের দেশের ভিক্ষুকের চাইতেও নীচে নামবেন না । তারা আমাদের বস বলে সম্মান দেখাবে – আমরা কেন তাদের বস বানাতে যাবো ?? আমরা কেন কাজ পাওয়ার আশায় সাদা চামড়াওয়ালাদের পা-চাটা গোলাম হতে যাবো ??

বাঙ্গালী হিসাবে নিজেদের মাথা সর্ব সময় পৃথিবীর মাঝে উঁচু করে রাখুন এবং নিজের অন্তরসত্ত্বাকে বাচিয়ে রেখে বাঙ্গালী জাতির মান-মর্যাদেকে পৃথিবীতে সুন্নত করে তুলুন – এই শুভকামনাই আপনার কাছে রইল ।

    সত্যকথা এ ভাবে বলেই ফেললেন?ভাইজানেরা মন খারাপ করবে যে!সব খালি আছে অন লাইনে উপার্জনের ধান্দায়,মাগনা কেউ কিছু করতে চায় না।যে সময়টা তারা অনলাইনে উপার্জনের আশায় কাটায়-সেই সময়টা যদি গঠনমূলক কাজে লাগাতো তবে অনেক বেশী লাভবান হতো।বুঝবে কিন্তু অনেক পরে।

      হুম, সাধারণত এ সমস্যাটা দেখা দেয় নবীন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের নিয়ে – যারা ৫ থেকে ৬ বছরের মধ্যে ইন্টারনেট ব্যবহার করা শুরু করেছেন । ৫/৬ বছর পরে তারা সমস্যাটি থেকে মোটামুটি কাটিয়ে উঠতে পারে । কিন্তু জীবনের পথ ঘুরিয়ে দেওয়ার জন্য ৫/৬ বছর তরুণদের জন্য অনেক লম্বা সময় । এই ৫/৬ বছর ডিজিটাল পদ্ধতিতে অর্থ ইনকামের প্রতি এদের এতটাই তীব্র নেশা থাকে – যেমনটা থাকে কৈশোর বয়সে ছেলেমেয়েদের বিপরীত লিঙ্গের প্রতি তীব্র আকর্ষণ । শত নিষেধ করার পরেও তারা এই পথে পা বাড়িয়ে দেয় – অনেকটা যৌবনে পা পিছলানোর মতো আর কি !! 😀

      @প্রবাসী এবং তরঙ্গ: আসলে এইসব বাঙ্গালীদের কাছে ১০ বছর বয়স হলেই যেন ইনকাম করা ফরজ হয়ে যায় । দিনে কত আয় করতে পারে তারাই জানে!!! দেখলে মায়া লাগে !!!

সাধারনত তেমন কোন টিউনে আমি নির্বাচিত টিউনে ক্লিক করিনা।এটাতে করলাম।দারুন লিখনী।

    হুম, আপনার সাথে সহমত । টিউনটি নির্বাচিত করা হোক – চমৎকার ভাষাশৈলী । মাত্র ১৬ বছর বয়সেই অসাধারণ প্রতিভার অধিকারী । কিন্তু এধরণের অসাধারণ প্রতিভাগুলোকে নষ্ট পথে পা বাড়াতে দেখলে কার না খারাপ লাগে !! 😥

      @তরঙ্গ: সমস্ত প্রসংশা আল্লাহ তা’য়ালার জন্য । আমার মাঝে কি আছে আমি জানি না । কিন্তু আমি এটা জানি যে আমার মাঝে কি কি আনতে হবে । দোয়া করেন যেন আমার লক্ষ্যে পৌছাতে পারি ।

    @রওনক আলী ভাই(প্রবাসী): ধন্যবাদ । ইতালিতে থেকেও আপনি দেশিয় প্রযুক্তিতে অবদান রাখছেন তা ভূলবার নয় । আপনিও একজন গর্বিত বাঙ্গালী আর আপনাদের মত মানুষের জন্য বাঙ্গালী জাতি আজ এই অবস্থানে ।

প্রবাসী ভাই কিছু মনে করবেন না । আমি আপনার কথাই এক মত হতে পারছি না । আপনাদের মতো মানুষ রা তো নতুন দের কে দিয়েই যাচ্ছেন । এখানে আপনাদের তো কোনো ধান্দা নেই । কোনো লাভ ও নেই । তাহলে কেন দিচ্ছেন ??

    আপনি বোধহয় আমার কথা বুঝতে পারেননি।আমি অনলাইনে আয়ের কথা বলেছি।আমি বোঝাতে চেয়েছি যে সময়টা নবীনরা অনলাইনে আয়ের আহসায় কাটায় (কতটুকু আয় হয় আল্লাহ মালুম) সে সময়টা যদি গঠন মূলক কাজে লাগায় তবে তারা অনেক বেশী লাভবান হতো।অবশ্য অনেকেই আছেন অন লাইনে হাজার হাজার ডলার কামাই করছেন।

Level 0

বাঙ্গালি হিসেবে গর্ববোধ করি। গর্ববোধ করি বাঙ্গালির ঐতিহ্যের জন্য।

ভাইয়া তুমি সত্যিকারভাবে বাংলা ও বাঙালি কে ভালোবাসো……… 🙂
আমি টিউন লিখার প্রেরণা তোমার কাছেই পেয়েছি………ভাল থাক সবসময়
এই দোয়া করি……

“ আমরা বাঙ্গালী গর্বে গর্বিত আমরা বাঙ্গালী,আমরা গর্বিত আমরা বাঙ্গালী ।” পোস্ট টি নির্বাচিত করা হোক ।

মোঃ আসেফ হাবীব তিসাদ এতো সুন্দর করে আমার মনের কথা গুলো প্রকাশ করে দেয়ার জন্য খুব কৃতজ্ঞ।

:D:D:D:D:D:D:D:D:D:Dআমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি:D:D:D:D:D:D:D:D:D:D:D

😥 :cry::cry::cry::cry:আমার ভাইসসিটি গেমের এডিটিং টিউন কবে করবেন:cry::cry::cry::cry::cry:

    ধন্যবাদ 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 । দুই-তিনদিনের মধ্যে ভাইস সিটিতে হাত দেব ইনশাহআল্লাহ। ইদানিং এই কলেজে ভর্তির আবেদন করতে মশগুল হয়ে গেছি…………………… দুই তিন-দিন অপেক্ষা করেন ।

😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀

:cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry আমার ভাইসসিটি গেমের এডিটিং টিউন কবে করবেন:cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry :cry

    @মোহাম্মদ খালিদ হোসাইন: ধন্যবাদ 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 । দুই-তিনদিনের মধ্যে ভাইস সিটিতে হাত দেব ইনশাহআল্লাহ। ইদানিং এই কলেজে ভর্তির আবেদন করতে মশগুল হয়ে গেছি…………………… দুই তিন-দিন অপেক্ষা করেন ।

জটিল হয়েছে।

তবুও সালাম জানাবো সেই ছেলেটিকে যে কিনা টিফিনের টাকা বাচিয়ে ইন্টারনেটে প্রযুক্তি বিষয়ক ব্লগ পড়ে ।
ভাল হয়েছে টিউন। পড়াশোনার ফাকে ফাকে আশা করি লিখবেন তবে পড়াশুনার ক্ষতি করে না কিন্তু ।

    @বিপুল বিডি ০৮: এইতো ভাই এসএসসি পরীক্ষার পর দুই মাস হাওয়া খাওয়ার পাশাপাশি ১৩ টা টিউন লিখলাম । কলেজে ভর্তি হলে লেখা সম্ভব হবে কিনা জানিনা । ধন্যবাদ ।

হাত রেখে বললাম

“ আমরা বাঙ্গালি গর্বে গর্বিত আমরা বাঙ্গালি,আমরা গর্বিত আমরা বাঙ্গালি “

    @সাইফুল ইসলাম: ধন্যবাদ । টিউনখানা লিখতাম না । কিন্তু দুইদিন আগে ফেইসবুকে চ্যাটিং এর সময় একজন বাঙ্গালীর কাছ থেকে রিপ্লে পাইলাম “Avoid Bangla Please” । তাই এই টিউনটা লিখলাম !!!!!

আমি টেকটিউনস নিয়মিত না পড়লেও মাঝে মাঝে পড়ি প্রায় দেড় বছর ধরে। কিন্তু আজ অবধি কোনও টিউনে comment করা হয় নি। শুধু অকৃতজ্ঞের মত নিয়ে গেছি। কিন্তু আজ এই টিউনটা পড়ে মনে হল এই বাংলা প্রেমিক টিউনারকে সালাম না জানালে বোধহয় নিজেকে আর বাঙালি বলে পরিচয় দিতে পারব না। ভাইয়া তোমায় সালাম আর বুকে হাত দিয়ে বললাম “ আমরা বাঙ্গালী গর্বে গর্বিত আমরা বাঙ্গালী,আমরা গর্বিত আমরা বাঙ্গালী “। ভাল থেকো।

তোমার টিউন করার এক বত্‍সর পরে পড়লাম আর কম্মেন্ট করলাম বলে মাইন্ড খাইয়ো না কিন্তু।
তোমাকে আমি ধন্যবাদ অথবা কৃতজ্ঞ সমতুল্য কিছু বলে ছোট করতে চাই না।শুধু বলতে চাই আমরা বাঙ্গালী আর ডান হাতটা রাখবো বুকের বা পাশে অবশ্য বুকটাও ফুলে যাবে এমনিতেই।