AMD RADEON FreeSync 2 নিয়ে যত কিছু

টিউন বিভাগ প্রতিবেদন
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

টেক জায়ান্ট এএমডির HDR প্রযুক্তির Freesync 2 ফিচারটি কিন্তু নতুন জিনিস নয়। গত বছরের CES 2017 সম্মেলনেই কিন্তু এটার উন্মোচন হয়েছিলো। কিন্তু এখন আমরা দেখতে পাচ্ছি যে বর্তমানে নতুন নতুন Freesync 2 ইকোসিস্টেম এবং নতুন ডিসপ্লে অপশন বাজারে আসা শুরু করেছে। তাই আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম Freesync 2 নিয়ে কিছু কথা বলতে। আজকে আমি ফ্রিসিংঙ্ক ২ কি, কিভাবে এটা কাজ করে এবং অরিজিনাল ফ্রিসিংস্ক এর সাথে এর পার্থক্য কি এইসকল বিষয় নিয়ে আজ আলাপ করবো।

FreeSync জিনিসটি আসলে কি?

FreeSync হচ্ছে একটি ব্রান্ড নাম যেটি এএমডি এর Synchronization Technology এর নতুন ফিচারকে দেওয়া হয়েছে। এই ফিচারটি একটি ডিসপ্লেকে উক্ত কম্পিউটারের গ্রাফিক্স কার্ডের রেন্ডার রেটের সাথে ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট সম্মনিত করে দেয়, যার ফলে ব্যবহাকারীরা আরো উন্নত এবং মসৃণ গ্রাফিক্স আউটপুট পেয়ে থাকে।

ধরুণ, একটি গেম আপনার পিসিতে ৫৪ FPS গতিতে চলছে তাই এটি গ্রাফিক্স কার্ডের 54 Hz গতি ব্যবহার করছে, কিন্তু হঠাৎ যখন গেমটির স্পিড বেড়ে গিয়ে ৬৩ FPS গতিতে চলে যায় তখন একই সাথে আপনার গ্রাফিক্স কার্ডের গতিও বেড়ে 63 Hz তে চলে যায়। কিন্তু আপনার মনিটরের ডিসপ্লে রিফ্রেশ রেট ধরুণ 60Hz রয়েছে যেটি সাধারণত আপনার গ্রাফিক্স কার্ডের গতির সাথে উঠানামা করে না এবং এর ফলে আপনি গেমে কিংবা গ্রাফিক্সের কাজে ছবির ভাঙ্গন বা গেমিং ভাষায় আমরা এটা কে যা বলি তা হলো এর ফলে ল্যাগ এর উদ্ভব ঘটে।

কিন্তু FreeSync প্রযুক্তির মাধ্যমে আপনি আপনার পিসির ডিসপ্লে রিফ্রেশ রেট কে গ্রাফিক্স কার্ডের রিফ্রেশ রেটের সাথে ম্যাচ করিয়ে নিয়ে নিতে পারবেন। এই ফিচারটি সঠিক ভাবে কাজ করার জন্য ডিসপ্লের ইন্টারনাল কনট্রোলারে কিছু মডিফিকেশন এর প্রয়োজন হয় এবং একই সাথে FreeSync সার্পোটেড গ্রাফিক্স কার্ডেরও প্রয়োজন হবে।

একই ধরনের প্রযুক্তি আমরা Nvidia তে দেখতে পাই তাদের G-Sync সিস্টেমমে। G-Sync সিস্টেমে ব্যবহার করা হয়েছে উচ্চমূল্যের কন্ট্রোলার মডিউল। আর অন্যদিকে FreeSync ফিচারটি Open Standard হওয়ায় তুলনামুলক ভাবে এর দাম কম, যেটি বরাবরেই আমরা এএমডি পণ্যগুলোর উপর অতীত থেকে দেখে আসছি। এছাড়াও FreeSync ফিচারে ব্যবহার করা হয়েছে VESA Adaptive Sync Standard যার মাধ্যমে এই ফিচারটি যেকোনো Display Controller Manufacturer ই সহজে তাদের ডিসপ্লেতে বসিয়ে নিতে পারবেন।

FreeSync 2

আর ফ্রিসিংঙ্ক ২ হচ্ছে অরিজিনালটির থেকে আরো বেশ উন্নত মানে। কারণ অরিজিনাল ফ্রিসিংঙ্ক মডিউলটি উন্মু্ক্ত হওয়ায় যেকোনো ডিসপ্লে ম্যানুফ্যাকচার তাদের ডিসপ্লেগুলোতে FreeSync ফিচার যুক্ত করে FreeSync এর লোগো স্টিকার মেরে দিতে পারছেন। কিন্তু FreeSync 2 যুক্ত প্রতিটি মনিটরগুলো সরাসরি AMD কর্তৃক্ষ আলাদা করে নির্মিত এবং পরীক্ষিত হয়ে আসবে। এতে একজন কাস্টমার অবশ্যই ফ্রিসিংঙ্ক এবং ফ্রিসিংঙ্ক ২ মনিটরগুলোর মধ্যে Visible পার্থক্য দেখতে পারবেন।

অরিজিনাল ফ্রিসিংস্ক এর Adaptive Sync ফিচারটি সহ FreeSync 2 তে রয়েছে নতুন উন্নত মানের তিনটি ফিচার যেগুলো হলো হাই ডাইনামিক রেঞ্জ, লো ফ্রেমরেট কম্পেনসেশন এবং লো ল্যাটেন্সি। নিচে ফিচারগুলো নিয়ে আলাদা ভাবে উপস্থাপন করলাম যাতে আপনারা অরিজিনালটির সাথে ফ্রিসিংঙ্ক ২ এর পার্থক্যটি বুঝতে পারেন:

FreeSync 2: High Dynamic Range

ফ্রিসিংঙ্ক ২ মনিটরগুলোতে HDR Rendering সিস্টেমকে আরো সহজ এবং উন্নত করা হয়েছে। এখানে ডাটাগুলোকে ফ্রিসিংঙ্ক ২ সরাসরি মনিটরে সেন্ড করে দেয় কোনো রকমের আলাদা এক্সট্রা প্রসেসিং ছাড়াই। আর অনান্য HDR Rendering বা অরিজিনাল ফ্রিসিংস্ক মনিটরগুলোতে ৪টি ধাপে এইচডিআর ইমেজ পাওয়া যেত যা হলো HDR Rendering > Game Tone mapping > Display Tone mapping > Display Present।

আর এখন ফ্রিসিংস্ক ২ তে ডিসপ্লে টোন ম্যাপিং সিস্টেমকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে এইচডিআর গেমিংয়ে Low Latency পাওয়া সম্ভব হবে।

কিন্তু এখানে একটি বড় সমস্যা রয়েছে। কারণ এই নতুন HDR Rendering সিস্টেমটি সঠিক ভাবে কাজ করার জন্য একই সাথে যেমন আপনার কাছে ফ্রিসিংস্ক ২ মনিটর থাকতে হবে একই সাথে অন্যদিকে গেমসগুলোকেও তাদের HDR Implementation গুলোতে FreeSync 2 API কে যুক্ত করতে হবে। মানে হলো ফ্রিসিংস্ক ২ সার্পোটেড গেমসেরও প্রয়োজন হবে। আর এটি কোনো সহজ কথা নয়।

ফ্রিসিংস্ক ২ প্রযুক্তিটি গত বছরের সেপ্টেম্বরের AMD GPU Services 5.1.1 এর সাথে উন্মোচন করা হয়েছে মানে হলো মাত্র ৭ মাস হলো প্রযুক্তিটি বাজারে রয়েছে। এরমধ্যে কোনো আলাদা ফ্রিসিংঙ্ক ২ যুক্ত গেমস বের হয়নি। আর বর্তমানে ফ্রিসিংঙ্ক ২ মনিটরগুলো একমাত্র Windows 10 এর HDR Implementation এর উপর সম্পূর্ণ ভাবে নির্ভর করে রয়েছে।

এছাড়াও ফ্রিসিংঙ্ক ২ এর HRD Implementation এর আরেকটি ফিচার রয়েছে যেটি হলো HDR এবং SDR মোডের মধ্যে সুইচ করার ফিচার। এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনি আপনার ডিসপ্লের HDR ক্ষমতার সম্পূর্ণটা উপভোগ করতে পারবেন।  কিন্তু বর্তমানে এই ফিচারটিও কাজ করবে না কারণ বর্তমানে ফ্রিসিংস্ক ২ মনিটরগুলো শুধুমাত্র উইন্ডোজ ১০ এর নিজস্ব এইচডিআর এর উপর নির্ভর করে রয়েছে, আর সেখানে এই HDR to SRD সুইচিং ফিচারটি সার্পোট করে না।

এছাড়াও ফ্রিসিংঙ্ক ২ মনিটরগুলোতে সাধারণ এইচডিআর মনিটরের থেকে দ্বিগুন perceptual color space of sRGB থাকবে এবং এই মনিটরগুলোতে আপনি একই সাথে Adaptive Sync এবং HDR ব্যবহার করতে পারবেন যেটির মাধ্যমে আরো উন্নত মানের গেমিং এক্সপেরিয়েন্স পাওয়া যাবে।

FreeSync 2: Low Input Latency

ফ্রিসিংস্ক ২ এর দ্বিতীয় প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে ইনপুট ল্যাটেন্সিকে অনেকাংশে কমিয়ে আনা। আমরা জানি যে ভিডিও গেমিংয়ে HDR প্রযুক্তির ব্যবহারের কারণে গ্রাফিক্স কার্ড এবং ডিসপ্লে এর উপর আলাদা প্রেসার পড়ে এবং আমরা গেমিংয়ে প্রচুর ল্যাগের সম্মুখিন হই। কিন্তু ফ্রিসিংস্ক ২ ফিচারে থাকছে SDR এবং HDR দুটিতে লো ইনপুট ল্যাটেন্সি যার মাধ্যমে আমরা ল্যাগের পরিমাণ অনেকাংশে কম পাবো। সাধারণ এইচডিআর ডিসপ্লে তে আমরা ৫০ থেকে ১০০ এমএস ল্যাগ পাই তাহলে বলা যায় যে ফ্রিসিংস্ক ২ ডিসপ্লেগুলোতে আমরা আরো কম ল্যাগ পাবো।

FreeSync 2: Low Framerate Compensation

ফ্রিসিংস্ক ২ এর শেষ ফিচারটি হলো লো ফ্রেমরেট কমপেন্সেশন। এই ফিচারটি সরাসরি Adaptive Sync এর সাথে যুক্ত করে আপগ্রেড করা হয়েছে। যার মাধ্যমে ডিসপ্লে ফ্রেম রেটের সাথে যাতে adaptive sync খাপ খাইয়ে নিতে পারে সেটি নিশ্চিত করা হয়েছে।

আমাদের কেন এই Low Framerate Compensation টি লাগবে সেটি আমি বুঝিয়ে দিচ্ছি। ধরুন আপনার মনিটরটি নির্দিষ্ট কিছু রিফ্রেশ রেট সার্পোট করে যেমন 48 to 144 Hz। এবার আপনি যদি মিনিমাম সার্পোটেড রিফ্রেশ রেটের থেকে কম রেটের কোনো গেমস চালাতে যান তেমন 40 FPS বা 40 Hz কিন্তু এক্ষেত্রে আপনার মনিটরের মিনিমাম রেট হচ্ছে ৪৮ তাই এক্ষেত্রে আপনি গেমটি চালাতে গিয়ে বেশ বিপদে পড়বেন এবং গেমটির চালাতে গিয়ে Screen tearing কিংবা Stuttering Issue জাতীয় সমস্যায় পড়তে পারেন।

আর অন্যদিকে Low framerate compensation, or LFC এর মাধ্যমে আপনি Adaptive Sync ফিচারের সাহায্যে আপনার মনিটরের সর্বনিম্ন রিফ্রেশ রেট ০ FPS য়ে নামিয়ে আনতে পারবেন এবং আপনার ডিসপ্লে রেট যতটুকু সার্পোট করে ততটুকুতে বাড়িয়ে নিতে পারবেন। এই ফিচারের মাধ্যমে আর গেমিং রিফ্রেশ রেট আর আপনার মনিটরের রিফ্রেশ রেট নিয়ে আপনাকে মাথা ঘামাতে হবে না। গেমিং রিফ্রেশ রেটের সাথে মনিটরের রিফ্রেশ রেট এই প্রযুক্তির মাধ্যমে অটোমেটিক ভাবে সম্মনয় করা হবে।

বর্তমান ফ্রিসিংস্ক ২ মনিটর:

এখন পর্যন্ত মাত্র ৩টি মনিটর রয়েছে যেগুলো ফ্রিসিংস্ক ২ প্রযুক্তিটি সার্পোট করে। আর এই তিনটিই হলো স্যামসংয়ের মডেল। এগুলো হচ্ছে ২৭ ইঞ্চির Samsung Quantum C27HG70, ৩২ ইঞ্চির Samsung Quantum C32HG70 এবং ৪৯ ইঞ্চির ডাবল 1080p যুক্ত Samsung Quantum C49HG90 মনিটর। এই তিনটি ডিসপ্লেতেই রয়েছে DisplayHDR 600 ক্ষমতার এইচডিআর ফিচার।

এছাড়াও এ বছরে আরো বেশ কিছু ফ্রিসিংস্ক ২ সার্পোটেড মনিটর বাজারে আসবে। এদের মধ্যে রয়েছে ৩২ ইঞ্চির কার্ভড BenQ EX3203R, আসবে AOC Agon Ag322QC4 এবং আরো আসবে অনেক উন্নত মানের DisplayHDR 1000 সাটিংফিকেশনের ৪৩ ইঞ্চির Philips 436M6VBPAB মনিটর।

টিউনটি শেষ করছি গ্রাফিক্স কার্ডের সার্পোটের কথা দিয়ে। যেহেতু সাধারণত এটি একটি এমএমডির ফিচার তাই এটি উপভোগ করতে হলে স্বাভাবিক ভাবেই আপনার দরকার হবে একটি এএমডি গ্রাফিক্স কার্ড। বর্তমানে AMD RX 200 সিরিজের থেকে শুরু করে নতুন কিছু এএমডির গ্রাফিক্স কার্ডেই আপনি এই ফিচারটি পাবেন। অন্যদিকে এনভিডিয়ার গ্রাফিক্স কার্ডেও আপনি ফ্রিসিংস্ক ২ মনিটরগুলো সার্পোট করাতে পারবেন, সেখান সবকিছুই সার্পোট করলেও এনভিডিয়ার গ্রাফিক্স কার্ডে আপনি Adaptive Sync সার্পোটটি পাবেন না। তাই আপনার যদি এনভিডিয়ার গ্রাফিক্স কার্ড থাকে তাহলে আপনার জন্য উত্তম হবে আপনি Nvidia G-Sync HDR Technology সার্পোটেড মনিটর কিনুন।

তো এই ছিলো ফ্রিসিংস্ক ২ প্রযুক্তি নিয়ে আমার আজকের যত আয়োজন। টিউনটি ভালো লাগলে জোস বাটনে ক্লিক করতে ভুলবেন না যেন আর এই টিউনটির ব্যাপারে মতামত জানাতে পারেন নিচের টিউমেন্ট বক্সে টিউমেন্ট করে। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন আর হ্যাঁ কম্পিউটার রূপে ধুমপান করা থেকে বিরত থাকুন। আল্লাহ হাফেজ।

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস