ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

টেকটিউনার কম্পিউটার লাভার হিসেবে আমার ১০০ তম টিউন!! আজ (শুক্রবার) গেট টুগেদার! আপনি আসছেন তো?

এইযে সেদিনই তো বুকে সাহসের পাথর বেধে টেকটিউনস এ একটি টিউন করলাম। কতশত ভয়, কতশত আকাঙ্ক্ষা, কতশত আনন্দ... ঠিক ৪-৫ লাইনের মধ্যে টিউনটা লিখেছিলাম। প্রথম কিনা, তাই হাজার হাজার শব্দের মেগা টিউন করার সাহস পাই নি। অপেক্ষায় ছিলাম টিউমেন্ট এর, পেলাম কয়েকটি। কেও ধন্যবাদ জানিয়েছে, কেও আরো ভাল করতে বলেছে কেওবা আবার ফালতু বলেছে। ধন্যবাদ গুলোকে অনুপ্রেরণা করে আর ফালতু গুলোকে উপেক্ষা করে টিউন করা চালিয়ে যাই। আর আজ আমার ১০০ তম টিউন হতে যাচ্ছে... টেকটিউনস এর ২৩তম সেঞ্চুরিয়ান আমি।

ADs by Techtunes tAds

➡ সেঞ্চুরি উপলক্ষে গেট টুগেদার ইভেন্ট

আমার ১০০তম টিউন উপলক্ষে কিছু কথা...

ছোট থেকেই কম্পিউটার এর উপর প্রচন্ড নেশা ছিলো। বন্ধুর বাসা, আত্মীয়ের বাসা, এদিকে সেদিকে যেদিকেই কম্পিউটার দেখতাম দাড়িয়ে পরতাম পাশে আর দেখতাম। সুযোগ পেলে একটু টেপাটিপি ও করতাম...

এই কম্পিউটার এর জন্য অনেক বকা শুনেছি, অনেক কথা শুনেছি, অনেক মিথ্যে অপবাদ ও নিয়েছি। কিন্তু এই সামান্য বকা, কথা ও মিথ্যে অপবাদ তো আর আমার ভালবাসা শেষ করতে পারে না... আমি তো "কম্পিউটার লাভার"

মজার বিষয় এক সময় যারা আমাকে তাদের কম্পিউটার নষ্ট করেছি বলে বকাঝকা দিতো, তারাই আজ আমাকে ১০১ বার ফোন করে তাদের কম্পিউটার ঠিক করার জন্য ডাকে। যেই বন্ধুদের বাসায় গেম খেলার জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকতাম, তারা এখন আমার বাসায় আসে গেম খেলার জন্য।

কম্পিউটার এর সাথে আমার প্রেম কাহিনী

তখন ক্লাস টু তে পড়ি। যখন প্রথম কম্পিউটার শিখি। আমাদের স্কুল এ প্র্যাক্টিকেল কম্পিউটার শেখাতো। কম্পিউটার অন করা, ওয়ার্ড এ টাইপ করা, বোল্ড করা, ইটালিক করা। সে সময় এর উপরই পাকা হয়ে গিয়েছিলাম। ক্লাস এ সব ছাত্র ছাত্রীদের চেয়ে কম্পিউটার ক্লাস এর জন্য আমার আগ্রহ ছিলো সবচেয়ে বেশি। আর সবার চেয়ে ভালো ও পারতাম। এরপর ওই স্কুল ছেড়ে দেই এবং কম্পিউটার এর সাথে বেশ অনেকদিন যোগাযোগ নেই। এর মধ্যে যেকোনো জায়গায় কম্পিউটার পেলেই একটু গুতাগুতি করতাম। ক্লাস ৪ এ পড়ি, তখন আব্বু বাসায় কম্পিউটার আনে। আমি তো দিশেহারা! তখন সারাদিন কম্পিউটার এ শুধু পেইন্ট করতাম। আর কিছুই পারতাম না। আমার তখন পরীক্ষা চলে, কম্পিউটার এ সময় নষ্ট করি বলে আব্বু কম্পিউটার এর সবকিছু খুলে অফিস চলে যায়। দুর্ভাগ্য ক্রমে সেদিনই আমার পরীক্ষা শেষ ছিলো। আমি স্কুল থেকে ফিরে কম্পিউটার চালু করতে গিয়ে দেখি সব খোলা! আমার তো কান্নাকাটি শুরু... আম্মু আব্বুকে ফোন দিয়ে বলে ওর আজকে পরীক্ষা শেষ, তুমি কম্পিউটার খুলে গেছ তাই কান্নাকাটি করতেছে। আব্বু বল্লো এসে ঠিক করে দিবে। কিন্তু আমার তো আর সয় না... শুরু করে দিলাম নিজে নিজেই, এই তার, ওই তার, কিবোর্ড, এটা-সেটা... বুঝতাম না কিছুই কিন্তু কিভাবে যেন নিজে নিজে সব ঠিকঠাক লাগিয়ে কম্পিউটার অন করে ফেলি! আম্মু আব্বু দুজনেই অবাক 😀

