ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

মাইক্রোসফট আর ফেসবুক কি গুগলকে কড়া চ্যালেঞ্জ দিতে চলেছে?

চলতি সপ্তাহে ফেসবুক এবং মাইক্রোসফট তাদের মধ্যে আগামী দিনের পরিকল্পনার ছক করে ফেলেছে বলে শোনা যাচ্ছে। তাদের মধ্যে একটি পার্টনারশিপ তৈরী হচ্ছে যা হয়তো গুগলকে ভবিষ্যতে কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেবে কারন ফেসবুক আর মাইক্রোসফটের এই পার্টনারশিপের মধ্যে দিয়ে বিং সার্চে আসছে এক নতুন দিগন্ত। শোনা যাচ্ছে যে এখন নাকি সার্চ রেজাল্টেও "সোসিয়াল" ছোঁয়া থাকবে।

ADs by Techtunes ADs

নতুন মোবাইল কিনবেন? নাকি, নতুন গাড়ি কিনবেন? এখন বিং সার্চ পাতায় দেখতে পাবেন আপনার ফেসবুক ফ্রেন্ড লিস্টে থাকা ব্যাক্তিরা কোন মোবাইল সেট বা কোন গাড়ি পছন্দ করেছেন। কেনার আগে সার্চ পাতা থেকেই অন্যান্যদের পছন্দের রায় জেনে যাবেন। ভাবতেও কি পারছেন বিষয়টা? সত্যিই এক নতুন দিগন্ত নয় কি?

আপনারা হয়তো ভাববেন এটা কীকরেই বা সম্ভব? কেন নয়? ফেসবুকে প্রতিদিন কতো ইউজার কতোরকমের বিজ্ঞাপন দেখে তাতে 'লাইক' বোতাম চাপছেন। এতে করে তাদের পছন্দের ছাপ রেখে দিচ্ছেন তারা। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সেই ডেটা দিয়েই মাইক্রোসফটের সঙ্গে বিং সার্চে তার নমুনা দেখাতে চলেছে আগামী দিনে। ভেবে দেখুন, একটি গাড়ি কিনবেন, সবাইকে জানাতে চাইছিলেন না, কিনে তারপরে সারপ্রাইজ দেবেন সবাইকে, অথচ দামী জিনিস কেনার আগে অন্যদের রায় নেওয়া ভালো - আগামী দিনে তাও সম্ভব হবে। কাউকে না জানিয়েই ফ্রেন্ডদের রায় নিতে পারবেন সার্চ ইঞ্জিন থেকে!

ওয়াকিবহাল মহল প্রশ্ন তুলেছে, কেন ফেসবুক বিশ্বের এক নম্বর সার্চ ইঞ্জিনের সাথে মিলে এইটা করছেনা, কেন মাইক্রোসফটের সাথে? আর, এতে করে গুগলের সামনে যে চ্যালেঞ্জ আসবে, সেইটা গুগল কীভাবে সামাল দেবে? গুগল কি তবে ট্যুইটারের সঙ্গে হাত মেলাবে? সে নাহয় ভবিষ্যতেই দেখা যাবে, এখন আসুন দেখি ফেসবুকের কর্ণধার মার্ক কী বলেছেন মাইক্রোসফটের ক্যাম্পাসে বসে -

"They really are the underdog here. They're incentivized to go out and innovate. They have all these smart people and are trying to do all these new things."

গুগল এই চ্যালেঞ্জের সামনে পড়ে জানিয়েছে যে এতে তারা কোনোই বিপদের আশঙ্কা করছেননা, তারা এই নতুন চ্যালেঞ্জকে স্বাগত জানাচ্ছেন। গুগলের মুখপাত্র জানাচ্ছেন -

"We welcome competition that helps deliver useful information to users and expands user choice. Having great competitors is a huge benefit to us and everyone in the search space. It makes us all work harder, and at the end of the day our users benefit from that."

গুগলকে এর আগেও চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে মাইক্রোসফট আর ইয়াহু। তাতে একটুও টলাতে পারেনি গুগলের দৃঢ় পদক্ষেপকে। মিলিতভাবেও বিং ও ইয়াহু চেষ্টা করেছিল, তাতেও গুগল পাত্তা দেয়নি। গত মাসেও গুগল সার্চ মার্কেটের ৭২% মার্কিন ইউজার পেয়েছে। তাহলে এখন কেন গুগল সামান্য চিন্তিত? কারন একটাই! সার্চ ইঞ্জিনের ব্যাপারে সিংহভাগ ইউজার গুগলকে পছন্দ করেন, কিন্তু সোসিয়াল নেটওয়ার্কিংয়ের ব্যাপারে গুগল বাদ দিয়ে ইউজাররা ফেসবুকেই বেশি। তাই এখন যখন মাইক্রোসফট হাত মিলিয়েছে সোসিয়াল সার্কেলের বিগ ব্রাদারের সঙ্গে, তখন অবশ্যই সেটা গুগলের জন্য চিন্তার বিষয় তো বটেই!

ADs by Techtunes ADs

এটা সোসিয়াল নেটওয়ার্কিংয়ের যুগ, আর গুগলের প্রধান বিজনেস হলো ইন্টারনেট সার্চ; এখন যদি সার্চ ইঞ্জিন ব্যবসায় সোসিয়াল নেটওয়ার্কিং জুড়ে যায় ফেসবুকের ৫০০+ মিলিয়ন ইউনার সহ, গুগলের এক্সিকিউটিভরা অবশ্যই চিন্তিত হবেন!

লড়াইটা দুটি সার্চ ইঞ্জিনের নয়, এটা আসলে গুগল আর ফেসবুকের লড়াই - কে নিয়ন্ত্রণ করবে Future of the Web? হ্যাঁ, এইটা এখন বিশ্বের ১ নম্বর আর ২ নম্বর ওয়েবসাইটের লড়াই! এদের লড়াই আগেও ছিলো, তবে মাইক্রোসফট এদের লড়াইয়ের মাঝে ঢুকে পড়ে এখন লাভ তুলে নিতে চাইছে।

এও শোনা যাচ্ছে যে Google Me নামে নতুন সোসিয়াল নেটওয়ার্কিং শুরু করতে যাচ্ছে গুগল। অর্কূট আর বাজ তেমন সাফল্য না পাওয়ার পরে এখন আবার এই নতুন সোসিয়াল নেটওয়ার্কিং দিয়ে ফেসবুককে টেক্কা দিতে না পারলে বিষয়টা গুগলের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি রিয়া। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 96 টি টিউন ও 362 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

জীবনের সব ভুল, যদি ফুল হয়ে যায়... জীবনের সব কালো, যদি আলো হয়ে যায়...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমাদের জন্য বলতে হবে এটা ভাল সংবাদ। কারন এই সুযোগে আমাদেরও কিছু লাভ হবে।
ধন্যবাদ আপনাকে।

Google is Google, কেউ তাকে টলাতে পারবে না।
গুগলের মুখপাত্রর কথাটা আরো ভালো লাগলো-
“We welcome competition that helps deliver useful information to users and expands user choice. Having great competitors is a huge benefit to us and everyone in the search space. It makes us all work harder, and at the end of the day our users benefit from that.”

আর তাতে মনে হয় সাধারন মানুষের লাভ হবে , তারা নতুন কিছু পাবে।

ধারণাটা ভাল। তবে এইজন্যই বোধহয় এখন ফেসবুক বন্ধ করতে হবে। কারণ প্রাইভেসী বলে কিছু থাকছেনা।
তবে গুগলের বোধহয় খুবএকটা সমস্যা হবে না। কারণ ফেসবুকে মাইক্রোসফটের শেয়ার আছে অনেকদিন ধরেই। যেজন্য গুগল এদের কিনে নিতে পারেনি।
আর এতকিছুর পর গুগল যে বসে থাকবেনা এটা নিশ্চিত।

————————————————–
Movie, Music, Ebooks, Software all is here.

মাইক্রোসফট হল সাম্রাজ্যবাদীদের মত। আমার মনে হয় তারা গুগলের টিকিটাও ছুঁতে পারবেনা। গুগল ইজ গুগল। যেভাবে শক্ত হাতে তারা নিজেদের গড়ে তুলেছে সেভাবেই তারা তাদের স্থানে দাড়িয়ে থাকবে। মজার বিষয় হল আমার মনে হয় এতে ফেসবুক কিছু মেম্বার হারাতে পারে এরকম ইনফরমেশন পাচারের কারনে।

    হিমায়িত ভাইয়ার সাথে একমত।

    হিমায়িত দিহান says:
    মাইক্রোসফট হল সাম্রাজ্যবাদীদের মত।
    *ভুলে যান কেন দিহান ভাই মাইক্রোসফটের জন্ম কিন্তু এমেরিকাতেই।

আহা, যদি facebook বন্ধ হইয়া যাইত, তাহা হইলে ব্যাপক মজার হইত। ইহারা Social Networking-র নামে কিছুটা Social Harassment-র চারণ ক্ষেত্র তৈয়ার করিয়াছে বৈকি। ইহাদিগের মাধ্যমে উল্লেখযোগ্য পরিমাণের অর্ন্তজালের বাসিন্দাবৃন্দের UN-PRODUCTIVITY বাড়িয়াছে অপচয়জনক পথ্য-উপায়ে।
আহা, ড. ইউনুস সাহেবের Social Business-র কবিরাজী ফর্মুলা এই সকল `সমাজ ব্যাপারী’দের সাইটে প্রয়োগ করা হইত, তাহা হইলেও কিছুটা খোশ-খবরী লাগিত।

তথ্যটি শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।
আমার মনে হয়না গুগলের সাথে আর কেউ টেক্কা দিয়ে পারবে কারন,
দিনেদিনে গুগল যেমনি তার নতুন নতুন সেবা নিয়ে এগিয়ে আসছে তাতে আমারতো সন্দেহ হয় গুগলের ধারে কাছেও কেউ যেতে পারবে কিনা।

😀 😀 😀 😀 আমিতো নতুন আসলাম সাইটে, ঠিক বলতে পারি এই ব্যপারে কিছু 😀 😀 😀 😀 😀

    বলেন বলেন, সবাই জানবে, শিখবে 🙂

    bhai apnara holen murubbi manush jon, puran user, amar kichu bola biyadobi hoye jabe :D:D hahaha….anyways….search engine hisabe google ke akhono meu touch korte parbe na. tobe onno service a tara pichiye ache amar mote

    @Pudina Pata, ভাইয়া কি বলতে চাইলেন আর কি বললেন, নতুন হন চাই পুরাতন…আপনার জ্ঞানটাকে সবার মাঝে বিতরন করুন। আশা করি বুঝতে পেরেছেন। 😛

    hahhaha…bhai ami bujhte parsi beparta apni bujhen nai….techtunes ar manushra ki dushtami bujhe na naki???ami to new aslam etao jani na…..:p hahahahha 😀

Google….Always no 1

বিট্রিশ সরকার যেমন একসময় গোটা বিশ্বকে শাসন-শোষন করেছে…কিন্তু তা কিন্তু বেশি দিন স্থায়ী হয় নাই। কারন বিশ্ব কারো একার নিয়ন্ত্রনে চলতেই পারে না, যেভাবেই হো একটা না একটা সময় এর পতন বা ক্ষমতাচ্যুত হবেই। আর এখানতো তথ্য প্রযুক্তির শাসন চলছে। কর্তৃত্ব এখানে নেই, কি বাবছেন এটা কেমন কথা বললাম… :P, দেখুন..সার্চ এ গুগল, নেটওর্যাকিং এ ফেসবুক তারপরেই টুইটার…অবশ্য আমাদের দেশে আমরা সবাই ফেসবুক গুরু :)। সফটওয়্যারে মাইক্রোসফট…আর অপেন সোর্স এ উবুন্তু। আমি জানি আমার এ মন্তব্যের সাথে সবাই একমত হবেন না। কারন এটা আমার ব্যক্তিগত মতামত।

