ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ভিপিএন এর মাধ্যমে IP লোকেশন পরিবর্তন করে বন্ধ ওয়েব পরিদর্শন…

VPN (Virtual Private Network)

আমরা এখন অনলাইনের যুগে। তাই সময়ের সাথে প্রয়োজনের পাশে প্রতি মুহূর্তে এই ইন্টারনেট আমাদের কাজে আসছে। কিন্তু বিভিন্ন কারণে সব সময় সব ওয়েবসাইটে Accessibility Mode একটিভ থাকে না। যেমন, এই মুহূর্তে আমাদের দেশে জনপ্রিয় প্রায় সকল ওয়েব সাইট অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে (Facebook,Somewhereinblog,Techtunes etc)। নিত্যান্ত প্রয়োজনে আমরা এই সব ওয়েবসাইট ব্যবহার করবো। আসুন জেনে নিই কিভাবে এসব ওয়েব সাইট ব্যবহার করবো, বন্ধ থাকা সত্ত্বেও।
তত্ত্বঃ মাথায় একটু খেলি কিভাবে এটা করা যায় ? যে সব ওয়েবসাইট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে সেগুলো হলো World Wide Web এ সম্প্রসারিত। এ থেকে একটা জিনিস বুঝতে পারলাম যে, এসব ওয়েব সাইট শুধু বাংলাদেশ না অন্য দেশ থেকেও Access করা যাবে। আর একটা দেশ তার নির্দিষ্ট এলাকাতেই তার নেটওয়ার্ক কন্টোল Access অথবা Deny করতে পারে। এতে আমরা বুঝলাম যে, ওয়েব সাইট গুলো শুধু বাংলাদেশ এরিয়াতেই শুধু Restricted । কারণ, বাংলাদেশ তো আর সারা পৃথিবীর নেটওয়ার্ক নিয়ন্ত্রণ করে না। তাই বুঝা যায় এই Restriction টা শুধু বাংলাদেশেই ঘটেছে। তাহলে আমি কিভাবে এখন Restricted ওয়েব গুলো পরিদর্শন করতে পারবো ? এর একটাই পদ্ধতি, আমাকে অন্য লোকেশনের User হিসেবে প্রবেশ করতে হবে। যেমন, আমি  এখন বাংলাদেশে আছি। বাংলাদেশ ছাড়া অন্য লোকেশন(আমেরিকা, কুরিয়া, জাপান, চিন etc) এর User হিসেবে আমাকে ওয়েব এড্রেসটিতে Access করতে হবে। তাহলেই আমি সে ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে পারবো। অর্থ্যাৎ, প্রাইভেট নেটয়ার্ক ব্যবহার করতে হবে।
কম্পিউটারের এই পদ্ধতির নাম VPN(Virtual Private Network)। এই পদ্ধতির মাধ্যমে আমরা অন্য লোকেশনের ব্যবহারকারী হিসেবে ওয়েব সাইটে Access করতে পারবো। এখন দেখাবো কিভাবে তা করতে হয়।মুঠোফোন ব্যবহারকারীদের জন্যঃ

ADs by Techtunes ADs
চিত্রঃ HideME

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা HideME অ্যাপটি Google Play থেকে রিসেন্ট ভার্সনটা ডাউনলোড করে এ কাজ করতে পারেন।

চিত্রঃ HotSpot Sheid

 

অথবা HotSpot Sheid অ্যাপটি Google Play থেকে ডাউনলোড করে কাজ করতে পারেন।

চিত্রঃ Hole VPN
চিত্রঃ Hole VPN
অথবা হোল নামের এই অ্যাপটিও দেখতেও পারেন।

iPhone and iPad  এর জন্যঃ

চিত্রঃ HideME iSO Mac
HideME App টি ডাউনলোড করে এ কাজ করতে পারবেন।
পিসি(PC) ব্যবহারকারীদের জন্যঃ
পিসিতে ভিপিএন এর জন্য একটি ব্রাওজার ব্যবহার করতে পারেন। Browser টির নাম Tor Browser । আপনি চাইলে এখান থেকে  থেকে ব্রাউজারটি ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন। নিচে এর Screen Shot গুলো দেখানো হলোঃ
চিত্রঃ Tor Browser 1
চিত্রঃ Tor Browser 2
চিত্রঃ Tor Browser 3
চিত্রঃ Tor Browser 4
অথবা আপনি VPN Client & VPN Gate Client ব্যবহার করে ব্যবহার করে আপনার Local IP পরিবর্তন করতে পারেন।
চিত্রঃ VPN Gate Client
চিত্রঃ VPN Gate Public VPN Relay Servers

এই App এর কার্যপদ্ধতি ও Installing Process নিচে দেখানো হলঃ

VPN Client & VPN Gate Client  টি ডাউনলোড করে নিন। এর পর নিচের চিত্রের মত ধাপগুলো অনুসরণ করুন।
চিত্রঃ VPN Client & Gate Client
ডাউনলোড করার পর ফাইলটির লোকেশন খুঁজে বের করুন এবং ইনস্টল করুন।
চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

ইনস্টল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করি।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

এর পর Software Component হিসেবে SoftEther Client ব্যবহার করুন।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

তারপর VPN Gate Public VPN Relay Server সিলেক্ট করি।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

এরপর Available VPN Server গুলো দেখাবে। সেখান থেকে ইচ্ছে মত Server পছন্দ করি। তারপর "Connect to the VPN Server" সিলেক্ট করি  ।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

VPN প্রোটোকল কানেক্ট করি।

ADs by Techtunes ADs
চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

যদি আপনার নেটওয়ার্ক প্রতিস্থিত হয় তাহলে একটি ছোট উইন্ডোতে আপনার Connection এর IP Address দেখাবে।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

লোকাল এরিয়া থেকে Access Protocol, Windows CMD তে আপনার বর্তমান কানেকশনের Status Present করবে।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

CMD Automatically আপনার Private Area থেকে Google DNS এর মাধ্যমে Web Address Truck করবে।

চিত্রঃ VPN Client & Gate Client

এর পর আপনি তা দিয়ে আপনার Browser এর মাধ্যমে সহজেই Unavailable ওয়েব ঠিকানায় প্রবেশ করতে পারবেন।

এছাড়াও, আপনি HotSpot Sheild এর PC Version টা নিয়ে এ কাজ করতে পারবেন। HotSpot Client Software টি ব্যবহারবিধির জন্য নিচের ভিডিওটি দেখতে পারেন।
HotSpot Sheild App টি এখান থেকে ডাউনলোড করে নিন।
অন্য পদ্ধতিঃ
 এছাড়াও আপনি Google এর সহযোগীতায় আপনি Restricted ওয়েব সাইট দেখতে পারেন। তবে সকল ওয়েব সাইট না। যে ওয়েব সাইটটি Google ক্যাচ করে রেখেছে শুধু সে সব ওয়েব এরই  তার সামগ্রীক ডিজাইন আপনি ভিউ করতে পারবেন। এজন্য আপনাকে http://webcache.googleusercontent.com/search?q=cache:http:// লিখে তার পর আপনার কাংক্ষিত Address লিখে চেক করে দেখতে পারেন সে ওয়েব সাইটের Cache Goole এ Saved করা আছে কি না। তবে এ প্রক্রিয়াটি লগইন সাইটের জন্য প্রযোজ্য নয়। শুধু আউটপুট ইন্টারফেস দেখার জন্য ব্যবহার করতে পারেন। 

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ  VPN এর যে কোন Software কিংবা পদ্ধতি প্রযোগের জন্য আপনাকে ইন্টারনেটের সকল লগিইন  ফোরাম সিকিউরিটি বাড়িয়ে নিবেন। কারণ, এগুলো IP Address এর মাধ্যমে Access হয়ে থাকে। যার দরুন আপনার কোন তথ্যকে কেউ চুরি করতে পারে। এখনো পর্যন্ত আমি এ ধরণের কোন দশায় পরিনি। তবে, হতে পারে। কারন, উপরের সকল Software এবং Process ফ্রীতে দেয়া। অথবা আপনি যদি একদম Standard ভাবে ব্যবহার করতে চান তাহলে VPN এর প্রিমিয়ার Soft কিনে ব্যবহার করতে পারেন। এধরণের সেবা বাংলাদেশের অনেক Web Client Server ঐ দিচ্ছে। সেগুলো ব্যবহার করে আপনি সহজেই VPN সার্ভিস ব্যবহার করতে পারেন। Web Security সম্পর্কে যারা একটু ভালো জানে তারা ফ্রীগুলো দিয়েই কাজ করে। এখন Facebook এর বিভিন্ন ড্যাটা সহজেই চুরি হয়। তাই বিশেষ করে Facebook ব্যবহারকারীদের জন্য Facebook Login Approval Service টি একটিভ করে এধরণের সেবা নেয়ার জন্য অনুরুধ রইলো। 
ধন্যবাদ।
এ টিউনটি প্রথমে এই ব্লগে প্রকাশিত হয়েছিলো। দয়া করে ভিজিট করবেন।

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি সুরজিত সিংহ সৌর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 20 টি টিউন ও 9 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

একজন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রেমী... :)


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস