ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

ইয়ারফোন বার্ন (Burn) সম্পর্কে বিস্তারিত

ইয়ারফোন বার্নঃ

#ধীরে_চলুনঃ সর্বোচ্চ গতিসীমা ২০ কিমি।

ADs by Techtunes tAds

এই লেখাটি পড়ে আমাকে বা আপনাকে পাগল ভাবার আগে এই কাজটি করে দেখবেন। যদি ভালো ফলাফল না পান, তাহলে যাকে ইচ্ছা পাগল ভাইবেন।

বার্ন কীঃ

বার্ন (Burn) অর্থ পোড়ানো। ইয়ারফোন এর ক্ষেত্রে বার্ন কথাটির সঠিক অর্থ হলো নির্দিষ্ট নিয়মের মধ্যে দিয়ে ইয়ারফোন বাজানোকেই বার্ন বলে।

#বার্ন_করা _নিয়ে_কেনো_টিউনঃ আমি দেখতেছি ইদানিং অনেকেই ভালো সাউন্ড এর জন্য দামী দামী ইয়ারফোন কিনতেছেন। কিন্তু অনেকেই সাউন্ড কোয়ালিটি নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারেন না। এত টাকা দিয়ে ইয়ারফোন কিনে পিওর সাউন্ড পাচ্ছেনা সবাই, এই বেপারটা সবাইকে জানানোর জন্যই আমার এই টিউন।

কেন বার্নঃ

বিখ্যাত ইয়ারফোন, হেডফোন, সাউন্ডবক্স নির্মাতা ব্রান্ডগুলো দাবী করেন যে, তাঁরা যে ক্ষমতা সম্পন্ন (output db) সাউন্ডের ইন্সট্রুমেন্ট তৈরি করে থাকেন সেগুলোর 100% আউটপুট পেতে হলে ইন্সট্রুমেন্টগুলোকে বার্ন করাতে হবে। অর্থাৎ তাঁদের কথা মতে আপনি যদি আপনার ইয়ারফোন, হেডফোন, সাউন্ডবক্স প্রথম পর্যায়ে বার্ন না করে থাকেন,তাহলে আপনি আপনার ডিভাইসের পিওর আউটপুট টা পাচ্ছেন না।

আমি নিজেও আমার Beats এর Urbeats নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলাম না। বার্ন করার পরে আমি সন্তুষ্ট। কারন আমি প্রায় দুই বছর আগে থেকে ইয়ারফোন বার্ন করে চালাই, এবং আমি মনে করি বেস্ট সাউন্ড পাওয়ার জন্য প্রত্যেকটা ইয়ারফোন বার্ন করা দরকার।

Advantage:

বার্ন করলে স্বাভাবিকের চেয়ে যে এডভান্টেজ পাবেন তা হলো পিওর বেজ পাবেন, ট্রিবেল টা ভালো আসবে, ভয়েজ টা ক্লিয়ার শুনবেন, ছোট ছোট সাউন্ডগুলো ও নিখুতভাবে শুনতে পারবেন এবং Surrounding সাউন্ডটা অনেক জোস হবে(দামী ইয়ারফোনের ক্ষেত্রে)

কখন বার্ন করতে হয়ঃ

সাউন্ড ডিভাইস কিনে এটার বার্নিং পিরিয়ড পার হওয়ার আগে বার্ন করতে হয়। যে কোন সাউন্ড ডিভাইস এর বার্নিং পিরিয়ড প্রথম 40 ঘন্টা। অর্থাৎ আপনার ইয়ারফোনটি কেনার পর মোট 40 ঘন্টা চালানোর আগেই বার্ন করতে হবে।

কি দিয়ে বার্ন করতে হয়ঃ

আগে বার্ন করার জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করতে বলা হতো। এখন প্লে স্টোরে বার্ন করার জন্য এপ পাওয়া যায়। অর্থাৎ এখন এন্ড্রয়েড দিয়েও বার্ন করতে পারবেন (আমি এটাই করি)। তবে যেটা দিয়েই বার্ন করেন না কেনো, আনইন্টারাপ্ট ভাবে বার্ন করতে হবে, অর্থাৎ বিরতিহীনভাবে বার্ন করতে হবে।

বিস্তারিতঃ

কম্পিউটার দিয়ে বার্ন করার জন্য সকল ফাইল খুজে পেতে সমস্যা হয়েছে তাই এন্ড্রয়েড দিয়ে বার্ন করার জন্য একটা প্লেস্টোর অ্যাপ লিংক দিচ্ছি

ADs by Techtunes tAds

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.bjsoundburn

(আমার মতে এটাই বেস্ট বার্নার এপ, কারন এই ছোট সাইজের এপটাতে সব রকমের নয়েজ সাউন্ডগুলো যুক্ত আছে)। আমি সাজেস্ট করবো এন্ড্রয়েড দিয়ে বার্ন করতে। কারন কম্পিউটার দিয়ে বার্ন করার জন্য আমি ভালো ফাইলটা খুজে পাইনি। (আমি একটু ইন্টারনেট জাতীয় সমস্যায় আছি)

এন্ড্রয়েড বা কম্পিউটার যেটা দিয়েই বার্ন করেন না কেনো ভলিউম 40-50% রাখবেন। কম্পিউটার দিয়ে করলে বিদ্যুৎ চলে যেতে পারে, তাই সাজেস্ট করবো এন্ড্রয়েড দিয়ে বার্ন করতে।

এখন যেটা জানবেন সেটা জেনে আকাশ থেকে পড়বেন না

আপনাকে একটানা 40 ঘন্টা বার্ন করতে হবে (এক্সপার্টদের মতে) তাহলে সবথেকে ভালো রেজাল্ট পাবেন। বিরতীহিনভাবে বার্ন করার জন্য আপনার ফোনটি অ্যারোপ্লেন মুডে রাখলে ভালো হয়। তবে আমি একটানা 40 ঘন্টা করে বার্ন করতে পারিনি। ৫ বারে ৮ ঘন্টা করে 40 ঘন্টা কমপ্লিট করেছি। অর্থাৎ পাচ রাত ইয়ারফোন লাগিয়ে ফাইলটা চালিয়ে রাখলেই বার্ন হয়ে যাবে। (বেটার হলো একটানা 40 ঘন্টা করা)

অতি বুদ্ধিমানের মতো ভাববেন না যে 50% সাউন্ডে যদি 40 ঘন্টা চালাতে হয় তাহলে আমি 100% সাউন্ডে 20 ঘন্টা চালাবো। এরকম বুদ্ধিমান বোকার কাজের ফলাফলের জন্য জন্য টিউনদাতা অর্নক সিকদার দায়ী হবেনা।

  • সাউন্ড 50% এর অল্প কিছু কম হোক সমস্যা নাই, কিন্তু বেশি হয়ে গেলে আপনার ইয়ারফোনের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।
  • বার্নিং পিরিয়ডে ভুলেও একটানা ইয়ারফোন কানে দিয়ে রাখবেন না। বার্নার ফাইল এর সাউন্ডগুলো মানুষের মস্তিস্কের জন্য ক্ষতিকর।

Oneplus এ বার্নার এপ রিসেন্ট মেনু থেকে লক না করলেও সমস্যা হয়না। তবে সাজেশন থাকবে রিসেন্ট এপ ট্যাস্ক থেকে বার্নার এপটি লক করে দিবেন। আপনি Xiaomi ইউজার হলে অবশ্যই বার্নার এপটিকে রিসেন্ট মেনুতে লক করে নিবেন। নয়তো Mi Optimization এর কারনে কিছুক্ষন পরে বার্নার ফাইল ফোর্সড ক্লোজ হয়ে যাবে।

আপনার ইয়ারফোনটি যদি অনেকদিন হয়ে কিনেছেন, কিন্তু বার্ন করেননি, বার্নিং পিরিয়ড পার হয়ে গেছে, তাহলে আপনার বার্ন না করাই ভালো। আর তারপরেও যদি বার্ন করতে চান, অবশ্যই অবশ্যই একটানা 40 ঘন্টা করবেন। কিছু একটু উন্নতি হলে হতেও পারে।

ঠিক এই মুহুর্তে আরেকবার এই টিউনের প্রথম প্যারা টা পড়ে আসুন। এরকম কয়েকটা টিউন আছে যেখানে বার্ন করতে নিষেধ করেছে। আর এর থেকে অনেক বেশি টিউন আছে যেখানে বার্ন করতে বলেছে।

আপনি কোনটা করবেন?

নিশ্চয় বাস্তবে যে এই বেপারে রেজাল্ট দেখেছে তারটা ফলো করবেন? আমি বাস্তবে এক্সপেরিমেন্ট করে টিউন লিখে টিউন করেছি। আপনি ইয়ারফোন বার্ন করলে বা না করলে আমার কোন লস বা লাভ কিছুই কিন্তু নাই। তারপরেও এই টিউন আপনার কাছে অযৌক্তিক মনেহলে ইগনোর করুন।

আমি জানি, বার্ন করে যদি ভালো রেজাল্ট পান তাহলে আমাকে ধন্যবাদ জানানোর জন্য খুজে পাবেন না। কারন আপনি কবে ইয়ারফোন কিনবেন আর কবে বার্ন করবেন, ততদিনে এই টিউন টা অনেক পিছে পড়ে যাবে। (টিউন হারিয়ে যাওয়ার আগে এপ টা সংগ্রহে রাখুন) ধন্যবাদ পাওয়া টা আমার উদ্দ্যেশ্য না। আপনারা যেনো টাকার সঠিক মুল্যটা পান সেটাই আমার উদ্দেশ্য।

ADs by Techtunes tAds

যদি এই টিউন টা আপনারা ভালো ভাবে নেন, তাহলে আমি পরবর্তীতে টিউন করবো কিভাবে একটি ইয়ারফোন যত্নসহকারে ব্যবহার করলে দশ বছর পর্যন্তও ভালভাবে ব্যবহার করা যাবে।

ভাবনা+চিন্তা+লেখা+সাজানো+তথ্য সংগ্রহঃ Ornok Sikder

টেকটিউনস এ এটাই আমার প্রথম টিউন। ভুল ত্রুটিগুলো ধরিয়ে দিয়ে ক্ষমা করে দিবেন। আপনার উপকৃত হলে আমি রেগুলার টিউন করার চেষ্টা করবো।

ফেসবুকে আমি 

ADs by Techtunes tAds
Level 0

আমি Ornok Sikder। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 1 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

সুন্দর টিউন, নতুন একটা ব্যাপার জানতে পারলাম। ট্রাই করে দেখবো। ধন্যবাদ।

    স্বাগতম ভাই ,ট্রাই কইরেন, আশাকরি ভালো রেজাল্ট পাবেন

Level 0

এটা কী বস ধরণের হেডফোনের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ??
আমার ২ টা অরিজিনাল এরজি আর জেব্রা ব্র্যান্ড এর হেডফোন আছে, আর আমি এগুলোর সাউন্ডে সন্তুষ্ট 🙂

    ভালো ব্রান্ড এবং দামী ইয়ারফোনের ক্ষেত্রে এই বার্ন বিষয়টা হাই রিকমেন্ডেড