ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

কিভাবে SMART হওয়া যায় জেনে নিন (সাথে একটি অনলাইন বিজনেস তথ্য) – আপডেট ২০১৭

ব্যাতিক্রমধর্মী একটি টিউন নিয়ে হাজির হয়েছি। তবে আমার পাঠকরা বিরক্ত হবেন না আশা করছি। আমাদের টিভি চ্যানেলগুলো স্মাটনেস এর ধারনাই বদলেই দিয়েছে। তরুনরা মনে করতে শুরু করেছে, স্মাট হতে হলে লম্বা ফর্সা হতে হবে। স্মার্ট হতে হলে জ্ঞানী হতে হবে। জ্ঞান মানুষকে আত্নবিশ্বাসী করে তুলে। যা আপনাকে স্মার্ট হতে সাহায্য করবে। স্মাটনেস মানেই সুন্দর কোন পোশাক নয়, স্মাটনেস মানে গলায় টাই নয়, স্মাটনেস মানে ভালো একটি গাড়ীর মালিক হওয়া নয়, স্মাটনেস মানে সুন্দরী কোন নারীর সাথে প্রেম করা নয়। পরিপাটি পোশাক, আকর্ষনীয় কথা ভঙ্গি, অপ্রয়োজনীয় কথা না বলে প্রয়োজনীয় এবং ভাব গম্ভীর কথার মাধ্যমে স্মাটনেস প্রকাশ পায়। তবে সব সময় গম্ভীর থাকাটাও স্মার্টনেস নয়। চটপটে সম্ভাভের লোকজন খুব সহজে অন্যের দৃষ্টি কেড়ে নিতে পারে। আপনাকে বুঝতে হবে কোন পরিবেশে আপনাকে কেমন আচরণ করা উচিত। একজন লম্বা দাড়িওয়ালা হুজুর তার কাজের মাধ্যমে সব থেকে স্মার্ট হয়ে উঠতে পারেন। হুজুরের দৃষ্টিভঙ্গি, কাজের প্রতি মনোযোগ এবং তার কর্মক্ষেত্রে যত বেশী জ্ঞান রাখবেন তিনি তত বেশী স্মার্ট হয়ে উঠতে পারেন। যেহেতু স্মাটনেস দেখানোর মাধ্যমে স্মাট হওয়া যায় না। এটি একটি ফিল বা অনুভূতি। এটি অন্যের মনে জাগাতে হয়। এই ফিল নিয়ে আসতে হয় যেকোন বিরুপ পরিস্তিতি সামলে নেয়ার মাধ্যমে। তখন সকলের দৃষ্টি থাকে আপনার উপর। সেই পরিস্তিতি আপনি যদি সহজেই সব কিছু সামলে নিতে পারেন তবে অন্যের দৃষ্টি আপনাকে আকর্ষন করবে। তখন আপনার প্রতিটি কাজই তার মনকে স্পর্শ করতে হবে।

ADs by Techtunes tAds

স্মাট কে না হতে চায়? কিন্তু স্মাট হওয়া খুব একটা সহজ কাজ নয়। কিছু মানুষ প্রাকৃতিকভাবে স্মাট। তারা খুব সহজেই অন্যকে আকর্ষন করতে পারেন। এতোদিন পর্যন্ত অধিকাংশ মানুষের ধারনা ছিল স্মার্টনেস কেবলমাত্র রোপালী পর্দায় দেখা যায়। তারা আসলে স্মাটনেস সম্পর্কে পুরোপুরি অন্ধকারে রয়েছেন। স্মাট হতে হলে আপনাকে অবশ্যই জ্ঞানী হতে হবে। এটি একটি আর্ট। এই শিল্পকে আয়ত্ত্বে আনা যায় অনুশীলন করার মাধ্যমে। নিজের প্রতি এবং নিজের কাজের প্রতি মনোযোগী হওয়ার মাধ্যমে স্মার্ট হওয়া যায়। এই আর্ট আয়ত্ত্বে নিয়ে আসলে আপনিও স্মাট হতে পারেন। স্মাটনেস এর বহিপ্রকাশ ঘটে কথায়, চিন্তাায় ও কাজে। আমার কাছে স্মার্টনেস পুরোপুরি দৃষ্টিভঙ্গির উপর নির্ভর করে। তবে স্মার্ট হওয়ার আগে রুচিশীল প্রয়োজন বলে মনে করি। নিচে কিছু পয়েন্ট তুলে ধরছি - এগুলো নিজের মধ্যে স্থায়ী একটি অবন্থান তৈরি করতে দিন।

১। অন্য আরেকজন আপনার উপস্থিতি যেন বিরক্ত না হয়। তাই হাসি খুশি ও প্রাণসঞ্জারী হোন। আপনার প্রাণের স্পর্শে আরো প্রাণে আলোড়ন তুলুন। অযথা অপ্রাঙ্গিক বিষয় এড়িয়ে যান।

