[পর্ব-২০] :: এই মুহূর্তে বাজারের সেরা হেডফোন গুলো

টিউন বিভাগ রিভিউ
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 28
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

এই মুহূর্তে বাজারের সেরা

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে। আজকের এই টিউনটি  আলোচনা করব বাজারের সেরা হেডফোন গুলো নিয়ে।

বর্তমানে বলতে গেলে হেডফোনের বাজার অনেক বড়। বাজারে আছে ভিন্ন ভিন্ন হেডফোনের ভিন্ন ভিন্ন ব্র্যান্ড। এই মুহূর্তে বাজারে পাবেন অসংখ্য ওয়ার এবং ওয়ারলেস হেডফোন।

তো আজকে আমি আলোচনা করব এই অসংখ্য হেডফোনের মধ্যে সেরা হেডফোন গুলো নিয়ে। আজকের রিভিউটি হবে বাজেট, ক্যাটাগরি, প্রফেশনাল রিভিউ, ইউজার Comment এবং নিজস্ব অভিজ্ঞতা থেকে।

দেখা আসা যাক দারুণ হেডফোন গুলো।

জেনে নিন: 'এই মুহূর্তে বাজারের' সেরা চেইন টিউনের লিস্টের প্রতিটি প্রোডাক্ট ইন্টারন্যাশনাল ও গ্লোবাল মার্কেটের উপর বেসিস করে করা। যেহেতু টেকটিউনস একটি গ্লোবাল Tech Social Network. বাংলাদেশ সহ পৃথিবীর প্রায় ২৩০টি দেশে ও টেরেটরিতে টেকটিউনস কমিউনিটি বিদ্যমান। তাই আপনার পছন্দের প্রোডাক্টির Availability চেক করতে আপনার নিজ দেশের লোকাল শপ ও লোকাল শপের ওয়েবসাইট চেক করুন।

সেরা ওয়ারলেস হেডফোন

Sony WH-1000XM3

যখন কোন ওয়ারলেস হেডফোনের কথা আসে এবং সেটা সেরা Noise-Canceling অফার করে তাহলে, Sony brilliant WH-1000XM3 হেডফোন থেকে ভাল কিছু হতে পারে না।

Sony এর হেডফোন ব্যবহার করেছে QN1 Processor যা চার গুন প্রসেসিং পাওয়ার বাড়িয়ে আপনাকে দেবে সেরা Noise-Canceling অভিজ্ঞতা।

উচ্চ আওয়াজেও WH-1000XM3 ব্যবহার করলে আপনি বাইরের শব্দ শুনতে পাবেন না। হেডফোনটির QN1 চিপ ভিন্ন ভিন্ন Noise কন্ট্রোলে কাজ করবে। হেডফোনটির রয়েছে একাধিক Noise-canceling Modes, যেমন Quick Attention mode নামে একটি মুডের মাধ্যমে হেডফোন কান থেকে না খুলেই বাইরের শব্দ শুনতে পারবেন।

Noise-canceling এর সাথে সাথে হেডফোনটির রয়েছে দারুণ অডিও ব্যালেন্স। হেডফোনটিতে 32-bit Audio Processing এবং Sony এর LDAC সাপোর্ট করে, যা ব্লুটুথ থেকে আরও তিন গুন বেশি ডেটা ট্রান্সমিট করতে পারে। হেডফোনটিতে আপনি আর পাবেন, 40mm Drivers, NFC, USB Type-C Charging, Bluetooth 4.2, 40-hour Battery Life, 4-hour Charging Cycle, এবং Google Assistant সাপোর্ট। একই সাথে হেডফোন গুলো বেশ লাইট এবং হালকা। হেডফোনটির বাজার মূল্য ৩৪৮ ডলার (প্রায় ২৯৫০৭ টাকা)

সেরা বিকল্প

এই ক্যাটাগরিতে WH-1000XM3 টপে থাকলেও Bose Noise Canceling Headphones 700 ও আপনার জন্য সেরা একটি অপশন হতে পারে। তাছাড়া দীর্ঘ সময় ধরে Noise Canceling হেডফোন তৈরিতে বাজারে বেশ সুনাম রয়েছে Bose এর।

Bose কোম্পানিও ক্রিস্টাল ক্লিয়ার, সেরা ডিজাইন এবং পারফরম্যান্সের হেডফোন অফার করে। তবে এর পারফরম্যান্স Sony এর মত এতটা ভাল নয়। হেডফোনটি আপনি পেয়ে যাবেন ২৮০ ডলারে (প্রায় ২৩৭৪২ টাকা)।

হোম ইউজারের জন্য সেরা

আপনি যদি হোম ইউজের জন্য কোন হেডফোন খোঁজে থাকেন তাহলে আপনার জন্য সেরা হচ্ছে, Sennheiser RS165 হেডফোনটি। Sennheiser RS165 একটি Wireless Hi-Fi প্রযুক্তির হেডফোন।

আপনার ঘর যদি বড় হয় তাহলেও কোন সমস্যা নেই এই হেডফোনের 2.4GHz কানেক্টিভিটি দেবে ১০০ ফুট রেঞ্জ। তাছাড়া হেডফোনটির ব্যাটারি ব্যাক-আপ প্রায় ১৮ ঘণ্টা।

হেডফোনটি মূলত ডিজাইন করা হয়েছে হোম থিয়েটারে ব্যবহারের উপযোগী করে। মিউজিকের ক্ষেত্রে হ্যাড ফোনটি দেবে আপনাকে সেরা অভিজ্ঞতা, এর রয়েছে Sennheiser কোয়ালিটির সাউন্ড এবং Bass Boost Mode এর মত ফিচার।

Sennheiser এর এই হেডফোনটির বাজার মূল্য ২১৮ ডলার (প্রায় ১৮৪৮৪ টাকা)।

সেরা Wireless Earbuds

Samsung Galaxy Buds অথবা Apple AirPods Pro

Galaxy vs iPhone এর মত, Airpods Pro অথবা Galaxy Buds এর মধ্যেও অনেক মত বিরোধ পাবেন। কেউ কেউ বলবে Galaxy Buds ভাল কেউ বলবে Airpods Pro ভাল। মূলত দুটি Buds ই ভাল তবে নির্ভর করবে আপনি কোন ব্র্যান্ড পছন্দ করেন। তাছাড়া Apple এর ল্যাটেস্ট AirPods নিঃসন্দেহে দারুণ একটি ডিভাইস। শুধু এ বছরই Apple, প্রায় ৬০ মিলিয়ন AirPods বিশ্বব্যাপী শিপমেন্ট করেছে।

ডিজাইনের কথা নতুন করে বলা কিছুই নেই এক কথা দুর্দান্ত! Apple ই প্রথম এই ধরনের ডিজাইন নিয়ে আসে বাজারে যদিও এখন অন্য কোম্পানি গুলোও এই ডিজাইন কপি করছে। এই AirBuds এর সিলিকনের Ear Tips আপনার কানের মধ্যে কোন অসুবিধা তৈরি করবে না।

এই ডিভাইসে নতুন যোগ করা হয়েছে Transparency Mode যাতে ইউজাররা চাইলেই বাইরের সাউন্ড শুনতে পারবে। দুটি হেডফোনেই দেয়া হয়েছে Active Noise Cancelation (ANC) প্রযুক্তি। AirBuds এ আছে Siri কন্ট্রোল এবং ৫ ঘণ্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ।

সাউন্ড কোয়ালিটির কথা বলতে গেলে, এটিতে আগের ভার্সন গুলো থেকে দেয়া হয়েছে আরও উন্নত সাউন্ড কোয়ালিটি। হেডফোনটির Bass ও আপনার কাছে পর্যাপ্ত মনে হবে।

