ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

Blog Vs. Website: দুটোর পার্থক্য কি?

ADs by Techtunes ADs

আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন ব্লগ বা ওয়েবসাইট এর মধ্যে পার্থক্য কি? কয়েকদিন আগে আমার মাথায় এ বিষয়টা আসে। তখন আমি কিছু সাইট ঘেটে মোটামুটি একটা জ্ঞান অর্জন করি।

এই পোস্টে আপনাদের সাথে আমার মতামত শেয়ার করছি। আশা করি আপনাদের কাজে আসবে।

মূল আলোচনার আগে কিছু ভ্রান্ত ধারণা সম্পর্কে বলে নেওয়া ভাল। অনেকে ভাবেন Blogger বা িWordPress বা এ জাতীয় প্লাটফর্মে  সাইট খুললেই সেটা ব্লগ। আর যেগুলোর নিজেদের ডোমেইন আছে সেগুলো website. আসলে এটা পুরোপুরি সত্য না। এছাড়াও আরো কিছু ব্যাপার আছে। সেগুলো এখন আলোচনা করব।

প্রথমে Blog দিয়ে শুরু করি: 

  • ব্লগের বিষয়বস্তু নিয়মিত আপডেট করা হয়। েএর ধর্মই হল নতুন নতুন লেখা প্রকাশ করা।
  • যে কোন প্রতিষ্ঠান/ ব্যক্তি/ ওয়েবসাইটের একটা ব্লগ থাকতে পারে। যেটা গ্রাহকদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য ব্যবহৃত হতে পারে। এটাকে Informal Communication System ও বলা যায়।
  • ব্লগ হল Two Way Communication System. এতে গ্রাহকদের মতামত প্রকাশ করতে দেয়া হয়।
  • এটাকে তুলনা করা যেতে েপারে Digital Magazine হিসেবে। কারণ নতুন পোস্ট গুলো প্রথমে শো করা হয়।
  • ব্রগের একটা নির্দিষ্ট আকার এবং শেপ আছে। যখন মন চাইল তখনই আপনি একে পরিবর্তন করতে পারবেন না। অবশ্য টেমপ্লেট পরিবর্তন করে কাজটি করতে পারেন। তারপরো এটা ওয়েবসাইটের অতটা Customizable হবে না।
বিখ্যাত সব প্রতিষ্ঠানেরই একটা ব্লগ থাকে। যার মাধ্যমে তারা Informally কমিউনিকেট করে ভোক্তাদের সাথে। গুগল, মাইক্রোসফট বা এ জাতীয় অন্য সকল প্রতিষ্ঠানেরই ব্রগ রয়েছে। Search Engine গুলোর কাছে Blog খুবই প্রাধান্য পায়। কারণ ব্লগের Contents হয় সাধারণ Informative এবং সেই সাথে Fresh. খুব সহজেই এগুলো Search Engine এর Top এ থাকে। এবং Blog পরিচালনার জন্য বিশেষ কোন জ্ঞানও প্রয়োজন নেই। কম্পিউটার এবং ইন্টারনেটে মোটামুটি দক্ষ যে কেউ এটা তৈরী বা পরিচালনা করতে পারে।
এবারে আসি Website এর কথায়: 
সাধারণত Website কোন প্রতিষ্ঠানের ই হয়ে থাকে। ব্যক্তি মালিকানায় ও এর সংখ্যা কম না। কিন্তু ব্লগের তুলনায় ব্যক্তি মালিকানাধীন Website এর সংখ্যা নিতান্তই কম। কারণ একজন ব্যক্তির জন্য  Website এর তুলনায়  Blog ই বেশি উপযোগী। অবশ্য কোন অভিনেতা, খেলোয়ার এ জাতীয় বিখ্যাত কেউ হলে তার জন্য  Website বেশি মানানসই।
  • Website অনেক বেশি Versatile এবং . সে তুলনায় Blog এতটা Customizable না।
  • Website তৈরী এবং Maintenance করার জন্য  অবশ্যই Coding Knowledge লাগবে। যা ব্লগে খুব একটা দরকার হয় না।
  • ব্লগ একটা ফরমাল মাধ্যম। এখানে ভিজিটরদের কমেন্ট করার অপশন সাধারণত থাকে না। এতে প্রতিষ্ঠান শুধু নিজের Product/ Service, Information শেয়ার করে থাকে।
  • Website এর Contents ব্লগ এর মত এত দ্রুত পরিবর্তন হয় না। নতুন নতুন পোস্টও প্রতিদিন দেয়া হয় না। শুধুমাত্র দরকারী তথ্যগুলোই এখানে শেয়ার করা হয়।
আপনারা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন Website প্রতিষ্ঠানের জন্যই বেশি মানানসই। আর ব্লগ আপনার আমার মত সাধারণ মানুষের জন্য। কারণ একজন ব্যক্তি নিজের মন মত যখন খুশি তখন নতুন পোস্ট শেয়ার করতে পারে। ওয়েবসাইটে এমনটা করা যায় না। হালকা ব্যাপার ওয়েবসাইটে আলোচনা করলেও জিনিসটা ভাল দেখায় না।
উদাহরণ হিসেবে টেকটিউনস বা টিউনারপেজের কথা বলা যায়। দুটোই ব্রগ। কারণ এতে নতুন নতুন পোস্ট প্রতিদিন শেয়ার করা হচ্ছে। 
এই লেখা পড়ার পর আপনি নিশ্চই বুঝতে পারছেন Blog এবং Website দুটোরই সুবিধা অসুবিধা আছে। এ কারণে এখন অনেকেই দুটোকে মিলাতে চায়। যাতে দুটোর সুবিধাই পাওয়া যায়। যারা WordPress এর প্রিমিয়াম ভার্সন ব্যবহার করেন তারা হয়ত জানেন এর মাধ্যমে যেমন ব্লগ বানানো যায়, তেমনি সম্পূর্ণ একটা Website ও বানানো যায়। তাই অনেক Higher Ranking এর সাইট গুলোও অনেক সময় WordPress এই বানানো হয়ে থাকে।

সবশেষে বলতে চাই-  ব্লগ আসলে এক ধরনের ওয়েবসাইট!      😉

এর আগে প্রকাশিত-

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি আব্দুর রহমান। Admin, Marks PC Solution, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 30 টি টিউন ও 242 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

There is no mistake in the world of technology! Everything is learning!!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

nice

কি রকম nice?
😉

good discussion bro……………………… [email protected]

Level 0

কিন্তু একটা কথা মানতে পারলাম না!
ব্লগের একটা ব্যাসিক সেপ আছে। এখন খুব ইউনিক আর পার্থক্যপূর্ন টেমপ্লেট পাওয়া যায়। JOHNY র টেম্প্লেটগুলা এই ধরনের। আমার ব্লগ দেখুন এখানে

    @STUBOO:
    আমিও তো সেটাই বললাম। Template পরিবর্তন করে নানান রুপ দিতে পারেন।

    কিন্তু একজন Expert Web Developer কোডিং করেই সাইটকে বিভিন্ন রুপ দিতে পারে। যেটা সাধারণ ব্লগে এতটা সহজে করা যায় না। আপনার কিছু নির্দিষ্ট লেআউটে কাজ করতেই সুবিধা বেশি। কারণ আলাদা Template ব্যবহার করলে সেটা ব্লগারের সাথে খুব একটা কম্পাটিবল হয় না।

    এ কারণেই বললাম ব্লগ ওয়েবসাইটের মত এতটা Customizable না। তবে আজকাল আর কোন কিছুই অসম্ভব না। Blogger যদি WordPress এর চাইতেও বেশি সুবিধা দিতে পারে তখন হয়ত আপনি সরাসরি বলতে পারবেন ব্লগারও ওয়েবসাইটের চেয়ে কম না! 🙂

    আমিও সেই আশায় আছি। Domain কিনে টাকা খরচ করার ইচ্ছা আমার নেই। 😉