২। নিজের অভাব কখনো তুলে ধরতে যাবেন না। আপনি সব সময় ভেতর থেকে নিজেকে বিত্তবান ভাবুন। নিজের দৈন্য আরেকজেনর কাছে তুলে ধরে কোন সুফল পাওয়া যায় না। সবাই তার কাছেই যায় যার কাছে আলাদিনের চেরাগ আছে। নিজের কাছে আলাদিনের চেরাগ আছে এমন অনুভূতি অর্জন করাও অনেক বড় শিল্প।

৩। আপনার যে পোষাকই আছে সেটাকে পরিষ্কার ও পরিপাটি রাখুন। আপনার কথা বলার ধরন মার্জিত এবং রুচিশীল করুন। শব্দ নির্বাচনে গুরুত্ত্ব দিন। কোন পরিবেশে কেমন শব্দ নির্বাচন করতে হবে তা জানতে হবে। কখনো কখনো কৌতুক প্রিয় হতে হবে।

৪। স্মার্ট মানেরই দামী গাড়ি নয়। বন্ধুর গাড়িতেও আপনি কেমন করে বসেছেন সেটাও আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে। চেয়ারে বসা, অন্যের সাথে হাত মেলানো, কথা বলার সময়, ফোনে হ্যালো বলার সময়, বিদায় নেয়ার সময় ইত্যাদি সব সময় নিজের কাজগুলোকে নিজেই প্রত্যক্ষ্য করুন। নিজেই যেন নিজের বিচারক।

৫। সময় মেনে চলুন। অন্য আরেকজন সময় মেনে না চললে তাকে কথা শুনাবেন না। শুধু বুঝিয়ে দিন আপনি সময় মেনেই চলেন। আপনাকে যেন আর দশ থেকে সহজেই আলাদা করা যায় সেভাবে চলুন।

৬। অপ্রয়োজনীয় প্রসঙ্গ থেকে দুরে থাকুন। বন্ধুরা যখন অপ্রয়োজনীয় কোন প্রসঙ্গ দিয়ে আলোচনা করবে আপনি তাদের তখন সৃষ্টিশীল ধ্যান ধারনায় নিয়ে আসুন। কাজটি সুক্ষ্মভাবেই করতে হবে। আপনি আবার এজন্য হাসির পাত্র হয়ে উঠবেন না।

৭। স্মার্ট হতে হলে জ্ঞানী হতে হবে। আরেকজন যে বিষয়টি বুঝতে পারছে না আপনি দ্রুতই তাকে একটি সমাধান এনে দিন। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পড়াশুনা করুন। আপনার তথ্যবলহুল কথা দিয়ে আন্যকে আপনার দিকে আকৃষ্ট করুন।

এই বিষয়ে আমার জ্ঞান যতেষ্ট নয়। এখানে নিশ্চয় সত্যিকারের স্মার্ট ব্লগারদের আসা যাওয়া রয়েছে। টিউমেন্টের মাধ্যমে টিপস দিলে খুবই খুশি হবো।

ADs by Techtunes tAds

আর যারা আমার কাছে অনলাইন মার্কেটিং ও আউটসোর্সিং নিয়ে লেখা আশা করেন তাদের আজকের টিউন থেকে একেবারেই নিরাশ করব না। আপনরা হয়ত জানেন তবুও দু একজন জানতে নাও পারেন তাই একটু বলছি -  myshopify.com ১৪ দিন ফ্রি ট্রায়াল সুযোগ দিচ্ছে। কোন ক্রেডিট কার্ড লাগবে না। এখানে ফ্রি একটি অনলাইন ইকমার্স তৈরি করুন এবং আপনার প্রডাক্ট বিশ্বব্যাপি সেইল করুন। কি আসে যায় যদি বাংলাদেশে পেপাল সাপোর্ট না করে। আপনি যদি চান তবে অনেক কিছুই সম্ভব। ইন্টারনেটেই খুজুন। সব কিছুই পাবেন, হয়ত একটু অন্যরকম অথবা আপনি যেমন চাচ্ছেন। আপনারা চাইলে এই বিষয়ে নিয়ে নতুন একটি টিউন করতে পারি। আপনাদের আগ্রহ থাকলে অবশ্যই লিখব।

আমাকে ফেইসবুকে পাবেন -> Facebook

ADs by Techtunes tAds
Level 0

আমি ওবায়দুল হক। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 51 টি টিউন ও 109 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

লিজেন্টদের কমিউনিটি টিটি তে আমার মতো সামান্য এক টিউনার আপনাদের সাথে থাকতে পেরে খুবই ভালো লাগছে। আমি খুবই ক্ষুদ্র একজন ওয়েব ডেভলাপার। যেকোন ইকমার্স ওয়েবসাইট ডেভলাপ করতে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। পিএইচপি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজে যেকোন ডায়নামিক ওয়েবসাইট ডেভলাপ করতে যোগাযোগ করুন। http://websoftltd.com Mobile: 01718023759 http://www.fb.com/obaydul.shipon


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস