ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

বিজ্ঞানের খাতা [পর্ব-১০] :: এনেসথেসিয়া আবিষ্কার, চিকিৎসা জগতের অন্যতম মাইলফলক।

বিজ্ঞানের খাতা

Anesthesia এনেসথেসিয়া আবিষ্কার চিকিৎসা পদ্ধতির জন্য একটি মাইলফলক। এনেসথেসিয়ার আবিষ্কার না হলে আমাদের চিকিৎসাব্যাবস্থা হত নির্মম এবং কষ্টকর। রোগীরা সার্জিক্যাল অপারেশনে ছুরির নিচে নির্ভয়ে শুতে পারছে এই anesthesia ‘র কল্যাণে।

ADs by Techtunes ADs

 

আমরা যখন anesthesia নিয়ে কথা বলব তখন ক্রাফোর্ড লং, উইলিয়াম মরটন, চার্লস জ্যাকসন এবং হোরাস ওয়েলস এর কথা স্মরণ না করে পারি না। এই মানুষগুলো কিছু ক্ষেত্রে ব্যাথা নিবারণের জন্য ইথার এবং নাইট্রাস অক্সাইড প্রথম ব্যবহার করেন। রসায়নের ছাত্ররা লাফিং গ্যাসে কথা ভালো করেই জানেন। যারা জানেন না তাদের জন্য বলছি, লাফিং গ্যাস হলো নাইট্রাস অক্সাইড। এই গ্যাস মানব শরীরে প্রবেশ করলে সে অনবরত বিনাকারণে হাসতে থাকে তাই এই গ্যাসকে বলা হয় হাসির উদ্রেককারী গ্যাস বা লাফিং গ্যাস।

১৮০০ সালের দিকে এই উপাদানগুলো মূলত ব্যবহার করা হত মজা এবং আনন্দ দেয়ার জন্য। এই ধরণের অনুষ্ঠানগুলোকে বলা হতো “লাফিং পার্টিস”, “ইথার ফ্রোলিক্স” ইত্যাদি। ১৮৪৪ সালে একটা লাফিং পার্টির আয়োজন করা হয়েছিলো। সবাই হাসছে। হা হা হা, হি হি হি, হু হু হু, খিক খিক খিক, খ্যাক খ্যাক খ্যাক। নানান ঢঙয়ের নানান বর্ণের হাসি। কেউ হেসে কুটিকুটি হচ্ছে, কেউবা হেসে লুটোপুটি খাচ্ছে। এ ওর গাঁয়ে ঢলে পড়ছে। কারোরুই মাথা ঠিক নেই। এর মধ্যে একটা দুর্ঘটনা ঘতে গেলো। হোরাস ওয়েলস লোকটাকে মনযোগ দিয়ে দেখেছিলেন। যে লাফিং পার্টিতে অংশ নিয়ে পায়ে আঘাত পেয়েছে। তার পা থেকে রক্ত ঝরছে। বেশ ভালো পরিমানেই ঝরছে। কিন্তু লোকটা নির্বিকার। আহ উহ করছে না। সামান্য ব্যাথাতেই তো মানুষ চিৎকার শুরু করে। ব্যাথাতে চিতকার শুরু করা মানুষের অন্যতম মানবধর্ম। হোরাস জানতে চাইলেন ব্যাপার খানা কি। তুমি কোন শব্দ করছো না কেন? সে জানালো ব্যাথা তের পেলে তো আহ উহ করব। কিছুই যে টের পাচ্ছি না।  হোরাসের মাথায় বিদ্যুৎ খেলে গেলো। কি এমন জিনিস এখানে আছে যা ব্যাথার অনুভুতিকে নাশ করে দিতে পারে। ভাবো হোরাস ভাবো। মাথা খাটাও। হোরাস ভেবে সমাধানে পৌঁছাতে পারলেন। দূর্ঘটনা থেকে আবিষ্কৃত হলো মহান এক আবিষ্কার। পরবর্তীতে হোরাস নিজের দাঁত তুলে ফেলার সময় এনেসথেটিক কমপাউন্ড ব্যবহার করলেন। তিনি কোন ব্যাথা পেলেন না। তারপর থেকে মেডিক্যাল প্রোসিডিউর এবং সার্জারিতে anesthesia ব্যবহার শুরু হলো। ওয়েলস, মরটন, জ্যাকসন দন্ত চিকিৎসায় এনেসথেসিয়া ব্যবহার করতে শুরু করলেন। অন্যদিকে ক্রাফোর্ড ছোটখাট শল্যচিকিৎসায় এটা ব্যবহার শুরু করলেন। আপনার যদি কখনো এটার প্রয়োজন হয় তখনি আপনি বুঝতে পারবেন অপারেশনে anesthesia গুরুত্ব কতখানি।

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি সরদার ফেরদৌস। Asst Manager, Samuda chemical complex Ltd, Munshiganj। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 1 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 94 টি টিউন ও 466 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

আমি ফেরদৌস। জন্ম সুন্দরবনের কাছাকাছি এক জনপদে। ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ থেকে লেখাপড়া করেছি এপ্লাইড কেমিস্ট্রি এন্ড কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে। এরপরে চাকরি করছি সামুদা কেমিকেল কমপ্লেক্স লিমিটেডের উৎপাদন বিভাগে সহকারী ম্যানেজার হিসেবে। এছাড়া আমি বাংলা উইকিপিডিয়ার একজন প্রশাসক।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আপনার টউনগুলো অন্যরকম সুন্দর

    @মেধাবী মস্তিস্ক: ধন্যবাদ। প্রথম দিকে আমি অবশ্য ভয় পেয়েছিলাম যে টেকটিউনস কর্তৃপক্ষ আমার টিউন মুছে ফেলে কিনা। কারণ এগুলা তো ঠিক প্রযুক্তি নয়। আশা করি আরো নিত্য নতুন টিউন সামনে লিখতে পারবো। সাথে থাকুন।

      @ফেরদৌস: এগুলাও প্রযুক্তির বিষয় রে ভাই! প্রযুক্তি বলতেই খালি কম্পিউটার,মোবাইল,গেমস,গেজেট এইসব বোঝায় না! নিশ্চিন্তে টিউন করে যান! আপনার টিউনগুলো অনেক তথ্যবহুল 😀

        @টেক মশাই: ধন্যবাদ টেকমশাই। আমি নিশ্চিন্তেই আছি। নিশ্চিন্ত না হলে লেখা ঠিক আঙুলের ডগায় আসে না। আপনাদের উৎসাহ পেয়ে আমি আনন্দ বোধ করছি। লিখে আমি আগে কখনো এত আনন্দ পাই নি। সাথে থাকবেন।

Level 0

ভাল হচ্ছে চালিয়ে যান। পরবর্তি লেখার অপেক্ষায় থাকলাম।

    @জন: পরবর্তী লেখায় চা আবিষ্কারের কথা লিখলাম। আশা করি পড়বেন এবং মতামত জানাবেন।

চালিয়ে যান !!!!!!

anesthesia খুব মজার।আমার উপর একবার প্রয়োগ করা হয়েছিলো।ঢুকলাম ও টি তে তারপর ইনজেকশন দিলো।ঘুমিয়ে পড়লাম।ঘুম থেকে উঠে দেখি আমি কেবিন এ 😀

    তাহলে তো আপনি জানলেনই না ডাক্তার আপনারে কি কি করছে। লুল!:P