কম্পিউটার টা পরে আব্বু নিয়ে যায় অফিসে। আবারো আমার আর কম্পিউটার এর প্রেমে দীর্ঘ বিরতি। ক্লাস সিক্স এ মামা কম্পিউটার কিনে, ব্যাস! আবারো শুরু হলো আমাদের প্রেম। এইসময় গেম খেলে, এটা করে সেটা করে কম্পিউটার এর টুকটাক অনেক কিছু শিখে ফেলি। আমার আবার একটা খারাপ সভাব ছিলো। একটা গেম ঈমানের সাথে ১দিন খেলতাম, পরদিন সেটাকে হ্যাক করে, চিট দিয়ে, ট্রেইনার দিয়ে গেম এর বারটা বাজিয়ে দিতাম 😉 আমার এক বন্ধু ছিলো ও আমাকে কম্পিউটার এর বিভিন্ন ট্রিক শেখাতো আর আমি ওকে গেম এর ট্রিক শেখাতাম। এভাবে একজন আরেকজন কে শিখিয়ে অনেক কিছুই শিখলাম।

কম্পিউটার এ নেশা দেখা ক্লাস সেভেন এ আব্বু কম্পিউটার কিনে দেয়। আমার স্পষ্ট মনে আছে, সকাল ৬ টায় আমার ঘুম ভাঙত, রাত ১২ টায় ঘুমাতাম। এর মধ্যে খাবার এর জন্য সর্বোচ্চ ১ ঘন্টা ব্যয় করতাম। বাকী ১৭ ঘন্টা কম্পিউটার এ বসে থাকতাম। ওই যা হয় আরকি... কম্পিউটার এর পোকা হয়ে গেলাম 😉

টেকটিউনস এর সাথে প্রেম শুরু...

কম্পিউটার এর সাথে দীর্ঘ ২ বছর প্রেম করার পর ২০১১ সালে এক নতুন রমনীর সাথে আমার পরিচয় হয়। তখন আমি ৯ এ উঠলাম মাত্র। 'টেকটিউনস' প্রথম দেখাতেই রমনীর প্রেমে পরে যাই... কি আর করার চলতে থাকে প্রেম...

এর মাঝে অনেক বিরতি, অনেক সময় অতিবাহিত হয়। রমনীকে উপহার ও দিতে থাকি। দেখতে দেখতে ৩ বছর হয়ে যাচ্ছে। কিছুদিন পরেই ৩ বছরে পা দিবো। আর এর মধ্যে ১০০ টি টিউন ও উপহার দেয়া হয়ে গেছে টেকটিউনস কে। আমি টেকটিউনস এর ২২ তম সেঞ্চুরিয়ান!

ADs by Techtunes tAds

টেকটিউনস যেভাবে আমাকে প্রযুক্তি জগতের সাথে পরিচয় করিয়েছে

একটা সময় ইন্টারনেট মানেই বুঝতাম ফেসবুক। কিন্তু টেকটিউনস আমাকে ফেসবুক জগত থেকে বের করে প্রযুক্তি জগতের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।

গুগল থেকে কম্পিউটার এর বিভিন্ন টিপস ট্রিক্স সার্চ করতে করতেই টেকটিউনস এর দেখা পাই। টেকটিউনস এর মারাত্মক সব টিপস, ট্রিক্স, ইত্যাদির টিউন দেখে আমি মুগ্ধ হয়ে যাই। আর মজার বিষয় সবই বাংলায়! বুঝতে কোন সমস্যা হয় না, হলেও টিউমেন্ট করে সমাধান নেয়া যায়।

টেকটিউনস থেকেই ওয়েব ডিজাইন, প্রোগ্রামিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে পারি। জানতে পারি কিভাবে নিজের একটি ওয়েবসাইট করতে হয়, আরো জানি টেকনোলজি জগতের হিরো গুগল, মাইক্রোসফট, অ্যাপেল ইত্যাদি সম্পর্কে। প্রযুক্তি জগত সম্পর্কে আমার ধারনাই পালটে যায়।

প্রথমে টেকটিউনস এ বিভিন্ন টিপস ও ট্রিক্স এর টিউন পড়তাম। কিভাবে উইন্ডোজ কে মোডিফাই করা যায়, কিভাবে পিসি ফাস্ট করা যায়, কিভাবে উইন্ডোজ এর বিভিন্ন সমস্যা দূর করে ইত্যাদি আরো কত কি! এভাবেই ধীরে ধীরে কম্পিউটার এর গীক হয়ে যাই। কম্পিউটার এর সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার ইত্যাদি সম্পর্কে খুব ভালো ধারনা হয়ে যায়।

একসময় নজর যায় ওয়েবসাইট এর উপর। কিভাবে ফ্রীতে নিজের একটি ওয়েবসাইট করা যায়? টেকটিউনস থেকেই পেয়ে যাই ব্লগার এর খোজ, সাথে টিউটোরিয়াল ও! এখান থেকে শিখে ফেলি ব্লগার এর সবকিছু।

টেকটিউনস থেকে আরো যে গুরুত্তপুর্ন বিষয়টি শিখি তা হলো গুগল কে ব্যবহার করা। এরপর গুগল এর সাহায্য নিয়েই সব সমস্যার সমাধান করতে পারতাম। ধীরে ধীরে এসইও, প্রোগ্রামিং, হ্যাকিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ইত্যাদি অনেক কিছু সম্পর্কে জানি টেকটিউনস থেকে। অনেক কিছুই শিখি টেকটিউনস থেকে।

এক কথায় বলতে পারিঃ

বর্তমানে আমি যা, এর ৯০% কৃতিত্ব টেকটিউনস এর।

ADs by Techtunes tAds

আমার প্রিয় টিউনার, যাদের মিস করি...

আসলে টেকটিউনস এর কৃতিত্ব বললে কিছুটা ভুল হবে। কৃতিত্ব টেকটিউনস এর শ্রদ্ধেয় সকল টিউনার দের! তারা টিউন করেছে বলেই আমি পড়তে পেরেছি, শিখতে পেরেছি। আমার অনেক প্রিয় টিউনার ছিলেন, যারা ব্যক্তিগত বা অন্যান্য সমস্যার কারণে আর টিউন করেননা।

আবার কিছু প্রিয় টিউনার আছেন যারা এখনো টিউন করেন। সবার নাম উল্লেখ করা সম্ভব নয়। তবে যাদের নাম উল্লেখ না করলেই নয়ঃ

প্রবাসী, হাসান যোবায়ের (আল-ফাতাহ্), তাহের চৌধুরী সুমন, সাইফুল ইসলাম (পরী মডূ), জাকির হোসাইনআলমাস ইথিক্যাল হ্যাকারswordfish,  LuckyFM

আরো অনেকের নাম হয়তো মনের ভুলে বাদ দিয়ে গেছি... তাই অগোচরে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

টেকটিউনস কে ঘিরে কিছু সৃতি

টেকটিউনস একটি ভার্চুয়াল ব্লগ হলেও রিয়েল লাইফ এ ও টেকটিউনস এর সাথে কিছু সৃতি রয়েছে। টেকটিউনস এর ২০১১ সালের ডিসেম্বর এ একটি আনফিসাল মিটাপ অনুষ্ঠিত হয়। সেই মিটাপ এ যোগ দিয়েছিলাম। সেগুলোই সৃতি হয়ে রয়ে গেছে!

