ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ফ্রিলেন্সার হয়ে যেসব জিনিস কখনোই করবেন না

 

ADs by Techtunes ADs

একজন ফ্রিলেন্সার নিজের কাজের জন্যই নিজের ক্লায়েন্টের কাছে পরিচিতি পায়। আপনার কাজ আপনাকে সকলের সামনে তুলে আনবে। একজন দক্ষ ফ্রিলেন্সার হয়ে উঠার জন্য কি কি করা উচিত তা নিয়ে আগেই কথা হয়েছে। আজকে কথা বলব সে সকল জিনিস নিয়ে যা আপনার ফ্রিলেন্সিং এঁর যাত্রায় বাধা হয়ে দাড়াতে পারে। এমন কিছু জিনিস যা একজন ফ্রিলেন্সার হিসেবে আপনার কখনোই করা উচিত নয়।

 

একসাথে অনেক কাজ নিবেন নাঃ

 

একজন ফ্রিলেন্সার হিসেবে আপনার কাজটাই আপনার পরিচয়, তবে সেই কাজ যেন আপনার সমস্যার কারণ না হয় সেটিও আপনার মাথায় থাকতে হবে। আপনি একজন ক্লায়েন্টের কাজ শেষ না করার আগে অন্য ক্লায়েন্টের কাজ না নেওয়াটাই ভালো। কারণ বেশ কিছু কাজ একসাথে করতে গেলে টাইম ম্যানেজমেন্ট অথবা প্রজেক্ট সাবমিটে আপনারই সমস্যা হবে এবং এঁর ফলে সবগুলো প্রজেক্টেই আপনাকে হতাশ হতে হবে। নিজের সময়ের সঠিক ব্যবহার করুন। একসাথে অনেক কাজ না নিয়ে সময় নিয়ে একটি কাজ শেষ করে অন্যটি নিন। এর ব্যাতিক্রম হলে আপনারই সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে। আপনি শুধু যে প্রজেক্ট শেষ করতে পারবেন না এটা নই একই সাথে আপনার ক্লায়েন্টের আপনার প্রতি একটি নেগেটিভ ইম্প্রেশন তৈরী হবে যা আপনার ফ্রিলেন্সিং ক্যারিয়ার জন্য অনেক বড় একটি সমস্যা।

 

তাড়াহুড়া করে কাজ নিবেন নাঃ

 

 

ADs by Techtunes ADs

একজন ফ্রিলেন্সার হিসেবে এটাই আপনার কাজ যে আপনার কাছে আসা সব প্রজেক্ট আপনি গ্রহণ করে  আপনি নিজের ক্লায়েন্টের জন্য সেই প্রজেক্ট শেষ  করে দবেন। তবে কাজ গ্রহণ করার আগে কিছু জিনিস আপনাকে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে, আপনার কাজ গ্রহণের আগে অবশ্যই দেখে নিবেন কাজটি করার মতো সুযোগ সুবিধা আপনার আছে নাকি। কাজ পেলেই সেই কাজ নিয়ে উৎসাহিত হয়ে উঠবেন না। আগে দেখুন কাজটি আপনার পক্ষে সম্ভব নাকি। ক্লায়েন্টের কি কি দরকার সব বুঝে কাজটি গ্রহণ করুন।

 

সাপ্তাহিক ছুটিতে কাজ করবেন নাঃ

 

আপনার কাজ আপনার জন্য গুরুতকপূর্ণ, তবে সেই কাজ থেকে আরো বেশি দরকারী হলো আপনার  মানসিক শুস্থতা। তাই নিজের কাজের চাপ থেকে একটি দিন ফ্রি থাকার চেষ্টা করুন। নিজের জন্য একটি দিন খালি রাখুন যেই দিন আপনি নিজের মতো করে দিনটি কাটাবেন। এঁর ফলে আপনার কাজের প্রতি আগ্রহ বাড়বে। একই সাথে আপনি এই দিনটিকে নিজের জ্ঞানের পরিধি বাড়ানোর জন্যেও ব্যবহার করতে পারেন। বিভিন্ন নতুন বিষয় নিয়ে শিখতে পারেন এবং নিজের কাজের কোয়ালিটির উপর মনোযোগ দিতে পারেন।

 

কথা নয় কাজে পরিচয় দিনঃ

 

একজন ক্লায়েন্ট যখন আপনাকে নিয়োগ দেওয়ার নিয়ে আপনার সাথে কথা বলবে অথবা নিজের বিষয়ে যখন ক্লায়েন্টকে বলবেন তখন কখনোই “আমি এটা পারি আমি সেটা পারি, আমি আপনার কাজ করে দিতে পারব”এসব কথা বলবেন না। কারণ ক্লায়েন্ট আপনাকে নিজের কাজ করিয়ে নেওয়ার জন্য নিয়োগ দিচ্ছে তাই সেই কাজ যে আপন পারেন সেটি তাকে দেখান। কোন ডিজাইন অথবা আর্টিকেল লিখে দেওয়ার জন্য ধরে নেওয়া যাক আপনাকে নিয়োগ দেওয়া হলো তখন আপনি নিজের আগে লেখা কোন কাজের ফাইল তাদেরকে দিন। এঁর মাধ্যমে আপনি নিজেকে সকল থেকে আলাদা করছেন, কারন এঁর ফলে আপনি নিজের কাজের পরিচয় দিচ্ছেন আপনি কাজ পারেন এটি ক্লায়েন্টকে বোঝার একটি সুযোগ দিচ্ছেন।
আশা করছি ভালো কিছু দিতে পারছি

 

ADs by Techtunes ADs

নিজের কাজের দাম নিয়ে কখনো কোম্প্রোমাইজ করবেন নাঃ

 

ক্লায়েন্টকে খুশি করার জন্য আপনার কাজের সম্মানী কম নেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। আপনার ক্লায়েন্ট যানে আপনাকে যেই কাজের জন্য সে নিয়োগ দিচ্ছে সেটির সম্মানী কত, তাই নিজের সম্মানী বুঝে নির্ধারণ করুন। কাজটি করে দিতে আপনার কি পরিমাণ কষ্ট হলো এবং কি পরিমাণ সময় দিয়ে এই কাজ করলেন সেটির উপর নিজের সম্মানী নির্ধারণ করুন।

 

কখনো মিডিয়ার বাহিরে সম্মানী নিবেন নাঃ

 

এটি শুধু সেই ফ্রিলেন্সারদের জন্য যারা নিজেদের কাজ বিভিন্ন মার্কেট প্লেস থেকে পেয়া থাকেন। বিভিন্ন ফ্রিলেন্সিং সাইট যেমন freelancer.com, আপওয়ার্ক, guru অথবা কাজকী ইত্যাদি। যখন এই সকল প্লাটফর্ম থেকে কাজটি পাচ্ছেন তখন অবশ্যই সেই প্লাটফর্মের মাধ্যমেই কাজটির সম্মানী গ্রহণ করুন, এই ক্ষেত্রে আপনার যেটি লাভ হয় সেটি হলো প্রতিটি ক্লায়েন্ট তার নিজের কাজ আপনার থেকে নিজের কাজ বুঝে নেওয়ার পর আপনার সম্পর্কে একটি রিভিউ দিতে পারে। এই
রিভিউ আপনার জন্য একটি রেফারেন্স হিসেবে কাজ করে, এর ফলে আপনি অন্যান্য ক্লায়েন্টদের চোখে পরবেন, তাদের দেওয়া কাজ আপনি পারেন এবং আগে করেছেন আটি সম্পর্কে তারা আগে থেকেই একটি ধারণা পাবে, এর ফলে আপনি সহজেই অনেক কাজ পেতে সক্ষম হবেন।

 

নিজের কাজের কোয়ালিটি নিয়ে কখনো কম্প্রোমাইজ করবেন নাঃ

 

ADs by Techtunes ADs

কাজ জলদি শেষ করার জন্য অনেকেই নিজের কাজের কোয়ালিটি কমিয়ে ফেলে, তাই এই অভ্যাস থেকে দূরে থাকুন। একজন ফ্রিলেন্সারের সব থেকে বড় পরিচয় তার কাজ, এটি আপনার মূল মন্ত্র নিসেবে বেছে নিবেন। কখনৈ কাজ জলদি শেষ করার জন্য অথবা একটি কাজ শেষ করে অন্যটি শুরু করার জন্য কাজের কোয়ালিটি কমিয়ে ফেলবেন না। কখনো সময়ে মাঝে কাজ শেষ না হলে ক্লায়েন্ট থেকে কিছুদিন বাড়িয়ে নিন কাজের জন্য তবে কখনো নিজের কাজের কোয়ালিটি কমাবেন না।

 

ধৈর্য হারাবেন নাঃ

 

একজন ফ্রিলেন্সার হিসেবে আপনি অনেক ধরনের ক্লায়েটের মুখোমুখি হবেন। কখনো কোন ক্লায়েন্টের কাজ বুঝে উঠতে না পারলে অথবা কোন ক্লায়েন্টের কাজ নিয়ে বেশি কমপ্লেইন পেলে আপনি ধৈর্য হারাবেন না, ঠান্ডা মাথায় শান্ত মনে ক্লায়েন্টের কাজটি বুঝে করুন, ধৈর্য হারিয়ে কাজ করা একেবারেই করা যাবে না।

 

একজন ফ্রিলেন্সার নিজের কাজের মাধ্যমে শুধু নিজের অবস্থার উন্নতি করে না বরং সে সকলের সাহায্যে এগিয়ে আসতে সক্ষ্ম, অন্যের কাজে সাহায্য করেই তার উপার্জন তাই ফ্রিলেন্সার পেশাটা মোটেও ছোট করে দেখার মতো নয়। একজন দক্ষ ফ্রিলেন্সার একটি সম্পদ। ফ্রিলেন্সিং করে একজন মানুষ ভালোভাবেই স্বচ্ছল হতে পারে এবং নিজের পায়ে নিজে দাড়াতে পারে। ফ্রিলেন্সার হিসেবে আপনার কেরিয়ার শুভ হোক।

 

আরো পড়ো

 

ADs by Techtunes ADs

 

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি মাসরুর মুয়াম্মার। Chief Administrative Officer, Quick Supply BD, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস