ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ফ্রি হোস্টিং সাইটেও Page Rank বাড়ান খুব সহজে।হট SEO টিপস।

আমাদের অনেকের ধারনা থাকতে পারে যে কেবল মাত্র টাকা দিয়ে কেনা সাইট গুলোতে পেজ রেংক এর কোন প্রশ্নই আসে না।আবার অনেকে মনে করেন যে ফ্রি সাইট গুলো তো এসইও করার মত কিছুই নেই।এরা গুগলে নেক নজরে আসে না ইত্যদি।কিন্তু আমি বলবো গুগলের কাছে কেনা সাইট বা ফ্রি সাইট বলে কোন কথা নেই।তারা দেখে সাইটের ব্যকলিংক,পেজ রেংক,কীওয়ার্ড,ডিজাইন ইত্যাদি।আমি আজ আপনাদেরকে জানবো কিভাবে ফ্রি সাইটে পেজ রেংক বাড়ানো যায়।

ADs by Techtunes ADs

পেজ রেংক বাড়ানোর উপায়

আপনার সাইটের পেজ রেংক বাড়াতে পারেন বিভিন্ন উপায়ে।তবে এ ক্ষেত্রে আপনাকে একটু ধৈর্য ধারণ করতে হবে।নতুন সাইট হলে আপনাকে ৩ মাস অপেক্ষা করতে হবে।কেননা গুগল প্রতি ৩ মাস অন্তর অন্তর তারা একটি সাইটের পেজ রেংক আপডেট করে।

ব্যাক লিংক বাড়ান জোরশে

পেজ রেংক বাড়াতে গেলে প্রথমেই আপনাকে যা করতে হবে তা হল ব্যাক লিংকের সংখ্যা বাড়ানো।আর ব্যাক লিংক মানে তো আপনার জানেন।আপনার ওয়েব সাইটের লিংক যদি অন্য কোন সাইটে থাকে বা অন্য সাইট থেকে ভিজিটর লিংকের মাধ্যমে আপনার সাইটে আসে তাকে ব্যাক লিংক বলে।তবে সব সাইট থেকে আসা লিংক গুলোকে ব্যাক লিংক হিসাবে ধরা হয় না।যে সকল সাইটের লিংক গুলো dofollow করা আছে সেগুলো ব্যাক লিংক হিসাবে ধরা হয়।আবার কিছু কিছু সার্চ ইন্জিন গুলো nofollow লিংক গুলোকেও ব্যাক লিংক হিসবে দেখায়।কিন্তু এগুলো মূলত কোন ব্যাক লিংক নয়।google,yahoo,msn,altavista,alltheweb সার্চ ইন্জিন গুলোর লিংকেব্যাক লিংক হিসাবে ধরা হয়।সবচয়ে ভালো হয় যদি গুগলে আপনার সাইটের ব্যাক লিংক থাকে।এতে অল্প ব্যাক লিংকে বেশী পেজ রেংক বাড়বে।
তবে এখানে আপনাকে মনে রাখতে হবে কেবল বেশী ব্যাক লিংকে ই কিন্তু পেজ রেংক বাড়েনা।এটা অধিকাংশ নির্ভর করে উন্নত মানের ব্যাক লিংক এর উপর।আপনার ব্যাক লিংকটি যদি এমন সাইটে থাকে যার পেজ রেংক বেশী যেমন ২-১০ পর্যন্ত সে সাইট থেকে আপনি যে ব্যাক লিংক পাবেন তা উন্নতমানের হবে।
এখানে আমি একটা উধারণ দিতে পারি।যেমন আমার সাইটের http://bdmovie.webs.com ব্যাক লিংকের সংখ্যা ১১৮টি পেজ রেংক ১।এর মধ্যে ১৮টি nofollow।কিন্তু আমার সাইটের ব্যাক লিংক প্রায় ১৬ টি ভিন্ন ভিন্ন সাইটে দেওয়া আছে।যার প্রত্যেকের পেজরেংক ৩ এর উপরে।এ ক্ষেত্রে যদি আপনার সাইটের ব্যাক লিংক যদি নতুন ১০০ সাইটেও থাকে তাহলে আপনি ব্যাক লিংক পাবেন কিন্তু সেই তুলনাই পেজ বেংক বাড়াতে পারবেন না।
অনেকে মনে করতে পারেন প্রতি দিন নতুন নতুন সাইট বানিয়ে তাতে সাইটের ব্যাকলিংক দিলে সাইটের পেজ রেংক বাড়বে ।ধারণাটি সম্পূর্ন ভুল।কেননা গুগল দেখে যে এই সাইটের ব্যাক লিংক গুলো কোন ধরনে সাইট থেকে এসেছে বা সাইট গুলো নতুন কিংবা জনপ্রিয় কিনা।তারা যখন দেখে যে সাইট গুলো নতুন ও এর পেজ রেংক নেই সে সময় তারা এ সকল ব্যাক লিংক গুলো পেজ রেংক এর জন্য বিবেচিত করেনা।তারা এই ট্রিকস সহজেই ধরে ফেলবে।তবে নিয়মিত অন্য সাইটের সাথে সাইট বানিয়ে ব্যাকলিংক বাড়ালো ও একপর্যায়ে আপনার সাইটের পেজ রেংক বাড়বে।

সাইট আপডেট করুন প্রতিদিন

আপনার সাইটটি প্রতিদিন আপডেট করার চেষ্টা করুন।কেননা আপডেট বিহীন সাইট গুগলের কাছে অপ্রয়োজনীয় হিসাবে বিবেচিত হয়।তারা দেখে যে সাইট নিয়মিত আপডেট হয় কিনা।শুধু মাত্র অফলাইনেই আপডেট করলে হবেনা।একটা নির্দিষ্ট সময় পরপর সাইট গুগলে সাবমিট করুন।
এক্ষেত্রে আমি আপনাদের গুগল ওয়েবমাষ্টার ব্যবহার করে সাইট ম্যাপ সাবমিট করতে বলবো।সাবমিট করা সাইটম্যাপটি এক সময় অন্তর অন্তর রি সাবমিট করুন।আর প্রতি সপ্তাহে একবার নতুন করে সাইট ম্যাপ বানিয়ে সাবমিট করুন।এতে আপনার নতুন পেজ গুলো সাবমিট থেকে বিরত থাকবে না।

নিয়মিত সাইটের পেজ বৃদ্ধি করুন

আপনার সাইটিতে নতুন নতুন পেজ নিয়মিত যোগ করুন।এতে করে গুগল বুঝবে সাইটের মান ভালো এবং আপডেট করা হয় সব সময়।

অধিক পেজরেংক যুক্ত সাইটে হোষ্টিং করুন

আপনি যে সাইটে আদলে আপনার সাইটি নিবেন তা যেন অধিক পেজ রেংক যুক্ত হয় সেই দিকে নজর দিন।কারন পেজ রেংক এর ক্ষেত্রে সাবডোমেইন এর একটা বেশ সম্পর্ক রয়েছে।যে সাইটের সাব ডোমেইন বেশী হয় সেই সাইটের পেজ রেংক বেশী থাকার সম্ভাবনা থেকে থাকে।কিন্তু সাবডোমেইন এ তো আর সাব ডোমেইন সংখ্যা বাড়ানো সম্ভব নয় তাই সাইটটি যাতে ভালো পেজরেংক সাইটে থাকে তার ব্যবস্থা করুন।যেমন

#URLPageRank
1http://www.webs.com
2http://www.freehostia.com
3http://www.yola.com
4http://www.wetpaint.com
5http://www.freewebsites.com
6http://www.000webhost.com
7http://www.zymic.com
8http://www.absolutely-free-hosting.com
9http://www.free-webhosts.com


এখানে দেখা যাচ্ছে যে অধিকাংশ সাইট গুলোর পেজ রেংক ৫-৮ এর মধ্যে।এসকল সাইটে আপনি যদি আপনার ফ্রী সাইট বানান তাহলে এর থেকে পেজ রেংক এর জন্য বেশ সুবিধা পাবেন।তবে আমার মতে http://www.webs.com সবচেয়ে ভালো।এর ডোমেন নেইম ছোট হওয়াই ও এর পেজরেংক বেশী থাকায় এই সাইটটি বেশ ভালো।
তাছাড়া আপনি নিচের টিপস গুলো অনুসারণ করতে পারেন
১।সাইটের লোড স্পীডের দিকে নজর রাখন
২।প্রতিনিয়ত এসইও করার চেষ্টা করুন।
৩।সাইটের পেজ সংখ্যা ৫০ থেকে ২৫০ পর্যন্ত রাখার চেষ্টা করুন।
৪।বিভিন্ন ফ্রী সাইটে আপনার সাইটের লিংক রাখুন।
৫।bolgger.com সাইটকে ব্যাক লিংকের জন্য ব্যবহার করতে পারেন।কারন এই সাইটে নতুন পেজেও বেশ পেজরেংক থেকে।তাই আপনার ব্যাক লিংক গুলোকে আন্যান ফ্রি সাইটে না রেখে bolgger.com সাইটে রাখুন।

পেজ রেংক দেখার কিছু টুলস

১।http://www.prchecker.info
২।www.iwebtool.com/pagerank_checker/
৩।www.checkpagerank.net
আশা করি টিউনটি আপনাদের সকলের কাজে লাগবে।আপনাদের কাজে লাগলেই এই টিউনটি করা সার্থক হবে।সকলকে আবারও ধন্যবাদ

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি সজীব রহমান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 69 টি টিউন ও 820 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 5 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

সজীব রহমান ভাইয়ের SEO টিপস গুলো অনেক কাজে দেয়।

নাইস টিউনিং সজিব।

খুব একটা কাজের টিউন আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

কি বলুম ভাই। Free Hosing- এ 60% SEO work-ই জলে যায়

    না মহা পন্ডিত ভাই আপনার কথাটা সম্পূর্ন ঠিক নয়।৬০% এর বেশীই কাজে লাগে আর ৪০%এর কম কাজ জলে যায়।

ধন্যবাদ ভাই। SEO নিয়ে এত সুন্দর টিউনস পাব আশাকরি নাই। সত্যিই ভাই খুব উপকার হল।
আবারও ধন্যবাদ টেকটিউনসকে SEO এর দিক দিয়ে সমৃদ্ধ করার জন্য।

    আপনাকে ধন্যবাদ সাঈদ ভাই।আমি আর কিছুদিনের মধ্যেই SEO সম্পর্কিত একটা টিউন সিরিজ করার চেষ্টা করছি।ইনশাহাল্লাহ তখন SEO সম্পর্কে আপনাদেরকে আরো অনেক তথ্য দিতে পারবো।

হুম অনেক কিছু বুঝলাম। 🙂

সজিব ভাই web.com এ কি এডসেন্স ইউস করা যায়?

আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ. Super Techtunes