ADs by Techtunes tAds

সেদিন এক আড্ডায়...

➡ বাম থেকেঃ রাকিবুল হাসান (আমি কম্পিউটার লাভার), নাম মনে নাই 😛 (সাইফুল ভাইয়ের মামা), সাইফুল ইসলাম (পরী মডু), মেহেদী হাসান আরিফ (দা লেজেন্ডারি ফাউন্ডার অফ টেকটিউনস!), জাকির হোসাইন (আমার প্রোগ্রামিং অনুপ্রেরণা ও প্রিয় টিউনার), হাসান জোবায়ের (গ্রাফিক্স মাস্টার, বস পাবলিক, প্রিয় টিউনার), আরিফ নিজামি (বস পাবলিক, প্রিয় টিউনার, টেকটিউনস টিউন্টারভিউ হোস্ট)

১০০ তম টিউন উপলক্ষে সারপ্রাইজ গেটটুগেদার!

আমার ১০০তম টিউন উপলক্ষে একটি গেটটুগেদার করতে চাচ্ছি। অনলাইন কমিউনিটির সবাইকে নিয়ে কিছু আড্ডা, আলোচনা, গল্প স্বল্প হবে। আগামী ২০শে ডিসেম্বর ঢাকার ধানমন্ডির ৮/এ (রবীন্দ্রসরোবর) এ গেট টুগেদার করা হবে। এটি সবার জন্য উন্মুক্ত, জেকেও আসতে পারবেন। টেকটিউনস এর সকল টিউনার, টিউমেন্টর, টিউজিটর, টিউডারদের আমি আমন্ত্রন জানাচ্ছি আমার ১০০ তম টিউন উপলক্ষে গেট টুগেদারে। আপনাদের সবাইকে আমার সাধ্যমত আপ্যায়ন করার চেষ্টা করবো।

ফেসবুক ইভেন্টঃ https://www.facebook.com/events/518838601547819/

কম্পিউটার লাভার সেঞ্চুরি গেটটুগেদার!

স্থানঃ ধানমন্ডি 8/A রবীন্দ্র সরোবর।

সময়ঃ বিকাল ৪ টা।

দিনঃ ২০/১২/২০১৩ শুক্রবার।

ADs by Techtunes tAds

যোগাযোগঃ 01687366957

২০১১ এর ফেব্রুয়ারি থেকে আছি টেকটিউনস এর সাথে... অনেক শিখেছি, অনেক শিখিয়েছি। অনেককে মনের অজান্তে কষ্ট দিয়েছি, অনককেই বা মনের অজান্তে খুশি করেছি। তবে আজও একটি কথা বলতে মন আনচান করে...

আমি প্রযুক্তির সুরে মেতে থাকি,

তাই টেকটিউনস কে ভালবাসি!


কম্পিউটার লাভার () রাকিবুল হাসান।

:arrow: ইমেইলে পেয়ে যান আমার সকল টিউনের আপডেট! ক্লিক করুন এবং ইমেইল দিয়ে ভেরিফাই করুনঃ টেকটিউনস » কম্পিউটার লাভার

ADs by Techtunes tAds
Level 0

আমি কম্পিউটার লাভার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 107 টি টিউন ও 1266 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 9 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Also known as "Raiku Saiko". React.js & Javascript Developer. Former Wordpress Developer, Front-end Designer. Technology Addicted.


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

অনেক অনেক অভিনন্দন আপনাকে!

ভাই , আপনাকে অন্তরের অন্তরস্থল থেকে অভিনন্দন আমাদের এত কিছু দেবার জন্য ও আপনার সেঞ্চুরির জন্য । সেই সাথে আপনার কাছে একটা অনুরোধ :
আমাদের খুলনাতে টেকটিউনস মিটআপ এর বিষয়ে একটু উদ্যোগ নিন । খুলনাতেও টেকটিউনসের অনেক ভক্ত রয়েছে ।

    @অরিন্দম পাল: ইনশাল্লাহ! শুধু খুলনা না, দেশের প্রতিটি বিভাগে মিটাপ এর ব্যবস্থা করা হবে। দোয়া করবেন…

    ধন্যবাদ 🙂

      @কম্পিউটার লাভার: @কম্পিউটার লাভার: বাম থেকে আপনার পাশে আমি হচ্ছি নাজমুল ইসলাম 😉

    @অরিন্দম পাল: ঠিক বলেছেন খুলনাতে টেকটিউনস মিটআপ এর ব্যবস্থা করা হোক।

congratulation

ধন্যবাদ ভাই আমাদেরকে এত ভাল মানের পোস্ট গুলা দেওয়ার জন্য >>>>আশা করি ভবিষ্যতে ও আমাদের সাথে থাকবেন …।

    @নাম কওন যাইবনা: ধন্যবাদ 🙂 দোয়া করবেন যেন আরো ভালো কিছু উপহার দিতে পারি…

congratulation

congratulations!!! bro

Level 0

same vai same….. thnx lot…..

😀

ভালো লাগলো পুরানো স্মৃতি দেখে।
সুন্দর ভাবে লেখার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

সেরা টিউনারদের অনেকেই এখন নাই।আফসোস।আপনার মত আমিও এখান থেকেই সব শিখেছি।

    @মুকুট: আসলেই… বিশেষ করে আমার প্রিয় টিউনার গুলোর দেখা মেলে না 🙁
    ধন্যবাদ আপনাকে…

@মুকুট, আপনার মত আমিও এখান থেকেই সব শিখেছি।

মাঝে মাঝে মনে হয় সফল হতে পারব না , কিন্তু আপনার কথা গুলো পড়ে বুঝলাম,অবশ্যই পারব.. আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আর অভিনন্দন আপনার ১০০তম টিউনের জন্য।

    @ওবায়েদ উর রহমান অবি: সফলতা আসবেই… প্রয়োজন ধৈর্য আর পরিশ্রম। শুভকামনা রইলো।

স্বাগতম……………………..

১০০ তম টিউনের শুভেচ্ছা! দোয়া করি অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারেন । @ সত্যিয় আপনাদের থেকে অনেক কিছু শিখেছি এবং এখনো অনেক কিছু শিখছি @ চালিয়ে চান …।। ধন্যবাদ

    @হোছাইন আহম্মদ: ধন্যবাদ হোছাইন ভাই, আপনার টিউনগুলোও আমার ভালো লাগে। আরো ভালো ভালো টিউন আশা করছি আপনার থেকে।

১০০ তম টিউনের শুভেচ্ছা! দোয়া করি অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারেন । ধন্যবাদ । So be Happy

১০০ টিউনে শুভেচ্ছা ও শুভকামনা রাকিব। এগিয়ে যাও টেকটিউনস এর সাথে।

শুধুমাত্র তোমাকে শুভেচ্ছা কমেন্ট করতে ই প্রায় ৬ মাস পর টিটি’তে লগিন করলাম। ১০০ শত টিউনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইলো রাকিব তুমার জন্য। আরও অনেক দূর এগিয়ে যাও এই দোয়া করি।

    @তাহের চৌধুরী (সুমন): ধন্যবাদ তাহের ভাইয়া 🙂 আপনার টিউমেন্ট পেয়ে অনেক ভালো লাগলো। আপনাদের দোয়ায় এগিয়ে যাচ্ছি।

Level 0

স্নেহের রাকিব, তুমি প্রকৃতই কম্পিউটার লাভার । শততম টিউনের জন্য তোমাকে অভিনন্দন । ২০১১ তে অান-অফিশিয়াল মিটঅাপে অামিও ছিলাম তোমাদের পাশে ।

    @Mustafa: ধন্যবাদ আংকেল 🙂 আপনার কথা মনে আছে। ওইদিনের প্রতিটি সৃতিই মনে আছে। আপনার টিউমেন্ট পেয়ে অনেক ভালো লাগলো।

Level 0

অভিনন্দন ! শুভ কামনা রইলো ।

ভালো লাগলো । আরো এগিয়ে যাবেন এমন আশা রাখি…………………………।

Level 0

রাকিব ভাই অভিনন্দন ১০০ তম টিউনের জন্য আর ধন্যবাদ নমনিয়তা, ভদ্রতা, শালিনতা, এবং ধৈর্যের সাথে টিউন করার জন্য। এগিয়ে যান শুভ কামানা আপনার জন্য।
সুদুর ভোলা থেকে —-আরিফ—
দূরে থেকেও কাছে আছি আপনার।

অভিনন্দন, রাকিব ভাইয়া। আল্লাহ্ আপনার আকাশচুম্বী সফলতা কবুল করুন। আমিন।

ভাই আপনাদের মত টিউনাররা সাথে আছেন বলেই টিটি আছে।অনেককেই দেখি তারা টিটিতে আর টিউন করে না। আপনাদের মত টপ টিউনাররা টিউন না করলে আমরা ভাই জানবো কোথা থেকে। তাই আপনাকে অনুরোধ করব দয়া করে কখনো আমাদের ছেরে টিটি ছেরে যাবেননা। আর, আপনার সাথে যেহেতু অন্যান্য টপ টিউনারদের রিয়েল লাইফে যোগাযোগ আছে সেহেতু আপনি তাদের পার্সোনাল ভাবে টিটির সকল ভিজিটরদের পক্ষ থেকে অনুরধ করবেন তারা যেন আবার টিটিতে টিউন করে আমাদের প্রিয় টিটিকে আগের মত সমৃদ্ধ করে তোলে।প্রযুক্তি প্রেমীদের জন্য টিটিই এখনো একমাত্র উপযুক্ত সাইট।

আর অবশ্যই আপনাকে আপনার সেঞ্চুরি পূরণ উপলক্ষে অসংখ্য অভিনন্দন আর সুভেচ্ছা।আশা করি আমাদের জন্য আরও টিউন উপহার দিবেন। …(Best of Luck)….

    @কাজী কামরুজ্জামান: আসলে সবারই একটি ব্যক্তিগত জীবন থাকে, একটা সময় ব্যক্তিগত জীবনে কিছুটা ব্যস্ততা চলে আসলে আর ব্লগিং এ সময় দেয়া যায় না। অনেক সময় ব্লগিং থেকে মন উঠে যায়, তখন আর ব্লগিং করতে মন চায় না। টপ টিউনারের অধিকাংশই ব্যস্ততার কারনে আর টিউন করেন না। সবার নিজের ব্যক্তিগত জীবন, কাজ নিয়ে ব্যস্ত। একসময় হয়তো আমিও এমন ব্যস্ত হয়ে যাবো।
    তবে চেস্টা থাকবে সবসময় টিউন করার। টেকটিউনস কে ছেড়ে থাকতে পারবো না। দোয়া করবেন।
    ধন্যবাদ।

ব্লগার মারুফ এর পক্ষ থেকে আপনাকে অভিনন্দন এবং ওই দূর পথ চলার শুভ কামনা রইল ।

ব্যাপক অভিনন্দন আপনাকে…………..আমি চাই আপনার ১০০০তম টিউন এর মিলন মেলায় শরিক হতে…….. যদি সময় থাকে অবশ্যই চেষ্টা করব আপনার এই মিলন মেলায় অংশগ্রহন করতে………. Best of luck for your upcomming bright future……

অনেক অনেক শুভকামনা রইল। এগিয়ে যাও। 🙂

এত্তগুলা অভিনন্দন ! 😀

congratulations…!!!

অনেক শুভেচ্ছা রইল …. আপনারা আছেন বলেই প্রতিদিন Techtuns এ না আসতে পারলে দিনটা ক্যামন জানি খালি খালি লাগে….দোয়া রইল…… 🙂

Level 0

।। অভিনন্দন রইল…জীবনে বহুদুর যান এই প্রার্থনা করি ।।
নিশ্চই আপনার সাথে দেখা করার এই সুযোগ হাতছাড়া করতাম না।
কিন্তু আমি খুলনা থেকে কিভাবে আসি..অফিস…কাজ……তাই আশা করি পরবর্তীতে যে কোন কাজেই যখন ঢাকা যাব ইন শা আল্লাহ্ আপনার সাথে দেখা করব যদি আপনি অনুমতি এবং সময় দেন।
ধন্যবাদ ।। সবসময় ভালো থাকেন ।।

Congrats!!! Keep going………..

অভিনন্দন টেকটিউনস প্রিয় কম্পিউটার লাভারকে 🙂

অভিনন্দন কম্পিউটার লাভার আপনার ১০০ তম টিউনের জন্য। গেট টুগেদার এ যোগ দেয়ার আন্তরিক চেস্টা করবো। ধন্যবাদ।

কমেন্টস করার জন্য এক বছর পর লগিং করলাম,। অনেক অনেক অভিনন্দন কঃলাভার ভাই। আশা করি সামনে আপনার কাছ থেকে আমরা আরও টিউন উপহার পাব। যাযাকুমুল্লাহ্‌

আপনাকে প্রশংসা করার কিছু নেই কারন যোগ্যতা যেখানে আপনার প্রধান হাতিয়ার।আপনার যোগ্যতাই প্রশংসা আনিয়ে দেয়।অভিনন্দন আপনাকে।দেশের এই অবস্থায় এই মিলন মেলা নিরাপত্তার সঙ্গে করা সম্ভব কিনা ভেবে দেখার অনুরোধ করছি।

    @প্রবাসী: ধন্যবাদ আপনাকে 🙂 সবকিছু বিবেচনে করেই মিলনমেলা করার চেষ্টা করছি। দোয়া রাখবেন।

Level 0

আপনার দেওয়া একটা টিউন থেকেই ২০১২ এর শুরুর দিকে আপনার ভক্ত হয়ে যাই, আর টিটির প্রেমে পরে যাই।

অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে, ধন্যবাদ টিটিকে।।

Level 0

Congratulation

I will try to attend if there is no political Incident.

Level 0

অনেকদিন পর টিটি তে লগইন করলাম। অনেক শুভ কামনা রইল….. go ahead

আপনাকে সুভেচ্ছা জানাতে অনেক দিন পর আবার লগ ইন করলাম।আপনি আমার অনেক প্রিয় টিউনার। 😀
আমি নিজেকে কম্পিউটার হেড (মেটালহেড যেমন! 😛 ) মনে করি,কিন্তু জানেন,আমি ১.৫ বছর আগে কম্পিউটার নিয়ে কিছুই জানতাম না,অথচ এই প্লাটফরমের মতই আরেকটা প্লাটফর্ম পিসিহেল্পলাইনবিডি কে চেনার পর আমার চিন্তাভাবনা অনেকটা পাল্টেছে, আর ওই ওয়েবসাইট থেকেই এই ওয়েবসাইটের পরিচয় পাই, এটাকে আরো গোছান মনে হয় আর আমি এই ওয়েবসাইট গিলতে আছি এখনো। ধন্যবাদ টেক টিউন্স। 😀

অভিনন্দন আপনাকে…

ভেরি ভেরি থ্যাংস ভাই। টিউন করার খুব ইচ্ছা। কিন্তু ভয়ে টিউন করতে পারি না। তবে কিছু কথা বলি (কপি করা)–
আপনার নিম্নোক্ত বিষয়গুলো যেন আমার সাথে পুরোপুরিই মিলে যায়::
এক সময়
যারা আমাকে তাদের
কম্পিউটার নষ্ট
করেছি বলে বকাঝকা
দিতো, তারাই আজ
আমাকে ১০১ বার ফোন
করে তাদের কম্পিউটার
ঠিক করার জন্য ডাকে। যেই
বন্ধুদের বাসায় গেম
খেলার জন্য ঘন্টার পর
ঘন্টা বসে থাকতাম,
তারা এখন আমার বাসায়
আসে গেম খেলার জন্য।
একটা সময় ইন্টারনেট মানেই
বুঝতাম ফেসবুক। কিন্তু
টেকটিউনস আমাকে ফেসবুক
জগত থেকে বের
করে প্রযুক্তি জগতের
সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।
গুগল থেকে কম্পিউটার এর
বিভিন্ন টিপস ট্রিক্স সার্চ
করতে করতেই টেকটিউনস এর
দেখা পাই। টেকটিউনস এর
মারাত্মক সব টিপস, ট্রিক্স,
ইত্যাদির টিউন
দেখে আমি মুগ্ধ হয়ে যাই।
আর মজার বিষয় সবই
বাংলায়! বুঝতে কোন
সমস্যা হয় না, হলেও
টিউমেন্ট করে সমাধান
নেয়া যায়।
প্রথমে টেকটিউনস এ
বিভিন্ন টিপস ও ট্রিক্স এর
টিউন পড়তাম।
কিভাবে উইন্ডোজ
কে মোডিফাই করা যায়,
কিভাবে পিসি ফাস্ট
করা যায়,
কিভাবে উইন্ডোজ এর
বিভিন্ন সমস্যা দূর
করে ইত্যাদি আরো কত কি!
এভাবেই
ধীরে ধীরে কম্পিউটার এর
গীক হয়ে যাই। কম্পিউটার
এর সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার
ইত্যাদি সম্পর্কে খুব
ভালো ধারনা হয়ে যায়।
আসলে টেকটিউনস এর
কৃতিত্ব বললে কিছুটা ভুল
হবে। কৃতিত্ব টেকটিউনস এর
শ্রদ্ধেয় সকল টিউনার দের!
তারা টিউন করেছে বলেই
আমি পড়তে পেরেছি,
শিখতে পেরেছি। আমার
অনেক প্রিয় টিউনার
ছিলেন, যারা ব্যক্তিগত
বা অন্যান্য সমস্যার
কারণে আর টিউন করেননা।
আবার কিছু প্রিয় টিউনার
আছেন যারা এখনো টিউন
করেন।
তাই বলা যায়–
বর্তমানে আমি যা, এর ৯০% কৃতিত্ব
টেকটিউনস এর।
So, thanks to Techtunes.

আপনাকেও অভিনন্দন!!!!

দেখতে দেখতে আমার দেখা অপ্রাপ্ত বয়স্ক কম্পিউটার প্রেমিক টা দেখতে দেখতে কতো বড় হয়ে গেলো। অভিনন্দন রাকিবুল তোমাকে।

Congratulation For Century and Happy Victorious day.
Thanks a lot.

অভিনন্দন…………..

ভাই, টিউমেন্ট কি? আপনার এই অসাধারন পোস্ট টি আমার একটা টিউমেন্ট deserve করে 😀

১০০ তম টিউনে আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আশা করি আরো ভালো ভালো টিঊন পাবো আপনার কাছ থেকে। অনেক অনেক দোয়া আর শুভকামনা রইলো আপনার জন্য…… 🙂

অভিনন্দন। নতুন প্রতয়ে সামনে এগিয়ে যান, আর আমদের নতুন নতুন টিউন উপইার দেবেন আশা করি।

Level 0

অভিনন্দন ভাই । আপনার সাথে অনেক টাই মিলে গেলো ভাই । ভালো থাকবেন।

১০০ তম টিউনের জন্য আপনাকে অভিনন্দন ।

১০০ তম টিউনের জন্য আপনাকে অভিনন্দন………

Level 0

Anek iche chilo attend korar. But Today I have another anual program. sorry for that.

Best of luck