তবে Apple অন্যান্য প্রোডাক্টের মতই এটাও বেশ ব্যয়বহুল। Airpods Pro এর বর্তমান বাজার মূল্য ২৫০ ডলার (প্রায় ২১১৯৮ টাকা)।

অ্যান্ড্রয়েড ইউজারদের জন্য সেরা

Apple, True Wireless Earbuds মার্কেটে ডমিন্যান্ট করছে AirPods Pro দিয়ে তবে আরও ভাল পিউর অডিও অভিজ্ঞতার জন্য আপনার জন্য সেরা পছন্দ হতে পারে Galaxy Buds।

Bud গুলো এসেছে ভিন্ন Tips এবং Wings এর সাথে যা বেশ আরামদায়ক। তাছাড়া ব্যাটারি লাইফের ক্ষেত্রেও এগিয়ে থাকবে এটি। এর ব্যাটারি ব্যাকআপ ৬ ঘণ্টা।

Galaxy Buds গুলোতে Noise Canceling, না থাকলেও মিউজিক অভিজ্ঞতা ভাল ছিল। বন্ধ বন্ধ ভাবটা এই Buds এ পাওয়া যায় না। এর বাজার মুল্যও মাত্র ১৩০ ডলার (প্রায় ১১০২৩ টাকা)। অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের সাথে কানেক্ট করা বেশ সহজ। কেস থেকে খুলে Pair করলেই হয়।

বিভিন্ন ইউজার রিভিউ অনুযায়ী এর ছিল ক্লিয়ার সাউন্ড এবং পর্যাপ্ত Bass৷ তাছাড়া এর সাউন্ড বেশ ন্যাচারাল।

সেরা গেমিং হেডফোন

Astro A50 Wireless v4 অথবা HyperX Cloud Revolver S

আপনার জন্য সেরা গেমিং হেডফোন হতে পারে Astro A50 হেডফোনটি। Astro এর ল্যাটেস্ট A50s এ দেয়া হয়েছে দুটি আলাদা অডিও চ্যানেল। একটি অডিও এর জন্য আরেকটি চ্যাটের জন্য। তাছাড়া এটিতে ব্যাটারি লাইফও দেখাবে। তাছাড়া তাদের A50 হেডফোনেও দারুণ চেঞ্জ আনা হয়েছে। এতে ব্যবহার করা হয়েছে 2.4GHz তার মানে আপনি পাবেন আরও ক্লিয়ার এবং রিয়েলিস্টিক সাউন্ড।

এর সাউন্ড ব্যালেন্সও দারুণ, অন্যান্য হেডফোনের মত এখানে অতিরিক্ত Bass এর ঝামেলা নেই। হেডফোনটিতে রয়েছে Dolby Virtual Surround সাপোর্ট যা First-Person Shooter গেম গুলোর জন্য বেশ উপযুক্ত।

২৫০ ডলার (প্রায় ২১১৯৮ টাকা) মূল্যে হেডফোনটি সাশ্রয়ী না হলেও সেরা গেমিং ফিচার কম্বিনেশনে এটি গেমারদের জন্য দারুণ হতে পারে।

অর্ধেক মূল্যে সেরা বিকল্প

আপনি যদি সাশ্রয়ী মূল্যের ওয়ার হেডফোন চান তাহলে ১১৭ ডলারের (প্রায় ৯৯২০ টাকা) HyperX Cloud Revolver S হেডফোনটি আপনার জন্য দারুণ হতে পারে। হেডফোনটির 7.1 Channel Surround Sound আমাকে গেমিং, মুভি দেখা, মিউজিক শুনার ক্ষেত্রে দারুণ অভিজ্ঞতা দিতে পারবে।

হেডফোনটি এসেছে 3.5mm ক্যাবলের সাথে যা দিয়ে USB Dongle, PS4, Xbox One, এবং মোবাইল ডিভাইসে কানেক্ট করা যাবে। এর 50mm Driver দেবে ক্রিপ্স এবং ক্লিয়ার লাউড ভলিউমের সাউন্ড। তবে অনেকের অভিযোগ ছিল এর মাইক্রোফোন এর অন্য সিরিজ গুলোর মত এতটা ভাল নয়।

সস্তা বিকল্প

আপনি যদি গেমিং এর জন্য সস্তা কিন্তু ভাল মানের হেডফোন চান তাহলে নতুন HyperX Cloud Alpha হেডফোনটি দেখতে পারেন। হেডফোনটি গেমিং এ দারুণ পারফরমেন্স দেখাতে পারবে এর 50mm ড্রাইভারের সাথে। হেডফোনটি বর্তমান বাজার মূল্য ৮০ ডলার (প্রায় ৬৭৮৩ টাকা)।

সেরা Sports হেডফোন

Jabra Elite 75t

এই মুহূর্তে আপনার জন্য সেরা Sports হেডফোন হতে পারে Jabra Elite 75t। হেডফোনটিতে আপনি আগের ভার্সন গুলো থেকে পাবেন আরও উন্নত অডিও, মিনিমাল সাইজ, এবং স্থায়িত্ব হবে আরও বেশি। Elite 65ts একটু বেশি বড় ছিল কিন্তু, ২০% কমিয়ে নতুন ভার্সনটি আপডেট করা হয়েছে।

যারা Gym এ ওয়ার্ক আউট করেন তাদের জন্য সেরা হবে এটি কারণ এটি ধুলাবালি, ঘাম, পানির মধ্যে ব্যবহারের পরেও পাবেন ২ বছরের ওয়ারেন্টি। কল বা রেকর্ডের জন্য এতে দেয়া হয়েছে ৪ টি মাইক্রোফোন। ব্যাটারি ব্যাক আপ এই হেডফোনের প্রায় সাড়ে সাত ঘণ্টা। তবে এই হেডফোনে কোন Noise Canceling ফিচার দেয়া হয় নি।

আলটিমেটলি যারা জিম করেন তাদের জন্য ১৮০ ডলারের (প্রায় ১৫২৬২ টাকা) এই হেডফোনটি দারুণ হতে পারে।

সেরা বিকল্প

আগের হেডফোনটির বিকল্প হিসেবে, ১৫০ ডলারের (প্রায় ১২৭১৮ টাকা) JBL Reflect Flow Buds ও দেখতে পারেন। পারফরম্যান্স দিক থেকে দুটি হেডফোনের রয়েছে বেশ মিল। যারা হ্যাভি মিউজিক পছন্দ করেন তাদের জন্য হেডফোনটি দারুণ পছন্দ হতে পারে। হেডফোনটি একবার চার্জে চলবে প্রায় ১০ ঘণ্টা। ব্যবহারে বেশ আরামদায়ক এবং দারুণ টেকশই হেডফোন এটি।

আপনি কি আরও কম দামে Sports Buds খুঁজছেন? দেখতে পারেন ৮০ ডলারের (প্রায় ৬৭৮৩ টাকা) Creative Outlier Air Buds টি। দামের তুলনায় এটি আপনাকে দেবে দারুণ পারফরমেন্স। এর চার্জিং কেস থেকে আপনি আরও অতিরিক্ত ২০ ঘণ্টা ব্যাকআপ পাবেন। IPX Water Resistant এই হেডফোনটি আপনাকে দেবে ১০ ঘণ্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ।

সেরা ওয়্যার্ড হেডফোন (Closed)

Sennheiser Momentum 2

আপনি যতই ওয়ারলেস হেডফোন পছন্দ করেন, কখনো ওয়্যার্ড হেডফোনকে এড়িয়ে যেতে পারবেন না, কারণ কোন ধরনের চার্জিং ঝামেলা ছাড়াই যেকোনো সময় ব্যবহার করার জন্য উপযুক্ত হচ্ছে ওয়্যার্ড হেডফোন। তাছাড়া ওয়্যার্ড হেডফোনের সাউন্ডকে বিট করাও সম্ভব না।

আমরা এই ক্যাটাগরিতে হেডফোনকে দুই ভাগে ভাগ করব Closed এবং Open-back। Closed হেডফোন গুলোতে Noise isolation এর ব্যবস্থা থাকে যা আউট ডোর ব্যবহারে বেশ উপযুক্ত। হেডফোন গুলো দেবে দারুণ মিউজিক অভিজ্ঞতা তাছাড়া আপনার কানেও অসুবিধা তৈরি করবে না।

এই ক্যাটাগরিতে আমি আপনাকে Sennheiser Momentum 2.0 হেডফোনটি সাজেস্ট করতে পারি। হেডফোনটির রয়েছে পাওয়ার ফুল Bass এবং Noise Isolation।

দারুণ এই হেডফোনটি আপনি পেয়ে যাবেন ৩০০ ডলারে (প্রায় ২৫৪৩৭ টাকা)।

সেরা বিকল্প

আপনি Sennheiser Momentum 2.0 হেডফোনটির বিকল্প হিসেবে বাছাই করতে পারেন ১৭৫ ডলারের (প্রায় ২৩১৮ টাকা) Beyerdynamic DT 770 PRO হেডফোনটিকে। এন্ট্রি লেভেল মডেল হলেও এটি পারফরম্যান্সের দিকে দামী হেডফোন গুলোর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে।

তাছাড়া একই পারফরম্যান্সে ১৩৫ ডলারে (প্রায় ১১৪৪৭ টাকা) নিতে পারেন Technica ATH-M50x হেডফোনটিও।

সেরা ওয়্যার্ড হেডফোন (Open Back)

Philips Fidelio X2HR

সেরা সেরা ওয়্যার্ড হেডফোন (Open Back) হিসেবে আপনি বিবেচনা করতে পারেন Philips Fidelio X2HR হেডফোনটিকে। হেডফোনটির দাম কমানোর পাশাপাশি একে আরও আকর্ষণীয় করে তুলা হয়েছে।

Fidelio X2HR এসেছে 50mm Neodymium ড্রাইভারের সাথে এবং যেকোনো 3.5mm Audio Jack এ কাজ করতে পারে।

হেডফোনটির বাজার মূল্য ১১৮ ডলার (প্রায় ১০০০৫ টাকা)।

Pro লেভেল

আপনি যদি এই ক্যাটাগরিতে Pro লেভেলের কিছু চান তাহলে Sennheiser HD800 S হেডফোনটি দেখতে পারেন যার বাজার মূল্য ১৬০০ ডলার (প্রায় ১৩৫৬৬৮ টাকা)। দামী হওয়াতে এখানে পাবেন, 56mm Ring Radiator Transducers। আরও দেয়া হয়েছে Microfiber Pads যার জন্য আপনার কান কখনো গরম হবে না। হেডফোনটিতে দেয়া হয়েছে দুই সেট ১১ ফুট লম্বা ক্যাবল (6.3mm plug & 4-pin XLR Plug)। যেকোনো মিউজিকের আলাদা আলাদা ইন্সট্রুমেন্ট গুলো ফিল করতে পারবেন এই হেডফোনের মাধ্যমে।

সস্তা Pro অপশন

আপনি এই ক্যাটাগরির সাশ্রয়ী কোন Pro অপশন চাইলে ৩০০ ডলারের (প্রায় ২৫৪৩৭ টাকা) Grado SR325e হেডফোনটি দেখতে পারেন।

সলিড এই হেডফোনটি আপনি ৩৬০° ঘুড়িয়ে আপনার কানের সাথে ইচ্ছেমত এডজাস্ট করতে পারবেন। এই দামের এই হেডফোনটি দারুণ মিউজিক অভিজ্ঞতা অফার করে।

সেরা বাজেট হেডফোন

Audio-Technica ATH-M40x

যখন অনেকে মনে করেন বাজেট অপশন মানে ৫০ ডলার (প্রায় ৪২৩৯ টাকা) রেঞ্জের হেডফোন সেখানে আমি মনে করি ৭০-১০০ ডলার রেঞ্জের হেডফোন গুলো হচ্ছে বাজেট হেডফোন। কারণ বাজেট বলে তো আর কোয়ালিটি নষ্ট করা যাবে না।

এই ক্যাটাগরিতে আমি এগিয়ে রাখব Audio-Technica ATH-M40x হেডফোনটিকে। হেডফোনটিতে দেয়া হয়েছে 40mm ড্রাইভার। অনেক ইউজারের মতে কয়েক ঘণ্টা শুনার পরেও এই হেডফোন ব্যবহারে কান গরম হয় না।

অসাধারণ পারফরম্যান্সের এই হেডফোনটি আপনি মাত্র ৮০ ডলারে (প্রায় ৬৭৮৩ টাকা) পেয়ে যাবেন।

আরও সাশ্রয়ী

আপনি যদি আরও সাশ্রয়ী কোন অপশন চান তাহলে আছে ৬৩ ডলারের (প্রায় ৫৩৪১ টাকা) ATH-M30X। যা দেবে একই ড্রাইভারের সাথে একই পারফরম্যান্স।

তাছাড়া ATH বাজারে আছে ১৯৯১ সাল থেকে। একই সাথে৷ Sony এর MDR-7506 হেডফোনটিও ভাল যার দাম ৮০ ডলার (প্রায় ৬৭৮৩ টাকা)।

সেরা ইয়ার-ফোন

কম দামে সেরা ইয়ার-ফোন চাইলে নিতে পারেন  Xiaomi 1More Triple Driver। ইয়ার-ফোনটির দাম আগের চেয়ে কমানো হয়েছে বর্তমানে এটি আপনি পেয়ে যাবেন মাত্র ৫৫ ডলারে (প্রায় ৪৬৬৩ টাকা)। এই ইয়ার-ফোনের সাথে পাবেন ভিন্ন সাইজের সিলিকনের ছয়টি Ear Tips এবং তিন সেট ফোমের Ear Tips।

না শুনেই হয়তো বুঝতে পারছেন যে এর প্রতিটি Buds এ দেয়া হয়েছে তিনটি ড্রাইভার। যা আপনাকে দিতে পারবে হাই কোয়ালিটি অডিও অভিজ্ঞতা।

যারা এই ক্যাটাগরির ইয়ার-ফোনে বাজেট আরেকটু বাড়াতে চান তারা দেখতে পারেন Sennheiser Momentum In-Ear M2 ইয়ার-ফোনটি

জার্মান এই কোম্পানিটির অডিও ডিভাইসের জন্য বেশ পরিচিত। এটি পারফরম্যান্স এর তুলনায় বেশ সাশ্রয়ী।

শেষ কথাঃ

তো আলোচনা করে ফেললাম এই মুহূর্তে বাজারের সেরা হেডফোন গুলো নিয়ে, এবার বাজেট এবং চাহিদা অনুযায়ী আপনার জন্য সেরাটি নির্বাচন করুন।

তো কেমন হল আজকের টিউন তা অবশ্যই জানান, টিউমেন্ট করুন আপনি এখান থেকে কোন হেডফোন বাছাই করলেন।

আজকে এই পর্যন্তই, দেখা হবে পরবর্তী টিউনে সে পর্যন্ত ভাল থাকুন। আল্লাহ হাফেজ!

Level 28

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 463 টি টিউন ও 186 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 55 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Pricing যদি এত হয় তাহলে দেখা মাত্রই ক্রেতা ভাগবে। লো – মিড রেঞ্জে যদি (মোবাইল+ কম্পিউটার) এর জন্য কোন সাজেশন থাকে তাহলে অনুগ্রহ করে শেয়ার করবেন। আপনার পোষ্ট আমার অনেক ভালো লাগে। কখনো সেভাবে কমেন্ট করা হয়নি। আজ করলাম। আশা করি আগামীতে পাবেন।