এবার আসি গুগল, ফেসবুক ও মাইক্রোসফট এর কথায়..এই তিন ভিন্ন প্লাটপর্ম আমাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্দ অংশ হয়ে দাড়িয়েছে। একটিকে ছেড়ে আর একটিকে নিয়ে ভাবা যায় না। তাই এদর কে কার সাথে হাত মিলালো সেটাই আমাদের দেখার পালা….ফেসবুক যদি সত্যি মাইক্রোসফট এর সাথে হাত মিলায় তবে কিন্তু একটা কিছু বড় ধরনের পরিবর্তন আসছেই..সেই অপেক্ষায় নাহয় থাকলাম..

উপরে এক ভাই প্রাইভেসি নিয়ে বলেছেন, আমি তাকে বলতে চাই ইন্টারনেটে আপনার এমন কোন তথ্য মেয়া করবেন না যাতে আপনার প্রাইভেসি বিপদের মুখে পাড়ে। কারন এই তথ্য প্রযক্তি যেমন বিশ্ব আলোর মুখ দেখাচ্ছে প্রতিয়িতই..এই তথ্য প্রযুক্তিই আমাদের মানব অস্তিত্বকে ধ্বংস !!!! করবে এটা নিশ্চিত।

রিয়াপিকে অসংখ্য ধন্যবাদ এই মূল্যবান তথ্যটিকে সবার মাঝে বিতরন করার জন্য 😀

    উপরে এক ভাই প্রাইভেসি নিয়ে বলেছেন, আমি তাকে বলতে চাই ইন্টারনেটে আপনার এমন কোন তথ্য মেয়া করবেন না যাতে আপনার প্রাইভেসি বিপদের মুখে পাড়ে। কারন এই তথ্য প্রযক্তি যেমন বিশ্ব আলোর মুখ দেখাচ্ছে প্রতিয়িতই..এই তথ্য প্রযুক্তিই আমাদের মানব অস্তিত্বকে ধ্বংস !!!! করবে এটা নিশ্চিত।
    আমার মনে হয় ইন্টারনেট যে কতটুক ভয়াবহ হতে পারে তা ক’দিন আগে বাংলার এক মডেল কে নিয়ে ঘটে যাওয়া ঘটনা থেকে প্রমাণিত হয়।
    আজকাল ফেইসবুকে কোন কিছু লেখলেই তা আরেকজনে নিউজ ফিডে গিয়ে হাজির। একদিন দেখি আমার এক বন্ধুর বোন (হয়ত ভুল করে) লাইভ এডাল্ট চ্যাট এ ঢুকেছিল আর সেইটা আমার হোমপেজের ডান দিকে এড হিসাবে দেখাচ্ছে। এর মানে কি জানতে পারি? ন্যুনতম বুদ্ধি থাকলে ফেসবুক এটা দিতনা। আজব আর কি।

    হুম 🙂 ধন্যবাদ দিহান ভাই।

‘বিশ্ব কারো একার নিয়ন্ত্রনে চলতেই পারে না, যেভাবেই হো একটা না একটা সময় এর পতন বা ক্ষমতাচ্যুত হবেই।”
সত্য বলেছেন।

Level 0

apnara vhule jacchen keno Google+Youtube Partner Program

And the lateset Popular website rank is now :

1. Google
2. Facebook
And the third one is Youtube…

So Microsoft & Facebook a long way is waiting for you guys! So, Keep trying 😀