ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আপনি কি সম্পূর্ন এস ই ও ফ্রেন্ডলি / ই-কমার্স-এফিলিয়েট ওয়েবসাইট বানানোর কথা ভাবছেন তাহলে পোস্টটি আপনার জন্যে?

অনেকেই খুব স্বল্প দামে ওয়েবসাইট তৈরী করার পর যেই প্রব্লেমটা ফেস করেন সেটা হল, যখন তারা তাদের ওয়েবসাইটে কন্টেন্ট(ছবি, লেখা, ভিডিও) আপলোড করা শুরু করে কিছু দিন পরেই তাদের ওয়েবসাইটটি খুবই স্লো হয়ে যায়। এক-থেকে দু-মিনিট লেগে যায় তাদের ওয়েবসাইটটি লোড হতে।
আর যখন আপনি সেই ডেভলপার এর কাছে ফোন দেন এর রিজন কি সেটা জানার জন্যে সে নানা অজুহাত দেখানো শুরু করে। এবং এক পর্যায়ে আপনি আপনার ওয়েবসাইটটি বাদ দিয়ে দেন এবং আপনার বিজনেস টিও বন্ধ হয়ে যায়। এবং আপনি দোষারোপ করেন সেই ডেভলপার কে যে আপনাকে ওয়েবসাইটটি তৈরী করে দিয়েছে।
কিন্তু আসলেই কি দোষটি তার ছিল?
আমার মনে হয় না। আপনি যদি ৩হাজার থেকে ৬ হাজার টাকার বাজেট করে ওয়েবসাইট তৈরী করেন তাহলে এমন তো হবেই। আমি নিজেও দেখেছি, বাসে স্টিকার লাগানো থাকে ওয়েবসাইট এবং একটি মোবাইল আপ ৬/৮/১২ হাজার টাকা মাত্র।
আমার মতে এটা একটা ফাদ। আপনার কাছ থেকে টাকা নেয়াই তাদের উদ্দেশ্য। একটা জিনিস আমি বলে রাখি, ৬হাজার টাকায় কোনদিন ভাল মানের ওয়েবসাইট তৈরী করা যায়না। আপনারা যারা ভাবেন পানির দামে ওয়েবসাইট তৈরী করে এফিলিয়েট বা গুগল এডসেন্স স্টার্ট করবেন, তারা কিছুদিন পরে তাদের ওয়েবসাইটটিই আর খুঁজে পায় না। কারন একটাই তিন হাজার টাকার ওয়েবসাইট।
আমি নিচে বাংলাদেশের কিছু টপ ডোমেইন-হোস্টিং প্রোভাইডারদের লিংক দিচ্ছি। আপনারা এই লিংকে গিয়ে শুধু ডোমেইন আর হোস্টিং এর প্রাইসটা দেখুন। তারপর ভাবুন কিভাবে আপনি তিন হাজার টাকায় ওয়েবসাইট বানানোর চিন্তা মাথায় আনেন।
ZHost
Hosting Bangladesh
WEbHost
বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যেটা দেখা যায়, তিনহাজার বা ছয়হাজার টাকার ক্লাইন্টদের ফ্রি হোস্টিং প্রোভাইড করে থাকে স্ক্যামার কোম্পানিগুলো এবং তারা টাকা হাতিয়ে গায়েব হয়ে যায়।
আমি এমন অনেক ক্লাইন্ট-ই পেয়েছি যারা তাদের ওয়েবসাইটটি হারানোর পর আমাদের অফিসে এসেছে নতুন ওয়েবসাইট তৈরী করবার জন্য। তার রিকুয়ারমেন্ট শুনে যখন আমরা আমাদের বাজেট বলি, ২৫০০০, ৩০০০০ বা ৬০০০০ হাজার টাকা, তিনি চোখ কপালে তুলে, ভ্রূ কুচকে বলে, এত্ত কেন?
আমি তো আমার আগের ওয়েবসাইট টি ৬০০০ টাকায় বানিয়েছিলাম। এটাতে এত খরচ কেন?
এর উত্তর আমরা কি দিব?
আমার মতে, ঠাটিয়ে দু’গালে চড় মারা উচিত। কারন সে জানে তার ছয় হাজার টাকার ওয়েবসাইটটি কোন কাজে আসেনি তার এবং সে সেখানে তার টাকা ডুবিয়েছে অলরেডি কিন্তু কত্ত বড় খচ্চর চিন্তা করুন সে সেই ওয়েবসাইটটিকে তার রেফারেন্স হিসেবে ইউজ করে, বারগেনিং করতে চাই।
আগে কথা কাটাকাটি করতাম এখন আমরা দরজা দেখিয়ে বের হয়ে যেতে বলি। আমরা বাইরের ক্লায়েন্ট এর কাজ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে চাই। আমাদের নিজের দেশের মানুষ সবকিছু একটু বেশি সস্তায় পেতে চায়। তারা ছয় বার ছয় হাজার টাকা খরচ করে বাসে স্টিকার লাগানো কোম্পানীর কাছে যেতে পারে। কিন্তু একেবারে ৩০০০০ টাকা খরচ করে ভাল একটা কোম্পানীর কাছ থেকে তাদের জন্য ওয়েবসাইট তৈরী করতে পারে না।
তাই আপনি যদি তাদের দলে পড়তে না চান, তাহলে সস্তায় ওয়েবসাইট বানানোর চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে দিয়ে ভাল মানের কোম্পানীর কাছে গিয়ে নিজের বিজনেস এর জন্যে ভাল মানের ওয়েবসাইট দাড় করান। হোক সেটা, ই-কমার্স, এফিলিয়েট বা এস ই ও ফ্রেন্ডলি ওয়েবসাইট।
আমি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে কিভাবে একটা ওয়েবসাইট তৈরী করা যায় এবং সেটা দিয়ে পরবর্তীতে কিভাবে ইনকাম জেনারেট করা যায় সেটা নিয়ে কিছু ভিডিও সিরিজ স্টার্ট করেছি, সময় পেলে একবার ঘুরে আসবেন আমার ইউটিউব চ্যানেলে।
আর সবশেষে আরেকটি কথা এই লেখাটি আপনার পরিচিত কোন ছয় হাজার টাকার ডেভেলপার বা ছয় হাজার টাকা বাজেটের কোন পরিচিত মুখ থাকলে তাকে শেয়ার করুন।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি ইখলাস রহমান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 5 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস