পৃথিবীতে যদি ৫ সেকেন্ডের জন্য অক্সিজেন না থাকে তাহলে কি হবে?

টিউন বিভাগ প্রতিবেদন
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 6
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশা করছি সকলেই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন। বায়ুমন্ডলে অক্সিজেন, এই উপাদানটি আমাদের তো সকলেরই দরকার। তবে আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন পৃথিবীর সব অক্সিজেন যদি কয়েক সেকেন্ডের জন্য উধাও হয়ে যেত তাহলে কি হতো?

এবার আপনার মনে হতেই পারে যে, মাত্র 5 সেকেন্ড? 5 সেকেন্ড না হয় নিঃশ্বাস বন্ধ করেই রাখলাম, তাহলেই তো সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। আপনি যেরকম সহজভাবে চিন্তা করছেন বিষয়টা কিন্তু অতটাও সহজ না। চলুন এবার জেনে নেই যদি ৫ সেকেন্ডের জন্যও পৃথিবী থেকে অক্সিজেন উধাও হয়ে যায় তাহলে পৃথিবীর অবস্থা কি হতে পারে।

পৃথিবী থেকে অক্সিজেন ৫ সেকেন্ডের জন্য উধাও হয়ে যাবার কথা চিন্তা করলে আমাদের মনে এ প্রশ্ন আসে যে, এই ৫ সেকেন্ডে পৃথিবীর আর কি হবে? আশ্চর্য হলেও সত্যি ভেঙ্গে পড়বে পৃথিবীর সব শক্ত কংক্রিটের স্থাপনা, উল্কার মতোই খসে পড়বে আকাশে উড়তে থাকা প্লেন, ঘটে যাবে পরিবেশের বিশাল বড় বিপর্যয়।

চলুন দেখে আসি অক্সিজেন বিহীন পাঁচ সেকেন্ডের এক পৃথিবীর গল্প

গবেষণায় দেখা গেছে পৃথিবী বায়ুমণ্ডল থেকে ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে অক্সিজেন। আপাতত এটি হুমকির কারণ না হলেও ভবিষ্যতে এটি অনেক বড় মানব বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের ২১ ভাগ অক্সিজেন, আর ৭৮ ভাগ নাইট্রোজেন। অক্সিজেন বায়ুমন্ডলের বড় অংশ জুড়ে না থাকলেও সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ এটি। আর এটিই যদি না থাকে তবে প্রাণী, উদ্ভিদ, পানি এমনকি মানুষ ও তার নিজস্ব অবস্থানে থাকবে না। সবকিছুই হয়ে যাবে উলটপালট।

এবার আসি ৫ সেকেন্ড অক্সিজেন ছাড়া কি হতে পারে। যে কারোই মনে হতে পারে মাত্র ৫ সেকেন্ড অক্সিজেন ছাড়া কি আর হতে পারে। কারণ বেশিরভাগ মানুষই ৩০ সেকেন্ড শ্বাস-প্রশ্বাস না নিয়েই টিকে থাকতে পারে। তাই ৫ সেকেন্ড শ্বাস-প্রশ্বাস না নিয়ে হয়তোবা মানুষ টিকে থাকতে পারতো, কিন্তু বাকি সব এর কি হবে?

অক্সিজেন ছাড়া কংক্রিটের সব স্থাপনায় ভেঙ্গে পড়বে। কারণ কংক্রিট কে জমা রাখতে বিশেষ ভূমিকা রাখে অক্সিজেন। তাই অক্সিজেন বিহীন কংক্রিট ধুলা ছাড়া আর কিছুই নয়। পৃথিবীর সব কিছুই এই সময়ের মধ্যে পাল্টে যাবে। পৃথিবী হয়ে যাবে একটি ধ্বংসস্তূপ। কেননা অক্সিজেন নামক বস্তুটি বর্তমানে পৃথিবীতেই নেই। অক্সিজেন না থাকলে পৃথিবীর পানিশূন্য হয়ে যাবে কারণ পানি গঠনের মূল উপাদান অক্সিজেন এবং হাইড্রোজেন। সেই অক্সিজেন যদি পানি থেকে আলাদা হয়ে যায় তবে পানির অস্তিত্বই থাকবে না।

সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি পৃথিবীতে আসতে বাধা দেয় ওজোন স্তর। এই স্তরটি অক্সিজেনের তৈরি। তাই অক্সিজেন না থাকলে সেই ক্ষতিকারক রশ্নি থেকে আমাদের রক্ষা পাওয়ার কোন উপায় থাকবেনা।

অক্সিজেন না থাকলে অক্সিজেনের অভাবে আমাদের শ্রবণ স্তর ফেটে যাবে। হঠাৎ করে বাতাস পৃথিবীর বায়ুমন্ডল থেকে অক্সিজেন হারানো মানে হলো, বাতাসের চাপের ২১% হারানো। এত দ্রুত বায়ুমন্ডল থেকে বাতাসের ২১% চাপ হারানো মানে অনেকটাই হঠাৎ করে সমুদ্রের নিচে দুই হাজার মিটার নিচে পতিত হওয়ার মতই।

আগুন জ্বালানোর জন্য দরকার অক্সিজেন। আর অক্সিজেন ছাড়া আগুন ও থাকবে না, এতে গাড়ির দহন প্রক্রিয়া থেমে যাবে। ইলেকট্রনিক নয় এমন পরিবহনের সব ব্যবস্থা অকার্যকর হয়ে যাবে। সড়কে আটকে যাবে লাখ লাখ গাড়ি। বায়ুমন্ডলে অক্সিজেন না থাকলে আকস্মিকভাবে আকাশে থাকা প্লেন মাটিতে আছড়ে পড়বে।

পৃথিবীর ভূপৃষ্ঠের উপরিভাগের উপাদানের মধ্যে ৪৬ ভাগই অক্সিজেন। তাই অক্সিজেন ছাড়া ভূত্বকের শক্ত আবরণ ভেঙ্গে পড়বে। ধসে পড়বে উপরিভাগের সব ভবন এবং স্থাপনা। বাদ যাবেনা মানুষ আর প্রাণীও। তাই বলাই যায়, মাত্র ৫ সেকেন্ড বায়ুমন্ডলে অক্সিজেন না থাকলে ধ্বংস হয়ে যাবে পুরো পৃথিবী।

এবার আপনি হয়তো ভাবছেন যে, এই ৫ সেকেন্ডে আপনি ধ্বংসস্তূপের এসব বিষয়গুলো দেখবেন। কিন্তু এটিও সম্ভব হবে না। কেননা সে সময় আপনার অস্তিত্বই থাকবে না। কারন আপনার শরীর গঠনের বেশিরভাগ অংশ জুড়ে রয়েছে পানি, আর পানিতে রয়েছে অক্সিজেন। সেই অক্সিজেন ই যদি না থাকে তাহলে আপনার অস্তিত্ব কিভাবে থাকবে, এটাই বড় প্রশ্ন। আপনার শরীরে যদি পানি না থাকে তবে আপনার শরীরের অস্তিত্বই থাকবে না, অর্থাৎ আপনি সে সময় থাকবেন মৃত অবস্থায়। যে কারণে আপনি ধ্বংসপ্রাপ্ত পৃথিবী দেখতেই পারবেন না।

বন্ধুরা এই ছিল ৫ সেকেন্ড অক্সিজেন বিহীন পৃথিবীর গল্প। যদি টিউনটি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহলে জোসস করতে ভুলবেন না। টিউনমেন্ট করে জানাবেন কেমন লাগলো। দেখা হবে পরবর্তীতে আরো নতুন কোনো টিউনে ইনশাআল্লাহ।

Level 6

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 100 টি টিউন ও 49 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 11 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস