অনলাইনে আয় ২০১৮ নিয়ে কিছু কথা প্রতারণা থেকে সাবধান

বাংলাদেশে অনলাইনে আয় করে এমন মানুষের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। কারো কারো এই পেশাটা যেমন মূল আয়ের মাধ্যম অনেকের আবার এটা চাকুরীর পাশাপাশি আয়ের মাধ্যম।

ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে এই ঝোকটা প্রকট। সকলেই এখন পড়াশুনার পাশাপাশি আয় করতে চায়।

পার্ট টাইম চাকুরী বলতে কিছু নেই বাংলাদেশে।

কোন নামীদামী প্রতিষ্ঠান কখনোই অনভিজ্ঞ একজনকে চাকুরীর জন্যে নিবেনা। সবাই এখন অভিজ্ঞতার আলোকে এক বিস্তর সুদূরপ্রসারী।

Call Center গুলোতে পার্ট টাইম চাকুরীর মূলা ঝুলে থাকলেও তার পিছিওনে রয়েছে মাসিক টার্গেট এর এক অদেখা অধ্যায়।

চাকুরীর পাশাপাশি আয় করতে এখন সবাই অনলাইনে আয় কেই প্রাধান্য দেয়। প্রযুক্তির দরুন আজ সকলের বাসায় ইন্টারনেট থাকায় এই আয়ের দিকে ঝোক বেশি সকলের।

কোটি মানুষের এই অনলাইনে আয়ের উপর ঝোঁক বাড়ছে, পালা ক্রমে বাড়ছে এই ঝোঁক কেন্দ্র করে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার ধান্দা।

কোর্সের নামে এক গাদা শীট ধরিয়ে দিয়ে বলা হচ্ছে অনলাইনে আয় পানিভাত। আসলেই কি তাই?

think-online-earn-bd

অনলাইনে আয় নিয়ে ভ্রান্ত ধারণা

একবার ভাবুন, যারা অনলাইন এ প্রশিক্ষণের নামে বিজ্ঞাপণ দিচ্ছে তারা আসলেই কতটা ইনকাম করছে।  ধরা যাক, ‘সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশান’ কোর্সে ১০, ০০০ টাকা টিউশন ফিস দিয়ে ৫০ জন ছাত্র কোর্সে ভর্তি হলো। মেয়াদ ৩ মাস। প্রশিক্ষণ কোম্পানি টাকা পেলো ৫ লক্ষ।

তিন মাস তারা আপনাদের শিখিয়ে ৫ লক্ষ টাকা গ্রস ইনকাম করল, যা প্রতি মাসের হিসেবে  ১, ৬০, ০০০ টাকা। এইবার আসেন খরচে। প্রশিক্ষকের বেতন মাসিক ২০, ০০০ টাকার নিচে হবেনা।

অফিস ভারা, স্টাফ বেতন ইত্যাদি সব মিলিয়ে ঢাকা শহরে মিনিমাম ৮০, ০০০ টাকার নিচে অফিস চালানো সম্ভম নয়। তাহলে ঐ কোর্সের জন্যে কত প্রফিট থাকলো?

হিসেবটা এমনঃ

টিউশন ফি থেকে আয় = ১৬০, ০০০

বেতন এবং ভারা বাবদ =  ১০০, ০০০

নেট প্রফিট = ৬০, ০০০ টাকা


এখন যদি ঐ কোম্পানি এইরকম আরো কোর্স শুরু করল, ‘সিপিএ মার্কেটিং’, 'ওয়েব ডেভেলপ কোর্স', ‘গ্রাফিক্স ডিজাইন’ ইত্যাদি। ১০টি কোর্স করলেও মাসিক ৬ লক্ষ টাকার বেশি কি ইনকাম হয়?

কোম্পানির মালিক কি একজনই হয়? যদি একজনই হয়, তাঁর অপারেটিং এক্সপেন্স বেড়ে যাবে ডাবল। নেট প্রফিট ১-২ লক্ষ তে নেমে যাবে। সারা মাস কোম্পানি চালিয়ে ১-২ লক্ষ টাকা ইনকাম ভালো নাকি, বাসায় শুয়ে বসে যখন খুশি আরামসে কাজ করে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করা?

আমার এই লিখার উদ্দেশ্য প্রশিক্ষণ কোম্পানি গুলোকে ছোট করা নয়। বরং ব্যাঙের ছাতার মত ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কোম্পানি গুলোর কাছ থেকে আপনাকে রক্ষা করা। সুন্দর ফিগারের কোন নারী দাড়িয়ে ‘ভি’ সাইন দেখাচ্ছে আর বলা হচ্ছে, মাসে লক্ষ টাকা অনলাইনে আয় 2018 সালে তাও আবার ১ মাসের মধ্যে গ্যারান্টি, জাস্ট ইগ্নোর করুন।

অনলাইনে আয় ২০১৮ বিষয়ক পরামর্শ বিস্তারিত পাবেন আমার কথা ব্লগে

Level 0

আমি আমিনুল ইসলাম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 4 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

এটা কিছু হইলো ? ফাইজলামি

    আপনি যদি অনলাইনে আয়ের ব্যপারে মাস্টার হয়ে থাকেন তবে আপনার জন্যে ফাইজলামি।
    যারা অনলাইনে আয় নিয়ে কূল কিনারা পাচ্ছেনা তাদের জন্যে ফ্যাক্ট।