ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

বঙ্গোপসাগরের এক নিষিদ্ধ উত্তর সেন্টিনেল আইল্যান্ড

Video :- https://youtu.be/I4VwVsFMtY0

ADs by Techtunes tAds

Sentinel আইল্যান্ড একটি সাধারণ দ্বীপের মতই দেখতে কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এই আইল্যান্ড টি most dangerous island in the world.

প্রথম দৃষ্টিতে মনে হতে পারে আন্দামানে অবস্থিত অন্য সব সাধারণ দ্বীপের মতোই যেটি কিনা আমাদের এই বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত |

আপনারা হয়তো অনেকেই এই দ্বীপটির সম্পর্কে কিছু না কিছু শুনেছেন বা জেনেছেন কিন্তু আজকের ভিডিওতে আমি এই দ্বীপটির সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য দেব যা আপনাদের নিশ্চয়ই অবাক করে দেবে | এই উপকূল টি কেন এত ভয়ানক? আর কি বা গোপন বিষয় এখানে লুকিয়ে আছে?

শুরু করার আগে যারা আমার চ্যানেলটিকে এখনও সাবস্ক্রাইব করেননি প্লিজ সাবস্ক্রাইব করে বেল আইকনে ক্লিক করুন যাতে আমাদের প্রত্যেকটি ভিডিও সবার আগে আপনি পেয়ে যান | আর যারা আমার চ্যানেলটিকে অলরেডি সাবস্ক্রাইব করে রেখেছেন তাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ | তাহলে চলুন শুরু করা যাক |

উইকিপিডিয়ার তথ্য অনুযায়ী এই প্রাক Neolithic বা stone age বা প্রস্তর যুগের মানুষেরা পৃথিবীতে প্রায় 12 হাজার বছর আগে তাদের সভ্যতার শুরু হয়েছিল বলে বিশ্বাস করা হয়।

বাইরের জগতের সাথে যাদের কোনো সম্পর্কই নেই, যদিও বিশ্বব্যাপী মনুষ্য জাতি বিভিন্ন মহাদেশ উপমহাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে, কিন্তু শুধুমাত্র এই উত্তর সেন্টিনেল অধিবাসী সহস্র বৎসর ধরে একই জায়গায় রয়ে যায় |

ধারণা করা হয় Sentinelese অবতীর্ণ হয় আফ্রিকা থেকে বের হয়ে আসা প্রথম গোষ্ঠীগুলির মধ্যে একজন |

ঐতিহাসিকভাবে বিশ্বের অন্যান্য অংশের ইউরোপীয় ঔপনিবেশিকীকরণ আদিবাসীদের জীবন দুর্বিষহ ভাবে নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় | সৌভাগ্যক্রমে Sentinelese তারা এই উপনিবেশ স্থাপন এড়াতে সক্ষম হয়েছে! এবং তাদের পুরো বিশ্বের সাথে কোন ধরনের যোগাযোগও ছিল না | ধারণা করা হয় আফ্রিকা থেকে ছেড়ে আসা তারাই ছিল প্রথম; তাদের এই দ্বীপে বসতি গড়ে উঠেছে প্রায় 60 হাজার বছর আগে |

আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের আদিবাসীদের আরেকটি গ্রুপ Onge নামে পরিচিত | Sentinelese দের তাদের culture কিছুটা Ongeদের মতন |

ADs by Techtunes tAds

যাইহোক উনিশ শতকের দিকে ব্রিটিশ সরকার কিছু Onge মেম্বারদের সাথে নিয়ে Sentinelese দের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয় | কিন্তু তারা যোগাযোগ করতে পারেনি তাদের ভাষা ছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন | এটা পরিষ্কার যে তাদের দুই গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘ সময় কোন ধরনের যোগাযোগ নেই |

1771 সালে ব্রিটিশ surveyor জন রিটচে East India Company সাথে কাজ করার সময় লক্ষ্য করলেন উত্তর সেন্টিনেল দ্বীপে আলো দেখা যাচ্ছে |

আপনাদের নিশ্চয় জানা আছে East India Company সাথে ক্রিস্টোফার কলম্বাস এর সাথে যোগসূত্র ছিল |

রিচার্জ কলাম্বাস সেন্টিনেল আইল্যান্ড এ কি হচ্ছে দেখার জন্য গিয়েছিল তিনি দেখতে পান প্রচুর আলো এবং সেখান থেকে তিনি ফিরে আসেন |

পরবর্তীতে 1867 সালে ইতিহাস থেকে সেই ছোট্ট দিপটি হারিয়ে যায় |

যখন একটি ইন্ডিয়ান বণিক জাহাজ যার নাম the Nineveh প্রায় এক শত যাত্রী নিয়ে এর উপকূলে বিকল হয়ে পড়ে |

তারা কয়েক দিন সেখানে আটকে পড়ে ঠিক কিছুদিন পর এই উপকূলে সেন্টিনেলিজরা সেই সব যাত্রীদের আক্রমণ করে বসে যেন তারা কোনোভাবেই চায়না তারা ব্যতীত অন্য কেউ এই দ্বীপে আসুক |

সেই জাহাজের ক্যাপ্টেন লক্ষ্য করলেন সেন্টিনেলিজ রা তীর, ধনুক, পাথর, গাছের বাকল বহন করছে |

তারপর তারা সাথে সাথে একটি ছোট্ট নৌকা নিয়ে সেই উপকূল থেকে সরিয়ে পড়লেন | পরবর্তীতে জাহাজের ক্যাপ্টেন সহ অন্যান্য আরোহীরা উদ্ধারকর্মীর দ্বারা সেটিনিলিজের লাঠি ও পাথরের আঘাত থেকে বাঁচতে সক্ষম হন |

তার পরবর্তী 13 বছর পূর্ব আন্দামান আইল্যান্ড এ অবস্থিত ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক উত্তর সেন্টিনেলকে একা রেখে যান |

ADs by Techtunes tAds

কিন্তু 1880 সালে এই কলোনির officer in charge Maurice Vidal Portman এই দ্বীপে একটি অভিযানে নেতৃত্ব দেন |

তিনি আন্দামান আইল্যান্ড বসবাসরত কিছু আদিবাসীদের সাথে নিয়ে যান এবং তারা দেখতে পায় বনের ভেতরে কিছু রাস্তা এবং সম্প্রতি তারা সেই গ্রাম ছেড়ে চলে গেছে | দেখে মনে হচ্ছিল সেন্টিনেলিজরা সম্ভবত বনের ভেতর নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে | পোর্টম্যান সম্ভবত দেখে খুশি হয়েছিলেন কারণ তাদেরকে কাছাকাছি দেখা যাচ্ছে না এবং তারা কোন ধরনের তীর ও নিক্ষেপ করছে না |

তারপর তিনি চিন্তা করলেন তিনি আরও কিছু দিন এখানে থাকবেন এবং তাদের খোঁজার চেষ্টা করবেন | তারপর তিনি সেই আইল্যান্ডের 6 জন কে দেখতে পান এক দম্পতি আর চারজন তাদের সন্তান |

তারপর Portman ডিসাইড করলেন আধুনিক সমাজের সাথে তাদের কে পরিচয় করিয়ে দেবেন কিডন্যাপ করে |

হ্যাঁ আমি জানি এই চিন্তাটা মোটেও ভালো ছিল না.সেই 6 আদিবাসীদের তার নৌকায় উঠিয়ে নিলেন | বন্দিদের পরে খুব দ্রুতই পোর্ট ব্লেয়ার নিয়ে যাওয়া হল | এর পরপরই সবাই অসুস্থ হয়ে পরল | এই কারণে এই বিচ্ছিন্ন সম্প্রদায়টি বিশ্বের বাকিদের কাছে প্রকাশ করা হয়নি | বিভিন্ন জীবাণু প্রায় 60 হাজার বছর ধরে তারা বহন করছে | বয়স্ক দম্পতি মারা যায় এবং শিশুদের বিভিন্ন উপহার সামগ্রী দিয়ে খুব দ্রুত সেই দ্বীপে ফিরিয়ে আনা হয়

Portman চিন্তা করেন এই গিফট গুলো হয়তো কিডন্যাপ এবং তার পিতা মাতার মৃত্যুর কষ্টকে ভুলিয়ে দেবে | প্রকৃতপক্ষে তিনি কোন ধরনের গুজব ছড়ান নি Sentinelese দের তাচ্ছিল্য না করে বরং প্রকৃতপক্ষে তাদের সাথে কি করা হয়েছিল তিনি ব্যাখ্যা করেন | তিনি বলেন তাদের মুখে ছিল ভয়ের ছাপ এবং ছিল নিরব প্রকৃতির |

Portman এরপর আরো কয়েকবার সে আইল্যান্ডের গিয়েছিল তিনি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করেন কারণ তিনি তাদের হাতে কতন হয়নি | plus সেই সময়ে Sentineleseরা সংখ্যায় কম ছিল | কারণ Sentineleseরা অত্যন্ত আগ্রাসী তার এই ভয়ঙ্কর পদক্ষেপ নেওয়ার আগে দ্বিতীয়বার চিন্তা করার প্রয়োজন ছিল |

এরপর পোর্ট ব্লেয়ার থেকে পালিয়ে আসা এক আসামি 1896 সালে এই উপকূলে চলে আসে | সম্ভবত Sentinelese রা সেই কিডন্যাপ এর ঘটনা চিন্তা করে মনে করে এই লোকটি হয়তো আবার তাদের ক্ষতি করার জন্য এসেছে এবং তাকে নৃশংসভাবে হত্যা করে |

এরপর 1960 সালে Anthropologists এই আইল্যান্ড এবং এই আইল্যান্ডের মানুষদের কে নিয়ে গবেষণা করবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন | কিন্তু তিনি সফল হননি |

এরপর আবারও একজন ইন্ডিয়ান Anthropologists triloknath Pandit 1967 তাদের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করার চেষ্টা করেন | তিনি এবং তার নাবিক দল দেখতে পেলেন কিছু খালি ঘর এবং তাদের জন্য কিছু ফল চকলেট কাপড়, ব্ল্যাঙ্কেট, বালতি রেখে আসেন |

ADs by Techtunes tAds

তার কিছু বছর পর নৃবিজ্ঞানের দ্বিতীয় দল সাথে ছিল কিছু ইন্ডিয়ান পুলিশ | তারা একত্রে এই আইল্যান্ডে ভিজিট করে তাদের ওপর কিছু ডকুমেন্টারি বানানোর জন্য | দৃশ্যত তাদের ধারনার বাহিরে ছিল যে সেন্টিনেল বাসীরা ভয়ঙ্কর ভাবে তাদেরকে অ্যাটাক করতে পারে |

আক্রমণকারীদের হাত থেকে সেই স্থান থেকে খুব দ্রুতই তারা সরিয়ে পড়ল | এবং পাশের এক উপকূলে এসে অবস্থান নিল কিন্তু সেই উপকূলটাও বেশিদূর ছিল না | তারা আবারো তাদের দিকে তীর নিক্ষেপ করতে থাকে |

যদিও তাদেরকে নারিকেল, খেলনা পুতুল, রান্না করার সামগ্রী এবং একটি pig দেয়া হয় | এর মধ্যে একটি তীর ডিরেক্টরের গায়ে লাগে | যে এই তীরটি ছুড়েছিল এবং তার সাথে উপজাতি অন্য সদস্যরাও একত্রে খুব সজোরে হেসেছিল |

নাবিক দল গুলো পিছু হটে এবং তারা সিদ্ধান্ত নেয় তারা আর ডকুমেন্টরি বানাবে না উত্তর সেন্টিনেল আইল্যান্ড এ|

তারপর 1981 সালে একটি জাহাজ যার নাম Primrose ঠিক এই আইল্যান্ডের পাশ দিয়ে যাচ্ছিল তারা ভাবল এখানে কিছু সময় বিশ্রাম নেয়া যেতে পারে | কিন্তু হঠাৎই এক ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হলো তারা দেখতে পেল কিছু সেন্টিনেল আইল্যান্ড বাঁশি অস্ত্র তাক করে তাদের দিকে এগিয়ে আসছে |সাথে সাথে তারা বিপদে পড়ায় রেডিও সিগন্যাল প্রেরণ করে |

আর ততক্ষণে তাদের কাছে থাকা কিছু ফায়ার গান, কুড়াল দিয়ে আত্মরক্ষা করে | অবশেষে, তাদের ভারতীয় নৌবাহিনী উদ্ধার করে | এবং সেই Primrose জাহাজটি সেখানেই পড়ে থাকে দেখে মনে হয় এক রহস্যময় জাহাজ | আপনি এটিকে এখনো উত্তর সেন্টিনেল উপকূলে দেখতে পাবেন |

কিন্তু triloknath Pandit 20 বছরেরও বেশি সময় ধরে এই সেন্টিনেল আইল্যান্ড অধিবাসীদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে | অবশেষে 1991 সালে সেন্টিনেল এক পুরুষের সাথে তার শান্তিপূর্ণ সাক্ষাৎ হয় | এমনকি সে উপজাতি তার জাহাজে উঠে |

Pandit তাদেরকে নারিকেল দেয় যেটা এই আইল্যান্ডে জন্মায় না | কিন্তু এই উপজাতি সদস্যরা যে কোন মুহূর্তে আগ্রাসী হয়ে উঠতে পারে পরবর্তীতে ইন্ডিয়ান সরকার এই আইল্যান্ড এর ওপর স্টাডি করা বন্ধ ঘোষণা করে |

কেননা Anthropologists এবং অন্যান্য পরিদর্শক Sentineleseদের কাছ থেকে কিছু বীভত্স জীবাণু নিয়ে আসতে পারে |

হ্যাঁ যেমন 100 বছর আগে পোর্টম্যান তাদের কয়েকজনকে কিডন্যাপ করেছিল এবং দেখা যায় তাদের দেহে সব ভয়াবহ জীবাণু দিয়ে ভরা |

ADs by Techtunes tAds

ইন্ডিয়ান সরকার সিদ্ধান্ত নেয় যে তাদের এই আইল্যান্ডে অধিবাসীদের প্রতি হস্তক্ষেপ করার কোন ইচ্ছা নেই | যদিও উত্তর সেন্টিনেল টেকনিক্যালি ইন্ডিয়ান গভমেন্ট সার্বভৌম সত্তার কারণে সব সময় প্রটেকশন দিয়ে যাচ্ছে |

2004 সালের সুনামির পর সেই আইল্যান্ডে একটি হেলিকপ্টার পাঠিয়ে ছিল তারা ভেবেছিল এই সুনামির পর হয়তো তার আর বেঁচে নেই, কিন্তু তারা ভুল প্রমাণিত হলো | সুনামির আঘাত হানার আগেই দৃশ্যত অধিবাসীরা উচ্চভূমিতে স্থানান্তরিত হয়েছিল | যদিও ঝড় তাদের মাছ ধরার এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত করেছিল | দেখে মনে হচ্ছে তারা এসব কিছু মানিয়ে নিয়েছে |

দুই বছর পর জেলেদের কয়েকজন মাতাল হয়ে নৌকায় ঘুমিয়ে পড়ল | সেই নৌকার পাল দড়ি ছিড়ে যায় এবং বাতাসে নৌকাটিকে ঠিক উত্তর সেন্টিনেল আইল্যান্ড এর দিকে নিয়ে যায় |

অন্য মাঝিরা তাদেরকে সতর্ক করেছিল কিন্তু তারা তাদের সেই সিগন্যাল কোন ভাবেই বুঝতে পারেনি হয়তবা তারা অধিক মাত্রায় মদ্যপান অবস্থায় ছিল |

তারা ঠিক উত্তর সেন্টিনেল আইল্যান্ড এর উপকূলীয় অঞ্চলে চলে আসে এবং Sentinelese রা পাথর গাছের বাকল তীর দিয়ে তাদেরকে হত্যা করে |

ভারতীয় কোস্ট গার্ড হেলিকপ্টারে তাদের লাশ উদ্ধারের চেষ্টা করেছিল এবং তাদের কেউ তীর ছুঁড়তে থাকে |

অবশেষে উপজাতিরা কোন ভাবেই কোস্ট গার্ড দের এই আইল্যান্ডে আসার অনুমতি দিল না | ধারণা করা হয় তাদের মৃতদেহ সমুদ্রে ফেলে দেয় | এই ঘটনার পরে ভারতীয় সরকার এই আইল্যান্ড জুড়ে 3 কিলোমিটার নিষিদ্ধ এরিয়া গঠন করে | এই আইল্যান্ডের বাসিন্দার সাথে সাথে অন্য সব পরিদর্শক সুরক্ষিত থাকে |

তাদের শিকার গোষ্ঠীরা পূর্ব দ্বীপের স্থানান্তরিত হয় এবং তাদের কৃষি বিকাশ এর সাথে সাথে তাদের ঘর গুলি খড়কুটো পাতা দিয়ে তৈরি করে |

তাদের বৃহত্তর সাম্প্রদায়িক একত্রে বসবাস করে | হেলিকপ্টারের দিকে ছোড়া তীর গুলো থেকে বোঝা যায় তারা বিভিন্ন ধরনের তীর এর আকৃতি গঠন করে যেমন শিকার করার জন্য, মাছ ধরার জন্য এবং নিজেদের আত্মরক্ষার জন্য |

এই আইল্যান্ড টি প্রবাল দ্বীপ দ্বারা বেস্টিত যেখানে কোন ধরনের প্রাকৃতিক খাদ্য নেই | এর বেশিরভাগই বন দ্বারা পরিপূর্ণ. যার কারণে এটা বোঝাও যায় না যে exactly এখানে কতজন বসবাস করে, , , ধারণা করা হয় এখানে 50 থেকে 500 জনের মতো বসবাস করে থাকতে পারে |

ADs by Techtunes tAds

এই আইল্যান্ড জুড়ে তিন মাইল নিষিদ্ধ zone থাকা সত্ত্বেও Sentinelese এখনও আধুনিক দিনের হুমকি রয়েছে | কেননা এই আন্দামান আইল্যান্ড জুড়ে টুরিস্ট বিজনেস প্রতিনিয়ত প্রসারিত হচ্ছে | হওয়াটাই স্বাভাবিক কেননা এখানে পাওয়া যায় পৃথিবীর সবচেয়ে পুরনো আদিবাসী |

টুরিস্ট দের বসবাসের সুবিধার্থে প্রতিনিয়ত বিল্ডিং গড়ে উঠছে | আনদাবান আইল্যান্ডের প্রতিদিনই প্রায় একশর বেশি গাড়ি চলাচল করছে | মনে হয় যেন এটি একটা হিউম্যান সাফারি পার্ক |

সারভাইভাল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্বজুড়ে উপজাতীয় জনগণের অধিকার নিয়ে কাজ করছে | তারা দাবি করেন আন্দামান আইল্যান্ড জুড়ে হিউম্যান সাফারি বন্ধ হলে জোরাহ এবং Sentinelese উভয়কে রক্ষা করা সহজ হবে |

এটা সম্ভব যে বিভিন্ন তথ্য উপাত্তের মাধ্যমে মানব সভ্যতার ইতিহাস সম্পর্কে জানা যায় | Sentinelese এর সম্পর্কে জানার জন্য এই দ্বীপে হেলিকপ্টার প্রেরণ করা হয় যেখান থেকে তাদের সম্পর্কে কিছুটা তথ্য পাওয়া যায় |কিন্তু তাদের আগ্রাসী ভূমিকার কারণে হেলিকপ্টারটি ফিরিয়ে আনতে হয় | মডার্ন টেকনোলজির সহায়তায় কিছু এক্সপার্ট বলেন কিছু ছোট আকৃতির ড্রন পাঠিয়ে তাদের সম্পর্কে আরও জানা সম্ভব হতে পারে | ফলে এই আদিবাসীদের সাথে যোগাযোগের সমস্যাগুলি অনেকাংশে কমে আসবে |

কিন্তু এটি নৈতিক সমস্যা উপস্থাপন করবে কারণ এটি উপজাতির গোপনীয়তার লঙ্ঘন হবে | কেউ কেউ মনে করেন Sentinelese উপকৃত হতে পারে মর্ডান অ্যাডভান্টেজ এর মাধ্যমে যেমন ওষুধ কৃষি কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রের ফলে |

কিন্তু anthropologist Sita Venkatesha বলেন আদিম উপজাতিদের সঙ্গে আপাতদৃষ্টিতে যোগাযোগের এই ধরনেরগুলি হয়তো ভালোর চেয়ে ক্ষতিটাই বেশি হবে | কারণ আধুনিক বিশ্বের মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক হয়তো তারা এই প্রত্যন্ত এলাকায় একটা পর্যায় অ্যালকোহল অথবা টোবাকো উৎপাদন করতে পারে |

নিষিদ্ধ এই আদিবাসীদের একাকী রাখাই সবার জন্য মঙ্গল on the most dangerous island in the world

আপনারা কি মনে করেন আমাদেরকে তাদের সাথে যোগাযোগ করা দরকার নাকি তাদের কে একাকী রাখাই ভালো হবে? আমাকে টিউমেন্ট সেকশনে আপনার মন্তব্য জানিয়ে দিন

ADs by Techtunes tAds
Level 0

আমি জামিউর রহমান জিসান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 মাস 2 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 17 টি টিউন ও 6 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস