ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

কম্পিউটার মনিটরকে আপনার চোখের ভারসাম্য অনুযায়ী কনফিগার করে নিন।

কম্পিউটারে সামনে বসে থাকা আর চোখের বারোটা বাজানো এক মনে করেন অনেকে। বড় ভাই বা আপু থাকলে তো নিয়মিত জাড়ি। এই তোকে না বলছি মনিটরে গ্লাস লাগিয়ে নিতে, আরে তুমি এখন চশমা না পরে কম্পিউটারের সামনে বসে আছ। এরকম অনেক কথা শুনতে হয়।   আমি যদিও এরকম মনে করি না। এসব বাড়তি জিনিশ সত্যি ই বিরক্তি কর। তার পরেও কিছু পন্থা অবলম্ভন করে সাবধান থাকা যায়। যারা কম্পিউটারের সামনে সারাদিন বসে থাকেন তারা এই নিয়ম গুলো ফলো করতে পারেন।

ADs by Techtunes ADs

প্রথমে আসি মনিটরের কনফিগারেশনঃ

আপনার কম্পিউটারের Brightness ও Contrast আপনার চোখের সহনশীলতা অনুযায়ী কনফিগার করে নিন। এটি মনিটেরর পাশের মেনু কীতে ক্লিক করলে পাবেন।  যা দেখতে পাশের চিত্রের মত। এখানে সুধু সিম্বল দেখতে পাবেন। Brightness ও Contrast 100 -100 হলে যদি আপনি মনে করেন সুন্দর ভাবে সব দেখতে পারেন, চোখের কোন সমস্যা হয় না, তাহলে তাই রাখেন। এটা আমি উদাহরন দিলাম। এক্ষেত্রে 80-80 এর উপর রাখা ঠিকনা। অনেকে দেখা যায় ৫০ এর ও নিচে রাখে, এতে সব কিছু ঘোলা ঘোলা দেখা যায়। ফলে চোখের ভালোর চেয়ে খারাপ ই হয়।

এবার আসি সফটওয়ার কনফিগারেশনঃ

আপনার Display Properties ওপেন করুন।

এর জন্য Start menu> Setting> Appearance and Themes> Display এ যান। আপনি সহজে মনিটরে Right করে Click  Properties থেকে ও Display Properties পাবেন।

এখান থেকে Setting ক্লিক করুন।

এবার আপনার মনিটর অনুযায়ী Screen Regulation টা ঠিক করে নিন।

যেমন আপনার মনিটর যদি 14 Inch বা Square  মনিটর হয় তাহলে আপনি 800 by 600 Pixels সিলেক্ট করুন।

যদি যেকোন  Wide মনিটর হয় তাহলে  আপনি 1024 by 768 Pixels সিলেক্ট করুন।

এটি ও নির্বর করে আপনার চোখের সহনশীলতার উপর। এর উপর ভিত্তি করে আপনি Screen Regulation টা ঠিক করে নিন।

ADs by Techtunes ADs

এক্ষেত্রে অনেকে সফটোয়ার ব্যবহার করে। আমার কাছে খুবি বিরক্ত লাগে। সব কিছু সফটওয়ারের উপর ছেড়ে দেয়।

এটি আমার নিজের গবেশনা। তবে কাজের। সারাদিন মনিটরের সামনে বসে পড়ালেখা না করে বের করছি। আমার সাথে গবেশক হতে আপনার জ্ঞানগর্ব মতা মত দিন।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি জাকির হোসাইন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 225 টি টিউন ও 1489 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 5 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

পৃথিবীতে অল্পকয়েক দিনের জন্য অনেকেই আসে, হেঁটে খেলে চলে যায়। এর মধ্যে অল্প কয়েক জনই পায়ের চাপ রেখে যায়।ওদের একজন হতে ইচ্ছে করে। প্রযুক্তির আরেকটি সেরা ব্লগ টেকটুইটস। আপনাদের স্বাগতম, যেখানে প্রতিটি বন্ধুর অংশ গ্রহনে গড়ে উঠেছে একটি পরিবার। আপনাদের পছন্দ হবে আশা করি। ফেসবুকে আমি - ?জাকির!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আপনার টিপসগুলোর সাথে আমার সংযুক্তি——
১) অধিক উজ্জ্বল/ কালারযুক্ত ওয়ালপেপার ডেস্কটপে সেট করা হতে বিরত খাকুন।
২) থীম ব্যবহারে আগ্রহী হলে ভাল কিছু ব্লাক থীম ব্যবহার করতে পারেন।
৩) যারা এক্সপি ব্যবহার করেন তারা খেয়াল করবেন ডিফল্ট হিসেবে ব্লু কালার স্কিম দেওয়া থাকে যা অত্যন্ত গাঢ় কালার। এক্ষেত্রে আপনি Display Properties হতে Appearance এর color scheme এ olive green সিলেক্ট করতে পারেন। এটি একটি সহনশীল কালার।
৪) উন্ডোজের ফন্ট সাইজ একটু বড় করুন যাতে করে সামান্য দূর হতেও যেন ভাল দেখতে পান।
৫) সর্বাপরি Flux সফটওয়ারটি ব্যবহার করতে পারেন। এটি চোখের জন্য ক্ষতিকর আলোকে প্রোটেক্ট করে।

    আপনার ৫ নং ছাড়া সব ঠিক আছে। আমি বলছি সফটয়ার ছাড়া কি ভাবে আমরা সাবশান থাকতে পারি।

ঠিকই বলেছেন সময় থাকতে নিজেকে সবকিছুর সঙ্গে খাপ-খাইয়ে নেয়া উচিত।নাহলে পড়ে সব বেকার যাবে

ধন্যবাদ পোষ্টের জন্য। আপনি এই সফটওয়্যার টা ব্যবহার করে দেখতে পারেন।
http://stereopsis.com/flux/

কেউ কি আছেন একটু সাহায্য করবেন
আমার কম্পিউটারের d drive my compu a দেখানা manage a দেখায়
কি করব

bozz….tik acha but ami apnartai aga thaka folo kori……chakar jonno ami black wallpaper o theme..use kori…akon ashob dhaka amr mona hossa ami tik ache 🙂

ব্রাইটনেস করাইলে কি ল্যাপটপের চার্জ কম ব্যয় হয় নাকি ?

    হা, অবস্যই কম ব্যয় হয়। আর ল্যাপটপের জন্য তো পাওয়ার অপশনই রয়েছে।

আপনার টিপস গুলু অত্যান্ত সুন্দর ও অনেক কার্যকরি হয়।
আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সুন্দর টিপসটির জন্য।

ভাল লাগল…………