এবার আপনার নিজের ইমেজের কপিরাইট নিয়ে নিন নিজেই

টিউন বিভাগ এসইও
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আশাকরিয়ে দেব, যেখানে আমি ইমেজ অপটিমাইজেশনের কপিরাইট বিষয়টি আলোচনা করেছি।

ইমেজ অপটিমাইজেশন হচ্ছে ইমেজের কোয়ালিটি নষ্ট না করে তার সাইজ কমিয়ে আনার এমন একটি প্রসেস, যা দিয়ে আপনার ওয়েবাসাইটের লোডিং স্পীড কমানো সম্ভব।

ইমেজ অপটিমাইজেশন নিয়ে ইউটিউবে ঘাটাঘাটি করে যা দেখলাম, বেশিরভাগ ইউটিউবারই এই ইমেজ অপটিমাইজেশনকে শুধু মাত্র ইমেইজের সাইজ বড় থেকে ছোট করার মাধ্যমে সীমাবদ্ধ করে রেখেছেন। মূলত ইমেজ অপটিমাইজেশন বা ইমেজ এসইওর ব্যপারটি আরো বিস্তর।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহৃত ইমেজের কপিরাইট না নেন, তাহলে ইমেজ এসইও এর বিষয়টি অনেকটা অপূর্ণ থেকে যাবে। নিচে দেখুন, একটি ইমেজের কপিরাইট নিলে আপনি কি কি সুবিধাগুলো পাবেন।

১. আপনার ইমেজটি কপিরাইট রেস্ট্রিক্টেড হয়ে যাবে:
ইমেজ কপিরাইট করে নিলে আপনার ইমেজটি অন্য কেউ তাদের ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহার করতে পারবে না। কেউ যদি ব্যবহার করেও থাকে, তাহলে তাদের গুগলে এডসেন্স পেতে সমস্যা হবে।

২. সবজায়গাতেই আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য চলে যাবে:
যেহেতু আপনার ইমেজটি কপিরাইট রেস্ট্রিক্টেড এবং এর ভেতরে আপনার ওয়েবসাইটের বিভিন্ন তথ্য ইনপুট করা আছে, সুতরাং এটি কেউ অনায়াসে ব্যবহার করলে তাদের ওয়েবসাইটেও আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য চলে যাবে।

৩. ক্রেডিট হিসেবে আপনার ওয়েবসাইটের নাম চলে আসবে:
অন্য কেউ যদি আপনার ইমেজটি ব্যবহার করে, এবং তাদের ওয়েবসাইটটি যদি একটি ব্লগ বা নিউজ ভিত্তিক ওয়েবসাইট হয়, তাহলে ওই ইমেজের ক্যপাশনে আপনার ওয়েবসাইটের পরিচয় অটোমেটিক চলে আসবে। মূল কথা হচ্ছে, একটি ইমেজ যখন কপিরাইট রেস্ট্রিক্টেড হয়ে যায়, তখন এই ইমেজটি যেখানেই আপলোড করা হোক না কেন, আপনার ওয়েবসাইটেরই পরিচয় বহন করবে।

কিভাবে আপনার ইমেজের কপিরাইট নেবেন, সেটি শিখতে এই ভিডিওটি দেখতে পারেন:
https://youtu.be/XyBoEraaRDk

Level 0

আমি স্যার জুবীন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 8 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস